Logo
শিরোনাম

কাল পবিত্র ঈদুল আজহা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মুসলিম উম্মাহর বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা আগামীকাল বুধবার। ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ত্যাগের মহিমায় ভাস্বর এই ঈদ। ইসলাম ধর্মালম্বীদের দ্বিতীয় বৃহত্তম এই ধর্মীয় উৎসব গত বছরের মতো এবারও অনেকটা ম্রিয়মান। ঈদের আমেজ নেই বললেই চলে। বৈশ্বিক করোনা মহামারিতে স্বজন হারানোর বেদনা এবং আতংকের আবহ বিরাজ করছে উৎসবে। গতবারের মতো এবারও একেবারে ভিন্ন মাত্রা ও আবহে পালিত হবে ঈদুল আজহা। করোনার ঘাত প্রতিঘাতে ঈদ পালনের অনুষঙ্গগুলোতে ইতোমধ্যে নিদারুণ ছন্দপতন ঘটেছে। কোরবানির পশুর বাজার থেকে শুরু করে ঈদের কেনাকাটা পর্যন্ত কোথাও উৎসব নেই।

এদিকে দেশবাসীকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়ে বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পৃথক বাণীতে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরীও ঈদুল আযহা উপলক্ষে নগরবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি বৈশ্বিক মহামারীর বিশেষ পরিস্থিতিতে ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে গিয়ে কোনভাবেই যেন নিজের ও পরিবারের বিপদ ডেকে না আনেন সেজন্য নগরবাসীর প্রতি যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি ও সুরক্ষা মেনে ঈদ উদ্‌যাপন করার আহ্বান জানিয়েছেন।

ঈদুল আজহা উপলক্ষে রাষ্ট্রীয়ভাবে সরকারি, আধাসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের ভবনগুলোতে আলোকসজ্জা করা হয়েছে। বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারসহ বেসরকারি টিভি চ্যানেলগুলো ঈদ উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা সমপ্রচার করবে। ঈদের দিন সরকারিভাবে হাসপাতাল, কারাগার, এতিমখানা ও শিশু সদনে উন্নত খাবার পরিবেশন করা হবে। চট্টগ্রামে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে জমিয়তুল ফালাহ জাতীয় মসজিদে। এখানে সকাল ৭টায় প্রথম জামাত এবং সকাল ৮টায় দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে। নগরীর আন্দরকিল্লাহ শাহী জামে মসজিদেও সকাল ৭টা ও ৮টায় দুইটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া নগরীর অন্যান্য মসজিদগুলোতেও এলাকাভিত্তিক সিদ্ধান্তের উপর ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ঈদের জামাতসহ নগরীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে র‌্যাব ও পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বিশেষ এ্যাকশন প্ল্যান তৈরি করেছে।

উল্লেখ্য ঈদুল আজহা হজরত ইব্রাহিম (আ.) ও তাঁর পুত্র হজরত ইসমাইল (আ.) এর সঙ্গে সম্পর্কিত। হজরত ইব্রাহিম (আ.) স্বপ্নে আদিষ্ট হয়ে নিজের অতি প্রিয় পুত্র ইসমাইলকে (আ.) আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য কোরবানি করতে নিয়ে গিয়েছিলেন। আল্লাহর পক্ষ থেকে এই আদেশ ছিল হজরত ইব্রাহিমের জন্য পরীক্ষা। তিনি পুত্র ইসমাইলকে (আ.) আল্লাহর নির্দেশে জবাই করার সব প্রস্তুতি নিয়ে সেই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। ইসলামে বর্ণিত আছে, নিজের চোখ বেঁধে পুত্র ইসমাইলকে ভেবে যখন জবেহ সম্পন্ন করেন তখন চোখ খুলে দেখেন ইসমাইলের পরিবর্তে একটি দুম্বা (পশু) কোরবানি হয়েছে। আল্লাহর পক্ষ থেকে গায়েবিভাবে এই দুম্বা দেয়া হয়েছিল। সেই ঐতিহাসিক ঘটনার স্মৃতি ধারণ করেই পশু জবাইয়ের মধ্য দিয়ে কোরবানির বিধান এসেছে ইসলামী শরিয়তে। প্রত্যেক সামর্থ্যবান মুসলমানের জন্য পশু কোরবানি করা ওয়াজিব।

