Logo
শিরোনাম

ভারতে করোনায় আক্রান্ত ২ কোটি ছাড়ালো

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু হার বাড়ছে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৫৭ হাজার ২২৯ জন। এ নিয়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ‌্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২ কোটি ২ লাখ ৭৫ হাজার ৫৪৩ জনে।

আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ‌্য মতে, মঙ্গলবার (৪ মে) সকাল পর্যন্ত ভারতে মহামারি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ২ লাখ ২২ হাজার ৩৮৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন ৩ হাজার ৪৪৯ জন।  

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩০ জানুয়ারি ভারতে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ‌্য মতে, সংক্রমণের দিক থেকে বর্তমানে বিশ্বে ভারতের অবস্থান দ্বিতীয়। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ।


আরও খবর



দেশে অক্সিজেন নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১ | ৬৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অক্সিজেন নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, দেশে গ্যাস অক্সিজেনের অভাব নেই। শুধু করোনাকালে আমদানি করার প্রয়োজন হয়েছিল লিকুইড অক্সিজেন।

মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) রাজধানীর বিসিপিএস প্রাঙ্গণে সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা সারাবছর ভারত থেকে অক্সিজেন আমদানি করি না। এই করোনার সময় যখন সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী ছিল তখন প্রতিদিন আমরা আমদানি করেছি। কিন্তু গত চার পাঁচ দিন কোনও অক্সিজেন আসছে না, আমরা তো চলছি। আমাদের তো অক্সিজেনের অভাব নেই। আমরা তো শুধু লিকুইড অক্সিজেন দিয়ে কাজ করি না। সেন্ট্রাল অক্সিজেন লাইন তো নতুন হলো, এর আগেও হাসপাতালে অক্সিজেন ছিল। সেগুলোর কিছু লিকুইড অক্সিজেন, আর বেশিরভাগই ছিল গ্যাস অক্সিজেন।

জাহিদ মালেক বলেন, বাংলাদেশে গ্যাস অক্সিজেনের অভাব নেই। এর প্রোডাকশন ক্যাপাসিটি অনেক। আমাদের লোকাল যারা লিকুইড অক্সিজেন তৈরি করে তাদের সব নিয়ে আমরা হাসপাতালে দেবো, যেখানে প্রয়োজন হবে। আমাদের অনেক শিল্পকারখানাতেও লিকুইড অক্সিজেন নেয়, সেটাও আমরা রিজার্ভ করে ফেলেছি, প্রায় ৪০ টনের মতো। আমরা আমদানি করতাম ৪০-৫০ টন।

তিনি বলেন, আমাদের হাসপাতালগুলোতে যেখানে গ্যাস অক্সিজেন ব্যবহার করার সুযোগ আছে সেখানে আমরা বলেছি, গ্যাসে কনভার্ট করে ফেলতে বলেছি। এখন গ্যাস দিয়ে চলতে বলেছি। তাতে আমাদের লিকুইড গ্যাসের প্রয়োজন পড়বে না। পাশাপাশি আমরা ছোট ছোট প্ল্যান্ট ইমপোর্ট করার ব্যবস্থা নিয়েছি। এটাও পর্যাপ্ত না, কারণ সবদেশেও তো প্রয়োজন। এরপরও আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি, এগুলো নিয়ে এসে হাসপাতালে স্ট্যান্ডবাই রাখবো। কিন্তু বর্তমানে যে পরিমাণ রোগী আছে আমরা হিসাব করে দেখেছি, এই মুহূর্তে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। রোগী যদি ৭ হাজারের জায়গায় ২১ হাজার হয় তাহলে কিন্তু সংকট হবে। শুধু এই দেশ না, যেকোনও দেশেই সংকট হবে।

এ সময় স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর

ঈদ মোবারক

শুক্রবার ১৪ মে ২০২১




৫০ হাজারেরও বেশি মানুষ পদ্মাপারের অপেক্ষায়

প্রকাশিত:বুধবার ১২ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে ঘরমুখো মানুষের জনস্রোত থামছেই না। গাড়ি রেখে ফেরিতে যাত্রী পারাপার করলেও ১৬টি ফেরি নিয়ে হিমশিম খাচ্ছে ঘাট কর্তৃপক্ষ। শিমুলিয়া ঘাট ও তার আশেপাশের এলাকায় অন্তত ৫০ হাজারেরও বেশি মানুষ পদ্মাপারের অপেক্ষায় প্রহর গুনছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শিমুলিয়া ঘাট থেকে মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি শেখ মো. শিমুল জানান, যখন কোন ফেরি ঘাটে আসছে তখনই হুমড়ি খেয়ে পড়ছে যাত্রীরা। এতে ফেরিতে থাকা যানবাহন নামতে বিলম্ব হচ্ছে। বিঘ্ন হচ্ছে মানুষ পারাপার। গতকাল ঘাট ফাঁকা থাকলেও আজ (বুধবার) সকাল থেকেই হুমড়ি খেয়ে পড়ছে যাত্রীরা। বেলা যত বাড়ছে যাত্রীর চাপ তত বেড়েই চলছে।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) ফয়সাল আহম্মেদ আরটিভি নিউজকে বলেন, এ মুহূর্তে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে ১৬টি ফেরি চলছে। পারাপারের জন্য ঘাটে এখনও প্রায় ৫০-৬০ হাজার যাত্রী অবস্থান করছেন। লঞ্চ ও স্পিডবোটের মাধ্যমে পারাপারের ব্যবস্থা না থাকায় ফেরিতে যাত্রী বহনে বেগ পেতে হচ্ছে।


