Logo
শিরোনাম

‘এক্সিকিউটিভ’ পদে চাকরি দেবে মেঘনা গ্রুপ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ। প্রতিষ্ঠানটিতে এক্সিকিউটিভ পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। 

পদের নাম:

এক্সিকিউটিভ ফরেইন ট্রেড।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা:

স্বীকৃত যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফাইনান্স/ অ্যাকাউন্টিং/ ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিষয়ে এমবিএ পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। পূর্ববর্তী কোনো কর্মক্ষেত্রে তিন বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। ইম্পোর্ট, এক্সপোর্ট, এলসি, ফরেইন ট্রেড সম্পর্কে অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। মাইক্রোসফট অফিসে অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

কর্মস্থল:

সারা দেশ (প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত)।

বেতন:

আলোচনা সাপেক্ষে।

আবেদন প্রক্রিয়া:

আগ্রহী প্রার্থীরা বিডিজবস অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ তারিখ:

২০ মে, ২০২২।

নিউজ ট্যাগ: চাকুরীর খবর

আরও খবর

পদ্মা ব্যাংকে চাকরির সুযোগ

শুক্রবার ১৩ মে ২০২২




রেলমন্ত্রীর সাময়িক পদত্যাগ চায় টিআইবি

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিনা টিকিটে রেল ভ্রমণের দায়ে মন্ত্রীর তিন আত্মীয়কে জরিমানা করায় সংশ্লিষ্ট টিকিট পরিদর্শককে (টিটিই) সাময়িক বরখাস্তের ঘটনায় রেলমন্ত্রী নরুল ইসলাম সুজনের পদ্যতাগের দাবি জানিয়েছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। শনিবার (৭ মে) সন্ধ্যায় গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানায় টিআইবি।

সংস্থার পরিচালক (আউটরিচ অ্যান্ড কমিউনিকেশন) শেখ মন্জুর-ই-আলম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, বিনা টিকিটে রেল ভ্রমণের দায়ে রেলমন্ত্রীর স্ত্রীর তিন আত্মীয়কে জরিমানা করায় সংশ্লিষ্ট টিকিট পরিদর্শককে (টিটিই) সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এটি একটি ন্যক্কারজনক দৃষ্টান্ত। এ ঘটনায় ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) গভীর উদ্বেগ ও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছে।

ন্যয়-নিষ্ঠভাবে দায়িত্ব পালনের কারণে পুরস্কৃত হওয়ার পরিবর্তে সংশ্লিষ্ট টিটিইকে তড়িৎ গতিতে বরখাস্তের সিদ্ধান্তে দেশবাসীর কাছে এ বার্তাটিই পরিষ্কার হয়েছে যে, ক্ষমতাবানরাই শুধু নয় বরং তার/তাদের প্রভাব বলয়ের মধ্যে থাকা আত্মীয় পরিজনদের জন্যও আইন প্রযোজ্য নয়। বরং অনিয়মের কাছে মাথানত করাই, রুটিরুজি টিকিয়ে রাখার অন্যতম উপায় বলে মন্তব্য করছে টিআইবি।

একইসঙ্গে ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের স্বার্থে নৈতিক অবস্থান থেকে রেলমন্ত্রীকে সাময়িক সময়ের জন্য পদত্যাগের আহ্বান জানাচ্ছে সংস্থাটি।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের সূত্রধরে শনিবার এক বিবৃতিতে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ঘটনাটি ক্ষমতার অপব্যবহারের একটি নির্লজ্জ ও নিকৃষ্টতম উদাহরণ। এখানে মূলত দুভাবে ক্ষমতার অপব্যবহারের ঘটনা ঘটেছে।

প্রথমত, রেলমন্ত্রীর নিকটাত্মীয়দের বিনা টিকেটে রেল ভ্রমণ অর্থাৎ তারা ধরেই নিয়েছিলেন যে, রেলের প্রচলিত আইন তাদের জন্য প্রযোজ্য নয়!

এ ছাড়া, এ নিকৃষ্টতম দৃষ্টান্ত এখনও গুটিকয়েক যারা নিষ্ঠা ও সততার সঙ্গে স্ব স্ব ক্ষেত্রে দায়িত্ব পালন করছেন তাদের জন্য একটি শক্তিশালী নেতিবাচক বার্তা হিসেবে বিবেচিত হবে।

যদিও এ ঘটনায় রেলমন্ত্রী নিজের কোনো ধরনের সংশ্লিষ্টতা গণমাধ্যমের কাছে অস্বীকার করেছেন এবং তার আত্মীয় পরিচয়দানকারীদের চেনেন না বলে দাবি করেছেন। একই সঙ্গে রেল কর্তৃপক্ষ টিটিই বরখাস্তের জন্য যাত্রীদের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগকে সামনে নিয়ে এসেছে এবং যার সঙ্গে রেলমন্ত্রীও একমত হয়েছেন।


