Logo
শিরোনাম

তুরস্কের পদক্ষেপে ‘বিরক্ত’ জার্মান চ্যান্সেলর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ সেপ্টেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাশিয়া ও চীনের নেতৃত্বাধীন অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তা জোট সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশন (এসসিও)-তে যোগদানের ব্যাপারে তুরস্কের পদক্ষেপে বিরক্ত জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎস। মঙ্গলবার নিউ ইয়র্কে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ানের সঙ্গে বৈঠকের পর নিজের এমন মনোভাবের কথা জানান তিনি। বুধবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

ওলাফ শলৎস বলেন, এসসিও-তে যোগদানের জন্য তুরস্কের প্রচেষ্টার বিষয়ে তিনি খুবই বিরক্ত

পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর গুরুত্বপূর্ণ সদস্য তুরস্ক। তবে গত ১৭ সেপ্টেম্বর এসসিও জোটে যোগদানের ব্যাপারে আঙ্কারার আগ্রহের কথা জানান এরদোয়ান। তার ভাষায়, সাংহাই সহযোগিতা সংস্থার সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক হবে ভিন্ন অবস্থান থেকে। অবশ্যই তুরস্ক এতে যোগ দিতে চায়।

নিউ ইয়র্কে এরদোয়ানের সঙ্গে সাক্ষাতের পর ওলাফ শলৎস বলেন, এসসিও এমন কোনও সংস্থা নয় যা একটি ভালো বৈশ্বিক সহাবস্থানে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে।

উল্লেখ্য, বর্তমানে এসসিও জোটের স্থায়ী সদস্য আটটি। দেশগুলো হচ্ছে রাশিয়া, চীন, ভারত, পাকিস্তান, উজবেকিস্তান, কিরগিজস্তান, তাজিকিস্তান ও কাজাখস্তান। আর সংলাপের অংশীদার হিসেবে মর্যাদা পেয়েছে তুরস্ক, আজারবাইজান, আর্মেনিয়া, কম্বোডিয়া, নেপাল ও শ্রীলঙ্কা।

নিউজ ট্যাগ: ওলাফ শলৎস

আরও খবর

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের কার্যক্রম স্থগিত করলো ছাত্রলীগ

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কর্মীদের কর্মকাণ্ডে বিতর্কের মুখে ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিত করেছে সংগঠনটি। সেই সঙ্গে দায়ীদের নাম উল্লেখ করে স্থায়ী বহিষ্কারের কথাও জানানো হয়েছে।

রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সভাপতি আলহাজিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সংগঠনটির তিনজন সাংগঠনিক সম্পাদক।

ছাত্রলীগের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সংগঠনের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে যে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ইডেন মহিলা কলেজ শাখার সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিত করা হলো।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, শৃঙ্খলা পরিপন্থী কার্যকলাপে জড়িত থাকার অপরাধে, প্রাথমিকভাবে প্রাপ্ত প্রমাণের ভিত্তিতে ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের সহসভাপতি সোনালি আক্তার, সুস্মিতা বাড়ৈ, জেবুন্নাহার শিলা, কল্পনা বেগম, জান্নাতুল ফেরদৌস, আফরোজা রশ্মি, মারজানা উর্মি, সানজিদা পারভীন চৌধুরী, এস এম মিলি, সাদিয়া জাহান সাথী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফাতেমা খানম বিন্তি ও সাংগাঠনিক সম্পাদক সামিয়া আক্তার বৈশাখী এবং কর্মী রাফিয়া নীলা, নোশিন শার্মিলী, জান্নাতুল লিমা, সূচনা আক্তারকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হলো।

এ ছাড়া ‌অধিকতার তদন্তের মাধ্যমে এই বিশৃঙ্খলার সাথে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের যারা জড়িত রয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানানো হয় ছাত্রলীগের প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে।

রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে বের করে দিয়ে ক্যাম্পাসে আনন্দ  মিছিল করেছে ছাত্রলীগের একটি অংশ।

সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভাকে কলেজ প্রশাসনের মাধ্যমে অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকা মেডিক্যালে পাঠানোর মাধ্যমে তাকে ক্যাম্পাস ছাড়া ঘোষণা করে ছাত্রলীগের এক অংশ। এর এক ঘণ্টা পর ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে লেগুনায় করে ক্যাম্পাস থেকে বের করে দেওয়ার ঘোষণা দেয় প্রতিপক্ষ।এ ঘটনার পরে ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের বিরোধী অংশের নেতা-কর্মীরা আনন্দ মিছিল করেন।

ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের এই অংশে আছেন কলেজ ছাত্রলীগের সহসভাপতি সোনালী আক্তার, সুস্মিতা বাড়ৈ, কল্পনা বেগম, জেবুন্নাহার শিলা, সুমনা মিম, মিলি আক্তার, সাদিয়া জাহান সাথী, তানজিলা আক্তার, তানজিলা মনি পরশ, মনিকা তালুকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক সামিয়া আক্তার বৈশাখী, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য সাবিকুন্নাহার তামান্নাসহ কয়েকজন।

আনন্দ মিছিলে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের একটি অংশ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবিরোধী বিভিন্ন স্লোগান ও ইডেন কলেজের মাটি ছাত্রলীগের ঘাঁটি বলে স্লোগান দেয়।

এর আগে শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে ইডেন কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের কোন্দলে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। দুই পক্ষের শিক্ষার্থীদের অবস্থানে চলে পক্ষে-বিপক্ষে স্লোগান। শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, সন্ধ্যা রাতে ইডেন কলেজের সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। পরে কলেজের ছাত্রলীগ শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের গ্রুপের সঙ্গে সহ-সভাপতিসহ আরেকটি গ্রুপের শিক্ষার্থীরা মুখোমুখি অবস্থান নেয়।

এ ঘটনার জেরে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার বিষয়ে সাংগঠনিক ব্যবস্থা না নিলে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন এই কলেজ শাখা ছাত্রলীগের ২৫ নেত্রী। সহসভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌসকে মারধরের ঘটনায় তারা এই হুমকি দেন।

পরে রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শহীদ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব ছাত্রীনিবাস প্রাঙ্গণে সংবাদ সম্মেলন করেন ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের ২৫ নেত্রী। এ সময় তারা তাদের দাবি মেনে নিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে দেন। এই ২৫ নেত্রী কলেজ ছাত্রলীগ কমিটির সহসভাপতি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদধারী। তারা গতকালের ঘটনা তদন্তে গঠিত কমিটিও মানেন না বলে জানান।

এ বিষয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস গণমাধ্যমকে বলেন, সিট-বাণিজ্য নিয়ে সম্প্রতি গণমাধ্যমে একটি সাক্ষাৎকারকে কেন্দ্র করে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নির্যাতনের শিকার হন তিনি। তাকে একটি কক্ষে আটকে রেখে মারধর এবং ব্যক্তিগত ছবিও তুলে রাখা হয়।


আরও খবর



চাঁদের উদ্দেশে আর্টেমিস–১ উৎক্ষেপণ আবারও পেছাল

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চাঁদের উদ্দেশে নাসার আর্টেমিস১ উৎক্ষেপণ আবারও পেছাল। প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে দুবার উৎক্ষেপণ ব্যর্থ হওয়ার পর আগামী মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) উৎক্ষেপণের দিন নির্ধারিত ছিল। তবে নতুন করে সমস্যার মুখোমুখি হয়েছে অভিযান।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানা যায়, আর্টেমিস-১ মিশনের নতুন তারিখও একাধিক চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। ক্যারিবীয় অঞ্চলে একটি শক্তিশালী ঝড়ের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এই ঝড় ফ্লোরিডার দিকে আছড়ে পড়তে পারে। সেখানেই কেনেডি স্পেস সেন্টার, যেখান থেকে রকেটটি উৎক্ষেপণের জন্য সেট করা হয়েছে।

