Logo
শিরোনাম

লাথি দিয়ে স্ট্যাম্প ভাঙলেন সাকিব, মারলেন আছাড়ও (ভিডিও)

প্রকাশিত:শুক্রবার ১১ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৫৭৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ হলেই মাঠ ও মাঠের বাইরে বাড়তি উত্তেজনা সব সময়ই দেখা যায়। তবে আজ এক ভিন্ন দৃশ্যের সাক্ষী হলো হোম অব ক্রিকেট খ্যাত মিরপুর স্টেডিয়াম। ম্যাচ চলাকালীন আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্ট হয়ে সরাসরি স্ট্যাম্পে লাথি মারেন সাকিব। এখানেই শেষ নয়, পরের ওভারে বল করতে আসেন শুভাগত হোম। ওভারের এক বল বাকি থাকতে বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধের ঘোষণা দেন আম্পায়ার। রাগ সামলাতে না পেরে স্ট্যাম্পগুলো তুলে আছার দেন সাকিব।

আজ শুক্রবার দুপুরে শের-ই বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে আবাহনী লিমিটেডের সঙ্গে মোহামেডানের ম্যাচ চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। তবে তাৎক্ষণিক এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি ম্যাচ রেফারি কিংবা সিসিডিএমের কোনো কর্মকর্তা।

ঘটনা ঘটে ম্যাচের পঞ্চম ওভারে। মুশফিকের বিপরীতে বল করতে আসেন সাকিব। তিন উইকেট হারিয়ে খাদে পড়া আবাহনীর ভরসা মুশফিক আর মোহামেডানের প্রয়োজন এই উইকেটটি। প্রথম বলে কোনো রান নিতে দেননি সাকিব। তবে তার পরের দুই বলে এক ছয় ও এক চারে দশ রান তুলে নেন মুশফিক। পরের দুই বলেও কোনো রান হয়নি।

ওভারের পঞ্চম বল স্ট্যাম্প বরাবর মুশফিকের পায়ে আঘাত করে, এতে লেগ বিফোরের আবেদন করেন সাকিব আল হাসান। তাতে সাড়া দেননি আম্পায়ার ইমরান পারভেজ রিপন। এতে রাগ ও ক্ষোভে স্ট্যাম্পে লাথি মারেন সাকিব। তাতে স্ট্যাম্প মাটিতে পড়ে যায়। পরের ওভারে বৃষ্টির কারণে শুভাগতকে শেষ বল করতে না দেওয়ায় আবারও ক্ষোভ প্রকাশ করেন সাকিব।

মিডঅফে ফিল্ডিং করছিলেন সাকিব। ওভারের মাত্র এক বল বাকি, কিন্তু মাঠকর্মীদের কাভার নিয়ে আসার ইশারা করেন আম্পায়ার। তাতে অসন্তোষ সাকিবের, দৌড়ে এসে স্টাম্প তুলে নিয়ে আছাড় মারেন। সামনে দাঁড়িয়ে ছিলেন আরেক আম্পায়ার মাহফুজুর রহমান। তার সঙ্গেও তর্কে লিপ্ত হন মোহামেডান অধিনায়ক। এক পর্যায়ে সতীর্থরা তাকে শান্ত করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।


আরও খবর



নতুন পরিচয়ে আসছেন তমা মির্জা

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নৃত্যশিল্পী হিসেবে মিডিয়ায় কাজ শুরু করেন অল্প বয়সে। পরে মডেলিং এবং অভিনয়ে এসে সফলতা পান তমা মির্জা। নাটক, সিনেমা, ওয়েব ফরমেটের কাজ নিয়ে দারুণ ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন এই অভিনেত্রী।

২০২০ সালের শেষদিকে অভিনয়ের পাশাপাশি প্রযোজক হিসেবে কাজ করার ঘোষণা দেন তিনি। তার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে একটি নাটক নির্মাণের জন্য জনপ্রিয় নির্মাতা তৌকীর আহমেদের সঙ্গে চুক্তি করেন তিনি। কিন্তু করোনাভাইরাসের বিড়ম্বনা এবং তৌকীর আহমেদের প্রবাসে চলে যাওয়ার কারণে তার পুরো প্রজেক্টটিই মুখথুবড়ে পড়ে। তবে আশার কথা হলো রোজার ঈদের পর তৌকীর আহমেদ ফিরছেন। তার ফেরার অল্প সময় পরেই নাটকটির নির্মাণ কাজ শুরু হচ্ছে। আর এতে তমা মির্জাও নতুন পরিচয়ে দর্শকের সামনে হাজির হচ্ছেন।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, প্রযোজনা করার বিষয়টি অনেক আগে থেকেই আমার মাথায় ঘুরছে। তবে নানা কারণে সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে দেরি হচ্ছিল। শুধু নাটক নয়, পর্যায়ক্রমে সিনেমা নির্মাণেরও প্রাথমিক পরিকল্পনা আছে আমার।

এদিকে অভিনয়েও এখন তিনি ব্যস্ত রয়েছেন। শাহনেওয়াজ কাকলীর পরিচালনায় ফ্রম বাংলাদেশ নামের একটি মুক্তিযুদ্ধের গল্পের সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন। সেটির শুটিং শেষ হয়েছিল করোনাকালের আগে। সম্প্রতি এটির ডাবিংয়ের কাজও শেষ হয়েছে। তাছাড়া শাহরিয়ার নাজিম জয়ের পরিচালনায় পাপকাহিনী এবং আরিফুজ্জামান আরিফের পরিচালনায় কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র নামের সিনেমা দুটির কাজ অসমাপ্ত অবস্থায় আছে।

