Logo
শিরোনাম

যেসব শর্তে বিদেশিরা ওমরাহ পালন করতে পারবেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ১০০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনা মহামারির কারণে দুই বছর যাবত বিদেশিদের সৌদি গিয়ে হজ পালন বন্ধ রেখেছে। এমনকি ওমরাহ পালনও অধিকাংশ সময় বেশির ভাগ দেশের জন্য বন্ধ ছিল। এবার সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। আগামী ১ মহররম থেকে (১০ আগস্ট) থেকে করোনা টিকা নেওয়া বিদেশিরা সৌদি গিয়ে ওমরাহ পালন করতে পারবেন।

এদিকে করোনা সংক্রমণ রোধে বিশ্বের ৯টি দেশের যাতায়াত বন্ধ রেখেছে সৌদি। ভারত, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, মিসর, তুরস্ক, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, দক্ষিণ আফ্রিকা ও লেবাননএই ৯টি দেশ ছাড়া অন্য যেকোনো দেশ থেকে সরাসরি ফ্লাইটে সৌদি আরব যাওয়া যাবে। ওই ৯ দেশ থেকে যাত্রীদের তৃতীয় কোনো দেশে ১৪ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন পালন শেষে সৌদিতে ঢুকতে হবে।

জানা গেছে, ওমরাহ পালনের জন্য সৌদি আরবে যেতে আগ্রহীদের ফাইজার, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা বা জে অ্যান্ড জের কভিড টিকার পূর্ণ ডোজ সম্পন্ন করতে হবে। ১৮ বছর বা তার বেশি বয়সীরাই ওমরাহ পালনের জন্য সৌদিতে প্রবেশের সুযোগ পাবেন।

উল্লেখ্য, করোনা মহামারির কারণে সৌদি কর্তৃপক্ষ এত দিন বিদেশিদের সৌদি আরবে গিয়ে ওমরাহ পালনের অনুমতি দেয়নি। এমনকি হজের সময়ও বিদেশিরা হজের জন্য সৌদি আরবে যাওয়ার অনুমতি পায়নি।

সৌদির হজ ও ওমরাহবিষয়ক জাতীয় কমিটির সদস্য হানি আল-ওমাইরি আল আরাবিয়াকে বিশেষ সাক্ষাৎকারে বলেন, ওমরাহ পালনে বিদেশ থেকে আগতদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে করোনাভাইরাসসংক্রান্ত সব ধরনের সাবধানতা এবং নিয়ম-কানুন কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে।

এদিকে করোনা মহামারির মধ্যে টানা দ্বিতীয় বছরের মতো বিদেশিদের হজ পালন বন্ধ রেখেছে সৌদি আরব। এবার শুধু সৌদি নাগরিক এবং দেশটিতে বসবাসকারী প্রায় ৬০ হাজার লোক হজ পালনের সুযোগ পেয়েছেন।


আরও খবর

জন্মাষ্টমী আজ

সোমবার ৩০ আগস্ট ২০২১

পবিত্র আশুরা আজ

শুক্রবার ২০ আগস্ট ২০21




টিকা কার্যক্রম দেখে পহেলা অক্টোবর খুলবে ঢাবির হল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৯৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

টিকা কার্যক্রম দেখে আগামী পহেলা অক্টোবর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আবাসিক হল খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) প্রভোস্ট কমিটির সভা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীদের বড় একটি অংশ টিকা কার্যক্রমের আওতায় আসেনি। আমরা ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সবাইকে টিকা নেওয়ার আহ্বান জানাবো। তারপর পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে চতুর্থ বর্ষ ও মাস্টার্স পরীক্ষার্থীদের জন্য হল খুলে দেওয়া হবে। তাদের পরীক্ষা নিয়ে তারা চলে যাবে। এরপর মধ্য নভেম্বর থেকে অন্যান্য বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য খোলা হবে বিশ্ববিদ্যালয়।