তিন ভাগের আর্টেমিস প্রোগ্রামের সঙ্গে নাসা চাঁদে একটি অবিচ্ছিন্ন মানব উপস্থিতি তৈরি করার পরিকল্পনা করেছে। আর্টেমিস-১ মিশনটি অবশ্য অনেকটাই দেরিতে নিয়ে আসা হচ্ছে এবং তার জন্য ইতিমধ্যে একটা বিরাট অঙ্কের অর্থ খরচ করে ফেলেছে নাসা। এখন যেকোনো পরিস্থিতিতেই মিশন সফল হলে তা নাসার জন্য স্বস্তির বিষয় হবে।

আর্টেমিস ১-এর যাত্রা সফল করতে নাসার সামনে একের পর এক চ্যালেঞ্জ এসেই যাচ্ছে। যদিও নাসা অন্যান্য সমস্যার সমাধান করলেও প্রাকৃতিক দুর্যোগ এড়ানোর তো উপায় নেই।

নাসার অনুসন্ধান দলের গ্রাউন্ড সিস্টেম ম্যানেজার মাইক বোলগার বলছেন, আমাদের প্ল্যান হলো অবশ্যই লঞ্চ সিস্টেমের মধ্যে থাকা এবং ২৭ সেপ্টেম্বর লঞ্চ সম্পন্ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া। তবে কঠিন পরিস্থিতিতে আমাদের প্ল্যান বি-ও কাজে লাগতে পারে।

বোলগার বলেন, যদি আমরা প্ল্যান বিতে যেতে চাই, তাহলে আমাদের বর্তমান ট্যাংকিং পরীক্ষা বা লঞ্চ কনফিগারেশন থেকে রোলব্যাক চালানোর জন্য এবং ভেহিকল অ্যাসেম্বলি বিল্ডিংয়ে ফিরে যেতে আরও কয়েক দিন সময় লাগবে।

উল্লেখ্য, ৩২২ ফুট দীর্ঘ ওই মহাকাশ যানটি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে উৎক্ষেপণ করা হবে। এই মিশনের লক্ষ্য হলোমূল রকেটের সঙ্গে থাকা স্পেস লঞ্চিং সিস্টেম রকেট এবং ওপরের অংশে থাকা ওরিয়ন ক্রু ক্যাপসুলটির কার্যকারিতা পরীক্ষা করা। দ্রুতগামী রকেটটি ওরিয়ন ক্যাপসুলকে নিয়ে প্রতি ঘণ্টায় ৩৯ হাজার ৪০০ কিলোমিটার বেগে চাঁদের উদ্দেশে রওনা হবে। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২৪ সালের মধ্যেই মহাকাশচারীরা চাঁদকে প্রদক্ষিণ করে আসতে পারবে। অবশ্য এই যাত্রায় কোনো নভোচারী চাঁদে যাচ্ছেন না বলে জানিয়েছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান নাসা।


আরও খবর



সিরাজগঞ্জে বজ্রপাতের ঘটনায় নিহত বেড়ে ৯

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বজ্রপাতে এক নারীসহ ৯ জন কৃষি শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৫ জন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার উজ্জ্বল হোসেন ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার বিকেল চারটার দিকে উপজেলার পঞ্চক্রোশি ইউনিয়নের মাটিকোড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত এবং আহতরা সবাই কৃষি শ্রমিক। নিহতরা হলেন, উপজেলার শিপপুর গ্রামের মোবাখর (৪০), মোন্নাফ হোসেন (১৮), শমসের আলী (৬০), আফসার হোসেন (৬৩), শাহিন আলী (২১) এবং মাটিকোড়া গ্রামের আব্দুল কুদ্দুস (৬০) , শাহ আলম (৪২), রিতু খাতুন (১৪), এক জনের পরিচয় পাওয়া যায়নি। আহতদেরকে প্রথমিকভাবে উল্লাপাড়া ৩০শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় পঞ্চক্রোশি ইউপি চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলাম ফিরোজ এতথ্য নিশ্চিত করে জানান, নিহত ও আহতরা মাটিকোড়া দক্ষিণপাড়া গ্রামের পাশের মাঠে রোপা ধানের চারা উত্তোলন ও জমিতে বপন করছিলেন। হঠাৎ করে বৃষ্টি শুরু হয়। সবাই মাঠের মধ্যে অবস্থিত একটি শ্যালো মেশিন ঘরে গিয়ে ওঠেন। এসময় বজ্রপাতে হলে ঘটনাস্থলেই এক নারীসহ ৯ জন নিহত হয়। এ ঘটনায় আহত হন আরও অন্তত ৫জন। খবর পেয়ে উল্লাপাড়ার ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে উল্লাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার উজ্জ্বল হোসেন বলেন, খবর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। নিহত প্রত্যেক পরিবারকে ২৫ হাজার টাকা অনুদান দেওয়া হয়েছে। নিহতদের মরদেহগুলো পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরও খবর



