শিরোনাম

দুই জেলাকে করোনার রেড জোন ঘোষণা

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৭৪৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কোভিড-১৯ এর উর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যেই উচ্চ ঝুঁকি বিবেচনায় দেশের দুটি এলাকাকে রেড জোন ঘোষণা করা হয়েছে। সেই দুটি এলাকা হচ্ছে ঢাকা ও রাঙ্গামাটি জেলা। এছাড়া ৬ টি জেলাকে হলুদ জোন এবং ৫৪ টি জেলাকে গ্রিন ঘোষণা করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনা ড্যাশবোর্ড ওয়েবসাইট থেকে এ তথ্য জানা গেছে। মধ্যম ঝুঁকির হলুদ জোন হিসেবে যেসব জেলা ঘোষণা করা হয়েছে-সেগুলো হচ্ছে-রাজশাহী, নাটোর, রংপুর, যশোর, লালমনিরহাট ও দিনাজপুর।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ঢাকা ও রাঙ্গামাটিতে সংক্রমণের হার ১০ থেকে ১৯ শতাংশ। আর সংক্রমণের গ্রিন জোন বা ক্ষীণ ঝুঁকিতে আছে ৫৪ জেলা। অন্যদিকে পঞ্চগড় ও বান্দরবান জেলায় নমুনা পরীক্ষার হার খুবই কম হয়েছে। মধ্যম পর্যায়ের ঝুঁকিতে থাকা ৬ জেলায় করোনা সংক্রমণের হার ৫ শতাংশ থেকে ৯ শতাংশে অবস্থান করছে।

আর সংক্রমণের গ্রিন জোন বা ক্ষীণ ঝুঁকিতে আছে ৫৪ জেলা। অন্যদিকে পঞ্চগড় ও বান্দরবান জেলায় নমুনা পরীক্ষার হার খুবই কম হয়েছে বলে জানায় অধিদপ্তর। বাংলাদেশের করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে বিভিন্ন এলাকাকে রেড, ইয়েলো ও গ্রিন বা লাল, হলুদ ও সবুজ - এই তিন ভাগে ভাগ করে থাকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ওয়েবসাইটে।

এদিকে করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের কারণে আজ দেশে দেশে ১১ দফা বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে।  যাত্রীবাহী বাসে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।  সভা-সমাবেশ বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর

দেশে মোট ৫৫ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




বিশ্বকাপে খেলতে আজই প্রথম মাঠে নামছে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৩০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ডিফেন্ডিং বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হিসেবে অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে খেলতে আজই প্রথম মাঠে নামছে বাংলাদেশ। এরই মধ্যে টুর্নামেন্টের ১০টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়ে গেছে। ১১তম ম্যাচে এসে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী ইংল্যান্ডের মোকাবেলা করবে রাকিবুল হাসানের দল।

শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্যে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসের ওয়ার্নার পার্কে ইংল্যান্ডের সঙ্গে টস করতে নেমে প্রথমেই জয় পেলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক রাকিবুল হাসান। টস জিতেই ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি।

গত বিশ্বকাপ বিজয়ী বাংলাদেশ দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন রাকিবুল। সেই অভিজ্ঞতার কারণে এবার তার নেতৃত্বেই বিশ্বকাপে খেলতে দল পাঠানো হলো ওয়েস্ট ইন্ডিজে।

 


আরও খবর

উন্মোচন করা হল ঢাকা দলের জার্সি

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




আমলাদের কর্তৃত্বের কারণে উন্নয়নের গতি থমকে যাচ্ছে : পরিকল্পনামন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অদ্ভুত ধরনের আমলাতান্ত্রিক কর্তৃত্ববাদ আছে। রাজনীতিকদের চেয়ে আমলাদের কর্তৃত্ববাদ বেশি। আমলাতান্ত্রিক কর্তৃত্ববাদের কারণে উন্নয়নের গতি থমকে যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার ডেভেলপমেন্ট জার্নালিস্ট ফোরাম অব বাংলাদেশের (ডিজেএফবি) সেমিনার, প্রকাশনা ও বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড বিতরণ অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এসব কথা বলেন। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, এ অঞ্চলে রাজনীতিকদের তুলনায় আমলারা অনেক বেশি কর্তৃত্ববাদী। আমাদের দেশেও আমলারা কর্তৃত্ববাদী। কেননা আমরা বিনিয়োগকারীদের জন্য ফুলের মালা আর দুধ নিয়ে বসে থাকি। তাদের আহ্বান জানাই দেশে এসে বিনিয়োগ করার জন্য।

