Logo
শিরোনাম

ভাবির প্রেমে মশগুল হয়ে ৩ জনকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে জখম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রায় ৮ বছর আগে রাজধানীর কদমতলী থানাধীন শনির আখড়া এলাকায় একই রুমে থাকতেন রুহুল কুদ্দুস বাবু (৩৫) ও জাহাঙ্গীর আলম ওরফে পরান (৪২)। তখন পাশের ফ্ল্যাটের ভাবি মো. মাসুদ কিবরিয়ার স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তারের (৩৫) প্রতি গ্রেপ্তারকৃত পরানের কুদৃষ্টি পড়ে, ভাবী প্রেমের পড়ে যান তিনি। এতে বাধা দেয় তারই রুমমেট রুহুল কুদ্দুস বাবু। সেই বাধাকে কেন্দ্র করে মা-মেয়েসহ ৩ জনকে চাপাতি দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরতর জখম করে জাহাঙ্গীর আলম পরান।

আজ মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কারওয়ান বাজার র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক (সিও) অতিরিক্ত ডিআইজি মাহফুজুর রহমান।

র‌্যাব বলছে, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি শনির আখড়ায় একটি বাড়িতে ঢুকে রুহুল কুদ্দুস বাবু, মাসুদ কিবরিয়ার স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তার এবং তার মেয়ে মাহামুদা মেহেররিনকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে জখম করে পরান। এ ঘটনায় যাত্রাবাড়ী থানায় বাদী হয়ে মামলা করেন রুহুল কুদ্দুস বাবুর বড় বোন বিউটি বেগম।

গতকাল সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) নারায়ণগঞ্জের সিদ্দিরগঞ্জের সানারপাড়া এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব-১০।

র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক (সিও) অতিরিক্ত ডিআইজি মাহফুজুর রহমান বলেন, রাজধানীর শনির আখড়া এলাকায় ৭-৮ বছর আগে একই রুমে থাকতেন আহত রুহুল কুদ্দুস বাবু ও গ্রেপ্তার জাহাঙ্গীর আলম ওরফে পরান। তখন পাশের ফ্লাটের ভাবি মো. মাসুদ কিবরিয়ার স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তারের (৩৫) প্রতি গ্রেপ্তারকৃত পরানের কুদৃষ্টি পড়ে, এতে বাধা দেয় রুহুল কুদ্দুস বাবু।

তিনি বলেন, এ কারণে পরানকে ওই বাড়ি থেকে বের করে দেয় বাড়ির মালিক। এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে পরান বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে ইয়াসমিন আক্তার ও তার পরিবারকে ক্ষতি করার চেষ্টা করে। আবারও বাধা হয়ে দাড়ায় রুহুল কুদ্দুস বাবু। এর জের ধরে পরান গত রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে চাপাতিসহ বাবুর বাসায় যায়।

র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক বলেন, রুহুল কুদ্দুস বাবু দরজা খুলতেই পরান বাবুকে হত্যার উদ্দেশ্যে চাপাতি দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে বাবুর মুখে, কানে, চোখের উপরে, মাথায়, ঘাড়ে ও ডান হাতের তালুতে গুরুতর জখম করে। বাবুর আর্তচিৎকার শুনে ইয়াসমিন আক্তার ও তার মেয়ে মাহামুদা মেহেরিন বাবুকে বাঁচাতে এলে পরান প্রথমে মেয়ে মাহামুদাকে তার ডান হাতে ও পরে ইয়াসমিন আক্তারের মাথায় গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়।

Share

ধর্ষণের শিকার কিশোরীর আত্মহত্যা

মঙ্গলবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১




বিএনপির নেতারা ধান ভানতে শিবের গীত গেয়ে যাচ্ছেন : ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৩১জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, কর্মীদের রোষানল থেকে বাঁচতে এবং পদ-পদবি ধরে রাখতে বিএনপির কিছু কিছু ফরমায়েশি নেতা ধান ভানতে শিবের গীত গেয়ে যাচ্ছেন।

সেতুমন্ত্রী আজ শনিবার সকালে তাঁর সরকারি বাসভবনে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন।

