Logo
শিরোনাম

স্ত্রীকে নির্যাতন করে ফেঁসে যাচ্ছেন ক্রিকেটার আল আমিন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ১৩৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশি ক্রিকেটার আল আমিন হোসেনের নামে অভিযোগ দিতে থানায় গিয়েছেন তারই স্ত্রী ইসরাত জাহান। এই পেসারের বিরুদ্ধে মূলত নারী নির্যাতনের অভিযোগ এনেছেন তার স্ত্রী। দীর্ঘদিন ধরে ক্রিকেটার স্বামী আল আমিনের হাতে অত্যাচার হওয়ায় থানার আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছেন, এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

এই পেসারের নামে মামলা না করলেও জিডি করে অভিযোগ জানিয়ে এসেছেন আল আমিনের স্ত্রী। মিরপুর মডেল থানায় আজ (১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আল আমিনের নামে অভিযোগ করতে যান এই ক্রিকেটারের স্ত্রী।

এই সময় গণমাধ্যমে আল আমিনের স্ত্রী বলেন, তিনি অত্যাচার করেন, আমরা বাধ্য হয়ে থানায় আসছি। দীর্ঘদিন যাবত তিনি আমাকে মারধর করেন।

আজ থানায় অভিযোগ দিতে আসার কারণ জানিয়ে এই ক্রিকেটারের স্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে আমাকে ঘর থেকে বের করে দিচ্ছে। দুটি সন্তান নিয়ে আমি কোথায় যাব।

কেবল নারী নির্যাতন নয় এই ক্রিকেটারকে নিয়ে আরও বিস্ফোরক তথ্য জানিয়েছেন তার স্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন, আল আমিন অন্য একটি মেয়ের সঙ্গে থাকার জন্য বের করে দিতে চাইছেন তাদের।

এই ক্রিকেটারের স্ত্রীর ভাষ্যে, আমাদের অভিযোগ হচ্ছে, সে আরেকটা মেয়ের সাথে থাকে বলে আমাদের ঘর থেকে বের করে দিচ্ছে। গত ২৫ আগস্ট সে বাসায় এসে মারধর করে ঘর থেকে বের করে দিতে চাইছে।

আমি শুনেছি সে অন্য একজনকে বিয়ে করেছে। কিন্তু আমি এখনো কোনো প্রমাণ পাইনি। কাবিননামাও দেখিনি।

এই ক্রিকেটারের নির্যাতনের কারণে বাধ্য হয়ে হাসপাতালেও ভর্তি হতে হয়েছিল তাকে। তবুও এই আল আমিনের সংসার করে যেতে চান জানিয়ে এই ক্রিকেটারের স্ত্রী আরও বলেন, আমি এই দুই সন্তান নিয়ে কোথায় যাবো। আমি অভিযোগ জানিয়েছি, পুলিশ তদন্ত করে সিদ্ধান্ত নেবে। আমি আমার ছেলেদের ভালো করে মানুষ করতে চাই।

এর আগেও গায়ে হাত তোলায় এই ক্রিকেটারের নামে জিডি করেছিলেন বলে জানিয়েছেন এই ক্রিকেটারের স্ত্রী। এই দম্পতির সংসারে দুটি পুত্রসন্তান রয়েছে।


আরও খবর

হার দিয়ে সিরিজ শুরু বাংলাদেশের

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২

১৬৮ রানের লক্ষ্য পেল বাংলাদেশ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




ভারতের চাল রফতানি ৫০ লাখ টন কমার আশঙ্কা

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চলতি অর্থবছর ভারতের চাল রফতানি প্রায় ৪০-৫০ লাখ টন কমতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ফলে বিশ্বজুড়ে কৃষিপণ্যটির সরবরাহ সংকট দেখা দিতে পারে। ঊর্ধ্বমুখী চাপের মুখে পড়তে পারে চালের বাজার। ভারতের রফতানিকারকরা এমন উদ্বেগের কথা জানিয়েছেন।  বিশ্বের শীর্ষ চাল রফতানিকারক দেশটি সম্প্রতি ভাঙা চাল রফতানি বন্ধ ঘোষণা করেছে। পাশাপাশি সেদ্ধ চাল বাদে সব ধরনের নন-বাসমতি চালের ওপর আরোপ করা হয়েছে ২০ শতাংশ রফতানি শুল্ক। দেশটিতে চাল উৎপাদন ব্যাপক কমে যাওয়ায় সরবরাহ নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই বাড়ছে দাম। এ পরিস্থিতিতে বাজার নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যেই রফতানি বন্ধ এবং রফতানি শুল্ক বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