কিন্তু তারা যখন বিমানবন্দরে নামেন তখন হয়রানির শিকার হন। তারা চান দ্রুত ইমিগ্রেশন, লাগেজ যাতে দ্রুত পায়। এসব কাজই এখানে অনেক দেরি হয়। এছাড়া বিনিয়োগ করতে গিয়ে আমলাতন্ত্রের মধ্যে পড়ে যান। এরকম উদাহরণ আরো আছে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী বিনিয়োগকারীদের বলেন আসুন, বিনিয়োগ করুন। কিন্তু বিনিয়োগকারীরা এসে আমলাতন্ত্রের কাছে মার খান।


আরও খবর



‘সংলাপে বিএনপির যোগ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত গণতন্ত্রের জন্য খারাপ খবর’

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি, রাষ্ট্রপতির সংলাপে বিএনপির আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত গণতন্ত্রের জন্য খারাপ খবর।

দলীয় সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের শুরুতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আনুষ্ঠানিকভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, মহামান্য রাষ্ট্রপতির সংলাপে আসবে না। এটা দেশের গণতন্ত্রের জন্য খারাপ খবর। তবে, গাধা যেমন পানি ঘোলা করে পানি খায়, বিএনপিও পানি ঘোলা করে নির্বাচনে আসবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, বিএনপির নির্বাচনে আসার উদ্দেশ্য হচ্ছে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করা। কারণ তারা জানে, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের উন্নয়ন অর্জনে জনগণের ভোটে বিএনপি জয়লাভ করতে পারবে না। তাদের উদ্দেশ্য নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করা, এটা হলো তাদের এজেন্ডা।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন করার বিষয়ে সংলাপে অনেক রাজনৈতিক দল প্রস্তাব দিয়েছে। এবারই আইনটা হতো। মহামারির কারণে সম্ভব হয়নি। এবার না হলে আগামীবার হবে। এবার সময় একেবারেই হাতে নেই। এ সময়ে আইন করার মতো পরিস্থিতি একেবারেই ছিল না। সার্চ কমিটি গঠন, যেটা এবার হচ্ছে, গতবারও হয়েছে। সেটাও আইনের বাইরে নয়, নিয়মের বাইরে নয়, সংবিধানের বাইরে নয়।

তিনি বলেন, গত দুই নির্বাচনে আমরা নারায়ণগঞ্জে জয়লাভ করেছি। এবারও জয়লাভের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। জনমতে সমর্থনের পাল্লা আমাদের প্রার্থীর দিকেই ভারী। আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাচ্ছি। দল করলে দলের সিদ্ধান্ত মানতে হবে। নিজেদের মধ্যে ছোটখাট ভুল বোঝাবুঝি থাকলে সেটা নিরসন করতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, মির্জা আজম, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ।


আরও খবর



কারাগারে মোবাইল ব্যবহার করেন সাত খুনের আসামি নূর হোসেন

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৮৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর কনডেম সেলে বসেই মোবাইল ব্যবহার করতেন নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলার ফাঁসির আসামির নূর হোসেন।

গত বুধবার (৫ জানুয়ারি) কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর কনডেম সেল থেকে তার ব্যবহৃত একটি মোবাইল ফোন জব্দ করে কারা কর্তৃপক্ষ।

গতকাল শুক্রবার ৭ জানুয়ারি কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর জেল সুপার আব্দুল জলিল আরটিভি নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, কনডেম সেলে নূর হোসেনসহ তিনজন বন্দি রয়েছেন। নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলার ফাঁসির আসামির সাবেক কাউন্সিলর নূর হোসেন। আমরা জানতে পারি, নূর হোসেন কনডেম সেলে বসে গোপনে ফোন ব্যবহার করছেন।

