Logo
শিরোনাম

শরীরে শক্তি না পেলে এড়িয়ে চলবেন যেসব খাবার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ১৩৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

 

খাবার আমাদের শরীরে শক্তি উৎপাদনে সহায়তা করে। সঠিক ও সুষম খাবার গ্রহণের ফলে সুস্থ থাকা যায়। খাবারের তারতম্যের কারণে অনেক সময় শরীর নির্জীব হয়ে যায়।

দিনের মধ্যে কখনও কখনও শক্তি কম-বেশি মনে হওয়াটা স্বাভাবিক বিষয়।  আর এটি মূলত হয়ে থাকে আপনার খাবারের প্রভাবের কারণেই।  এ ছাড়া আরও কয়েকটি কারণে এটি হতে পারে।  যেমন ঘুম, কাজকর্মের মাত্রা, চাপের মাত্রা ইত্যাদি।

খাবার যেমন আপনার শরীরে শক্তি জোগাতে সহায়তা করে, তেমনি কিছু খাবার রয়েছে; যেগুলো আপনার শক্তি কমিয়ে ফেলার কারণ হিসেবেও কাজ করে। জানুন এমন কয়েকটি খাবার সম্পর্কে যেগুলো আপনার শরীরের সঞ্জীবনী শক্তি কমিয়ে দেয়।

১. প্রক্রিয়াজাত শস্য

আমরা সবাই জানি যে, শস্যে প্রচুর পরিমাণে কার্বোহাইড্রেড থাকে, যা আমাদের শরীরে শক্তির উৎস হিসেবে কাজ করে। কিন্তু প্রক্রিয়াজাত শস্যের কিছু খাবার যেমন, সাদা পাউরুটি, সাদা পাস্তা এবং সাদা ভাত এগুলো আপনার শক্তির মাত্রাকে বৃদ্ধি করার চেয়ে কমাতে পারে বেশি।

এগুলো খাবার প্রক্রিয়াজাত করার সময়ে শস্যের বাইরের ব্রন নামের একটি স্তরকে সরিয়ে ফেলা হয়। তখন এ খাবারগুলো শক্তি উৎপাদনের চেয়ে শক্তি হ্রসে বেশি কার্যকরী হয়ে ওঠে। তাই এ খাবারগুলো এড়িয়ে প্রক্রিয়াজাত ছাড়া খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন।

২. সকালের নাস্তায় চিনিযুক্ত খাবার

চিনিযুক্ত যে কোনো খাবারই আমাদের জন্য ক্ষতিকর। আর এটি যদি হয় সকালের নাস্তায়, তবে সেটি আপনার শক্তির পরিমাণ কমিয়ে ফেলতে পারে অনেকটাই। খুব কম পরিমাণে ফাইবার থাকে এমন খাবারের সঙ্গেও যদি আপনি চিনিযুক্ত করেন, তাও সেটি উপকারের চেয়ে ক্ষতি করতে পারে বেশি। তাই শক্তির মাত্রা ঠিক রাখতে হলে সকালের নাস্তায় চিনি যুক্ত করা এড়াতে হবে।

৩. কফি

পরিমিত পরিমাণে কফি পান করলে সেটি আমাদের ওপরে ইতিবাচকভাবে শারীরিক ও মানসকি প্রভাব ফেলতে পারে। এ ছাড়া এটি ডায়বেটিসসহ বেশ কয়েকটি রোগের ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করে। তবে বেশি পরিমাণে কফি খেলে এতে থাকা ক্যাফেইন আপনার ঘুমের ওপরে প্রভাব ফেলতে পারে। আর এর ফলে এটি আপনার শরীরে শক্তির মাত্রা কমিযে ফেলতে পারে।

৪. ফ্রাইস ও ফাস্টফুড

বর্তমান সময়ের অতিজনপ্রিয় খাবারের তালিকায় ফ্রাইস ও ফাস্টফুডগুলো প্রথমে দিকেই থাকে। আর মজার বিষয় হচ্ছে এগুলো যারা খান তারা বিভিন্ন ক্ষতি জেনেই খেয়ে থাকেন। তবে এসব খাবারের অন্যতম একটি ক্ষতিকারক দিক হচ্ছে, এগুলো আপনার শরীরের শক্তির মাত্রা কমিয়ে ফেলতে পারে।

