Logo
শিরোনাম

টিভিতে আজকের খেলা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | ৮৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

পাকিস্তান বনাম নিউজিল্যান্ড। ম্যাচ নং-১৯, ভেন্যু: শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়াম, শারজাহ, চ্যানেল: স্টার স্পোর্টস ২, সময়: রাত ৮ টা

আজ মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, আজ আইসিসি টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২১ এর দশম দিন, অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবারের টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় পর্ব সুপার টুয়েলভের ম্যাচগুলো। আজও দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে, প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা মুখোমুখি হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের। দ্বিতীয় ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যে। এক নজরে দেখে নিন কোন কোন টিভি চ্যানেলে আজ কোন কোন খেলা কখন সম্প্রচার করবে। ক্রিকেট, ফুটবল, টেনিস লাইভ সম্প্রচার, খেলার সময়সূচী সহ কোন কোন টিভিতে কখন সম্প্রচারিত হবে।

 

ক্রিকেট

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২১,

ম্যাচ নং-১৮ দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ভেন্যু: দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম, দুবাই, চ্যানেল: স্টার স্পোর্টস ২, সময়: বিকেল ৪ টা (বাংলাদেশ সময়)।


পাকিস্তান বনাম নিউজিল্যান্ড। ম্যাচ নং-১৯, ভেন্যু: শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়াম, শারজাহ, চ্যানেল: স্টার স্পোর্টস ২, সময়: রাত ৮ টা (বাংলাদেশ সময়)।

 

ফুটবল

লা লিগা

আথলেতিক বিলবাও-এস্পানিওল, রাত ১টা সরাসরি: টি স্পোর্টস টিভি।


আরও খবর



জলদস্যুতার সর্বোচ্চ সাজা যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ২৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাগরে জলদস্যুতার অপরাধে সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে সংসদে টেরিটোরিয়াল ওয়াটারস অ্যান্ড মেরিটাইম জোন (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল-২০২১ পাস হয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন রবিবার ১৯৭৪ সালের টেরিটোরিয়াল ওয়াটারস অ্যান্ড মেরিটাইম জোন আইন সংশোধন করে নতুন আইন পাসের প্রস্তাব করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।

এর আগে বিলের ওপর দেওয়া জনমত যাচাই-বাছাই কমিটিতে পাঠান এবং সংশোধনী প্রস্তাবগুলোর নিষ্পত্তি করেন স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

বিলটি পাস হওয়ায় অভ্যন্তরীণ জলসীমা ও রাষ্ট্রীয় জলসীমা, ২০০ নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত একচ্ছত্র অর্থনৈতিক অঞ্চল এবং ৩৫০ নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত মহীসোপানে সমুদ্র সম্পদের ওপর বাংলাদেশের সার্বভৌম অধিকার প্রতিষ্ঠিত হলো।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিলটি সংসদে উত্থাপন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। পরে বিলটি পরীক্ষা করে সংসদে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

বিলে বলা হয়েছে, এর একটি বাংলা পাঠ প্রণয়ন করা হবে। সংসদে উত্থাপিত বিলে এই বিধান ছিল না। সংসদীয় কমিটি এই বিধান যুক্ত করেন। যা সংসদ গ্রহণ করেন।

বিলে বলা হয়েছে, জলদস্যুতা, সশস্ত্র চুরি, সমুদ্র সন্ত্রাস করতে গিয়ে কেউ খুন করলে তার শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হবে। আর জলদস্যুতা বা সমুদ্র সন্ত্রাসের শাস্তি সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। এ ছাড়া দস্যুতা করে যা সে লুট করবে, তার জন্য জরিমানাও হবে।