আরও খবর



রাজধানীতে দমকা হাওয়ার সাথে বৃষ্টি

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ এপ্রিল 20২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৭৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীসহ দেশের মধ্যাঞ্চলজুড়ে শুক্রবার সকাল থেকে খটখটে রোদের সাথে ভ্যাপসা গরমের অনুভূতি ছিল। তবে দুপুরের পর হঠাৎ করেই রাজধানীর আকাশ মেঘলা হতে শুরু করে, এরপর বিকেল সোয়া তিনটার পরে রাজধানীজুড়ে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। সেই সাথে দমকা হাওয়া।

আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ শাহিনুল ইসলাম বলেন, সন্ধ্যা পর্যন্ত বৃষ্টি থেমে থেমে চলতে পারে।

এর আগে বুধবার ভোর রাতে টানা কয়েকদিনের তাপপ্রবাহের পর প্রথম কালবৈশাখীর দেখা পান রাজধানীবাসী। তীব্র কালবৈশাখী ঝড় আর বৃষ্টিতে ভেসে যায় ঢাকার রাস্তাঘাট, অনেক এলাকায় পানি জমে যায়। তবে তীব্র গরমের পর এই বৃষ্টির কারণে কিছুটা স্বস্তি পায় সাধারণ মানুষ।

শাহিনুল ইসলাম আরো জানান, দেশের দক্ষিণাঞ্চল ছাড়া ঢাকাসহ প্রায় সব এলাকায় এখন কালবৈশাখীর তাণ্ডব চলছে। দক্ষিণাঞ্চলেও ঝড় শুরু হতে পারে আরো একটু পরে। তবে একেক এলাকায় একেক রকম গতিবেগে ঝড় হচ্ছে। কোথাও বাতাসের গতি বেশি আবার কোথাও বৃষ্টির ধারা বেশি। এই বৃষ্টি থেমে থেমে রাতেও কোথাও কোথাও হতে পারে বলে তিনি জানান।

এদিকে আবহাওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে প্রবল বিজলী চমকানোসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসাথে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।


আরও খবর



বিজয়ের কারণে ভেঙেছিল রাশমিকার বিয়ে?

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতীয় দক্ষিণী সিনেমার অন্যতম জনপ্রিয় জুটি রাশমিকা মান্দানা ও বিজয় দেবরকোন্ডা। গীতা গোবিন্দম, ডিয়ার কমরেড সিনেমায় তাদের রসায়ন দর্শকদের মুগ্ধ করেছে। শুধু সিনেমার স্ক্রিনে নয়, ব্যক্তিগত জীবনেও দুজনের মধ্যেকার সম্পর্ক বহুল চর্চিত। বিজয় দেবরকোন্ডার সঙ্গে রাশমিকার প্রেমের গুঞ্জন অনেকবার চাউর হয়েছে। একসঙ্গে সময় কাটাতেও দেখা গেছে এ জুটিকে। তবে তাদের দাবি—‘আমরা দুজন খুব ভালো বন্ধু।

২০১৭ সালে কন্নড় সিনেমার নির্মাতা-অভিনেতা রক্ষিত শেঠির সঙ্গে বাগদান সম্পন্ন হয়েছিল রাশমিকা মান্দানার। বাগদানের পরও ভেঙে যায় রাশমিকার এই বিয়ে। কিন্তু এই বিয়ে কেন ভেঙেছিল? ভারতীয় কিছু সংবাদমাধ্যমের দাবিবিজয়ের কারণে ভেঙে গিয়েছিল রাশমিকার এই বিয়ে।

ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ বিষয়ে কথা বলেন রাশমিকা। এ অভিনেত্রী বলেন—‘রক্ষিতের সঙ্গে ব্রেকআপের ধকল কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করছিলাম। ওই সময়ে আমার কারো যত্ন প্রয়োজন ছিল; যা বিজয় দেবরকোন্ডার কাছ থেকে পেয়েছিলাম। আমি আমার আবেগের সঙ্গে সংগ্রাম করছিলাম, বিজয় আমাকে সাহস জুগিয়েছে, বুঝিয়েছেএর বাইরেও একটি দুনিয়া রয়েছে।

বিজয়-রাশমিকা অভিনীত জনপ্রিয় সিনেমা ডিয়ার কমরেড। ২০১৯ সালে মুক্তি পায় এটি। এ সিনেমার প্রচারের সময়ে রাশমিকাকে পূর্বের প্রেমের সম্পর্কের বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়। এ সময় বিজয় প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে রাশমিকার পাশে দাঁড়ান এবং ওই সংবাদিককে তিরস্কার করেন। ওই সময় বিজয় বলেছিলেন—‘আমি ঠিক আপনার প্রশ্নটি বুঝতে পারছি না। আমি যেমন আপনার প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছি, তেমনি এই বিষয়ে কথা বলাও আপনার কাজ নয়।