৫. এনার্জি ড্রিংকস

এ নামটি শুনেই মনে হতে পারে অনেকের যে, এটি শক্তি বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে। এসব ড্রিংকস সাময়িকভাবে আপনার শক্তি বাড়িয়ে তুললেও পরে শক্তি হ্রাস করে ফেলে। বেশ কয়েকটি গবেষণায় মিলেছে যে, এনার্জি ড্রিংকস ঘুমের সময়কাল এবং গুণগতমান কমিয়ে ফেলতে পারে। ফলে শরীরে শক্তি উৎপাদনের মাত্রা কমে যেতে পারে। তাই এসব পানীয় পরিহার করাই ভালো।

৬. কম ক্যালোরিযুক্ত খাবার

অনেকে মনে করেন যে, কম ক্যালোরিযুক্ত খাবার খাওয়া স্বাস্থ্যকর। এগুলো এলেও স্বাস্থ্যকর। তবে এ ধরনের খাবার আপনার সারাদিনের জন্য প্রয়োজনীয় ক্যলোরি শরীরকে প্রদান করতে পারে না। ফলে আপনার শরীরের শক্তির মাত্রা মারাত্মকভাবে কমে যেতে পারে। 


আরও খবর

আজকের ভালো মন্দ

রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

প্রথম প্রেম দিবস আজ

শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১




সারাদেশে নতুন করে ২৬৭ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৬ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৯১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২৬৭ জন ডেঙ্গু রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের অধিকাংশই রাজধানীর বাসিন্দা।

এর মধ্যে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ২১৭ জন এবং ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৫০ জন। চলতি বছরের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মারা গেছেন ৪০ জন।

বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) বিকেলে সারাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গু বিষয়ক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে নতুন ২৬৭ জন ভর্তি হয়েছেন। এ নিয়ে বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৯০ জনে।

ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৯৬৫ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১২৫ জন।


নিউজ ট্যাগ: ডেঙ্গু আক্রান্ত

আরও খবর

ডেঙ্গুতে হাসপাতালে আরও ২৩২ রোগী

শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

করোনায় আরও ৩৫ জনের মৃত্যু

শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১




সেগুনবাগিচায় প্রাইভেটকার থেকে ২ ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বটতলা এলাকায় নাভানা সিএনজি পাম্পের সামনে পার্ক করা একটি প্রাইভেটকারের ভেতর থেকে দুই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) সকালে স্থানীয়দের খবরে নাভানা সিএনজি ফিলিং স্টেশনের সামনে পার্ক করা গাড়ি থেকে ওই দুই জনের মরদেহ উদ্ধার করে শাহবাগ থানা পুলিশ। তাদের নাম সিয়াম (১৯) ও রাকিব (২৭)। তারা বাচ্চু মোটরসের কর্মচারী বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

প্রাথমিক সুরতহাল শেষে উদ্ধার করা মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. সাজ্জাদুর রহমান।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, মৃত দুই ব্যক্তি ওই প্রাইভেটকারের ডেন্টিংয়ের কাজ করছিলেন। সোমবার রাতেও তারা কাজ করেছেন। কিন্তু সকালে তাদের কোনো সাড়া না পেয়ে নাভানার ফিলিং স্টেশনের লোকজন ও স্থানীয়রা শাহবাগ থানায় জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়।


আরও খবর



আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারপতি আমির হোসেন মারা গেছেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি এবং আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের সদস্য বিচারপতি আমির হোসেন মারা গেছেন।

মঙ্গলবার সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) তার মৃত্যু হয়। দীর্ঘদিন ধরে তিনি অসুস্থ ছিলেন।

সুপ্রিমকোর্টের মুখপাত্র ও হাইকোর্ট বিভাগের স্পেশাল অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিচারপতি আমির হোসেনের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। শোকবার্তায় তিনি মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

গাজীপুর জেলা জজ থাকা অবস্থায় আমির হোসেন ২০১৫ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টের অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান। দুই বছর পর ২০১৭ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি তাকে স্থায়ী বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়।

সবশেষ ২০১৭ সালের ১১ অক্টোবর বিচারপতি আমির হোসেনকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এ সদস্য হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়।


আরও খবর

অভিভাবকরা স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না

রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১




ভাসানচর থেকে পালাতে গিয়ে ৩ রোহিঙ্গা আটক

প্রকাশিত:রবিবার ২২ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে পালানোর সময় তিন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে এপি বিএন এর সিভিল টিম।

আটককৃত রোহিঙ্গা হল, ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১০নম্বর ক্লাস্টারের আবুল কালামের ছেলে ওসমান (১৮) ৫৬ নম্বর ক্লাস্টারের হোসাইনের ছেলে সালামাতুল্লাহ (২১) ২৬ নম্বর ক্লাস্টারের নুর মোহাম্মদরে আজিজ (২৬)।

