Logo
শিরোনাম

সুনামগঞ্জে একজনের আমৃত্যু কারাদণ্ড, ৫ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ নভেম্বর 20২৩ | ১৩১০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে দুলা মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে একজনের আমৃত্যু ও পাঁচ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সোমবার (৮ আগস্ট) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মহিউদ্দিন মুরাদ এই রায় ঘোষণা করেন। অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় ২১ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হলেনহীরা মিয়া। যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেনএকই গ্রামের আব্দুল মন্নাফ, আমরু মিয়া, মসকুর মিয়া, কয়েছ মিয়া ও নূর হোসেন। তারা পলাতক রয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ডোবায় মাছ ধরা নিয়ে জগন্নাথপুর উপজেলার শম্ভুপুর গ্রামের দুলা মিয়ার সঙ্গে হীরা মিয়ার বিরোধ চলছিল। ২০১১ সালের ২৪ নভেম্বর সকালে বাড়ির পাশের ডোবায় হীরার লোকজন জোরপূর্বক মাছ ধরতে গেলে শুরুতে দুলার সঙ্গে বাগবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে হীরা ও তার লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। হামলায় দুলাসহ ৬ জন আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় নিহত দুলার চাচা হাজী সফর আলী বাদী হয়ে জগন্নাথপুর থানায় ৩০ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা ২০ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন।

মামলায় ২০১৫ সালে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। পরে আদালত ১৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে এ রায় ঘোষণা করেন। ঘটনার পর থেকে আজ পর্যন্ত দণ্ডপ্রাপ্ত সকল আসামি পলাতক রয়েছেন।

অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) অ্যাডভোকেট সোহেল আহমদ ছইল মিয়া জানান, আদালতের বিচারে বাদী পক্ষ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। পলাতক আসামিদের গ্রেফতার করে দ্রুত সাজা কার্যকরের আহ্বান জানান তিনি।

আসামিপক্ষের আইনজীবী আবুল মজাদ চৌধুরী জানান, আসামিপক্ষ্য ন্যায়বিচার পায়নি। রায়ের বিষয়ে উচ্চ আদালতে আপিল করা হবে।


আরও খবর