দিনক্ষণ ঠিক করে সরকার পতনের ঘোষণা দেওয়া বিএনপির নতুন কোনো দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের অংশ কি না, সে জন্য জনগণকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সরকার পতনের সাইরেন বেজে গেছে বিএনপির নেতাদের এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থতার গ্লানি ঢাকতে বিএনপি নেতাদের এটি আত্মতুষ্টি লাভের অপচেষ্টা মাত্র। জনবিরোধী কর্মসূচির কারণে জনগণ বিএনপিকে অনেক আগেই লালকার্ড দেখিয়েছে বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের শেকড় মাটির অনেক গভীরে এবং বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার প্রতি জনমানুষের আস্থা ইস্পাত কঠিন উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, শেখ হাসিনা সরকার ঠুনকো কোনো জিনিস নয় যে, ধাক্কা লাগলেই পড়ে যাবে।

বিএনপির রাজনীতি বৈপরীত্যে ভরা জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের কোনো কোনো নেতার মস্তিষ্ক অপপ্রচার আর গুজব তৈরির উর্বর কারখানা।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকারের সবকিছুতেই অন্ধ সমালোচনা আর নেতিবাচকতা বিএনপির রাজনীতি। এ রাজনীতি থেকে বেরিয়ে না এলে জনগণই বিএনপিকে বিদায়ের সাইরেন বাজিয়ে দিবে।

নিউজ ট্যাগ: ওবায়দুল কাদের
Share

করোনা টিকা নিলেন শেখ রেহানা

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১




ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে বোলারদের দৃঢ়তায় ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৩৩জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মেহেদী হাসান মিরাজ, লিটন দাস ও মুশফিকুর রহিমের হাফসেঞ্চুরিতে প্রথম ইনিংস ২৯৬ রানে গুটিয়ে নিয়েছে বাংলাদেশ। ১১৩ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৪১ রান করে তৃতীয় দিন শেষ করে ওয়েস্ট ওয়েস্ট ইন্ডিজ।


আজ শনিবার দিনের শেষ দিকে ক্যারিবীয়দের তিন উইকেট তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। আগামীকাল রবিবার চতুর্থ দিন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দ্রুত থামাতে পারলেই বাংলাদেশের সুবিধা। তা না হলে বড় চ্যালেঞ্জের সামনে পড়তে হবে স্বাগতিকদের। দিন শেষে ১৫৪ রানে এগিয়ে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। অপরাজিত আছেন বোনার ও ওয়ারিকান। একটি করে উইকেট পেয়েছেন নাঈম হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম।

এর আগে প্রথম ইনিংসে ৪০৯ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বিপরীতে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই হতাশ করে বাংলাদেশ। গতকাল শুক্রবার চার উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। আজ সাবধানী শুরুর পর প্রথম সেশনে হতাশ করেন মুশফিকুর রহিম ও মোহাম্মদ মিঠুন। বড় ইনিংস গড়ার আশা জাগিয়ে দুজনেই প্রতিপক্ষকে উইকেট উপহার দিয়ে ফিরেছেন।

১৩৯ মিনিট ব্যাট করে ৮৬ বলে ১৫ রান করে ফেরেন মিঠুন। এর পর আউট হন মুশফিক। অবশ্য হাফসেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন মুশফিক। ৪৫তম ওভারে রাকিম কর্নওয়ালের বল মিডঅনে সিঙ্গেল নিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের ২২তম হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন মুশফিক।

দুই সেট ব্যাটসম্যানকে হারানোর পর প্রথম সেশনে ফলোঅন এড়ানো নিয়েই শঙ্কায় পড়েছিল বাংলাদেশ। শেষ পর্যন্ত লিটন ও মিরাজ জুটি এই শঙ্কা এড়ায়। এই জুটিতে আসে ১২৬ রান। ফলোঅন এড়ানোর পর ভালো ভাবেই আগাচ্ছিলেন দুজন। কিন্তু নিজেদের ধরে রাখতে পারলেন না। শেষ সেশনে ব্যাটিংয়ে নেমেই আউট হয়েছেন দুজন।

প্রথমে ১৩৩ বলে ৭১ রান করে বিদায় নেন লিটন। এরপর মিরাজের প্রতিরোধ ভাঙেন গ্যাব্রিয়েল। ১৪০ বলে সাত বাউন্ডারিতে ৫৭ রান করেন মিরাজ। লিটন-মিরাজ ফেরার পর বেশি দূর এগুতে পারেনি বাংলাদেশ।

গতকাল প্রথম ইনিংসে ব্যাট করে ৩৬ ওভার ব্যাট করে চার উইকেটে ১০৫ রান করেছিল বাংলাদেশ। ৩০৪ রানে পিছিয়ে থেকে আজ তৃতীয় দিন শুরু করে মুমিনুল হকের দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১ম ইনিংস: ৪০৯

