শিরোনাম

শরীয়তপুর-চাঁদপুর নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঘন কুয়াশার কারণে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ও শরীয়তপুর-চাঁদপুর নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। এদিকে যাত্রী নিয়ে মাঝনদীতে আটকা পড়েছে চারটি ফেরি। এ ছাড়া ঘাটে দেখা দিয়েছে তীব্র যানজট।

বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক শিহাবউদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, দুর্ঘটনা এড়াতে মঙ্গলবার রাত দেড়টা থেকে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়। রাতে হঠাৎ দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন হয়ে যায়। এ সময় ফেরির মার্কিং বাতির আলো অস্পষ্ট হয়ে পড়ে। এজন্য দুর্ঘটনা এড়াতে এই নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। কুয়াশার ঘনত্ব কমে গেলে পুনরায় আবারও ফেরি চলাচল শুরু হবে।

বিআইডব্লিউটিসির আরিচা কার্যালয়ের উপমহাব্যবস্থাপক মো. জিল্লুর রহমান জানান, পদ্মায় দুর্ঘটনা এড়াতে মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে ফেরি চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়। এ সময় মাঝনদীতে যাত্রী নিয়ে ৪টি ফেরি আটকা পড়ে। অন্য ফেরিগুলো পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ঘাটে নোঙর করা রয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ফেরি বন্ধ থাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোয়ালন্দ বাজার পর্যন্ত মহাসড়কের ৬ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে পাড়ের অপেক্ষায় রয়েছে শত শত গাড়ি। এর মধ্যে রয়েছে চেয়ারকোচ পরিবহন, ট্রাক, প্রাইভেট কার, পচনশীল পণ্যবাহী ট্রাকসহ সব ধরনের যানবাহন। প্রচন্ড শীত ও কুয়াশায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন চালক ও যাত্রীরা।

এদিকে দুর্ঘটনা এড়াতে রাত সাড়ে ৩টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয় শরীয়তপুর-চাঁদপুর নৌরুটে।

নরসিংহপুর ফেরিঘাটের ঘাট ব্যবস্থাপক আব্দুল মোমেন সাংবাদিকদের জানান, মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকেই কুয়াশার ঘনত্ব বেড়ে যায়, তাই ঝুঁকি এড়াতে শরীয়তপুর-চাঁদপুর নৌপথে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

এই রুটে সাতটি ফেরি চলাচল করে। এই মুহূর্তে কোনো ফেরি নদীতে নোঙর করা অবস্থায় নেই। নরসিংহপুর ঘাটে চারটি ফেরি এবং হরিণাঘাটের ফেরি যানবাহন নিয়ে অবস্থান করছে। কুয়াশা কেটে গেলে ফেরিগুলো নদী পার হবে।

তবে এ মুহূর্তে নরসিংহপুর ফেরিঘাটে দেড় শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। সময় গড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানবাহনের সংখ্যা বাড়ছে।


আরও খবর

আবারও যাত্রীবাহী লঞ্চে আগুন

রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২




আমি কোথাও বলিনি সিনেমা ছেড়ে দেয়ার কথা: মাহি

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পবিত্র ওমরাহ করে এসে কাগজের বউ সিনেমায় অভিনয় থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন সময়ের আলোচিত চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এতে শোবিজে গুঞ্জন ছড়িয়েছে, অভিনয় ছেড়ে দিচ্ছেন মাহি!

এমন গুঞ্জন চাউর হলে বিব্রত বোধ করেন এ নায়িকা। ভক্তদের আশ্বস্ত করলেন - না, অভিনয় ছাড়ছেন না তিনি। গুজবে কান দিতে মানা করেছেন।

বিষয়টি যে স্রেফ গুজব তার প্রমাণ মিলল গত সোমবার। এদিন বুবুজান ছবির শুটিংয়ে অংশ নিতে এফডিসিতে হাজির হন মাহি।

সেখানে সম্প্রতি মুরাদ হাসান ইস্যুর পাশাপাশি নিজের অভিনয় ক্যারিয়ার নিয়েও কথা বলেন মাহি।

মাহিয়া মাহি বলেন, আমি তো কোথাও বলিনি সিনেমা বা শোবিজ ছেড়ে দেয়ার কথা। সিনেমা কেন ছাড়ব? সিনেমা ছাড়ার তো প্রশ্নই আসে না। এমন খবরে খুবই বিব্রত আমি। কেনো এমন কথা ছড়ানো হচ্ছে জানি না। এফডিসিতে আসার পর সবাই একই প্রশ্ন করছে।

