শিরোনাম

উনি মাঠে থাকলে আচরণবিধি লঙ্ঘন হবে: আইভী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, আমার আস্থা সব সময় আমার জনগণ। উনি (শামীম ওসমান) কীভবে মাঠে থাকবেন।

উনি একজন সংসদ সদস্য। আচরণবিধি লঙ্ঘন হবে তারা মাঠে থাকলে। আমি আবারও গণমাধ্যমের কাছে বলি আমার আস্থা সব সময় জনগণের প্রতি, আমার নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি। এর বাইরে আর কিছু বলতে চাই না।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) সকালে শহরের খানপুর এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণায় নেমে তিনি এ কথা বলেন।

আইভী বলেন, যে কোনো প্রার্থীর ভেতরে শঙ্কা থাকে। আমি তার বাইরে কেউ না। আমি অবশ্যই চাইবো নারায়ণগঞ্জের পরিবেশ সুন্দর থাকুক। প্রশাসন যেন নিরপেক্ষ থাকে, অ্যাক্টিভ থাকে। আমার ভোটাররা যেন ভোট দিতে যেতে পারে সে ব্যাবস্থা যেন করা হয়। যে কোনো প্রার্থী অভিযোগ জানাতে পারে। কিন্তু বিগত দিনের ইতিহাস নারায়ণগঞ্জের নির্বাচনের পরিবেশ যতই টান টান থাকুক নির্বাচনের দিন এখানে সুষ্ঠু নির্বাচন হয়। মানুষ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিতে যায়। আশা করি এবারও সেই রকম পরিবেশ থাকবে।

তিনি বলেন, আমি প্রচারণায় ব্যস্ত তাই সঠিক জানি না। তবে আমরাই তো বলি সব ধরনের অস্রধারীদের গ্রেফতার করা হোক। শহরের মধ্যে যারা মাদক ব্যবসায়ী, যারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে পারে তাদের গ্রেফতার করা হোক। এটা সব প্রার্থীরই চাওয়া থাকে। উনি (তৈমূর) বলেন পরিবেশটা সুন্দর থাকুক, আমিও বলি পরিবেশটা সুন্দর থাকুক। আমি চাই এমন কোনো ঘটনা যেন না ঘটে যার কারণে সমস্যা সৃষ্টি হয়।

আমার নেতাকর্মীরা আমার সঙ্গে আছে, তার নেতাকর্মীরা তার সঙ্গে থেকেই ভোট চাচ্ছে। কোথায় কী হয়েছে আমার জানা নেই।

শামীম ওসমানের ব্যাপারে আইভী বলেন, আমি বলিনি তারা আমার সঙ্গে নেই। আমি সব সময় বলে এসেছি আমার সঙ্গে আমার জনতা আছে। আমার দল যেহেতু আমাকে নমিনেশন দিয়েছে তাহলে নিশ্চয়ই দল আমার পাশে আছে। দলের ভেতর থেকে কে আসবে কে আসবে না সেটা আমার দেখার বিষয় না, সেটা কেন্দ্রীয় নেতাদের দেখবেন।

 


আরও খবর



সার্জেন্ট মহুয়ার মামলায় কার দোষ তদন্ত করে ব্যবস্থা: ডিএমপি

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর বনানীতে সার্জেন্ট মহুয়া হাজংয়ের বাবা গাড়ি চাপায় পা হারানোর ঘটনায় কার দোষ তা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার হাফিজ আক্তার।

রবিবার (১৯ ডিসেম্বর) দুপুরে ডিএমপি'র মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

অতিরিক্ত কমিশনার হাফিজ আক্তার বলেন, পুলিশ সার্জেন্ট মহুয়া হাজংয়ের বিষয়টি আমিও জানি। এই ঘটনায় আমাদের গুলশান বিভাগের বনানী থানায় একটি মামলা হয়েছে, তদন্ত চলছে।

সার্জেন্ট মহুয়ার করা মামলায় আসামির নাম না দেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, নাম না দেওয়ার কারণ ঘটনা কী ঘটেছে সে বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কার দোষ সেটি খুঁজে বের করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিসিটিভি ফুটেজ ও মামলার বাদী তার অভিযোগে আসামির নাম উল্লেখ করার পরেও অজ্ঞাত আসামি হিসেবে মামলা নেওয়ার বিষয়ে একই প্রশ্নে জানতে চাইলে হাফিজ আক্তার বলেন, পুলিশ সার্জেন্ট মহুয়া আমাদেরই একজন সদস্য। তবে যেহেতু মামলা হয়েছে তাই সাধারণ মানুষ যেভাবে বিচার পান তার বিষয়টি সেভাবে দেখা হবে। তার মামলার বিষয়ে গুলশান বিভাগ কাজ করেছে।