কোনও ব্যক্তি জলদস্যুতা বা সমুদ্র সন্ত্রাসের চেষ্টা বা সহায়তা করলে সেক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ১৪ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। রাষ্ট্রীয় জলসীমায় চলাকালে কোনও বিদেশি জাহাজে অপরাধ সংগঠিত হলে অপরাধী গ্রেফতার ও তদন্ত পরিচালনায় এ আইন প্রযোজ্য হবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাসনামলে ১৯৭৪ সালে সর্বপ্রথম বাংলাদেশের মেরিটাইম অঞ্চলের সীমানা নির্ধারণ এবং সমুদ্র সম্পদ অনুসন্ধান ও আহরণে দ্য টেরিটোরিয়াল ওয়াটারস অ্যান্ড মেরিটাইম অ্যাক্ট ১৯৭৪ প্রণয়ন করা হয়।

পরে ১৯৮২ সালে ইউনাইটেড নেশনস কনভেনশন অন দ্য ল অব দ্য সি শীর্ষক কনভেনশন জাতিসংঘ গ্রহণ করলে একই বছর ১০ ডিসেম্বর বাংলাদেশ তাতে স্বাক্ষর করে।

আগের আইনে সামুদ্রিক দূষণের জন্য সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার টাকা এবং সর্বোচ্চ এক বছরের কারাদণ্ডের বিধান ছিল। নতুন বিলে সর্বোচ্চ তিন বছরের কারাদণ্ড অথবা সর্বনিম্ন দুই কোটি টাকা থেকে সর্বোচ্চ পাঁচ কোটি টাকা পর্যন্ত জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে।

এ ছাড়া ওশান গভর্নেন্স, ব্লু ইকোনোমি, মেরিটাইম কোঅপারেশন সংক্রান্ত নির্দেশনামূলক বিধিবিধান সংযোজন করা হয়েছে। বিশেষ করে মেরিন সায়েন্টিফিক রিসার্চের পদ্ধতি ও অনুশাসন সংক্রান্ত বিধান অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

সমুদ্রে যেসব অপরাধ সংঘটিত হয়, তা ভিন্নমাত্রিক হওয়ায় পৃথক মেরিটাইম ট্রাইব্যুনাল প্রতিষ্ঠার বিধান বিলে রাখা হয়েছে। অপরাধ বা দুর্ঘটনা সংক্রান্ত ভিডিও, ছবি, ইলেকট্রনিক রেকর্ডকে সাক্ষ্য হিসেবে গ্রহণ করারও সুযোগ থাকছে।

কন্টেনিন্টাল শেলফের সংজ্ঞা ও সীমা ইউএনক্লস-১৯৮২ এবং আন্তর্জাতিক আদালতের মামলার রায় অনুযায়ী বিদ্যমান আইনের সংশোধনের প্রস্তাব করা হয়েছে। ওই অঞ্চলের সেইফটি জোন নির্ধারণ, সাবমেরিন কেবল ও পাইপলাইন স্থাপন সংক্রান্ত বিধানও সংযোজিত হয়েছে।

বিলে ইকোনোমিক জোনের পরিবর্তে এক্সক্লুসিভ ইকোনোমিক জোন শব্দবন্ধ ব্যবহার করা হয়েছে এবং সকল প্রাণিজ ও অপ্রাণিজ সম্পদের ওপর সার্বভৌম অধিকার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

আগের আইনের কন্টিগিউয়াস জোনের সংজ্ঞা ও সীমা ইউএনক্লস-১৯৮২ এর সাথে সামঞ্জস্য রেখে সংশোধন করা হয়েছে। এ জোনের ব্যাপ্তি ১৮ থেকে ২৪ মাইল করা হয়েছে।


আরও খবর



গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আতাউল্লাহ মণ্ডল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের জায়গায় ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন দলটির নেতা আতাউল্লাহ মণ্ডল। তিনি মহানগর কমিটির ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গাজীপুর মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক পদ শূন্য হওয়ায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক আতাউল্লাহ মণ্ডলকে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।

গত ১৯ নভেম্বর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে কটূক্তি করায় গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে আজীবনের জন্য সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে বহিষ্কার করে আওয়ামী লীগ। একইসঙ্গে দলে তার প্রাথমিক সদস্যপদও বাতিল করা হয়। এতে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদটি শূন্য হয়।