সিনেমা আমার ভালো লাগার জায়গা। এটা আমার পেশা। এটা আমার রিজিকের জায়গা। ওমরাহ তো ইবাদতের জায়গা। ইবাদতের জায়গায় ইবাদত আর কাজের জায়গায় কাজ। যখন সময় কিংবা পরিস্থিতি তেমন হবে, আমি আমার ডিরেক্টর, প্রডিউসারদের জানাব। তখন সবাইকে জানিয়েই অভিনয় ছাড়ব।

 


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রী নতুন বছরে দেশবাসীসহ বিশ্ববাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খ্রিষ্টীয় নতুন বছর-২০২২ উপলক্ষে দেশবাসী এবং প্রবাসী বাঙালিসহ বিশ্ববাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

তিনি আজ এক বাণীতে খ্রিষ্টীয় নতুন বছর-২০২২ উপলক্ষে দেশবাসী এবং প্রবাসী বাঙালিসহ বিশ্ববাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান।

তিনি শুভেচ্ছা বাণীতে বলেন, প্রকৃতির নিয়মেই যেমন নতুনের আগমনি বার্তা আমাদের উদ্বেলিত করে, তেমনি অতীত-ভবিষ্যতের সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে পুরনো স্মৃতি সম্ভারে হারিয়ে যাওয়ার চিরায়ত স্বভাব কখনও আনন্দ দেয়, আর কখনোবা কৃতকর্মের শিক্ষা নব উদ্যোমে সুন্দর আগামীর পথচলার জন্য অনুপ্রেরণা যোগায়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২০ এবং ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ বাঙালি জাতির জীবনে ছিল এক গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক। আমরা এ সময়ে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অনুষ্ঠান-২০২১ সাল পর্যন্ত বর্ধিত করে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানের সঙ্গে একযোগে পালনের কর্মসূচি গ্রহণ করি। এরই মধ্যে আমরা চলতি-২০২১ সালের মার্চ মাসে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী  উপলক্ষে ১০-দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করি। যেখানে সার্কভুক্ত ৫টি দেশের রাষ্ট্র প্রধান বা সরকার প্রধানগণ সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানমালায় যোগ দিয়েছিলেন। তাছাড়া বিশ্বের ৭৭টি দেশের রাষ্ট্র প্রধান বা সরকার প্রধানগণ ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধানগণ ভিডিও বার্তা ও অভিনন্দনপত্র প্রেরণ করেছেন, যেখানে সকলেই আমাদের সরকারের গৃহীত উন্নয়ন কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

শেখ হাসিনা বলেন,  আমাদের সরকারের উদ্যোগে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশের রাজধানী এবং গুরুত্বপূর্ণ শহরে জাতির পিতার নামে স্মারক ভাস্কর্য স্থাপন, সড়ক ও পার্কের নামকরণ করা হয়েছে। ইউনেস্কো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে সৃজনশীল অর্থনীতিতে আন্তজার্তিক পুরস্কার প্রবর্তন করেছে।

গত ১৩ বছর ধরে আওয়ামী লীগ সরকারের গৃহীত জনকল্যাণমুখী ও অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন নীতি বাস্তবায়নের ফলে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অগ্রগতির মানদন্ডে বিশ্বের প্রথম ৫টি দেশের মধ্যে স্থান করে নিয়েছে।

তিনি বলেন, গোটা বিশ্বের অর্থনীতি যেখানে মারাত্মকভাবে বিপর্যস্ত সেখানে করোনাকালেও আমরা ৫দশমিক ৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি। আমরা দারিদ্র্যের হার ২০ দশমিক ৫ শতাংশের নীচে নামিয়ে এনেছি। মাথাপিছু আয় ২ হাজার ৫৫৪ মার্কিন ডলারে উন্নীত করেছি। কৃষি, স্বাস্থ্য, শিক্ষা খাতেও অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধন করেছি, এখন আমাদের মানুষের গড় আয়ু ৭৩ বছর। ৯৯ দশমিক ৫ শতাংশ মানুষকে বিদ্যুৎ সুবিধা দিচ্ছি। পদ্মা সেতু নতুন বছরের মধ্যবর্তী সময়ে খুলে দেয়ার পরিকল্পনা করছি। রাজধানীতে মেট্রোরেল ও এক্সপ্রেসওয়ে এবং কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণকাজ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। সড়ক, রেল ও বিমান যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আধুনিক করেছি। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ১৩ কোটি। তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর কর্মসংস্থানের অবাধ সুযোগ সৃষ্টি করেছি।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রথম বাংলাদেশ প্রেক্ষিত পরিকল্পনা- এর সফল বাস্তবায়নের মাধ্যমে রূপকল্প-২০২১ অর্জন করেছি। দেশকে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তরিত করেছি। মুজিববর্ষে আমরা অঙ্গীকার করেছি কেউ গৃহহীন থাকবে না। আমরা শহরের সকল সুযোগ-সুবিধা প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলেও পৌঁছে দেব।  নানা প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে  বাংলাদেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, চলমান করোনা মহামারি পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণের লক্ষ্যে তিনি  ৩১ দফা নির্দেশনা দিয়েছেন, ক্রান্তিকাল উত্তরণে ডাক্তার-নার্স-টেকনিশিয়ান নিয়োগ করা হয়েছে। দরিদ্র অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো, অর্থনীতির চাকা সচল রাখা এবং উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে ২৮টি প্যাকেজের আওতায় ১ লাখ ৮৭ হাজার ৬৭৯ কোটি টাকার প্রণোদনা দিয়েছেন।

 শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের সরকারের নিরলস প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার চূড়ান্ত সুপারিশ লাভ করেছে। বাংলাদেশ এসডিজি প্রোগ্রেস অ্যাওয়ার্ড লাভ করেছে। আমরা ২০৩১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উচ্চ-মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে দ্বিতীয় প্রেক্ষিত পরিকল্পনা বাস্তবায়ন শুরু করেছি। আমরা বাংলাদেশ ব-দ্বীপ পরিকল্পনা-২১০০ বাস্তবায়ন শুরু করেছি। আমাদের সরকার তারুণ্যের শক্তির সঙ্গে ও অত্যাধুনিক প্রযুক্তিজ্ঞান সমন্বিত করে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দেয়ায় সক্ষম প্রজন্ম সৃষ্টিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।  ত্রিশ লাখ শহিদের রক্ত ও ২ লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতাকে সর্বদা সমুন্নত রাখা, দেশকে ভালোবাসা, দেশের মানুষের সার্বিক কল্যাণে সর্বশক্তি নিয়োগ করাসহ  ধর্মীয় উগ্রবাদসহ যেকোন সন্ত্রাসবাদকে প্রতিহত করার জন্য সবাইকে  নতুন বছরে প্রতিজ্ঞা করার আহবান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের আদর্শে উন্নত-সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক চেতনার সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে নতুন বছরে মানুষে-মানুষে সৌহার্দ্য ও ভ্রাতৃত্বের বন্ধন জোরদার, সকল সংকট দূরীভূত এবং সকলের জীবনে অনাবিল সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।


আরও খবর



দোকান থেকে না এনে ঘরেই তৈরি করুন শীতের পিঠা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বেশ শীত পড়েছে, এমন দিনে নতুন গুড়ের পিঠা না খেলে চলে? দোকান থেকে  না এনে আমরা যদি একটু কষ্ট করে ঘরে পিঠা তৈরি করি, তবে তার আনন্দ কিন্ত অনেক বেশি।

কীভাবে করবেন, জেনে নিন-

নকশি পিঠা :

উপকরণ :

চালের গুঁড়া ৪ কাপ, পানি তিন কাপ, লবণ সামান্য, ঘি ১ টেবিল চামচ, ভাজার জন্য তেল ৫০০ গ্রাম। সিরার জন্য গুড় ১ কাপ, চিনি ১ কাপ, পানি ২ কাপ জ্বাল দিয়ে সিরা বানাতে হবে।

প্রণালী :

পানিতে লবণ ও ঘি দিয়ে চুলায় দিন। ফুটে উঠলে চালের গুঁড়া দিয়ে সেদ্ধ করে কাই বানাতে হবে। আধা ইঞ্চি পুরু করে রুটি বানিয়ে পছন্দমতো আকার দিয়ে কেটে নিন। খেজুর কাঁটা দিয়ে রুটিতে পছন্দমতো নকশা করুন। এবার প্রথমে ডুবোতেলে ভেজে নিন। কিছুক্ষণ পর আবার তেলে ভেজে সিরায় দিয়ে ১ মিনিট রেখে তুলে নিন। ঠাণ্ডা হলে পরিবেশন করুন।

ভাপা পিঠা :

উপকরণ :

চালের গুঁড়া ৪ কাপ, নারকেল কুড়ানো ১ কাপ, গুড় গ্রেট করা ১ কাপ, লবণ পরিমাণমত, হালকা গরম পানি  আধা কাপ, পাতলা সুতি কাপড়।

প্রণালী :