আরও খবর

৫ অক্টোবর খুলছে ঢাবির হল

শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

অষ্টম ও নবম শ্রেণির ক্লাসও সপ্তাহে দুই দিন

বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১




পঞ্চগড়ে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭০জন দেখেছেন
Image

পঞ্চগড় প্রতিনিধি:

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় পুকুরের পানিতে ডুবে বাদশা (১৩) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বোদা উপজেলার পৌরসভাস্থ সর্দাপড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। জানা যায়, শিশু বাদশা একই এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুপুরে বাদশা বাড়ির পাশে একটি পুকুড়ে শাপলা ফুল দেখতে পেয়ে ফুল তোলার জন্য পুকুরের পানিতে নামে। সাঁতার না জানায় এসময় সে পানির গভীরে গিয়ে ডুবে যায়। এদিকে তার পরিবারের লোকজন তাকে দেখতে না পেয়ে অনেক খোঁজাখুজি করে। পরে বাড়ির পাশে ওই শিশুর মৃতদেহ পুকুরের পানিতে ভাসতে দেখে স্থানীয়রা।

বোদা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সাঈদ চৌধুরী ওই শিশুর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিউজ ট্যাগ: পঞ্চগড় মৃত্যু

আরও খবর



সব অনিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অননুমোদিত ও অনিবন্ধিত সব নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী সাত দিনের মধ্যে বিটিআরসি চেয়ারম্যান ও প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যানকে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন দুই রিটকারী আইনজীবী জারিন রহমান ও রাশিদা চৌধুরী নীলু।

এর আগে গত ৫ মে সংবেদনশীল সংবাদসহ যেকোনও খবর প্রকাশের ক্ষেত্রে সংবাদমাধ্যমগুলোর জন্য নৈতিক নীতিমালা’ প্রণয়ন চেয়ে সংশ্লিষ্টদের একটি আইনি নোটিস পাঠানো হয়। তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিটিআরসি চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যানকে এ নোটিস প্রেরণ করা হয়। তবে সে নোটিসের কোনও জবাব না পেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন আইনজীবী জারিন রহমান ও রাশিদা চৌধুরী নীলু।

রিট আবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি রাজধানীতে ২১ বছরের এক মেয়ের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় দণ্ডবিধি আইনের ৩০৬ ধারায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়। এ ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে দেশের সংবাদমাধ্যমগুলোর মধ্যে, বিশেষ করে বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টালে অগ্রহণযোগ্যভাবে নিউজ পরিবেশন করা হয়েছে। অথচ এসব সংবাদ পরিবেশনা বন্ধে বিটিআরসি কিংবা প্রেস কাউন্সিল কোনও উদ্যোগ গ্রহণ করেনি।

‘এমতাবস্থায় বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল কর্তৃক সংবাদ পরিবেশনের ক্ষেত্রে নৈতিক নীতিমালা প্রণয়ন জরুরি হয়ে উঠেছে। একইসঙ্গে দেশে অনিবন্ধিত নিউজ পোর্টালগুলো চালু থাকার পরও বিটিআরসি কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। তাই এসব পোর্টালের রেজিস্ট্রেশনও জরুরি।’

ওই রিটের শুনানি নিয়ে ন্যাশনাল অনলাইন মাস মিডিয়া পলিসি-২০১৭’ অনুযায়ী দেশে অননুমোদিত ও অরেজিস্ট্রিকৃত অনলাইন মিডিয়াগুলো কেন বন্ধ করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।


আরও খবর

১০টি দৈনিক পত্রিকার ঘোষণাপত্র বাতিল

মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১




মায়ের বুকের দুধে শিশুর যত উপকারিতা

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ডেলিভারি বা সিজারের পর বাচ্চাকে নিয়ে মায়েরা একটা স্বাভাবিক সমস্যা থাকে, যে বাচ্চা দুধ পাচ্ছে না। এ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছু পরামর্শ দিয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের স্ত্রী রোগ ও প্রসূতিবিদ্যা বিশেষজ্ঞ ডা. দীনা লায়লা হোসেন।