রেমিট্যান্স ও রপ্তানিতে ডলারের অভিন্ন রেট নির্ধারণ

প্রকাশিত:রবিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মুদ্রাবাজারে অস্থিরতা কমাতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সিদ্ধান্ত মেনে বিদেশি এক্সচেঞ্জ হাউজ থেকে ডলার কেনাবেচার অভিন্ন দর ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ফরেইন এক্সচেঞ্জ ডিলারস অ্যাসোসিয়েশন-বাফেদা এবং ব্যাংক নির্বাহীদের সংগঠন এবিবি।

সোমবার থেকে দেশে আসা রেমিটেন্সের ক্ষেত্রে ডলারের বিনিময় হার হবে সর্বোচ্চ ১০৮ টাকা। সঙ্গে সরকারের আড়াই টাকা প্রণোদনা যোগ হলে রেমিট্যান্সে মিলবে ১১০ টাকা ৫০ পয়সা।  রপ্তানি আয়ের ক্ষেত্রে প্রতি ডলারে সর্বোচ্চ ৯৯ টাকা পাবেন ব্যবসায়ীরা।

রোববার এবিবি নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর বাফেদার চেয়ারম্যান ও সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আফজাল করিম ডলারের এই বিনিময় হার ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, এই বিনিময় হার সোমবার থেকে কার্যকর হবে এবং আন্তর্জাতিক বাজারের পরিস্থিতি অনুযায়ী সময়ে সময়ে পরিবর্তন আনা হতে পারে।

সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে একইসঙ্গে সিদ্ধান্ত হয়েছে, পাঁচদিন পর এই রেট পর্যালোচনা করে প্রয়োজনে তাতে পরিবর্তন আনা হবে।

এর আগে বৃহস্পতিবার ডলারের বাজারে করণীয় নির্ধারণে এবিবি ও বাফেদার সঙ্গে আলোচনায় বসে বাংলাদেশ ব্যাংক। ওই বৈঠকে ডলারের বাজার পর্যবেক্ষণ ও আমদানি-রপ্তানি পরিস্থিতি বুঝতে সময় নেয় ব্যাংক নির্বাহী ও বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেনকারী ব্যাংকগুলোর এই দুই সংগঠন।


আরও খবর

৩১ ডিসেম্বরের পর পাম অয়েল বিক্রি বন্ধ

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




গণধর্ষণ ও অপহণের অভিযোগে হাতিরঝিল থানার ওসিসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৬৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর হাতিলঝিল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রশিদ ও পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের ইন্সপেক্টর গোলাম মোক্তার আশরাফ উদ্দিনসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে গণধর্ষণ ও অপহরণের অভিযোগ তুলে একটি মামলা দায়েরের আবেদন করা হয়েছে।

ঢাকার ৩ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে বিচারক জুলফিকার হায়াতের আদালতে এক সন্তানের মা ভুক্তভোগী ওই নারী (৩৩) এ মামলার আবেদন করেন।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) আদালত সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে। এদিন আদালত বাদিনীর জবানবন্দি গ্রহণ করেছেন। তবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত কোনো আদেশ হয়নি বলে নিশ্চিত করেন সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটরই মাহমুদা আক্তার।

মামলার অপর আসামিরা হলেন- তানীম রেজা বাপ্পি, সাজিদা তানীম, জাবেল হোসেন পাপন, মো. জামাল ও সাইফুল ইসলাম।