আরও খবর

হেফাজত মহাসচিব লাইফ সাপোর্টে

রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১




শীতকালের একটি সুপারফুড হল লালশাক

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ২৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ধোঁয়া ওঠা গরম ভাতে লালশাক ভাজা খাওয়ার মজাই যেন আলাদা। তবে সবজি যাঁদের না-পসন্দ, এর উপকারিতা জানলে খেতে ইচ্ছে করবেই।

পুষ্টিবিদদের মতে, শীতকালের একটি সুপারফুড হল লালশাক। অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর লালশাক বহু রোগের জন্য উপকারী। ১০০ গ্রাম লালশাকের মধ্যে ক্যালসিয়াম আছে ৩৭৪ মিলিগ্রাম। প্রোটিন আছে ৫.৩৪ গ্রাম। প্রতিদিন খেলে শরীর সতেজও থাকে। তাছাড়াও এর বহু উপকারিতা রয়েছে। যেমন,

১. কোলেস্টেরলের সমস্যায় যাঁরা চিন্তিত, তাঁদের রোজ লালশাক খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এটি হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

২. লালশাকে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। তাছাড়াও অ্যান্টি ক্যানসার গুণাবলীও রয়েছে এর মধ্যে।

৩. ভিটামিন এ-তে ঠাসা লালশাক রেটিনার কার্যক্ষমতা বাড়ায়। দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধির জন্য এটি ভীষণ উপকারী।

৪. লালশাকে প্রচুর আয়রন রয়েছে। ফলে অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতার মতো সমস্যায় যাঁরা ভোগেন, তাঁরা রোজ খান লালশাক।

৫. রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে লালশাক। ফলে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীরা খেলে উপকার পাবেন।

৬. লালশাকে ক্যালোরির পরিমাণ অত্যন্ত কম। ফলে রোজ খেলেও ওজন বেড়ে যাওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। বরং এটি পেট ভর্তি রাখে। চটজলদি খিদেও পায় না। এবং ওজন কমে।

৭. লালশাকে প্রচুর ফাইবার রয়েছে। ফলে খাবার চটজলদি হজম হয়। কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যার সমাধান করতেও এর জুড়ি মেলা ভার।

৮. অ্যামাইনো অ্যাসিড, ফসফরাস, আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম এবং ভিটামিন সি, ভিটামিন ই রয়েছে লালশাকে। এই উপাদানগুলো শরীরের দূষিত পদার্থ বের করে দিতে সাহায্য করে। ফলে কিডনি পরিষ্কার রাখে।

৯. লালশাকে ক্যালসিয়াম রয়েছে অনেকখানি। যা গর্ভাবস্থায় মেয়েদের জন্য খুবই উপকারী।

১০. লালশাক দাঁতের স্বাস্থ্যের জন্য ভীষণ উপকারী। শরীরে শক্তি বাড়াতেও সাহায্য করে এটি। 


আরও খবর



বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | ৬৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সে তাঁর সদ্য সমাপ্ত সফর সম্পর্কে গণমাধ্যমকে অবহিত করার জন্য বুধবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা করবেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে বুধবার বিকেল ৪টায় এ সাংবাদিক সম্মেলন শুরু হবে।

প্রধানমন্ত্রী ৩১ অক্টোবর থেকে ১৩ নভেম্বর পর্যন্ত গ্লাসগো, লন্ডন ও প্যারিসে সরকারি সফরকালে কপ২৬-এ বিশ্ব নেতাদের শীর্ষ সম্মেলন, বাংলাদেশ বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন ২০২১, ইউনেস্কো সদর দপ্তরে সৃজনশীল অর্থনীতির জন্য ইউনেস্কো-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আন্তর্জাতিক পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান, ইউনেস্কোর ৪১তম সাধারণ সম্মেলন, প্যারিস শান্তি ফোরাম, ইউনেস্কোর ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং অন্যান্য উচ্চ পর্যায়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেন।


আরও খবর



বৃহস্পতিবার সংবিধান দিবস

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৯৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
মূল সংবিধান ইংরেজি ভাষায় রচিত হয় এবং একে বাংলায় অনুবাদ করা হয়। তাই এটি বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষায় বিদ্যমান

আগামীকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সংবিধান দিবস। ১৯৭২ সালের৪ নভেম্বর গণপরিষদে বাংলাদেশের সংবিধান গৃহীত হয় এবং ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭২ (বিজয় দিবস) থেকে কার্যকর হয়। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশ রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন।

এর আগে  সংবিধান প্রণয়নের উদ্দেশ্যে ১৯৭২ সালের ১১ এপ্রিল ড. কামাল হোসেনকে সভাপতি করে ৩৪ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। একই বছরের ১৭ এপ্রিল থেকে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত এই কমিটি বিভিন্ন পর্যায়ে বৈঠক করে। জনগণের মতামত সংগ্রহের জন্য মতামত আহ্বান করা হয়। সংগ্রহীত মতামত থেকে ৯৮টি সুপারিশ গ্রহণ করা হয়। ১৯৭২ সালের ১২ অক্টোবর গণপরিষদের দ্বিতীয় অধিবেশনে খসড়া সংবিধান বিল আকারে উত্থাপন করা হয়। গণপরিষদে সংবিধানের উপর বক্তব্য রাখতে গিয়ে জাতির পিতা  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিুবর রহমান বলেন,এই সংবিধান শহীদের রক্তে লিখিত, এ সংবিধান সমগ্র জনগণের আশা-আকাঙ্খার মূর্ত প্রতীক হয়ে বেঁচে থাকবে।

মূল সংবিধান ইংরেজি ভাষায় রচিত হয় এবং একে বাংলায় অনুবাদ করা হয়। তাই এটি বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষায় বিদ্যমান। তবে ইংরেজি ও বাংলার মধ্যে অর্থগত বিরোধ দৃশ্যমান হলে বাংলা রূপ অনুসরণীয় হবে।

বাংলাদেশের সংবিধান কেবল বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আইনই নয়, সংবিধানে বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের মূল চরিত্র বর্ণিত রয়েছে। এতে বাংলাদেশের ভৌগোলিক সীমারেখা বিধৃত আছে। দেশটি হবে প্রজাতান্ত্রিক, গণতন্ত্র হবে এদেশের প্রশাসনিক ভিত্তি, জনগণ হবে সকল ক্ষমতার উৎস এবং বিচার বিভাগ হবে স্বাধীন। জনগণ সকল ক্ষমতার উৎস হলেও দেশ আইন দ্বারা পরিচালিত হবে। সংবিধানে জাতীয়তাবাদ, সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতা কে রাষ্ট্র পরিচালনার মূলনীতি হিসেবে গ্রহণ করা হয়।

সংবিধান লেখার পর এর বাংলা ভাষারূপ পর্যালোচনার জন্য ড. আনিসুজ্জামানকে আহবায়ক, সৈয়দ আলী আহসান এবং মযহারুল ইসলামকে ভাষা বিশেষজ্ঞ হিসেবে একটি কমিটি গঠন করে পর্যালোচনার ভার দেয়া হয়। গণপরিষদ ভবন, যা বর্তমানে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন, সেখানে সংবিধান প্রণয়ন কমিটির বৈঠকে সহযোগিতা করেন ব্রিটিশ আইনসভার খসড়া আইন-প্রণেতা আই গাথরি।সংবিধান ছাপাতে ১৪ হাজার টাকা ব্যয় হয়েছিলো। সংবিধান অলংকরণের জন্য পাঁচ সদস্যের কমিটি করা হয়, যার প্রধান ছিলেন শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন। এই কমিটির সদস্য ছিলেন শিল্পী হাশেম খান, জনাবুল ইসলাম, সমরজিৎ রায় চৌধুরী ও আবুল বারক আলভী।

দিবসটি উপলক্ষে আগামীকাল বিকাল সাড়ে ৪টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর সংগীত আবৃত্তি ও নৃত্যকলা মিলনায়তনে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে বাহাত্তরের সংবিধান পূন:প্রতিষ্ঠা  জাতীয় কমিটি।


আরও খবর

১৬ নভেম্বর: ইতিহাসের এই দিনে

মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১

১০ নভেম্বর: ইতিহাসের এই দিনে

বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১