সুরা হজ্জে বলা হয়েছে, এগুলোর (কোরবানির পশুর) গোশত ও রক্ত আল্লাহর কাছে পৌঁছায় না, কিন্তু তোমাদের তাকওয়া পৌঁছে যায়। আল্লাহর বান্দারা কে কতটুকু ত্যাগ ও খোদাভীতির পরিচয় দিতে প্রস্তুত এবং আল্লাহপাকের নির্দেশ পালন করেন তিনি তা-ই প্রত্যক্ষ করেন কেবল। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি সামর্থ্য থাকার পরও কোরবানি দিল না, সে যেন আমার ঈদগাহে না আসে (মুসনাদে আহমদ)। আল কোরআনের সুরা কাউসারে বলা হয়েছে, অতএব, তোমার পালনকর্তার উদ্দেশে নামাজ পড়ো এবং কোরবানি করো। সুরা হজ্জে আরো বলা হয়েছে, কোরবানি করার পশু মানুষের জন্য কল্যাণের নির্দেশনা।

জিলহজ মাসের ১০, ১১ ও ১২ তারিখের যে কোনো এক দিন কোরবানি করা যায়। কোরবানিকৃত পশুর তিন ভাগের এক ভাগ গরিব-মিসকিন, এক ভাগ আত্মীয়স্বজনের মধ্যে বিলিয়ে দেওয়ার বিধান আছে। আবার পুরোটাই বিলিয়ে দেওয়া যায়। এদিকে ৯ জিলহজ ফজরের নামাজের পর থেকে ১৩ জিলহজ আসর পর্যন্ত প্রত্যেক ফরজ নামাজের পর তাকবিরে তালবিয়াহ পাঠ করা ওয়াজিব। তালবিয়াহ হলো, আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার, লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার, ওয়ালিল্লাহিল হামদ।



আরও খবর

পবিত্র ঈদুল আজহা আজ

বুধবার ২১ জুলাই 20২১




অক্সিজেন সিলিন্ডার পাল্টাতে দেরি হওয়ায় ৬৩ রোগীর প্রাণহানি

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইন্দোনেশিয়ার একটি হাসপাতালে অক্সিজেন সংকটে ৬৩ জন কোভিড রোগী মারা গেছেন।  রবিবার ডক্টর সারদজিতো জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটেছে।

ভয়েস অব আমেরিকা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, অক্সিজেন সংকট কাটানোর জন্য হাসপাতালের কর্মীরা অক্সিজেন সিলিন্ডার বদলানোর চেষ্টা করেন। তবে তারা ৬৩ জন রোগীর জীবন বাঁচাতে ব্যর্থ হন।

এক বিবৃতিতে হাসপাতালের পরিচালক রুকমন সিস্বিশান্ত বলেন, হাসপাতালে ইয়গ্যাকারতা আঞ্চলিক পুলিশের দেয়া ১০০ সিলিন্ডারসহ আরও কিছু অক্সিজেন সিলিন্ডার বদলানোর চেষ্টা চলছিল। তবে শেষ পর্যন্ত দেরি হয়ে যায়।

সাম্প্রতিক সময়ে ইয়গ্যাকারতা শহরসহ ইন্দোনেশিয়া জুড়েই করোনা সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পেয়েছে। এ কারণে হাসপাতালগুলো জরুরি ভিত্তিতে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট এবং কোয়ারেন্টিন সেন্টার তৈরি করতে বাধ্য হচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

পরিসংখ্যান ভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস জানায়, ইন্দোনেশিয়ার সোমবার সকাল পর্যন্ত ২২ লাখ ৮৪ হাজার ৮৪ জনের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। মারা গেছে ৬০ হাজার ৫৮২ জন।


আরও খবর



খুলনায় করোনাভাইরাসে ১২ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৯ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৭৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