আন্তর্জাতিক চাল বাণিজ্যে ৪০ শতাংশ বাজার হিস্যাই ভারতের। ২০২১-২২ অর্থবছরে দেশটি সব মিলিয়ে ২ কোটি ১২ লাখ ৩০ হাজার টন চাল রফতানি করে। এর আগের অর্থবছর রফতানির পরিমাণ ছিল ১ কোটি ৭৭ লাখ ৮০ হাজার টন। কোভিড-১৯ মহামারী শুরুর আগে ২০১৯-২০ অর্থবছরে দেশটি রফতানি করেছিল ৯৫ লাখ ১০ হাজার টন। অর্থাৎ গত অর্থবছর চাল রফতানি মহামারীপূর্ব পর্যায় ছাড়িয়ে গিয়েছিল। কিন্তু এ বছর পণ্যটি রফতানিতে মন্দার মুখে পড়তে যাচ্ছে দেশটি।

সরকারি তথ্যানুযায়ী, চলতি অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে (এপ্রিল-আগস্ট) ভারত ৯৩ লাখ ৫০ হাজার টন চাল রফতানি করেছে। গত বছরের একই সময় রফতানির পরিমাণ ছিল ৮৩ লাখ ৬০ হাজার টন। অর্থাৎ বছরের এখন পর্যন্ত দেশটির রফতানি বেশ ভালো আকারের প্রবৃদ্ধি দেখেছে। কিন্তু নীতিগত পরিবর্তনের কারণে আগামী মাসগুলোয় চাল রফতানি ব্যাপক বাধাগ্রস্ত হবে।

অল ইন্ডিয়া রাইস এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশেনের সাবেক প্রেসিডেন্ট বিজয় সেতিয়া বলেন, ভাঙা চাল রফতানি বন্ধ ও নতুন করে ২০ শতাংশ রফতানি শুল্ক আরোপ করায় চলতি অর্থবছর চাল রফতানি কমে ১ কোটি ৬০ লাখ থেকে ১ কোটি ৭০ লাখ টনে নামতে পারে। বর্তমানে ভারত প্রতি টন নন-বাসমতি চাল ৩৮০-৪০০ ডলার মূল্যে রফতানি করছে। অন্যান্য প্রতিযোগী দেশের তুলনায় কম দামেই এসব চাল রফতানি করা হচ্ছে। সরকার নীতিগত সিদ্ধান্তে পরিবর্তন আনায় অন্য রফতানিকারক দেশগুলোর সঙ্গে প্রতিযোগিতা আরো বাড়বে।

এদিকে সম্প্রতি ভারতের খাদ্য সচিব শুধাংশু পান্ডে ভাঙা চাল রফতানি বন্ধের কারণ করেছেন। তিনি বলেন, সাম্প্রতিক মাসগুলোয় ভাঙা চাল রফতানি অস্বাভাবিকভাবে বেড়েছে। এছাড়া পশুখাদ্য হিসেবে ব্যবহারের জন্য পর্যাপ্ত ভাঙা চালের সরবরাহও নেই। ইথানল ব্লেন্ডিং প্রোগ্রামেও শস্যটির ঘাটতি দেখা দিয়েছে। মূলত এসব কারণেই রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নয়াদিল্লি। এদিকে চুক্তি করা দামের ওপর সরকার কর্তৃক আরোপিত নতুন রফতানি শুল্ক পরিশোধে অনাগ্রহ দেখা গিয়েছে ক্রেতাদের মাঝে। ফলে নতুন শুল্কহার নির্ধারণের পর দেশটির বন্দরগুলোয় চাল লোডিং বন্ধ হয়ে যায়। ওইদিন বিভিন্ন বন্দরে আটকা পড়ে প্রায় ১০ লাখ টন চাল।

ভারতের শীর্ষ রফতানিকারক সত্যম বালাজির নির্বাহী পরিচালক হিমাংশু আগারওয়াল বলেন, চাল বাণিজ্যে মার্জিন অত্যন্ত কম। ফলে রফতানিকারকরা ২০ শতাংশ শুল্ক পরিশোধ করতে সক্ষম হবে না।