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস : ৯৬.৫ ওভারে ২৯৬/১০ (তামিম ৪৪, সৌম্য ০, শান্ত ৪, মুমিনুল ২১, মুশফিক ৫৪, মিঠুন ১৫, লিটন ৭১, মিরাজ ৫৭, নাঈম ০, তাইজুল ১৩, রাহি ১; গ্যাব্রিয়েল ২১-৩-৭০-২, কর্নওয়াল ৩২-৮-৭৪-৫, জোসেফ ১৭.৫-৩-৬০-২, মায়ার্স ৮-২-১৫-০, ওয়ারিক্যান ১৩-২-৪৮-০, বোনার ৩-০-১৭-০, ব্র্যাথওয়েট ২-০-৭-০)।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২য় ইনিংস : ২১ ওভারে ৪১/৩ (ব্র্যাথওয়েট ৬, ক্যাম্পবেল ১৮, মোজলে ৭, বোনার ৮, ওয়ারিক্যান ২; তাইজুল ৭-১-১৩-১, মিরাজ ৪-০-১৪-১, নাঈম ১০-৩-১৪-১)।

Share

বিসিবি আমাকে ছাড়লে আইপিএলে খেলব: মোস্তাফিজ

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১




মানুষ প্রেমে পড়ার কারন কি?

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৬১জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রেম মানুষকে গড়ে, আবার ভাঙেও। প্রেমের উন্মাদনায় সাত সমুদ্র পাড়ি দেয় প্রেমিক, মৃত্যুর মতো কঠিন বিষয়কেও হার মানায় অনেক সময়। শুধু প্রেমের জন্যে ঘটেছে কত রক্তপাত-যুদ্ধ। ধ্বংস হয়েছে নগরী।

তাই মানুষ কেন প্রেমে পড়ে, এই প্রশ্ন উঁকি দিতে পারে অনেকের মনে? নারী ও পুরুষের পরস্পরের প্রতি আকর্ষণ থেকে আসে আসক্তি। আসক্তি থেকে আসে পূর্বরাগ। আর পূর্বরাগ হলো প্রেমের প্রস্তুতি। প্রেম হলো কামনা। একে অপরের প্রতি জেগে ওঠা দুর্নিবার বাসনাকে ভালোবাসা বলে। প্রেমে পড়েনি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া কঠিন।

বিজ্ঞানীদের দেয়া তথ্য অনুসারে, মানুষের মস্তিষ্কে সেরাটোনিন নামক একটি উপাদানের প্রভাবে নারী ও পুরুষের একে অপরের প্রতি স্বভাবজাত কামনা তৈরি হয়। তবে বিজ্ঞানীদের অন্য এক দল মনে করেন, কামনা জাগ্রত হয় সেক্স হরমোন টেস্টোসটেরন ও ইসট্রোজেনের মাধ্যমে। আকর্ষণ তৈরি হয় মস্তিষ্কের ডোপামিন ও নোরিপাইন এবং আসক্তি তৈরি হয় অক্সিটোসিন ও ভ্যাসোপ্রোসিনের মাধ্যমে।

নিঃসঙ্গতা দূর করতে

মানুষ একা থাকতে পারে না। চলার পথে প্রয়োজন হয় একজন সঙ্গীর। প্রেমের মাধ্যমে সঙ্গীর সঙ্গে খুনসুটির মধ্য দিয়ে মানুষ নিজের নিঃসঙ্গতা দূর করতে চায়। কারণ নিঃসঙ্গ অবস্থায় বড় একঘেয়ে লাগে। সেই কারণে অন্য মানুষের সংস্পর্শে এসে নিঃসঙ্গতা দূর করতে চায়।

অনুভূতি প্রকাশ করতে

মানুষ নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে চায় অন্যের কাছে। সেই কারণে অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করতে চায়। এতে ব্যক্তিগত ক্ষোভ, দুঃখ, কষ্ট ভুলে থাকা যায়। মানুষ নিজের ক্ষুদ্র গণ্ডির ভেতর না থেকে একটু বড় পরিসরে অনুভূতি প্রকাশ করতে চায়। প্রেমের মাধ্যমে মানুষ সহজেই অপর মানুষের কাছে অনুভূতি প্রকাশ করতে পারে।

নিজেকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে

নিজেকে একটু সুন্দরভাবে উপস্থাপনের জন্য মানুষ প্রেম করে থাকে। প্রেমে আকৃষ্ট করার জন্য পুরুষ নিজের চেহারায় একটু পরিবর্তন আনতে চায়। আর নারীও নিজেকে সাজায় পরিপাটি করে। কিছু সুন্দর মুহূর্ত কাটানোর জন্য তারা নিজেদের মধ্যে এই পরিবর্তন নিয়ে আসে।

