Logo
শিরোনাম

দুর্গাপূজা কেবল ধর্মীয় উৎসব নয়, সামাজিক উৎসবও: রাষ্ট্রপতি

প্রকাশিত:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ অক্টোবর ২০২১ | ১০৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
মানবতাই ধর্মের শাশ্বত বাণী। ধর্ম মানুষকে ন্যায় ও কল্যাণের পথে আহ্বান করে। অন্যায় ও অসত্য থেকে দূরে রাখে, দেখায় মুক্তির পথ। তাই ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলার পাশাপাশি আমাদের মানবতার কল্যাণে এগিয়ে আসতে হবে

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, বাঙালি হিন্দুদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। দুর্গাপূজার সঙ্গে মিশে আছে বাংলার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি। আবহমানকাল ধরে এ দেশের হিন্দু সম্প্রদায় বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা ও উৎসবমুখর পরিবেশে নানা উপচার ও অনুষ্ঠানাদির মাধ্যমে দুর্গাপূজা উদযাপন করে আসছে।

সোমবার (১১ অক্টোবর) হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা উপলক্ষে এক বাণীতে একথা বলেন তিনি।

হিন্দু ধর্মাবলম্বী সবাইকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বাঙালির চিরকালীন ঐতিহ্য। সম্মিলিতভাবে এ ঐতিহ্যকে এগিয়ে নিতে হবে আমাদের সামগ্রিক অগ্রযাত্রায়।

তিনি বলেন, দুর্গাপূজা কেবল ধর্মীয় উৎসব নয়, সামাজিক উৎসবও। দুর্গোৎসব উপলক্ষে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, পরিবার-পরিজন, পাড়া-প্রতিবেশী একত্রিত হন, মিলিত হন আনন্দ-উৎসবে। তাই এ উৎসব সার্বজনীন। এ সার্বজনীনতা প্রমাণ করে, ধর্ম যার যার, উৎসব সবার।

ধর্মীয় উৎসবের পাশাপাশি দুর্গাপূজা দেশের জনগণের মাঝে পারস্পরিক সহমর্মিতা ও ঐক্য সৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বলে উল্লেখ করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

তিনি বলেন, শারদীয় দুর্গোৎসব সত্য-সুন্দরের আলোকে ভাস্বর হয়ে উঠুক; ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার মধ্যে সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যের বন্ধন আরও সুসংহত হোক-এ কামনা করি।

রাষ্ট্রপতি বলেন, মানবতাই ধর্মের শাশ্বত বাণী। ধর্ম মানুষকে ন্যায় ও কল্যাণের পথে আহ্বান করে। অন্যায় ও অসত্য থেকে দূরে রাখে, দেখায় মুক্তির পথ। তাই ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলার পাশাপাশি আমাদের মানবতার কল্যাণে এগিয়ে আসতে হবে।

মহামারির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশসহ গোটা বিশ্ব আজ করোনাভাইরাসের সংক্রমণে চরমভাবে বিপর্যস্ত। করোনার প্রভাবে গোটা বিশ্বের অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়লেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সময়োচিত ও সাহসী পদক্ষেপের ফলে সরকার করোনার প্রভাব মোকাবিলা করে অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে।

দেশের সব নাগরিককে করোনা টিকার আওতায় আনার কার্যক্রম চলছে জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, আমি কঠিন এ সময়ে পরোপকারের মহান ব্রত নিয়ে মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য হিন্দু ধর্মাবলম্বী সবার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। আশা করি, সবাই যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শারদীয় দুর্গোৎসবে শামিল হবেন।


আরও খবর

শুভ প্রবারণা পূর্ণিমা আজ

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21

লক্ষ্মীপূজা আজ

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




ইউপি চেয়ারম্যানের মুক্তির দাবিতে পিরোজপুরে মানববন্ধন

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ অক্টোবর ২০২১ | ১৩৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
ঘন্টা ব্যাপী এ মানববন্ধনে নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান শেখ সিহাব হোসেনের মুক্তির দাবি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি করেন ইউনিয়নবাসী