বাচ্চা জন্মের পর সাধারণত যে মেইন মিল্ক লেট ডাউন হয়, সেটা হচ্ছে বাচ্চার জন্মের তিনদিন পর। তাহলে প্রথম দিন এবং দ্বিতীয় দিন যে শাল দুধ পাওয়া যায় মায়ের, সেটাই বাচ্চার জন্য উপকারী। বাচ্চার যেটুকু পুষ্টির দরকার, এই শাল দুধ থেকে সে পরিমাণ পুষ্টি পাওয়া যায়। সুতরাং বাচ্চার জন্মের প্রথম দুই দিন সেই শাল দুধটাই বাচ্চাকে দিতে হবে।

শাল দুধটা পরিমাণে কম থাকে, তবে এটা ধবধবে সাদা থাকে না। সেজন্য মায়েরা একটু বিভ্রান্ত হন। এই দুধ বাচ্চার জন্য কতটা উপকারী হবে, বাচ্চার পেট ভরবে কিনা, এসব ব্যাপারে।

শিশু মায়ের গর্ভে যে সুন্দর পরিবেশে ছিল, সেই সুন্দর পরিবেশ থেকে যখন দুনিয়াতে আসে, তখন দুনিয়ার এইসব ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া সব কিছুর বিরুদ্ধে শিশুর শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে, মায়ের বুকের এই শাল দুধ।

তারপর বাচ্চার ইলেকট্রোলাইট দরকার হয়, পানির দরকার হয়, এসব কিছুই শাল দুধ থেকে পাওয়া যায়। এছাড়া বাচ্চার যে পরিমাণ গ্লুকোজ দরকার প্রোটিন দরকার সেটাও শাল দুধে থাকে।

সুতরাং দুধ আসছে না বলে যে সকল মায়েরা অস্থির হয়ে যায়, যে সকল মায়েরা নতুন মা হন তারা তো আসলে বুঝেন না। এক্ষেত্রে পরিবারের আত্মীয়স্বজনদের মধ্যে যারা বয়স্ক আছেন কিংবা যারা এই সময়টা পার করে এসেছেন তারা নতুন মায়েদের কাউন্সেলিং করবেন। তারা নতুন মায়েদের বোঝাবেন যে, প্রথমে যে দুধ আসে সেটাই বাচ্চার জন্য দরকার, এখান থেকেই বাচ্চা সব ধরনের পুষ্টি পাবে।

কারণ বাচ্চা এখন মাত্র দুনিয়াতে এসেছে, সে যে এখনই খুব বেশি খাবে তা তো নয়। এই বাচ্চার জন্য যতটুকু খাবার দরকার ততটুকু খাবারই আল্লাহ মায়ের কাছে দিয়েছেন। আল্লাহ যদি এর থেকে বেশি দিত এবং সেটা যদি বাচ্চা না খেত, তখন দেখা যেত যে মায়ের বুকে ব্যথা হতো, মায়ের কষ্ট হতো। সুতরাং বাচ্চার জন্মের প্রথম দুইদিন যতটুকু দুধ প্রয়োজন, ততটুকু দুধই বাচ্চার জন্য আসে। এটাই বাচ্চাকে খাওয়াতে হবে। এটা খাওয়ার পরে বাচ্চার যে পুষ্টির প্রয়োজন, তার সবটুকু পূরণ হয়।

