Logo
শিরোনাম

সেনাবাহিনীতে চাকরির সুযোগ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 | ৫৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে দোভাষী (ফারসি ভাষা) পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ১৭ জুলাই পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

চাকরির ধরন: অস্থায়ী

প্রার্থীর ধরন: পুরুষ

কর্মস্থল: যে কোনো স্থান

বয়স: ২০ জুলাই ২০২২ তারিখে ২৪-৪৫ বছর

আবেদনের ঠিকানা: সেনাসদর, জিএস শাখা (অভারসীজ অপারেশনস পরিদপ্তর), ঢাকা সেনানিবাস।

আবেদন ফি: প্রার্থীকে ৫০০ টাকা ব্যাংক ড্রাফট করতে হবে।

আবেদনের শেষ সময়: ১৭ জুলাই ২০২২


আরও খবর

মেঘনা গ্রুপে ডিজিএম পদে চাকরি

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২




সুইস ব্যাংকে এক বছরে বাংলাদেশিদের টাকা বেড়েছে প্রায় ৩ হাজার কোটি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২ | ৭০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সুইজারল্যান্ডের বিভিন্ন ব্যাংকে গত এক বছরে বাংলাদেশিদের টাকার পরিমাণ নজিরবিহীনভাবে বেড়েছে। গত বছর (২০২১ সাল) বাংলাদেশিরা সুইস ব্যাংকে প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার সমপরিমাণ অর্থ জমা করেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) সুইজারল্যান্ডের কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুইস ন্যাশনাল ব্যাংকের (এসএনবি) প্রকাশিত বার্ষিক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সুইস ন্যাশনাল ব্যাংকের বার্ষিক প্রতিবেদনে দেখা যায়, ২০২১ সালে সেখানকার ব্যাংকগুলোতে বাংলাদেশিদের জমা রাখা অর্থের পরিমাণ প্রায় ৮ হাজার ৩৩৩ কোটি টাকা; যা দেশটির ব্যাংকগুলোতে বাংলাদেশিদের এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ পরিমাণ অর্থ করা জমা।

এসএনবির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছর সুইজারল্যান্ডের শতাধিক ব্যাংকে বাংলাদেশিদের আমানত ৮৭২ মিলিয়ন সুইস ফ্রাঁতে পৌঁছেছে। সুইজারল্যান্ডের প্রতি ফ্রাঁ বাংলাদেশের ৯৫ টাকার সমান। সেই হিসেবে সেখানকার ব্যাংকে বাংলাদেশিদের জমা করা অর্থের পরিমাণ প্রায় ৮ হাজার ৩৩৩ কোটি টাকা।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের হাজার হাজার মানুষ সুইজারল্যান্ডের ব্যাংকগুলোতে বৈধ-অবৈধ পথে উপার্জিত অর্থ গচ্ছিত রাখেন। দেশটির কঠোর গোপনীয় ব্যাংকিং নীতির কারণে সারা দুনিয়ার মানুষ সেখানে অর্থ জমা রাখেন।

সুইজারল্যান্ডের আইনে গ্রাহকদের গোপনীয়তা দৃঢ়ভাবে রক্ষার নিয়ম রয়েছে। এ আইনের ফলে দেশটির ব্যাংকগুলো কোনো পরিস্থিতিতেই গ্রাহকদের তথ্য কারও কাছে প্রকাশে বাধ্য নয়। ফলে কারা, কেন অথবা কীভাবে অর্থ ব্যাংকে রাখছেন, সে সম্পর্কে ব্যাংকগুলো কাউকে কোনো তথ্য দেয় না।

প্রতিবেদন পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ২০২০ সালে সুইজারল্যান্ডের ব্যাংকগুলোতে বাংলাদেশিদের জমা অর্থের পরিমাণ তার আগের বছরের তুলনায় কম ছিল। ওই বছর সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের গচ্ছিত অর্থের পরিমাণ ছিল ৫৬ কোটি ৩০ লাখ সুইস ফ্রাঁ; যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৫ হাজার ২০৩ কোটি টাকা।

তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৯ সালে দেশটির বিভিন্ন ব্যাংকে বাংলাদেশিদের অর্থের পরিমাণ ছিল ৬০ কোটি ৩০ লাখ ফ্রাঁ। ২০১৮ সালে এই অর্থের পরিমাণ ছিল ৬২ কোটি সুইস ফ্রাঁ। আর ২০১৭ সালে এর পরিমাণ ছিল ৬৬ কোটি ১৯ লাখ সুইস ফ্রাঁ।

তবে ২০২১ সালে বাংলাদেশিদের মতো সুইস ব্যাংকে ভারতীয়দের অর্থ গচ্ছিত রাখার পরিমাণও ব্যাপক বৃদ্ধি পেয়েছে। বৃহস্পতিবার ভারতের রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সুইস ব্যাংকে ভারতীয়দের গচ্ছিত অর্থ আগের বছরের তুলনায় ৫০ শতাং‌শেরও বে‌শি বেড়ে ৩০ হাজার কোটি রুপিতে পৌঁছেছে। যা গত ১৪ বছরের মধ্যে সুইজারল্যান্ডের বিভিন্ন ব্যাংকে ভারতীয়দের সর্বোচ্চ পরিমাণ অর্থ জমা।

পিটিআই বলছে, ২০২০ সালে সুইস ব্যাংকে ভারতীয়দের অর্থ জমার পরিমাণ ছিল ২ দশমিক ৫৫ বিলিয়ন সুইস ফ্রাঁ বা ২০ হাজার ৭০০ কোটি রুপি। এর ফলে সুইস ব্যাংকে ভারতীয়দের অর্থ জমা টানা দ্বিতীয় বছরের মতো বৃদ্ধি পেয়েছে। এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে পাকিস্তানের নাগরিকদেরও গত বছর সুইস ব্যাংকে অর্থ জমার পরিমাণ বেড়েছে। ২০২১ সালে পাকিস্তানিরা সুইস ব্যাংকে জমা করেছেন ৭১২ মিলিয়ন সুইস ফ্রাঁ।

সুইস ব্যাংকে অর্থ রাখার শীর্ষে কারা?

সুইস ন্যাশনাল ব্যাংকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২১ সালে সুইজারল্যান্ডের ব্যাংকগুলোতে সর্বোচ্চ পরিমাণ অর্থ জমা করেছেন ব্রিটিশ নাগরিকরা। সুইস ব্যাঙ্কে ৩৭৯ বিলিয়ন সুইস ফ্রাঁ জমা রেখে এই তালিকার সবার শীর্ষে আছে যুক্তরাজ্য।

আর এরপরই দ্বিতীয় স্থানে আছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন নাগরিকরা ১৬৮ বিলিয়ন সুইস ফ্রাঁ জমা রেখেছেন সুইজারল্যান্ডের বিভিন্ন ব্যাংকে। তালিকায় মাত্র এই দুটি দেশের নাগরিকরা ১০০ বিলিয়ন সুইস ফ্রাঁর ওপরে অর্থ গচ্ছিত রেখেছেন।

সুইস ব্যাংকে অর্থ জমা রাখা অন্য শীর্ষ ১০ দেশ হল— ওয়েস্ট ইন্ডিজ, জার্মানি, ফ্রান্স, সিঙ্গাপুর, হংকং, লুক্সেমবার্গ, বাহামা, নেদারল্যান্ডস, কেম্যান দ্বীপপুঞ্জ এবং সাইপ্রাস।

এই তালিকায় ভারত রয়েছে ৪৪তম স্থানে। এরপরই আছে পোল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, সুইডেন, বাহরাইন, ওমান, নিউজিল্যান্ড, নরওয়ে, মরিশাস, বাংলাদেশ, পাকিস্তান, হাঙ্গেরি এবং ফিনল্যান্ড।

২০২১ সালে সুইজারল্যান্ডের ২৩৯টি ব্যাংকের সমন্বয়ে সুইস ব্যাঙ্কিং স্পেকট্রামে গ্রাহকের আমানত বেড়ে প্রায় ২ দশমিক ২৫ ট্রিলিয়ন সুইস ফ্রাঁতে দাঁড়িয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: সুইস ব্যাংক