রাশমিকা-বিজয়ের প্রেম-বিয়ে নিয়ে এখনো আলোচনা থেমে নেই। মাঝে মাঝেই ফিল্মপাড়ায় ভেসে বেড়ায় এ জুটির সম্পর্কের গুঞ্জন। যদিও তা অস্বীকার করে আসছেন এই জুটি।


আরও খবর



রাশিয়ার সঙ্গে শান্তি আলোচনা নিয়ে যে হুশিয়ারি দিলেন জেলেনস্কি

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইউক্রেনের মারিউপোলে যে বিশাল ইস্পাত কারখানাটি ইউক্রেনীয় সৈন্যদের প্রতিরোধের শেষ কেন্দ্র, সেখানে রুশ বাহিনী কোনো ইউক্রনীয় সৈন্যকে হত্যা করলে শান্তি আলোচনা বাতিল করে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

জেলেনস্কি বলেছেন খেরাসন শহরে স্বাধীনতার জন্য কোন গণভোটের আয়োজন করা হলেও তিনি একই পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন অর্থাৎ শান্তি আলোচনা থেকে সরে যাবেন।

কিয়েভ মেট্রোতে প্রায় তিন ঘণ্টার দীর্ঘ এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও জানান যে শান্তি আলোচনার স্বার্থে তিনি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে সাক্ষাত করতে আগ্রহী। এছাড়া ওডেসায় আবাসিক ভবনে রাশিয়ার হামলার বিষয়েও কথা বলেন তিনি। ওই হামলায় তিন মাসের একটি শিশুসহ আট জন নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।


আরও খবর



রানা প্লাজা: ৯ বছরেও মেলেনি ক্ষতিপূরণ, বিচার হয়নি রানার

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৭০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাভারের রানা প্লাজার ভবন ধ্বসের নয় বছর পেরিয়ে গেলেও এখনো আহত ও নিখোঁজ পরিবারের সদস্যদের কোনো ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়নি। এমনকি জোরপূর্বক কারখানায় প্রবেশ করিয়ে এতগুলো শ্রমিক হত্যা করা হলেও সোহেল রানার কোনো বিচার করা হয়নি।

শনিবার (২৩ এপ্রিল) বিকেলে ধসে পড়া রানা প্লাজার সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধনে এসব কথা বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিভিন্ন শ্রমিক নেতা, রানা প্লাজার আহত ও নিহতদের স্বজনেরা।

বাংলাদেশ গার্মেন্টস এন্ড শিল্প শ্রমিক ফেডারেশন ও রানা প্লাজা গার্মেন্টস শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। এতে বিভিন্ন শ্রমিক নেতার পাশাপাশি আহত রানা প্লাজার শ্রমিকরাও বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ গার্মেন্টস অ্যান্ড শিল্প শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি রফিকুল ইসলাম সুজন বলেন, নয় বছর হয়ে গেলেও এই ঘটনার মুল হোতা সোহেল রানার সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হয়নি। এখন পর্যন্ত হতাহত শ্রমিকদের দেওয়া হয়নি কোনো ক্ষতিপূরণ, করা হয়নি সু-চিকিৎসার ব্যবস্থা। সে কারণে তারা আজকে এই প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করেছে।

রানা প্লাজার জায়গা অধিগ্রহণ করে ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিক ও পরিবারের পুনর্বাসন এবং ২৪ এপ্রিলকে শোক দিবস ঘোষণা করার দাবি জানান তিনি। এ সময় তিনি আক্ষেপ করে বলেন, শুধুমাত্র রানা প্লাজা নয়, তাজরীন, স্পেকট্রামসহ এই পর্যন্ত বাংলাদেশের যে সকল গার্মেন্টসে হত্যাকাণ্ড ঘটেছে আজ পর্যন্ত কোনো বিচার হয়নি। তাই সোহেল রানাসহ সকল দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের জানাই।

সমাবেশে গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক খাইরুল ইসলাম মিন্টু বলেন, রানা প্লাজার ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের এখন পর্যন্ত বিচারের আওতায় আনা হয়নি। যখনই ২৪ এপ্রিল আসে বিচার নিয়ে কথা উঠে। কিন্তু বাকি বছর এ নিয়ে আর কোনো কথা হয় না। সরকার উদ্যোগ নিয়েছিল শ্রম আইন সংশোধনের মাধ্যমে কারখানাগুলো নিরাপদ করা হবে। এরপর অ্যাকোর্ড, অ্যালায়েন্স এসেছে তবে কারখানা নিরাপদ হয়নি।

এ সময় রানা প্লাজার আহত শ্রমিক নিলুফা তার বক্তব্যে ক্ষতিপূরণ ও সুচিকিৎসার দাবি জানানোর পাশাপাশি রানার সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান।


আরও খবর