মামলায় বলা হয়, বাদিনী একজন ছেলে সন্তানের জননী। গত ১ মার্চ ঢাকার ৭ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালে আসামি তানীম রেজা বাপ্পি, জাবেল হোসেন পাপন, মো. জামাল ও ওসি আব্দুর রশিদসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা করেন। ট্রাইব্যুনাল ওসি আব্দুর রশিদকে বাদ দিয়ে তানীম রেজা বাপ্পি, জাবেল হোসেন পাপন, মো. জামালসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে হাতিরঝিল থানা ঢাকাকে মামলাটি এজাহার হিসাবে গ্রহণের নির্দেশ দেয়। সে অনুযায়ী হাতিরঝিল থানা ৫২ (০৩) ২০২২ এজাহার নেয়। বর্তমানে ওই মামলাটি পিবিআইয়ের তদন্তাধীন।

এই মামলা হওয়ার পর আসামি আব্দুর রশিদ ও আশরাফ উদ্দিনের সহযোগিতায় অপর আসামিরা মামলাটি তুলে নিতে এবং আসামি তানীম রেজা বাপ্পি ও জাবেল হোসেন পাপনকে জামিন করে আনতে চাপ দেন। না হলে বাদিনীর নাবালক ছেলেকে প্রাণনাশের হুমকি ও ভয়ভীতি দেখান।

এরপর ২৩ মে রাত সাড়ে ১১টার দিকে আসামি তানীম রেজা বাপ্পি, মো. জামাল ও সাইফুল ইসলাম বাদিনীর বাসায় এসে বাদিনীকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য বলে। বাদিনী তা অস্বীকার করিলে আসামি মো. জামাল বাদিনীর ছেলেকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে রাখেন এবং তানীম রেজা বাপ্পি ও সাইফুল ইসলাম অস্ত্রের মুখে বাদিনীকে ধর্ষণ করেন। একইভাবে চলতি বছর ৩১ মে রাতে তারা আরও অনেক বার বদিনীকে ধর্ষণ করেন।

অভিযোগে আরও বলা হয়, গত ৫ জুন সকাল সাড়ে ৮দিকে বাদিনীর বাসায় এসে আসামি আব্দুর রশিদ ও আশরাফ উদ্দিনের সহযোগিতায় অপর আসামিরা বাদিনীকে জোরপূর্বক পিবিআই অফিসে নিয়ে যায় এবং আসামি আব্দুর রশিদ ও আশরাফ উদ্দিন বাদিনীর কাছ থেকে জোরপূর্বক কয়েকটি সাদা কাগজ ও স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেন ও তাদের শিখিয়ে দেওয়া মনগড়া বক্তব্য অডিও রেকর্ড করেন এবং লিখিত নেন।

এরপর গত ২১ জুলাই বাদিনী শারীরিকভাবে অসুস্থ বোধ করলে ঢাকা কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে জানতে পারে তিনি সাত সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা। বাদিনী নিরূপায় হয়ে গত ২৬ জুলাই পুলিশ হেডকোয়াটার্সে আইজিপি বরাবর ঘটনা তুলে ধরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

বাদিনীর অভিযোগের বিষয়ে আসামিরা জানতে পেরে আসামি আব্দুর রশিদ ও আশরাফ উদ্দিনের সহযোগিতায় অপর আসামিরা গত ২৮ জুলাই বিকালে বাদিনীকে অস্ত্রের মুখে বাসা হতে তুলে নিয়ে খিলগাঁও থানার দক্ষিণ গোড়ান ছাপড়া মসজিদ এলাকায় নগর উন্নয়ন সমাজ সেবা সংস্থায় (সাবেক সালেহা মেডিকেল সেন্টার) নিয়ে নার্স ও সেখানকার চিকিৎসক দিয়ে তার অ্যাবরশন করান।

এ নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে বাদিনীকে আসামিরা বাদিকে পতিতা বানানোর হুমকি এবং সোস্যাল মিডিয়াই অপপ্রচার চালিয়ে বাদিনীকে হেয় প্রতিপন্ন করাসহ হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলা হবে বলেও হুমকি দেন।


আরও খবর