আরও খবর



সংখ্যালঘুদের অধিকার রক্ষায় সরকার ব্যর্থ: ফখরুল

প্রকাশিত:শনিবার ০৪ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অধিকার রক্ষায় সরকার ব্যর্থ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ শনিবার বিকালে ঢাকেশ্বরী মন্দির প্রাঙ্গনে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান কল্যাণ ফ্রন্টের উদ্যোগে এক অনুষ্ঠানে তিনি এই মন্তব্য করেন।

বিএনপির প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানে ৪১তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান কল্যাণ ফ্রন্ট এই প্রার্থনা সভার আয়োজন করে। এ সময় জিয়াউর রহমানের আত্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ প্রার্থনা করা হয়।

অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকার সবসময়ই সাম্প্রদায়িকার বিরুদ্ধে কথা বলার চেষ্টা করে, তাদের সময়ে ভালো সম্প্রদায়িকতা অবস্থা রয়েছে সে কথা বলার চেষ্টা করে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে এই আমলে যারা হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রীষ্টান সম্প্রদায়ের মানুষ আছেন তাদের ওপরে, তাদের জমিজমার ওপরে, তাদের বাসা-বাড়ির ওপরে হামলা হয়েছে, তারা সেগুলো রক্ষা করতে পারেনি।

তিনি আরো বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যে ধর্মীয় স্বাধীনতার উপরে রিপোর্ট করেছে সেখানে খুব পরিস্কার করে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অধিকার রক্ষা করতে এই সরকার ব্যর্থ। এটাই বাস্তবতা, এটাই সত্য।

ফখরুল আরও বলেন, বিএনপি সংখ্যালঘু সম্প্রদায় আছে বলে তা বিশ্বাস করে না। বাংলাদেশের সবাই একই সম্প্রদায়ের মানুষ। আমাদের দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া সেটাতেই বিশ্বাস করেন।

বর্তমানে দেশে গণতন্ত্রহীনতা চলছে বলে মির্জা ফখরুল বলেন, গণতন্ত্রহীনকে দূর করে ভোটাধিকার ফেরাতে, মানুষের অধিকারগুলো রক্ষা করতে এবং দেশে শান্তি প্রতিষ্ঠায় সাম্প্রদতায়িকতার সকল বীজ উপড়ে ফেলতে আমাদের ১৭ কোটি মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

এ সময় তিনি সরকার প্রতিহিংসামূলকভাবে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে অন্তরীণ করে রাখা, মিথ্যায় মামলায় দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে বিদেশে নির্বাসিত করে রাখা, দেশে ৩৫ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা ও গুম-খুনে নিহত করার বিষয়টি তুলে ধরেন।

প্রার্থনা অনুষ্ঠানে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বিজন কুমার সরকার, বিএনপি নেতা জয়ন্ত কুমার কুন্ড, সুশীল বড়ুয়া, অর্পনা রায়, রমেশ দত্ত, দেবাশীষ মধু, মিল্টন বৌদ্ধ, জয়দেব, সাবেক কমিশনার মীর আশরাফ আলী আজম, মোশাররফ হোসেন খোকন এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এবিএম আবদুস সাত্তার ও প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান অংশ নেন।


আরও খবর



যুক্তরাষ্ট্রে ট্রেনে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রে একটি ট্রেনে গোলাগুলিতে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও একজন। স্থানীয় সময় বুধবার (২২ জুন) সকালে দেশটির সান ফ্রান্সিসকো শহরের একটি ট্রেনে গোলাগুলি ও হতাহতের এই ঘটনা ঘটে।

মার্কিন পুলিশের বরাত দিয়ে বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম এনবিসি নিউজ।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সান ফ্রান্সিসকো শহরের মুনি ফরেস্ট হিল স্টেশনে একটি ট্রেনে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলেও ট্রেনটি সেখান থেকে কাস্ত্রো স্টেশনের দিকে আগেই ছেড়ে গেছে বলে দেখতে পায় তারা।