পুলিশের পক্ষ থেকে মহুয়ার পাশে থাকবেন কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা তার পাশে অবশ্যই আছি। সে তো আমাদেরই লোক, তবে আইনের স্প্রিটে যা হয়, সেভাবেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আইনের চোখে যেটা হওয়ার সেটাই হবে।

গত ২ ডিসেম্বর রাজধানীর বনানীর চেয়ারম্যান বাড়ি সড়কে একটি দ্রুতগতির গাড়ির চাপায় আহত হন সার্জেন্ট মহুয়ার বাবা মনোরঞ্জন হাজং। তাকে উদ্ধার করে শ্যামলীর পঙ্গু হাসপাতালে নেওয়া হয়। গুরুতর অবস্থার কারণে অস্ত্রোপচার করে তার ডান পা কেটে ফেলতে হয়েছে। এরপর শাহবাগের বারডেম হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় তাকে।

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মনোরঞ্জন হাজং বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) অবসরপ্রাপ্ত হাবিলদার। তার মেয়ে মহুয়া হাজং ট্রাফিক সার্জেন্ট হিসেবে ডিএমপিতে কর্মরত। দুর্ঘটনার পর তিনি থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ প্রথমে মামলা নেয়নি। এমনকি ঘটনার পর পথচারীরা চাপা দেওয়া সেই গাড়ি ও চালকসহ অন্য যাত্রীদের আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিলেও তারা ছাড়া পেয়ে যায়।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়, দুর্ঘটনার সময় গাড়িতে চালকের আসনে ছিলেন বিচারপতি রেজাউল হাসানের ছেলে সাইফ হাসান। তার স্ত্রী অন্তরা সাইফ আর বন্ধু রোয়াদও গাড়িতে ছিলেন। দুর্ঘটনার পরই প্রভাবশালীদের চাপে গাড়ি ও এর যাত্রীদের ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় পুলিশ। একইসঙ্গে তারা মহুয়া হাজংয়ের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আপসের চেষ্টাও চালায়। কিন্তু মহুয়া হাজং মামলার বিষয়ে অটল থাকায় এবং গণমাধ্যমে এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়। আইনি ব্যবস্থা না নেওয়ায় অনেক পুলিশ কর্মকর্তাও ক্ষুব্ধ হন।

নিউজ ট্যাগ: ডিএমপি

আরও খবর



পরিস্থিতি খারাপ হলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হবে: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, করোনা পরিস্থিতি খারাপ হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে এই বিষয়ে কোনো গুজবে কান না দিতেও সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। রোববার (০৯ জানুয়ারি) দুপুরে সাভারের আশুলিয়ায় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির নবম সমাবর্তন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আজ কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সঙ্গে আমাদের বৈঠক আছে। শিক্ষার্থীদের করোনার টিকাদান কার্যক্রম জোরেশোরে চলছে। সবাইকে টিকার আওতায় নিয়ে এসে কিভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখা যায়, সেই চেষ্টাই করছি আমরা। তবে এটাও ঠিক যে, যদি মনে হয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখলে সংক্রমণ বাড়বে, তখন আমরা হয়তো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেব।

তিনি আরো বলেন, আমরা চেষ্টা করছি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সুরক্ষিত রেখে সংক্রমণ কিভাবে এড়াতে পারি। যারা বলছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাবে বা হয়ে যাচ্ছে তারা গুজব ছড়াচ্ছেন। সব সময়ই এমন গুজব ছড়ানো হয়। আপনারা গুজবে কান দিবেন না। যদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করতেই হয়, তখন আমরা ঘোষণা দিয়ে বন্ধ করে দেব। কিন্তু যতক্ষণ সে প্রয়োজন অনুভব না হবে, আমরা (শিক্ষা প্রতিষ্ঠান) বন্ধ করব না। আমরা চাই আমাদের শিক্ষার্থীরা স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমে ফিরে যাক।


আরও খবর

ফের অবরুদ্ধ শাবি ভিসি !