পিরোজপুরের কদমতলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শেখ সিহাব হোসেনের মুক্তির দাবি ও বানোয়াট ভিত্তিহীন, উদ্দেশ্য প্রনোদিত হয়ে স্থানীয় সংবাদপত্র গ্রামের সমাজে সংবাদ প্রকাশের বিরুদ্ধে এলাকার জনগণ মানববন্ধন করেছে।

আজ সোমবার সকাল ১০টায় কদমতলার পিরোজপুর-নাজিরপুর সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টা ব্যাপী এ মানববন্ধনে নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান শেখ সিহাব হোসেনের মুক্তির দাবি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি করেন ইউনিয়নবাসী।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, মিথ্যা মামলা দিয়ে চেয়ারম্যানকে ফাঁসিয়েছে একটি চক্র। আর সে মামলায় তাকে জেল হাজতে পাঠিয়েছে আদালত। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে অচিরেই মুক্তি না দিলে অনশন কর্মসূচিসহ আরও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করবে তারা।

উল্লেখ্য, নির্বাচনকালীন রাজনৈতিক দ্বন্দে পার্শবর্তী টোনা ইউনিয়নের বাসিন্দা সাইদুলের মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন শেখ শিহাব হোসেন। সে সময় প্রতিদ্বন্দী চেয়ারম্যান প্রার্থী হানিফ খানের নেতৃত্বে তার উপর কয়েকবার সন্ত্রাসী হামলাও হয়। সে মামলা চলমান রয়েছে।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম চুন্নু, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য দিলীপ কুমার সমাদ্দার, বদিউজ্জামান খান, মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বাবুল, ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি এনায়েত শিকদার, ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আল মামুন প্রমূখ। মানব বন্ধন পরিচালনা করেন ইউপি সদস্য মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম। মানব বন্ধনে বিভিন্ন ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউপি সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজ ট্যাগ: পিরোজপুর

আরও খবর



হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টির সম্ভাবনা

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল অবস্থায় বিরাজ করায় দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে।

সেইসঙ্গে উত্তরাঞ্চলে বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

রোববার সকাল থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক স্থানে, ঢাকা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু'এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের উত্তরাঞ্চলের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারী বর্ষণ হতে পারে। পরবর্তী দুদিনে বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়েছে, বিহার ও এর কাছাকাছি  এলাকায় একটি লঘুচাপ অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বাড়তি অংশ রাজস্থান, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল, পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমী বাযু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল অবস্থায় বিরাজ করছে।

সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।



আরও খবর

বেগমগঞ্জে আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




বঙ্গবন্ধু টানেলের দ্বিতীয় চ্যানেল খুলে দেওয়া হবে শুক্রবার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৫ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ | ৮৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কর্ণফুলী নদীর নিচে সুড়ঙ্গপথ বঙ্গবন্ধু টানেলের দ্বিতীয় চ্যানেলের নির্মাণকাজ শেষ হবে শুক্রবার (৮ অক্টোবর)। ফলে এদিন খুলে দেওয়া হবে এর মুখ।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

তিনি বলেন, অন্যতম মেগা ও স্বপ্নের প্রকল্প বঙ্গবন্ধু টানেলের দ্বিতীয় চ্যানেলের মুখ শুক্রবার রাতে খুলে দেওয়া হবে। একটা চ্যানেলের মুখ আগেই খুলে দেওয়া হয়েছিল। শুক্রবার মধ্যরাতে দুটোর নির্মাণকাজই শেষ হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী আরও বলেন, আগামী বছরের ২২ ডিসেম্বর এটা চালুর কথা ছিল। কিন্তু এখন যা মনে হচ্ছে তারও আগেই এটা চালু করতে পারবো। এটা সবার জন্য আনন্দের ব্যাপার।

চট্টগ্রামের পতেঙ্গা থেকে কর্ণফুলী নদীর পানির স্তরের ৪৫ মিটার গভীর দিয়ে আনোয়ারায় সংযুক্ত হবে বঙ্গবন্ধু টানেল। চীনের অর্থায়নে ৩ দশমিক ৪৩ কিলোমিটার লম্বা এ টানেল নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ৭০৫ মিলিয়ন ডলার। জমি অধিগ্রহণ এবং প্রশাসনিক ব্যয় বহন করছে বাংলাদেশ সরকার।