আরও খবর



বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ কোটি ৭৫ লাখ ছাড়ালো

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৩৪ লাখ ১৮ হাজার ৮২৬ জন আর

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই কমছে না। সবশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ কোটি ৭৫ লাখ ৩০ হাজার ৭২৯ জন। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩২ লাখ ৮৩ হাজার ৭০৮ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ১৩ কোটি ৪৯ লাখ ৫৪ হাজার ৯৪৭ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে শনিবার (৮ মে) সকালে এই তথ্য জানা গেছে।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৩৪ লাখ ১৮ হাজার ৮২৬ জন আর মারা গেছেন ৫ লাখ ৯৪ হাজার ৯১১ জন। করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ২ কোটি ১৮ লাখ ৮৬ হাজার ৬১১ জন এবং মারা গেছেন ২ লাখ ৩৮ হাজার ২৬৫ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৫০ লাখ ৮৭ হাজার ৩৬০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ১৯ হাজার ৩৯৩ জনের। করোনাভাইরাস শনাক্তের তালিকায় চারে রয়েছে ইউরোপের দেশ ফ্রান্স। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৫৭ লাখ ৪৭ হাজার ২১৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছেন ১ লাখ ৬ হাজার ১০১ জন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।


আরও খবর



২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৫০ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১১ হাজার ৭৫৫ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ছাড়া দেশে নতুন করে আরও এক হাজার ৭৪২ জন আক্রান্ত হয়েছে। দেশে মোট সাত লাখ ৬৭ হাজার ৩৩৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে তিন হাজার ৪৩৩ জন। এ নিয়ে দেশে মোট ছয় লাখ ৯৮ হাজার ৪৬৫ জন করোনা থেকে সুস্থ হলেন।

আজ বুধবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৪২৭টি ল্যাবে ২০ হাজার ২৮৪ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ ছাড়া নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ২০ হাজার ২১৭ টি। করোনা শনাক্তের হার ৮ দশমিক ৫৯ শতাংশ। মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫৩ শতাংশ। সুস্থতার হার ৯১ দশমিক ০২ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় নতুন ৫০ জন মৃত্যুবরণকারীর মধ্যে পুরুষ ৩২ জন ও নারী ১৮ জন। এ পর্যন্ত পুরুষ মৃত্যুবরণ করেছেন আট হাজার ৫৪৪ জন ও নারী তিন হাজার ২১১ জন।

এ ছাড়া মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুইজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে পাঁচজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৩ জন ও ষাটোর্ধ্ব ৩০ জন রয়েছেন।

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ২৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ১৬ জন, রাজশাহী বিভাগে একজন, খুলনা বিভাগে তিনজন,  সিলেট বিভাগে দুইজন । সরকারি হাসপাতালে ৩৫ জন ও বেসরকারি হাসপাতালে ১২ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এ ছাড়া বাসায় মৃত্যুবরণ করেছেন তিনজন।

দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। ওই বছরের ১৮ জুন তিন হাজার ৮০৩ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার মধ্যে দিয়ে লাখ ছাড়িয়েছিল করোনার রোগী। সেদিন পর্যন্ত মোট শনাক্ত ছিল এক লাখ দুই হাজার ২৯২ জন। এ ছাড়া দেশে করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে গত বছরের ১৮ মার্চ।


আরও খবর



গ্রেপ্তারের পর ডিএমপি কার্যালয়ে মামুনুল

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
ঢাকার মোহাম্মদপুরের কাদিরাবাদ হাউজিংয়ের নিজ বাসায় না গিয়ে তিনি পাশেই জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসায় যান মামুনুল হক। সেখানেই অবস্থান করছিলেন। তার বিরুদ্ধে রাজধানীর পল্টন ও নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরীর সেক্রেটারি মামুনুল হককে গ্রেপ্তারের পর ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনারের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এর আগে রাজধানীর মোহাম্মাদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া মাদ্রাসা থেকে দুপুর ১২টার দিকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের উপ কমিশনার হারুন অর রশীদ।

এর আগে গত ৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানাধীন রয়েল রিসোর্টে নারী সঙ্গীসহ স্থানীয় লোকজনের হাতে আটক হওয়ার পর ছাড়া পেয়ে রাতেই ঢাকায় চলে আসেন তিনি।

ঢাকার মোহাম্মদপুরের কাদিরাবাদ হাউজিংয়ের নিজ বাসায় না গিয়ে তিনি পাশেই জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসায় যান মামুনুল হক। সেখানেই অবস্থান করছিলেন। তার বিরুদ্ধে রাজধানীর পল্টন ও নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানায় একাধিক মামলা হয়েছে। এ ছাড়া ২০১৩ সালের একাধিক মামলাতেও মামুনুল হক এজাহারভুক্ত আসামি।

মাদ্রাসা থেকে বের হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাকে গ্রেপ্তার করতে পারে এ কারণে। এ কারণে পাশেই নিজের বাসা হলেও তিনি সেখানে যাচ্ছেন না। মাদ্রাসার একটি কক্ষে অবস্থান করে মাঝে মধ্যে ফেসবুকে এসে বক্তব্য দিতেন তিনি।


আরও খবর

ঈদ মোবারক

শুক্রবার ১৪ মে ২০২১