তবে কিছু আছে এর থেকে আলাদা। এক্ষেত্রে যেসব মায়েদের আনকন্ট্রোলড ডায়াবেটিস থাকে, বাচ্চা অনেক বড় থাকে, সেক্ষেত্রে হয়তোবা আরেকটু বেশি পুষ্টির প্রয়োজন হতে পারে। সেক্ষেত্রে বাচ্চার ওজনের উপর ভিত্তি করে, বাচ্চার বাড়তি খাবারের প্রয়োজন রয়েছে। কিন্তু সেটা শতকরা খুব কমই হয়ে থাকে। যদি দরকার হয় সেক্ষেত্রে ডাক্তাররা পরামর্শ দিয়ে থাকেন। সাধারণত ডেলিভারির পর প্রথম দুই দিন যে শাল দুধ মায়ের থেকে পাওয়া যায় সেটাই বাচ্চার খাবার হিসেবে যথেষ্ট।

মায়ের দুধ পানের সময় বাচ্চা মায়ের নিপল বা বোটা চুষলে মায়ের শরীরে এক ধরণের সুখানুভূতি সৃষ্টি হয়। বাচ্চার এ স্টিমুলেশন বা সুখানুভূতি মায়ের মস্তিষ্কে যায়। ফলে মায়ের শরীর থেকে এক ধরনের হরমোন তৈরি হয়। যার নাম প্রোল্যাকটিন। প্রোল্যাকটিনের কাজ হলো মায়ের বুকে দুধ তৈরি করা। বাচ্চা যত বুকের দুধ টানবে তত মায়ের সুখানুভূতি তৈরি হবে, তত প্রোল্যাকটিন উৎপাদন হবে। ফলে মায়ের বুকের দুধের পরিমাণ বাড়বে।

বাচ্চা কান্নাকাটি করলে অনেকে মনে করেন বাচ্চা দুধ ঠিকমতো পাচ্ছে না। তখন বাচ্চাকে মায়ের দুধ না দিয়ে কৌটার দুধ দেন। মায়ের বুকের দুধ টেনে খেতে বাচ্চার কিন্তু কিছুটা পরিশ্রম করতে হয়। এতে বাচ্চার ভালো হয়। তার মাঢ়ি, চোয়াল গঠিত হয়। কৌটার দুধ দিলে বাচ্চার কষ্ট করতে হয় না। তাই সে এক সময় মায়ের দুধ টেনে খাওয়া বন্ধ করে দেয়। বাচ্চা না দুধ টানলে মায়ের সুখানুভূতি হয় না এবং হরমোন তৈরি হয় না। ফলে মায়ের বুকের দুধ উৎপাদন কমে যায়।

আরেকটা জিনিস আমার যেটা মনে হয় যে, মাকে খুব অস্থির করে রাখা হয়, বাচ্চাকে দুধ খাওয়াচ্ছে না, না খেতে পারলে বাচ্চার কি হবে, তখন নতুন মায়েরা খুব প্যানিক হয়ে যায়। এই জিনিসটা কিন্তু সম্পূর্ণ একটা সার্কেল বা রিদমের ব্যাপার।

বাচ্চা যখন মায়ের বুকে সাক করবে, সেখান থেকে রিফ্লেক্স যাবে ব্রেইনে, ব্রেইন থেকে হরমোন আসবে, দুধ তৈরি হবে এবং নিপল এর মাধ্যমে বাচ্চার কাছে যাবে। যখনই সেখানে হরমোন, নার্ভাল সিস্টেম সবকিছু ইনভলভ থাকে, তখন কিন্তু একটা মাকে পরিবারের সদস্যরা সাপোর্ট দিয়ে স্ট্রেস-ফ্রি রাখতে হবে। মাকে কোন স্ট্রেসের মধ্য দিয়ে যেতে দেয়া যাবে না।

এমনিতেই সে নতুন মা হয়েছে, জীবনের একটা নতুন পর্বে প্রবেশ করেছে। সবকিছুতে তার মানিয়ে নিতে অসুবিধা হবে। তার মধ্যে পরিবারের সদস্য, আত্মীয়-স্বজনরা যদি তাকে স্ট্রেস দিতে থাকে, তখন এই স্ট্রেসফুল কন্ডিশন নতুন মাকে অনেকখানি বাধা দেয়। এটা লাক্টেশন ফেইলিওরের অনেকখানি কারণ।