নিউজ ট্যাগ: চাল রফতানি

আরও খবর

৩১ ডিসেম্বরের পর পাম অয়েল বিক্রি বন্ধ

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




সুদীপ্ত হত্যা: ২৪ আসামির বিচার শুরু

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত বিশ্বাস হত্যা মামলায় ২৪ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। সোমবার (৩ অক্টোবর) দ্বিতীয় অতিরিক্ত চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ মো. আমিরুল ইসলাম এই আদেশ দেন।

অভিযোগ গঠন নিয়ে আদালতের শুনানিতে ২৪ জন আসামির মধ্যে ২৩ জন উপস্থিত ছিলেন। আবু জিহাদ সিদ্দিকী নামে জামিনে থাকা এক আসামি আদালতে উপস্থিত হননি। তার জামিন বাতিল করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম মহানগর পিপি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট মো. ফখরুদ্দিন চৌধুরী জানান, সুদীপ্ত হত্যা মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠনের ওপর আদালতে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি শেষে ২৪ আসামির বিরুদ্ধে দণ্ডবিধি ৩০২/৩৪ ধারায় চার্জ গঠন করেন। এর মধ্য দিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে এ মামলায় বিচার শুরু হয়েছে। মামলার পরবর্তী ধার্য তারিখ ৩০ অক্টোবর।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর নগরীর সদরঘাট থানার দক্ষিণ নালাপাড়ার নিজ বাসার সামনে মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক সুদীপ্ত বিশ্বাসকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় তার বাবা মেঘনাথ বিশ্বাস বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। মামলা তদন্ত করেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তৎকালীন চট্টগ্রাম মেট্রোর পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা।

তদন্ত শেষে ২০২১ সালের ১ ফেব্রুয়ারি ২৪ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন তিনি। মামলায় লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম মাসুমসহ ২৪ জন আসামি রয়েছে। অভিযোগপত্রে ৭৫ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে।


আরও খবর



বৃষ্টি কমে বাড়তে পারে তাপমাত্রা, নামলো সতর্ক সংকেত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কয়েকদিন ধরে চলা বৃষ্টির প্রবণতা কমে গেছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, বৃষ্টি আরও কমে তাপমাত্রা ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত বাড়তে পারে।

অন্যদিকে এক সপ্তাহ পর সমুদ্রবন্দরগুলোর ওপর থেকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত নামানো হয়েছে। বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি হলে সমুদ্রবন্দরগুলোতে সতর্ক সংকেত জারি করা হয়েছিল।

এরপর লঘুচাপটি শক্তিশালী হয়ে ধীরে ধীরে নিম্নচাপে পরিণত হয়। নিম্নচাপে পরিণত হওয়ার পর এটি ভারতের স্থল ভাগে ওঠে। বাংলাদেশে ও ভারতে বৃষ্টি ঝরিয়ে এটি ক্রমে দুর্বল হয়ে নিঃশেষ হওয়ার পথে। এদিকে বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে ঢাকার আকাশে মেঘ আনাগোনা থাকলেও বৃষ্টি নেই। দেখা মিলেছে রোদের।


আরও খবর

বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা

মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২




অস্কারে ছবি পাঠাচ্ছে না রাশিয়া

প্রকাশিত:শনিবার ০১ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসের ৯৫তম আসরে আন্তর্জাতিক পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বিভাগে অংশ নেবে না রাশিয়া। ২০২৩ সালের অস্কারের জন্য ছবি জমা না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি। এ কারণে রাশিয়ার অস্কার মনোনয়ন কমিশনের চেয়ারম্যান পাভেল চুখরাই পদত্যাগ করেছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

রুশ একটি সংবাদমাধ্যমকে পাভেল চুখরাই জানিয়েছেন, রাশিয়ার ফিল্ম একাডেমি তার সঙ্গে কোনও পরামর্শ ছাড়াই একতরফাভাবে অস্কারে অংশ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। তিনি এর নিন্দা জানিয়েছেন। এমন পদক্ষেপকে অবৈধ আখ্যা দিয়ে সরে দাঁড়িয়েছেন এই নির্মাতা। ১৯৯৭ সালে তার পরিচালিত দ্য থিফ অস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিল। রাশিয়ার অস্কার মনোনয়ন কমিশনের আরেকজন পরিচালক প্রতিবাদ জানিয়ে পদত্যাগ করেছেন বলে দাবি করেন পাভেল চুখরাই। অস্কারে কেন ছবি জমা দেওয়া হচ্ছে না, সেই বিষয়ে কিছু জানায়নি রাশিয়ার ফিল্ম একাডেমি। ধারণা করা হচ্ছে, ইউক্রেনের সঙ্গে চলমান যুদ্ধের কারণে রুশ সরকারের এই পদক্ষেপ।