পরে তার কনডেম সেলে গত ৫ জানুয়ারি অভিযান চালানো হয়। সে সময় ওই কনডেম সেল থেকে একটি বাটন মোবাইল জব্দ করা হয়। সাত খুন মামলায় নূর হোসেন মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি। এছাড়াও তার নামে অস্ত্র ও চাঁদাবাজিসহ একাধিক মামলা বিচারাধীন। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের সাবেক কাউন্সিলর ছিলেন নূর হোসেন।

জেল সুপার আরও বলেন, কারাগারে মোবাইল ব্যবহারের অপরাধে তার নামে কারাবিধি আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। কিভাবে কারাগারের ভেতর মোবাইল আনা হয়েছে তা তদন্ত করা হচ্ছে।

২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের ফতুল্লার লামাপাড়া এলাকা থেকে নাসিকের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামসহ সাত জনকে অপহরণের তিনদিন পর তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম ও তার চার সহকর্মী হত্যার ঘটনায় তার স্ত্রী সেলিনা ইসলাম বিউটি বাদী হয়ে ফতুল্লা থানায় একটি এবং সিনিয়র আইনজীবী চন্দন সরকার ও তার গাড়ির চালক ইব্রাহিম হত্যার ঘটনায় জামাতা বিজয় কুমার পাল বাদী হয়ে একই থানায় আরেকটি মামলা দায়ের করেন।


আরও খবর



আজকের রাশিফল: আজ আপনার দিন কেমন যাবে ?

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নতুন বছর মানে নতুন স্বপ্ন, নতুন আশা। কেমন হতে যাচ্ছে নতুন বছর, তা ভেবে টেনশন হচ্ছে খুব? হওয়ারই কথা। আপনার অর্জন ঠিক ততটুকুই হবে, যতটুকু আপনার কর্ম। ফলে সাফল্য, ব্যর্থতা, রোজগার, সম্পর্কপুরোটাই আপনার হাতের মুঠোয়।

২০২২ সাল বাংলাদেশের জন্য একটি অপার সম্ভাবনার বছর হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকতে পারে। নানারকম প্রাকৃতিক দুর্যোগ থাকা সত্ত্বেও কৃষিতে আমাদের সাফল্য প্রতিবেশী দেশগুলোর কাছে অনুকরণীয় হয়ে থাকবে। পাশাপাশি আর্থিক উন্নতির ক্ষেত্রেও চাকা সামনের দিকেই এগোবে; তবে কিছুটা মন্থর গতিতে! রাহুর অবস্থানগত কারণে দেশের রাজনৈতিক মঞ্চ কখনো কখনো অস্থির হয়ে উঠবে ঠিকই তবে তা কোনো বড় ধরনের পরিবর্তন ঘটাবে বলে মনে হয় না। রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে পারস্পরিক দোষারোপের সংস্কৃতির আগের মতোই বজায় থাকবে। পরাশক্তির সঙ্গে কৌশলগত আচরণ বিশ্ব রাজনীতিতে বাংলাদেশের অবস্থানকে আরও সুসংহত করবে। দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থায় কিছু বড় ধরনের চমক থাকলেও সার্বিক পরিস্থিতির তেমন একটা পরিবর্তন দেখা যাবে না। প্রায় দুই বছর শিক্ষা ক্ষেত্রে চরম অস্থিরতা বিরাজ করলেও এ বছর পরিস্থিতির উন্নতি ঘটবে। অনেক ছাত্র-ছাত্রীই এ বছর বিদেশে পড়ালেখার সুযোগ পাবেন। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে খুব একটা আশাবাদ ব্যক্ত করা যাচ্ছে না। সরকারের নিরলস প্রচেষ্টা থাকা সত্ত্বেও চুরি-ডাকাতি, ছিনতাই, অপহরণ ইত্যাদি কখনো কখনো জনজীবনকে বিপর্যস্ত করে তুলতে পারে। পরকীয়া, ডিভোর্স, একাধিক বিয়ের প্রবণতা ইত্যাদি আশঙ্কাজনকভাবে বাড়তে পারে। এ বছর খেলাধুলায় বাংলাদেশ অনেকটাই এগিয়ে যাবে। একাধিক আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় দেশের মুখ উজ্জ্বল করবে তরুণ প্রতিযোগীরা। বর্তমানে ক্রিকেট নিয়ে যে সমালোচনা চলছে, তার উপযুক্ত জবাব দিতে সক্ষম হবে আমাদের ক্রিকেটারেরা। এ বছর আমাদের দেশের চলচ্চিত্র বিদেশের মাটিতে পুরস্কার জিততে পারে। নৃত্যকলা ও সংগীতেও এ দেশের শিল্পীরা বিদেশে সুনাম কুড়াতে সক্ষম হবেন। পোশাক শিল্প গত দুই বছরে যে পরিমাণ ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছিল, আর অনেকটাই এ বছর কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হবে। এ ছাড়া সার্বিক রপ্তানি বাণিজ্যে নতুন করে সুবাতাস বইতে শুরু করবে। দেশ একাধিকবার প্রাকৃতিক দুর্যোগের কবলে পড়তে পারে। বন্যা, সাইক্লোন, ভূমিকম্পএগুলোর আশঙ্কাকে একদম উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। তবে সরকারের ত্বরিত ব্যবস্থা গ্রহণের ফলে ক্ষয়ক্ষতি ঘটবে একদম ন্যূনতম পর্যায়ে। করোনা পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব না হলেও নতুন করে মারাত্মক আকার ধারণ করবে বলে মনে হয় না। সবকিছু মিলিয়েই এ বছর আমাদের সকলের জীবনে সম্ভাবনার নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হতে পারে। এটাই হোক আমাদের সবার প্রত্যাশা।