সৃজনশীল চিন্তার জন্য

 অনেক মানুষ সৃজনশীল চিন্তা করার জন্য প্রেম করে থাকে। দেখা যায় নারী ও পুরুষ তাদের চিন্তার ক্ষেত্রে যোগসূত্র খুঁজে পেলে প্রেম করার সিদ্ধান্ত নেয়। একসঙ্গে দু’জন প্রকাশ করতে থাকে তাদের সৃজনশীল চিন্তাভাবনা। এতে পরস্পরের মধ্যে ভালোবাসা গভীর হয়।

সহানুভূতি লাভের জন্য

বিপদাপদের সময় পাশে থেকে কেউ সহানুভূতি দেবে এমন আশায়ও প্রেম করে থাকে অনেকে। চোখ দেখেই মনের কথা বুঝে নেয়ার নাম প্রেম। প্রেমের ভেতর একে অপরের প্রতি সহানুভূতি না থাকলে সেই প্রেম স্থায়ী হয় না। আর মানুষ অন্য মানুষের কাছ থেকে সবসময় সহানুভূতি পেতে চায়।

নিউজ ট্যাগ: প্রেম
Share

বিয়ের আগে সঙ্গীকে যেসব বিষয়ে বলা দরকার

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১

বয়স আটকে রাখার ৫ উপায়

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১




১৪ দিনের রিমান্ডে সু চি

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৬৭জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেছে মিয়ানমারের একটি আদালত। তার বিরুদ্ধে আমদানি ও রপ্তানি আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে মামলা করা হয়েছে। ওই মামলায় তার ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। বুধবার সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) এক মুখপাত্র এ তথ্য জানিয়েছেন।

এনএলডির প্রেস কর্মকর্তা কি তোয়ে বলেন, আমরা নির্ভরযোগ্য তথ্য পেয়েছি যে, দাখিনাথিরি আদালত আমদানি-রপ্তানি আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় পহেলা ফেব্রুয়ারি থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ড অং সান সু চির ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে।

তিনি জানান, সোমবারের অভ্যুত্থানের পর প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টকেও আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে জাতীয় বিপর্যয় ব্যবস্থাপনা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সোমবার মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। ২০২০ সালের ৮ নভেম্বরের নির্বাচনে ভোট জালিয়াতের অভিযোগ নিয়ে এনে ফল প্রত্যাখ্যান করেছিল সেনাবাহিনী। এ নিয়ে সরকারের সঙ্গে বিবাদের জের ধরে গত সপ্তাহেই অভ্যুত্থানের হুমকি দেওয়া হয়েছিল। নির্বাচনে বিজয়ী অং সান সু চিসহ তার দলের নেতাদের গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: অং সান সু চি
Share

মোদি সবচেয়ে বড় দাঙ্গাবাজ: মমতা

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১

তিন কারাগারে দাঙ্গায় ৬২ জন নিহত

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১

চিরকুট লিখে হোটেলে এমপির ‘আত্মহত্যা’

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১




৫ জনের গণধর্ষণের শিকার অভিনয়শিল্পী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মডেলিংয়ের কথা বলে গাজীপুর মহানগরীর কাশিমপুরের হাতিমারা এলাকায় এক অভিনয় শিল্পীকে ডেকে নিয়ে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে ৫ জনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় গাজীপুর মেট্রোপলিটন কাশিমপুর থানায় ওই তরুণী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার পরে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলম ও তার সহযোগী সুমন মিয়া, রাসেল তালুকদার, জহির উদ্দিন ও শাহাবুলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে গাজীপুরের আদালত গ্রেপ্তারকৃতদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

কাশিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবে খোদা জানান, গেলো ৩১ জানুয়ারি রাতে স্থানীয় জাহাঙ্গীর আলম ও তার সহযোগীরা ইউটিউব চ্যানেলে মডেলিংয়ের কথা বলে কাশিমপুর থানার সারদাগঞ্জ এলাকায় ডেকে নেন ওই অভিনয়শিল্পীকে।

পরে একটি ঘরে আটকে রেখে তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন অভিযুক্তরা। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওই নারী কাশিমপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করলে রাতেই পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: মডেলিং গণধর্ষণ
Share

ধর্ষণের শিকার কিশোরীর আত্মহত্যা

মঙ্গলবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১