কোন ছবি অস্কারের মর্যাদাপূর্ণ সেরা আন্তর্জাতিক পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র (সেরা বিদেশি ভাষার চলচ্চিত্র) বিভাগের জন্য পাঠানো হবে সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে রাশিয়ার অস্কার মনোনয়ন কমিশন। যেমনটা রয়েছে বাংলাদেশেও। এবার এই কমিটির অনুমোদন পেয়েছে মেজবাউর রহমান সুমনের হাওয়া। গোটা বিশ্ব থেকে জমা পড়া ছবি থেকে চলতি বছরের ২১ ডিসেম্বর অস্কারের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করবে অ্যাকাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস কর্তৃপক্ষ। ২০২৩ সালের ২৪ জানুয়ারি ঘোষণা করা হবে চূড়ান্ত মনোনয়ন তালিকা। আগামী বছরের ১২ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসের ক্যালিফোর্নিয়ার ডলবি থিয়েটারে দেওয়া হবে ৯৫তম অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডস।

রাশিয়ার হয়ে সবশেষ ১৯৯৪ সালে নিকিতা মিখালকভ পরিচালিত বার্নট বাই দ্য সান অস্কারের সেরা বিদেশি ভাষার চলচ্চিত্র পুরস্কার জয় করে। এর প্রেক্ষাপট ১৯৩৬ সালে স্তালিনের শুদ্ধিকরণ অভিযানের সময়। তখন একজন রেড আর্মি অফিসার ও তার স্ত্রীর সামনে ফিরে আসে একজন প্রাক্তন প্রেমিক। অস্কারের সেরা আন্তর্জাতিক পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বিভাগে মনোনীত রাশিয়ার সবশেষ দুটি ছবি হলো আন্দ্রেই জিভিয়াজিন্তসেভ পরিচালিত লেভিয়াথান (২০১৪) ও লাভলেস (২০১৭)।

নিউজ ট্যাগ: অস্কার

আরও খবর

দুরন্তপনার ৫ বছর

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




আইজিপি হচ্ছেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ১০২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ পুলিশের পরবর্তী মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হিসেবে নিয়োগ পেতে যাচ্ছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

নতুন আইজিপি হিসেবে অনেকে আলোচনায় থাকলেও অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক পদমর্যাদার আবদুল্লাহ আল-মামুন অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বর্তমান আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদের মেয়াদ আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর শেষ হচ্ছে। ড. বেনজীর আহমেদের স্থলাভিষিক্ত হবেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন অষ্টম বিসিএসের কর্মকর্তা। আগামী ১১ জানুয়ারি অবসরে যাওয়ার কথা তার। সৎ পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে বাহিনী ও সরকারের কাছে তার সুনাম রয়েছে। বাংলাদেশ পুলিশে অসামান্য অবদান ও অনন্য সেবাদানের স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম) ও প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম) পদকে ভূষিত হয়েছেন। গত বছরের ১৮ অক্টোবর চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনকে গ্রেড-১ পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়।

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন ১৯৬৪ সালের ১২ জানুয়ারি সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার শ্রীহাইল গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতকসহ (সম্মান) স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে ঢাকা রেঞ্জে ও ডিআইজি হিসেবে ডিআইজি (অপারেশনস্), ডিআইজি (প্রশাসন), রেঞ্জ ডিআইজি হিসেবে ময়মনসিংহ ও ঢাকা রেঞ্জের মতো গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন। এরপর পদোন্নতি পেয়ে তিনি অতিরিক্ত আইজিপির (এইচআরএম) দায়িত্ব পান।

র‌্যাবের মহাপরিচালক হিসেবে যোগদানের আগে তিনি সিআইডি প্রধান হিসেবে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করেন।


আরও খবর