ব্যক্তিগত বর্ষফল-২০২২

মেষ (২১ মার্চ-২০ এপ্রিল)

সম্ভাবনার বছর।

কাজকর্ম, অর্থ, সম্পর্ক সবকিছুতেই ইতিবাচক শুভ ফলের যোগ আছে।

চাকরি প্রত্যাশীদের অনেকেরই এ বছর দুশ্চিন্তার অবসান হবে। ব্যবসায়িক পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি এ দুই মাস অত্যন্ত শুভ। শিক্ষা ক্ষেত্রে কারও কারও বৈদেশিক বৃত্তি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। প্রেমের ব্যাপারে আগ বাড়িয়ে কিছু করার দরকার নেই। বিদেশ যাত্রার ব্যাপারে একাধিক নতুন সুযোগ আসতে পারে কারও কারও। অর্থনৈতিক দিক স্থিতিশীল থাকার সম্ভাবনা বেশি।

বৃষ (২১ এপ্রিল-২১ মে)

অপ্রত্যাশিত সৌভাগ্যের বছর।

হঠাৎ কোনো সম্পত্তির মালিকানা আপনার কাছে চলে আসতে পারে। ব্যবসায় বছরের প্রথম তিন মাসে চমক থাকবে। পেশা পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে আপনার আর্থিক সমৃদ্ধি ঘটতে পারে। বছরের পুরোটাই পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় থাকবে। সন্তানের কৃতিত্বে অনেকের সামাজিক মর্যাদা বাড়ার সম্ভাবনা আছে। বন্ধু-বান্ধব কিংবা আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে পুরোনো বিরোধের নিষ্পত্তি হতে পারে অনেকের। আইনি বিষয়ে সতর্ক থাকবেন।

মিথুন (২২ মে-২১ জুন)

মিশ্রফলের বছর।

বছরের শুরু থেকেই একটু একটু করে হলেও পাওনা আদায় হবে। অংশীদারের খপ্পর থেকে বেরিয়ে এসে নিজেই ব্যবসা শুরু করুন। বছরের মাঝামাঝি চাকরিজীবীদের জন্য শুভ সময়। এ বছর পড়ালেখা নিয়ে ছাত্র-ছাত্রীরা স্বস্তির নিশ্বাস ফেলতে সক্ষম হবেন। কারও কারও বছরের মাঝামাঝি সময়ে বিদেশে অধ্যয়নের বিষয়টি চূড়ান্ত হতে পারে। এ বছর আয়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ব্যয় বাড়তে পারে। প্রেমের ব্যাপারে সতর্ক হয়ে এগোন।