আরও খবর



বিশ্ব ডাক দিবস আজ

প্রকাশিত:শনিবার ০৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আজ (৯ অক্টোবর) বিশ্ব ডাক দিবস। বিশ্ব ডাক দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য হলো ইনোভেট টু রিকভার তথা পুনরুদ্ধারে উদ্ভাবন। বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও দিনটি উদযাপিত হচ্ছে।

১৮৭৪ সালের ৯ অক্টোবর সুইজারল্যান্ডের বার্নে ২২ দেশের প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে গঠিত হয় আন্তর্জাতিক পোস্টাল ইউনিয়ন। দিনটি স্মরণীয় হিসেবে রাখতে সংগঠনের পক্ষ থেকে ১৯৬৯ সালে ৯ অক্টোবরকে বিশ্ব ডাক দিবস ঘোষণা করা হয়।

১৯৭৩ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ইউনিভার্সেল পোস্টাল ইউনিয়ন (ইউপিইউ) ও আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ ইউনিয়নের (আইটিইউ) সদস্যপদ অর্জন করে বাংলাদেশ। এরপর থেকে দেশে প্রতিবছর বিশ্ব ডাক দিবস পালিত হয়ে আসছে।

ইতিহাস বলছে, ১৮৪০ সালে প্রথম ডাকটিকিট ব্যবহার হয় ব্রিটেনে। এর একযুগ পরে ১৮৫২ সালে ভারতীয় উপমহাদেশে ডাকটিকিটের প্রথম ব্যবহার শুরু হয়।


আরও খবর



হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যুঝুঁকি ‘অর্ধেকে নামাতে পারে’ কোভিডবিরোধী ট্যাবলেট

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ | ৭৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনায় আক্রান্ত হয়ে অসুস্থদের জন্য তৈরি একটি ট্যাবলেটের পরীক্ষামূলক ব্যবহারে ব্যাপক সাফল্যের আভাস মিলেছে। মোলনুপিরাভির নামের ওই ট্যাবলেটের অন্তবর্তীকালীন ক্লিনিক্যাল পরীক্ষায় দেখা গেছে, এটি ব্যবহারে করোনায় আক্রান্তদের হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যুঝুঁকি অর্ধেকে নেমে আসছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এমনটি জানানো হয়েছে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে কোভিডে আক্রান্তদের দিনে দুবার করে ট্যাবলেটটি খাওয়ানো হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান মার্ক ট্যাবলেটটি তৈরি করেছে। তারা বলছে, মনিটরের বাইরে বাস্তবেই বেশ ইতিবাচক ফল পাওয়া গেছে। অথচ, শুরুর দিকে ওষুধটির ট্রায়াল বন্ধ করতে বলা হয়েছিল। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে জরুরি ব্যবহারের অনুমোদনের জন্য আবেদন করার কথা জানিয়েছে কোম্পানিটি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রধান চিকিৎসা বিষয়ক উপদেষ্টা ড. অ্যান্থনি ফসি বলেছেন, ফলাফলের ব্যাপারটি খুবই ভালো খবর।’” তবে, তিনি এসব তথ্যের বিষয়ে মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা-এফডিএর পর্যবেক্ষণের আগপর্যন্ত সতর্ক থাকার কথা বলেছেন।

প্রথম খাওয়ার ওষুধ

এফডিএ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাসহ (ডব্লিউএইচও) অন্যান্য নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠানগুলোর অনুমোদন পেলে এই মোলনুপিরাভির হতে যাচ্ছে কোভিড-১৯ ভাইরাসের বিরুদ্ধে মুখে সেবনযোগ্য প্রথম কোনো ওষুধ।

ট্রায়ালের ফল

মূলত ইনফ্লুয়েঞ্জার চিকিৎসার জন্য তৈরি ওষুধটিকে কোভিড ভাইরাসের জেনেটিক কোডের ভুলগুলোকে চিনিয়ে দেওয়া হয়েছে, যাতে করে শরীরে এটি ছড়িয়ে পড়তে না পারে।