রবিবার (২২ আগস্ট) সকালে বিদেশী নাগরিক আইনে গ্রেফতার দেখিয়ে আসামিদের হাতিয়া কোর্টে সোপর্দ করা হয়। এর আগে, গতকাল শনিবার রাত পৌনে বার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানা থেকে ২-৩ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্ব থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, শনিবার রাতে ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ৩ রোহিঙ্গা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এপিবিএন সিভিল টিম তাদের আটক করে রাত্রীকালীন মোবাইল পার্টির কাছে হস্তান্তর করে। পরে বিদেশী নাগরিক আইনে মামলা দিয়ে তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়।


আরও খবর

মায়ের ওপর অভিমান করে আত্মহত্যা

রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

৪ দিন পর হাতিয়ার সঙ্গে সারাদেশে নৌ চলাচল শুরু

বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১




ডিভোর্সের পর দুধ দিয়ে গোসল করলেন যুবলীগ নেতা

প্রকাশিত:রবিবার ২২ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ১০১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রেম করে বিয়ে এবং অতঃপর দাম্পত্য কলহের জের ধরে এক সন্তানসহ স্ত্রী ডিভোর্সের পর দুধ দিয়ে গোসল করেছেন যুবলীগ নেতা অমিত রাজ। দুধ দিয়ে গোসলের ছবি ও ভিডিও নিজের ফেসবুকে দিলে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

গতকাল শনিবার (২১ আগস্ট) টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বাঁশতৈল ইউনিয়নের অভিরামপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অমিত রাজ মির্জাপুর উপজেলার বাঁশতৈল ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সম্পাদক। তিনি ওই ইউনিয়নের অভিরামপুর গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার যুবলীগ নেতা অমিত রাজ বলেন, এখন থেকে আমি ও আমার পরিবার বিপদ থেকে মুক্ত। তাই দুধ দিয়ে গোসল করে নিজেকে পাপ মুক্ত হয়েছি।

অমিত রাজ আরও জানিয়েছেন, তার দাদি তাকে দুধ দিয়ে গোসল করিয়ে ঘরে তুলে নিয়েছেন।

জানা গেছে, অমিত রাজ পার্শ্ববর্তী উপজেলার সখিপুর উপজেলার হাতীবান্ধা ইউনিয়নের একটি মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক হয়। গত চার বছর পূর্বে তারা বিয়ে করেন। তাদের সংসারে তিন বছর বয়সী একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। এ দিকে প্রেম করে বিয়ে করলেও তাদের সংসারে কিছুদিন পর থেকে কলহ শুরু হয়। ক্রমেই তা বাড়তে থাকে। তাদের সংসারে ফাটল দেখা দেওয়ায় দুই পক্ষের অভিভাবক বিপাকে পড়েন।

পারিবারিক কলহের জের ধরে গত তিন মাস আগে ওই মেয়ে বাড়ি থেকে চলে যায়। এ নিয়ে অমিত রাজ মির্জাপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। কিছুদিন পূর্বে ওই মেয়ে বাড়ি ফিরে এসে উল্টো অমিত রাজ ও তার পরিবারের নামে টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার বরাবর নারী নির্যাতনের অভিযোগ দেন। এ নিয়ে জেলা ডিবি পুলিশ তদন্ত করেন। ডিবি পুলিশ কার্যালয়ে একাধিকবার সালিশ বৈঠকও হয়।

শনিবার ডিবি অফিসে অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা মোক্তার হোসেন সালিশে বসেন। উভয় পক্ষের মতামতের ভিত্তিতে তিন লাখ টাকার বিনিময়ে ওই মেয়ে ডির্ভোস মেনে নিয়েছেন। পরে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে ডিভোর্স হয়।

যুবলীগ নেতা অমিত রাজ কোর্টের মাধ্যমে তার স্ত্রীকে তিন লাখ টাকা দিয়ে দেয়। আর শিশুকে রাজ তার বাড়িতে নিয়ে যান।

এ দিকে স্ত্রীর সঙ্গে ডিভোর্সের পর যুবলীগ নেতা অমিত রাজ আইনিসহ পারিবারিক ঝামেলা মুক্ত হওয়ায় তার দাদি দুধ দিয়ে গোসল করিয়ে বিকেলে তাকে ঘরে তুলে নেয়।


আরও খবর