কর্কট (২২ জুন-২২ জুলাই)

রহস্যজনক বছর।

বছরের দ্বিতীয় ভাগে একাধিক ব্যবসায়িক পরিকল্পনা সফল হতে পারে। চাকরিতে হঠাৎ পদোন্নতি কিংবা অপ্রত্যাশিত সুবিধা আপনাকে কিছুটা অবাক করতে পারে। এ বছর জমি, অ্যাপার্টমেন্ট কিংবা অন্য কোনো স্থাবর সম্পত্তির মালিকানা পেতে পারেন। প্রেমের ব্যাপারে প্রতারণার ঘটনা ঘটতে পারে। এ বছর উপার্জনের নতুন উৎসের সন্ধান পাবেন অনেকেই। সৃজনশীল কাজের জন্য প্রশংসিত হবেন কেউ কেউ।

সিংহ (২৩ জুলাই-২৩ আগস্ট)

শুভ সম্ভাবনাময় বছর।

অতীতের ব্যর্থতা, আর্থিক ও মানসিক বিপর্যয় কাটিয়ে ঝকঝকে একটি বছর আপনার সামনে। নতুন ব্যবসায়ে হাত দিলে সাফল্য পাবেন। চাকরিজনিত দুশ্চিন্তায় বছরের শুরুতে নিষ্পত্তি হতে পারে। এ বছর শিক্ষার্থীদের অনেকেই বিদেশে পড়া লেখার সুযোগ পাবেন। দীর্ঘদিনের ঝুলে থাকা মামলা নিষ্পত্তি হতে পারে। তবে একাধিক প্রেমের আহ্বান আপনাকে কিছুটা বিভ্রান্তিতে ফেলতে পারে। অনেকেই এ বছর একাধিকবার বিদেশে ভ্রমণের সুযোগ পাবেন।

কন্যা (২৪ আগস্ট-২৩ সেপ্টেম্বর)

সার্বিকভাবে সুসংহত হওয়ার বছর।

ব্যবসায়ে অংশীদারের সঙ্গে বিরোধ নিষ্পত্তি হতে পারে। চাকরিতে যারা পরিবর্তন চাইছেন, তাঁদের জন্য বছরটি শুভ। এ বছর জমিসহ অস্থাবর সম্পত্তির মালিকানা পেতে পারেন। চাকরি প্রত্যাশীদের জন্য বছরের প্রথমার্ধ শুভ। প্রেমের ব্যাপারে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হলেও তা নিষ্পত্তি হতে বেশি সময় লাগবে না। এ বছর আয়ের নতুন উৎসের সন্ধান পেতে পারেন। রাজনৈতিক তৎপরতা শুভ।

তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর-২৩ অক্টোবর)

শুভ সম্ভাবনায় বছর।

ব্যবসায়ীদের মুখে হাসি ফুটবে। নতুন ব্যবসার জন্য বছরটি শুভ। চাকরিতে অনেকেরই আটকে থাকা পদোন্নতির বিষয়টি নিষ্পত্তি হবে। এ বছর অনেকেই জমি কিংবা অন্য কোনো অস্থাবর সম্পত্তির মালিকানা পাবেন। প্রেমিক-প্রেমিকার জন্য বছরটি অত্যন্ত শুভ। সম্ভাব্য ক্ষেত্রে বিয়ের কথাবার্তা পাকাপাকি হতে পারে। আর্থিক বিষয়ে বছরের আগাগোড়াই সৌভাগ্য আপনার সঙ্গে থাকবে।

বৃশ্চিক (২৪ অক্টোবর-২২ নভেম্বর)