পুলিশের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, কর্মকর্তারা কাস্ত্রো স্টেশনে গোলাগুলির শিকার দুই ব্যক্তিকে উদ্ধার করেন। একজনকে ঘটনাস্থলে মৃত ঘোষণা করা হয় এবং অন্যজনকে উদ্ধার করে সান ফ্রান্সিসকো জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আহত ওই ব্যক্তি ঝুঁকিমুক্ত বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সান ফ্রান্সিসকো পুলিশ বিভাগ জানিয়েছে, গোলাগুলির পর অভিযুক্ত বন্দুকধারী কাস্ত্রো স্টেশনে ট্রেন থেকে পালিয়ে যায় এবং এখনও পলাতক রয়েছে।

এদিকে সংবাদমাধ্যম সান ফ্রান্সিসকো ক্রনিকলের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গুলিবর্ষণের এই ঘটনাটি এলোমেলো বা এলোপাথাড়ি গুলির কোনো ঘটনা ছিল না। গোলাগুলি হওয়ার আগে থেকেই সন্দেহভাজন বন্দুকধারী এবং ভুক্তভোগীদের একজনের মধ্যে বিবাদ ছিল।

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক সহিংসতা মহামারিতে রূপ নিয়েছে এবং উত্তর আমেরিকার এই দেশটি বিশেষ এই মহামারির ভয়ঙ্কর অধ্যায়ের মধ্যে রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে সাম্প্রতিক সময়ের মধ্যে বন্দুক সহিংসতার সবচেয়ে ভয়ঙ্কর ঘটনাটি ঘটে গত মে মাসে। গত ২৪ মে টেক্সাসের উভালদের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বন্দুক হামলায় ১৯ শিশু শিক্ষার্থীসহ ২১ জন নিহত হয়।


আরও খবর



বিএনপির অপপ্রচারের জবাব আ.লীগ কাজের মাধ্যমে দেবে: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিএনপির অপপ্রচারের জবাব আওয়ামী লীগ কাজের মাধ্যমে দেবে বলে মন্তব্য করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। মঙ্গলবার (৭ জুন) সকালে রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

এর আগে, ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস উপলক্ষে রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এ সময় আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

অপপ্রচার রোধে সবাইকে সজাগ থাকার নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেন, যারা ৭ মার্চ, ৭ জুন বিশ্বাস করে না। তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী নয়। এসময় অপপ্রচার করে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন বানচাল করা যাবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।


আরও খবর



সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সুনামগঞ্জের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। গতকাল রাত থেকে মূল সড়কের পানি কিছুটা নামলেও পৌরশহরের সবখানে হাঁটু থেকে কোমর সমান পানি রয়েছে। মানুষ গত পাঁচদিন ধরে পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন পার করছেন।

শহরের প্রায় সব ৯৫ ভাগ বাড়িঘরের টিভি-ফ্রিজসহ আসবাবপত্র ঘরের ভেতর পানিতে ডুবে আছে। বহুতল ভবনের মানুষ নিচ তলা ছেড়ে ওপর তলায় আশ্রয় নিয়েছেন। আশপাশের অনেকে সেই সব বাসায় আশ্রয় নিয়েছেন। একটি রুমে ৩০ থেকে ৪০ জনও থেকে একসঙ্গে থাকছেন তাঁরা।

দীর্ঘ পাঁচদিন পানিবন্দি মানুষের খাবার সংকট দেখা দিয়েছে। বিশুদ্ধ পানির সংকট চরম আকার ধারণ করেছে। জেলার প্রায় ৩০ লাখ মানুষের এখন একই অবস্থা। বাড়ি কিংবা আশ্রয়কেন্দ্রের বাইরে যাওয়ার অবস্থা নেই। শহরেই চলছে নৌকা। খুব প্রয়োজনে নৌকায় চলাচল করছেন মানুষ।

এই জেলার সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা দোয়ারাবাজার, ছাতক, বিশ্বম্ভপুর, তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, ধর্মপাশা। এসব জায়গায় মানুষের ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে। এদিকে সুনামগঞ্জ-সিলেট মহাসড়ক থেকে পানি কিছুটা নেমে যাওয়া বড় যাত্রীবাহী বাস ও ট্রাক চলাচল শুরু করেছে।


আরও খবর