৭৭৫ জন রোগীর তথ্যে যা পাওয়া গেছে

মোলনুপিরাভির খাওয়া রোগীদের ৭ দশমিক ৩ শতাংশকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে। কিন্তু, যাদের প্লাসবো (নিষ্ক্রিয় ওষুধ বিশেষ) ট্যাবলেট দেওয়া হয়েছে, তাদের মধ্যে ১৪ দশমিক ১ শতাংশকে হাসপাতালে নিতে হয়েছে।

মোলনুপিরাভির গ্রহণকারীদের কারও মৃত্যু হয়নি। তবে, প্লাসবো গ্রহণকারীদের আট জনের কোভিডে মৃত্যু হয়েছে। এসব তথ্য একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে প্রকাশ করেছে ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানিটি। তবে, এখনও বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পর্যবেক্ষণ-বিশ্লেষণ করা হয়নি।

টিকা তৈরির ক্ষেত্রে সাধারণত ভাইরাসের আবরণের স্পাইক প্রোটিনকে লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে এগোনো হয়। অন্যদিকে, এই ওষুধ একটি এনজাইমকে ধরে কাজ করে, যেন ভাইরাস নিজে আরও ভাইরাস উৎপাদন করতে না পারে।

অন্যান্য ভ্যারিয়্যান্টের বিরুদ্ধেও ট্যাবলেটের কার্যকারিতার ব্যাপারেও আশাবাদী ওষুধ কোম্পানিটি।

মার্ক-এর সংক্রমণ রোগ বিষয়ক আবিষ্কার বিভাগের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ডারিয়া হাজুডা বিবিসিকে বলেন, যারা এখনও টিকা নেয়নি, অথবা টিকা নেওয়ার পরেও যাদের শরীরে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা ততটা তৈরি হচ্ছে না, তাদের জন্য এই ভাইরাসবিরোধী ওষুধের চিকিৎসা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। মহামারি দূর করতে সাহায্য করতে পারে এই মোলনুপিরাভির।

ট্রায়ালের ফলাফল বলছে, করোনা সংক্রমণের পর উপসর্গগুলো দেখা দিতে শুরু করলে প্রথম দিকেই মোলনুপিরাভির নিতে হবে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় এরই মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে, এমন রোগীর বেলায় মোলনুপিরাভির ট্যাবলেটের ট্রায়ালে ভাল ফলাফল না আসায় ওই ট্রায়াল বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ব্যবহারের অনুমোদন কবে?

কোভিড চিকিৎসায় ট্যাবলেটের ট্রায়ালের ফলাফল পাওয়া প্রথম কোম্পানি মার্ক। কিন্তু, কয়েকটি কোম্পানি করোনার চিকিৎসা নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের আরেক প্রতিষ্ঠান ফাইজার ভাইরাসবিরোধী পৃথক দুটি ট্যাবলেটের শেষ পর্যায়ের ট্রায়ালে রয়েছে। অপরদিকে, সুইজারল্যান্ডের কোম্পানি রোশ একই ধরনের ওষুধ তৈরিতে কাজ করছে।

২০২১ সালের শেষ নাগাদ এক কোটি রোগীর জন্য মোলনুপিরাভির উৎপাদন করতে পারবে বলে আশা প্রকাশ করেছে মার্ক।

এফডিএর অনুমোদন পেলে যুক্তরাষ্ট্র সরকার ১২০ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের মোলনুপিরাভির কিনতে সম্মত হয়েছে।

সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞ যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক পিটার হরবি বিবিসিকে বলেন, নিরাপদ, সাশ্রয়ী ও কার্যকর একটি ওষুধ কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ব্যাপক অগ্রগতি হিসেবে গণ্য হবে।

অধ্যাপক পিটার হরবি বলেন, গবেষণাগারে মোলনুপিরাভিরের ফল আশাব্যঞ্জক। কিন্তু আসল পরীক্ষা হচ্ছে, মানুষের কতটা কাজে লাগছে। প্রচুর ওষুধ এই পর্যায়ে এসে ব্যর্থ হয়। অন্তবর্তীকালীন ফলাফল ব্যাপকমাত্রায় আশাব্যঞ্জক।




আরও খবর

আরও ১৭৩ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

করোনায় মৃত্যু কমেছে, শনাক্ত বেড়েছে

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১