মায়েদের সাহস দিতে হবে এসময়। মা কে বোঝাতে হবে যে এই বিষয়গুলো স্বাভাবিক। যদি অস্বাভাবিক কিছু হয় তাহলে আমরা ডাক্তার, নার্স তাদের হেল্প নিয়ে ইনশাআল্লাহ এ বিষয়গুলো মোকাবেলা করা সম্ভব।



আরও খবর

আজকের ভালো মন্দ

রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

প্রথম প্রেম দিবস আজ

শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১




নারী সদস্য ছাড়াই আজ ঘোষণা করা হতে পারে তালেবান মন্ত্রিসভা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নতুন সরকার গঠনের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে তালেবান। আজ শুক্রবার জুমার নামাজের পর নতুন মন্ত্রিসভার ঘোষণা আসতে পারে বলে জানা গেছে। তালেবান নেতা আবদুল্লাহ মুত্তাকি এক টুইট বার্তায় জানান, প্রেসিডেন্ট ভবনে এ নিয়ে সব ধরনের প্রস্তুতি শেষ।

এর আগে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসিকে তালেবানের জ্যেষ্ঠ নেতা শের মুহাম্মদ আব্বাস স্তানিকজাই জানিয়েছিলেন, নতুন এই মন্ত্রিসভায় কোনো নারী স্থান পাবেন না। এ নিয়ে আফগান সংবাদ মাধ্যম টোলে নিউজের বরাত দিয়ে দ্য গর্ডিয়ান বলছে, নতুন এই সরকারের সর্বোচ্চ ক্ষমতায় থাকবেন তালেবান প্রধান হেবায়েত উল্লাহ্ আখুনজাদা। তার ডেপুটি থাকবেন তিনজন। তারা হলেন শীর্ষ নেতা মোল্লাহ্ আবদুল গনি বারাদার, প্রভাবশালী হাক্কানি নেটওয়ার্কের প্রধান সিরাজুদ্দিন হাক্কানি এবং প্রয়াত নেতা মোল্লা ওমরের ছেলে মৌলভী ইয়াকুব।

যদিও ইউরোপের নেতারা বলছেন, যতক্ষণ না পর্যন্ত তালেবান নেতারা মানবাধিকার নিশ্চিত করবে এবং একটি গ্রহণযোগ্য সরকার গঠন না করবে, তাদের স্বীকৃতি দেয়া হবে না শেষ।

এর আগে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসিকে তালেবানের জ্যেষ্ঠ নেতা শের মুহাম্মদ আব্বাস স্তানিকজাই জানিয়েছিলেন, নতুন এই মন্ত্রিসভায় কোনো নারী স্থান পাবেন না। এ নিয়ে আফগান সংবাদ মাধ্যম টোলে নিউজের বরাত দিয়ে দ্য গর্ডিয়ান বলছে, নতুন এই সরকারের সর্বোচ্চ ক্ষমতায় থাকবেন তালেবান প্রধান হেবায়েত উল্লাহ্ আখুনজাদা। তার ডেপুটি থাকবেন তিনজন। তারা হলেন শীর্ষ নেতা মোল্লাহ্ আবদুল গনি বারাদার, প্রভাবশালী হাক্কানি নেটওয়ার্কের প্রধান সিরাজুদ্দিন হাক্কানি এবং প্রয়াত নেতা মোল্লা ওমরের ছেলে মৌলভী ইয়াকুব।

যদিও ইউরোপের নেতারা বলছেন, যতক্ষণ না পর্যন্ত তালেবান নেতারা মানবাধিকার নিশ্চিত করবে এবং একটি গ্রহণযোগ্য সরকার গঠন না করবে, তাদের স্বীকৃতি দেয়া হবে না।


আরও খবর

আফগানিস্তানে আবারও বিস্ফোরণ, নিহত ৭

রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১