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




নৌকায় সিল মারতে গিয়ে প্রিজাইডিং অফিসার আটক

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ১০৬জন দেখেছেন

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে এক প্রিসাইডিং অফিসারকে আটক করেছে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট।

আটককৃত প্রিসাইডিং অফিসার এইচ এম কামরুজ্জামান। তিনি উপজেলার আব্দুল্লাহর হাট ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার প্রভাষক।

বুধবার (৫ জানুয়ারি) দুপুর পৌনে ৩টার দিকে উপজেলার ৬নং নাটেশ্বর ইউনিয়নের ৯নম্বর ওয়ার্ডের কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত নোয়াখালী পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম। তিনি আরও জানান, বুধবার দুপুর পৌনে ৩টার দিকে উপজেলার সোনাইমুড়ীর ৬নং নাটেশ্বর ইউনিয়নের ৯নম্বর ওয়ার্ডের প্রিজাইডিং অফিসার এইচ এম কামরুজ্জামানকে নৌকা প্রতীকে সিল মারার সময় এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট এ.কে.এম ফয়সাল তাকে হাতেনাতে আটক করে।

এসপি শহীদুল ইসলাম আরও জানান, বর্তমানে আটককৃত প্রিসাইডিং অফিসারকে ওই কেন্দ্রের কেন্দ্রের একটি কক্ষে রাখা হয়েছে।


আরও খবর

গাঁজাসহ ভোট কেন্দ্র থেকে এজেন্ট আটক

রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২




ভারতে ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও প্রতিদিন বাড়ছে

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতে বেড়েই চলেছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন এক লাখ ৫৯ হাজার ৬৩২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন তিন হাজার ৬২৩ জন। ইতোমধ্যে দেশের ২৭ রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে এ ধরন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৩২৭ জনের।

এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্ত হলেন তিন কোটি ৫৫ লাখ ২৮ হাজারের বেশি মানুষ। মৃত্যু হয়েছে চার লাখ ৮৩ হাজার ৭৯০ জনের। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন পাঁচ লাখ ৯০ হাজারের বেশি মানুষ।

দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪০ হাজারের বেশি মানুষ সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন তিন কোটি ৪৪ লাখ ৫৩ হাজারের বেশি মানুষ।

এদিকে ভারতে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও প্রতিদিন বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তদের মধ্যে তিন হাজার ৬২৩ জন নতুন এ ধরনে আক্রান্ত হয়েছেন। মহারাষ্ট্রে মিলেছে সবচেয়ে বেশি রোগী। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৯ জন। এর পর রয়েছে দিল্লি। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ৫১৩ জন।

তবে ইতিবাচক বিষয় হলো, ওমিক্রনে আক্রান্ত হাজারেরও বেশি মানুষ ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন বা তাদের স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

শনিবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল, গত ২৪ ঘণ্টায় ১ লাখ ৪১ হাজার ৯৮৬ জন করোনাক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয় ২৮৫ জনের। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ১ লাখ ১৭ হাজার ১০০ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল।


আরও খবর

আবুধাবিতে ড্রোন হামলায় তিনজন নিহত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




সোনার বাংলা গড়তে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সন্ত্রাস, মাদক, দুর্নীতি ও জঙ্গিবাদ নির্মূলের মাধ্যমে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) সংবিধান অনুযায়ী সংসদে বছরের প্রথম অধিবেশনে দেওয়া ভাষণে এ আহ্বান জানান তিনি।

মো. আবদুল হামিদ বলেন, সব ক্ষমতার উৎস জনগণ। জনপ্রতিনিধি হিসেবে জনস্বার্থকে সবকিছুর ঊর্ধ্বে স্থান দিতে হবে।

ভাষণে সরকারি দল ও বিরোধী দলের সব সংসদ সদস্যকে কার্যকর ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান তিনি।

রাষ্ট্রপতি বলেন, উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে গণতন্ত্র, আইনের শাসন এবং উন্নয়নের মতো মৌলিক প্রশ্নে দলমত, শ্রেণি ও পেশা নির্বিশেষে আপামর জনগণকে সম্মিলিত উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানাই।

তিনি আরও বলেন, সময়াবদ্ধ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করে প্রকল্প বাস্তবায়ন শতভাগ নিশ্চিত করতে হবে। সর্বোপরি সরকারি সব কার্যক্রমে জনগণের যথাযথ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। এছাড়া স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিমূলক সুশাসন প্রতিষ্ঠা করে গণতন্ত্রকে আরও কার্যকর করতে হবে।

ধর্মের নামে কোনো ষড়যন্ত্রকারী গোষ্ঠী যেন দেশের স্থিতিশীলতা নষ্ট করতে না পারে সে দিকে সজাগ দৃষ্টি রাখার আহবান জানান রাষ্ট্রপ্রধান।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সাহসী ও দূরদর্শী নেতৃত্বে আমরা এখন পর্যন্ত করোনা এবং এর অভিঘাত সফলভাবে মোকাবিলা করছি। তবে ওমিক্রন যাতে সংক্রমণ ছড়াতে না পারে সেজন্য সরকারকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

ভাষণে রাষ্ট্রপতি সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ তুলে ধরেন।


আরও খবর