চালের গুঁড়া কুসুম গরম পানি ও লবণ দিয়ে মেখে চেলে নিন। ছোট বাটিতে প্রথমে চালের গুঁড়া তারপর গুড় এবং নারকেল দিন সব শেষে চালের গুঁড়া দিয়ে পাতলা কাপড়ে ঢেকে চুলায় রাখা পাতিলে রাখুন। ভাপে তিন মিনিট সেদ্ধ করে নামিয়ে নিন। গরম গরম পরিবেশন করুন।

দুধ ভেজানো চিতই :

পিঠার উপকরণ :

আতপ চাল ৪ কাপ, পনি পরিমাণ মতো, লবণ সামান্য।

প্রণালী :

চাল ৪ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে ব্লেন্ড করে নিন। পরিমাণ মতো হালকা গরম পানি ও লবণ দিয়ে গোলা তৈরি করে নিন।

এবার লোহার অথবা মাটির পিঠার তৈরির পাত্র চুলায় দিয়ে ১ চামচ গোলা দিয়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। ৩-৪ মিনিট পর ঢাকনা খুলে পিঠা তুলে নিন। এভাবে সবগুলো পিঠা তৈরি করুন। সিরা তৈরির উপকরণ খেজুরের গুড় ২ কাপ, দুধ ৪ লিটার, দারচিনি ২ টুকরা, এলাচ ২টি, পানি ৪ কাপ।

যেভাবে করবেন খেজুরের গুড় পানি দিয়ে জ্বাল দিন। এলাচ, দারচিনি দিয়ে ফুটে উঠলে নামিয়ে গরম পিঠা গুড়ের সিরায় ছাড়ুন।

এবার ৪ লিটার দুধ জ্বাল দিয়ে ২ লিটার করে গুড়ের রসের ঢেলে দিন। ৬ থেকে ৮ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখার পর পিঠা পরিবেশন করুন।

নিউজ ট্যাগ: শীতের পিঠা

আরও খবর

মুখে স্বাদ ফেরাতে বানান মুরগির পুলি

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২

চাইনিজ সবজি রান্নার সহজ রেসিপি

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




বিজ্ঞান শিক্ষা ও গবেষণার পরিধি বাড়ানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশের উন্নয়নে বিজ্ঞান শিক্ষা ও গবেষণার পরিধি বাড়ানোর তাগিদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উন্নয়নে বিজ্ঞান শিক্ষার বিকল্প নেই জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের অর্থনীতির উন্নয়নে গবেষণায় জোর দিতে হবে। সরকার গবেষণায় পর্যাপ্ত বরাদ্দ রেখেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে নবনির্মিত জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি কমপ্লেক্সের উদ্বোধনের সময় এসব কথা বলেন তিনি। বিএনপির সমালোচনা করে বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, ক্ষমতায় থাকাকালীন প্রযুক্তির মাধ্যমে উন্নয়নের সম্ভাবনা নষ্ট করেছে বিএনপি। তাদের কাছে ক্ষমতা ছিল ভোগের।

অনুষ্ঠানে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন প্রতিরোধে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ও টিকা নেওয়ার আহ্বান জানান সরকারপ্রধান।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট এসেছে, এটা দ্রুত ছাড়াচ্ছে, সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। যারা টিকা নেননি, তারা এখনই টিকা নিয়ে নিন।


আরও খবর



শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়নি: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ২৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে গেলেও সরকার এখনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা.দীপু মনি।

রোববার সকালে সাভারের বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

ডা. দীপু মনি বলেন, সারা দেশে শিক্ষার্থীদের টিকাদানের কর্মসূচি জোরদারভাবে চলছে।  এ সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হলে টিকাদানে ভাটা পড়বে। সরকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিষয়ে গভীরভাবে পর্যালোচনা করছে। এখনো কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সংক্রমের খবর পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরও নজরদারি করছে। স্বাস্থ্য বিধি মেনে সবাইকে করোনাভাইরাস মোকাবিলা করতে হবে। এর পরও যদি পরিস্থিতি খারাপ দিকে যায় তাহলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বিপিএটিসিতে রোববার শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের সহকারী প্রকৌশলীদের প্রথম বিশেষ বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন শিক্ষামন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে এসময় শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী আরিফুর রহমান, বিপিএটিসির রেক্টর রমেন্দ্রনাথ বিশ্বাস উপস্থিত ছিলেন। দুমাস ব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কোর্সে ২৯ জন সহকারী শিক্ষা প্রকৌশলী অংশ নিয়েছেন।


আরও খবর

ফের অবরুদ্ধ শাবি ভিসি !

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২