খুলনার তিন হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। খুলনার ১৩০ শয্যাবিশিষ্ট করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল, বেসরকারি গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তাদের মৃত্যু হয়। এর মধ্যে ১১ জন করোনা পজিটিভ ছিলেন। অপর একজন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

খুলনার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের মুখপাত্র ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, হাসপাতালটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় এই হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চারজন

অপরদিকে, খুলনা ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের চিকিৎসক ডা. কাজী রাশেদ জানান, হাসপাতালটিতে আরও তিনজন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তারা তিনজনই খুলনার বাসিন্দা। 


আরও খবর



আগামীকাল রাজধানীর যেসব এলাকায় থাকবে না গ্যাস

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৬০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের পাইপ লাইনের তিন জায়গায় বাল্ব প্রতিস্থাপনের জন্য এসব এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে

পাইপ লাইনের মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য আগামীকাল রবিবার (১৮ জুলাই) রাজধানীর বেশ কয়েকটি এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে তিতাস গ্যাস। 

তিতাস জানায়, রাজধানীর তেজকুনিপাড়া, তেজগাঁও রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন বটতলা মসজিদ এলাকা ও তেজগাঁও বিজ্ঞান কলেজ এলাকায় আবাসিক, সিএনজি, শিল্প, বাণিজ্যিকসহ সব শ্রেণির গ্রাহকদের জন্য গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

ওই দিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের পাইপ লাইনের তিন জায়গায় বাল্ব প্রতিস্থাপনের জন্য এসব এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

এদিকে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি অবনতির কারণে প্রতিষ্ঠানের সব ডিভিশন, বিভাগ ও শাখা প্রধানদের ঈদের ছুটি বাতিল করেছে তিতাস গ্যাস। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়মিত শিফট ডিউটি অপরিবর্তিত থাকবে বলে এক আদেশে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

নিউজ ট্যাগ: তিতাস গ্যাস

আরও খবর

মতিঝিলে গাড়ির গ্যারেজে আগুন

রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১




কানে ‘স্ট্যান্ডিং ওভেশন’ পেল বাংলাদেশের ‘মরিয়ম’

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় চলচ্চিত্র উৎসবগুলোতে প্রশংসা পাওয়া ভিনদেশি সিনেমার কথাই এতোদিন লিখতে হয়েছে বাংলাদেশি সংবাদকর্মীদের। কিন্তু এখন পাল্টাচ্ছে পরিস্থিতি।

পৃথিবীর অন্যতম প্রাচীন ও গৌরবময় চলচ্চিত্র উৎসব কানে প্রশংসিত হয়েছে বাংলাদেশের সিনেমা রেহানা মরিয়ম নূর। তরুণ নির্মাতা আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদের পরিচালনায় সিনেমাটি কানে প্রদর্শীত হওয়ার পর স্ট্যান্ডিং ওভেশন পেয়েছে।

কানের ডবসি থিয়েটারে বুধবার স্থানীয় সময় সকাল ১১টা ১৫ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় ৩টা ১৫ মিনিট) ছবিটির প্রদর্শনী শুরু হয়। প্রায় পৌনে ২ঘন্টা ব্যাপ্তীর এই সিনেমাটির শুরু থেকে শেষ অবধি হল ভর্তি দর্শক দেখেছেন পিনপতন নিরবতায়।

ছবিটি শেষ হওয়ার পর দর্শক দাঁড়িয়ে সম্মান প্রদর্শন করেন এবং হাত তালিতে মুখরিত করেন ডবসি থিয়েটার। এসময় সেখানে উপস্থিত রেহানা মরিয়ম নূর এর পুরো টিম আবেগে ভাসেন!