সৌভাগ্যে পরিপূর্ণ বছর।

ব্যবসায়ে নতুন বিনিয়োগ শুভ। নতুন চাকরিতে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পাওয়ার পাশাপাশি আর্থিক দিক দিয়েও লাভবান হবেন। ছাত্র-ছাত্রীদের অনেকেই এ বছর বৈদেশিক বৃত্তি পেতে পারেন। বিভিন্ন পরীক্ষায় কেউ কেউ ভালো ফল অর্জনে সক্ষম হবেন। এ বছর একাধিকবার আইনি জটিলতায় পড়তে হলেও শেষ পর্যন্ত তা থেকে বেরিয়ে আসতে সক্ষম হবেন। প্রেমিক-প্রেমিকার জন্য বছরের আগা-গোড়াই সুসময় বিরাজ করবে।

ধনু (২৩ নভেম্বর-২১ ডিসেম্বর)

সৌভাগ্যময় বছর।

বছরের প্রথম তিন মাস নতুন ব্যবসা শুরুর জন্য শুভ সময়। এ বছর ছাত্র-ছাত্রীদের অনেকেই ভালো করবেন। চাকরিজনিত ঝামেলা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। পারিবারিক বিরোধের নিষ্পত্তি হতে পারে কারও কারও। এ বছর পাওনা টাকা আদায়ের ক্ষেত্রেও উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হবে। প্রেমের ব্যাপারে অতি উৎসাহী হবেন না। প্রতারণার ঘটনা ঘটতে পারে। সৃজনশীল কাজের জন্য সম্মাননা পেতে পারেন। 

মকর (২২ ডিসেম্বর-২০ জানুয়ারি)

স্মরণীয় বছর।

ব্যবসায়ীদের মুখে হাসি ফুটবে এ বছর। পারিবারিক দ্বন্দ্ব চরম আকার ধারণ করতে পারে। মাথা ঠান্ডা রেখে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনুন। চাকরিজনিত বিভিন্ন বিষয় বছরের প্রথম দিকেই নিষ্পত্তি হতে পারে। চাকরিপ্রত্যাশীদের অনেকেই এ বছর প্রত্যাশার চেয়েও ভালো চাকরি পেতে পারেন। হঠাৎ অর্থপ্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে এ রাশির মানুষদের। এ বছর একাধিক প্রেমের প্রস্তাব পেতে পারেন। বন্ধুবান্ধবের মাধ্যমে উপকৃত হবেন।

কুম্ভ (২১ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি)

সংগ্রাম ও সফলতার বছর।

আয়ের একাধিক নতুন উৎসের সন্ধান পেতে পারেন। ব্যবসায় উন্নতির জন্য সুযোগ কাজে না লাগালে একাধিক সুযোগ হাতছাড়া হতে পারে। চাকরিতে পরিবর্তন আপনার জন্য সুফল বয়ে আনতে পারে। শিক্ষার্থীদের অনেকেই ভালো ফলাফল অর্জন করবেন। কেউ বিদেশেও পড়ালেখার সুযোগ পাবেন। প্রেমে ভুল বোঝাবুঝি মাত্রা ছাড়িয়ে যেতে পারে। সতর্ক থাকবেন। আইনি সমস্যার সমাধান হতে পারে কারও কারও।

মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ)

সফলতার বছর।

একক কিংবা অংশীদারী যেকোনো ধরনের ব্যবসায় সাফল্য পাবেন। চাকরিতে পরিবর্তন সার্বিকভাবে সুফল বয়ে আনতে পারে কারও কারও। অনেকেই বছরের প্রথম ২-৩ মাসের মধ্যে নতুন কাজের সন্ধান পেতে পারেন। এ বছর একাধিক প্রেমের প্রস্তাব আপনাকে বিভ্রান্তিতে ফেলতে পারে। তবে সম্ভাব্য ক্ষেত্রে বিয়ের কথাবার্তা পাকাপাকি হতে পারে। শিক্ষার্থীদের কারও কারও জন্য শুভ সময় যাবে। এ বছর সার্বিকভাবে আপনার আয় বৃদ্ধি পাবে।

নিউজ ট্যাগ: আজকের রাশিফল

আরও খবর

মুখে স্বাদ ফেরাতে বানান মুরগির পুলি

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২

চাইনিজ সবজি রান্নার সহজ রেসিপি

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২