রেহানা মরিয়ম নূর প্রদর্শনী শেষে হল থেকে বেরিয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এমনটাই জানান ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করা আজমেরী হক।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বাঁধন বলেন, এটা শুধু রেহানা মরিয়ম নূর এর সাথে জড়িতদের একার সম্মান নয়, এটা আসলে আমাদের পুরো বাংলাদেশের সম্মান। আমরা দেশটাকে সাথে করে নিয়ে এসেছি।

বাঁধন বলেন, দীর্ঘ সময় ধরে দর্শক আমাদের স্ট্যান্ডিং ওভেশন দিয়েছে। সেই সাথে সবার হাত তালিতে মুখরিত ছিলো হল রুম। এটা অসাধারণ এক অনুভূতি, বলে বোঝাতে পারবো না।


আরও খবর



লকডাউন দেখতে রাস্তায় মানুষ, রাজধানীতে ৪০০’র বেশি আটক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ১১৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
জরুরি প্রয়োজনে যারা সড়কে বেরিয়েছেন তাদের মুখোমুখি হতে হচ্ছে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের। এই কঠোর লকডাউনের মধ্যেও যথাযথ কারণ ছাড়া ঘর থেকে বের হওয়ায় শতাধিক জনকে আটক

রাজধানীতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধিতে সরকারের বিধিনিষেধ অমান্য করে কেউ অপ্রয়োজনে, কেউ লকডাউন দেখতে রাস্তায় বের হয়ে আটক হয়েছেন।

পুলিশ বলছে, বিধিনিষেধ ভঙ্গ করায় রাজধানীতে ৪শর বেশি আটক। এরমধ্যে তেজগাঁও বিভাগের ১৬৭ জন, মিরপুরে ১০১ জন। এরা কেউ লকডাউন দেখতে বের হয়েব ছিল। কেউ বের হয়েছিল অপ্রয়োজনে। সন্তোষজনক জবাব দিতে না পারলে এদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালত আইনগত ব্যবস্থা নেবে। পাশাপাশি অর্ধশত যানবাহনকে মামলার আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে।

সকাল থেকে দুপুর সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত মিরপুর, গাবতলী, টেকনিক্যাল, শাহআলী, পল্লবী, মিরপুর, কাফরুলসহ পুরো পুলিশ শতাধিক জনকে আটকসহ অর্ধশতাধিক যানবাহনকে মামলা দেয়। মিরপুরে দুজন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে চলছে পুলিশের অভিযান।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মিরপুর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার আ স ম মাহতাব উদ্দিন বলেন, বৃহস্পতিবার সকাল ছয়টা থেকে শুরু হওয়া সরকারি বিধি নিষেধ পরিপালনে মাঠে কাজ করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

মিরপুরে সরেজমিনে দেখা যায়, পুলিশের পাশাপাশি কাজ করছে এলিট ফোর্স র‌্যাব। সরকার ঘোষিত সাতদিনের কঠোর এই লকডাউনের প্রথম দিন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সড়কে নেই অন্যান্য দিনের মতো অফিসমুখী মানুষের চাপ, নেই যানবাহনের ছুটে চলা, বন্ধ রয়েছে দোকানপাট।

মিরপুর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার আ স ম মাহতাব উদ্দিন জানান, মিরপুরের বিভিন্ন পয়েন্টে সকাল থেকেই দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ সদস্যরা। স্থাপন করা হয়েছে একাধিক চেকপোস্ট। এসব চেকপোস্টে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ এবং সংশ্লিষ্ট থানার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা যান চলাচল নিয়ন্ত্রণে কাজ করছেন।

তিনি বলেন, জরুরি প্রয়োজনে যারা সড়কে বেরিয়েছেন তাদের মুখোমুখি হতে হচ্ছে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের। এই কঠোর লকডাউনের মধ্যেও যথাযথ কারণ ছাড়া ঘর থেকে বের হওয়ায় শতাধিক জনকে আটক করা হয়েছে মিরপুরের বিভিন্ন স্থান থেকে। পাশাপাশি দুজন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে অর্ধশত যানবাহনকে মামলা আওতায় আনা হয়েছে।

আটকদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে পরবর্তি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী কঠোর লকডাউন চলাকারে মাঠে থাকবে সজাগ উপস্থিতিসহ মিরপুরে নিয়মিত টহল চেকপোস্ট পরিচালনা করবে পুলিশ।

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে সারাদেশে কঠোর লকডাউন শুরু হয়েছে। যা আগামী ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। এই সময়ে মানুষের সার্বিক কার্যাবলী ও চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।


আরও খবর