নিউজ ট্যাগ: তমা মির্জা

আরও খবর



কাল দক্ষিণ চট্টগ্রামের ৬০ গ্রামে ঈদ

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে মিল রেখে আগামী কাল সোমবার (০২ মে) চট্টগ্রামের ৬০ গ্রামের মানুষ পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করতে যাচ্ছেন।

মির্জারখীল দরবার শরীফ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার (২ মে) সাতকানিয়ার সোনাকানিয়া, মির্জারখীল, গারাংগিয়া, এওচিয়ার গাটিয়া ডেঙ্গা, মাদার্শা, খাগরিয়ার মৈশামুড়া, পুরানগড়, চরতির সুইপুরা, চন্দনাইশের কাঞ্চননগর, হারালা, বাইনজুরি, কানাইমাদারি, সাতবাড়িয়া, বরকল, দোহাজারী, জামিরজুরি, বাঁশখালীর কালীপুর, চাম্বল, শেখেরখীল, ছনুয়া, আনোয়ারার বরুমছড়া, তৈলারদ্বীপ, লোহাগাড়ার পুটিবিলা, কলাউজান, বড়হাতিয়া এবং পটিয়া, বোয়ালখালী, হাটহাজারী, সন্দ্বীপ, রাউজান ও ফটিকছড়ির কয়েকটি গ্রামসহ প্রায় ৬০ গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ ঈদুল ফিতর পালন করবেন।

এছাড়া পার্বত্য জেলা বান্দরবানের লামা, আলীকদম, নাইক্ষ্যাংছড়ি, কক্সবাজারের চকরিয়া, টেকনাফ, মহেশখালী ও কুতুবদিয়ার কয়েকটি গ্রামে থাকা মির্জারখীল দরবার শরীফের মুরিদরাও ঈদ পালন করবেন।

মির্জারখীল দরবারের ছোট শাহজাদা মোহাম্মদ মছউদুর রহমান ও মুরিদ মির্জারখীল আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক বজলুল করিম চৌধুরী জানান, আমাদের পুরো গ্রামের মানুষ যারা দরবারের ভক্ত তারা এবং দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে থাকা মির্জারখীল দরবার শরীফের মুরিদরা আগামীকাল ঈদুল ফিতর উদযাপন করবেন।

নিউজ ট্যাগ: ৬০ গ্রামে ঈদ

আরও খবর



আজও মৃত্যু নেই, শনাক্ত বাড়ল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৪৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যাননি। এই সময়ে ৫১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১২ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এর আগেরদিন বুধবার ৩৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছিল। সেই হিসেবে আজ করোনা শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে। 

এ নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত ১৯ লাখ ৫২ হাজার ৯৩৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। দেশে করোনায় ২৯ হাজার ১২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২৯১ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৮ লাখ ৯৮ হাজার ৬০৩ জন। সোমবার থেকে ১১০ টাকায় সয়াবিন তেল দেবে টিসিবিসোমবার থেকে ১১০ টাকায় সয়াবিন তেল দেবে টিসিবি

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের শেষে চীনের উহানে প্রথম করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ে। এরপর কয়েক মাসের মধ্যে এ ভাইরাস সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। দেশে প্রথম করোনা শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৮ মার্চ। আর প্রথম মৃত্যু হয় একই বছরের ১৮ মার্চ।


আরও খবর



মুক্তিযুদ্ধের সিনেমায় সজল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

টিভি নাটকের পাশাপাশি সিনেমায়ও ব্যস্ততা বেড়েছে সজলের। শুরু করেছেন নতুন সিনেমার শুটিং। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময়ের প্রেক্ষাপটে নির্মিত হচ্ছে চলচ্চিত্র সুবর্ণভূমি’। সিনেমাটি পরিচালনা করছেন জাহিদ হোসেন। মোহাম্মদ কুদরুত-ই-খুদা ও জাহিদ হোসেনের প্রযোজনায় সিনেমাটিতে একঝাঁক তারকাশিল্পী অভিনয় করছেন। সজল ছাড়াও আছেন দিলারা জামান, শহীদুজ্জামান সেলিম, ওমর সানী, স্নিগ্ধা, শবনম পারভীন, শাওন আশরাফ, কানিজ সুবর্ণা, সিনহা, মধু, আবুল হোসেন প্রমুখ।

‘সুবর্ণভূমি’ সিনেমায় সজল অভিনয় করছেন একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার চরিত্রে। সজল বললেন, মুক্তিযুদ্ধের গল্প বরাবরই আমাকে টানে। নাটক আর টেলিছবিতে এমন গল্পের প্রস্তাব পেলে লুফে নিই।’ সুবর্ণভূমি’তে সজলের বিপরীতে অভিনয় করছেন স্নিগ্ধা। এরই মধ্যে ঢাকার অদূরে পুবাইলে দুই দিন শুটিং করেছেন সজল। টানা দুই সপ্তাহ শুটিং করবেন বলে জানালেন তিনি।

সজল অভিনীত পাঁচটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় আছে। সিনেমাগুলো হলো—নাদের চৌধুরীর জ্বীন’, হৃদি হকের ১৯৭১ সেইসব দিন’, উজ্জ্বল ও নবী পরিচালিত পাপড্যাডি’, অনন্য মামুনের পরিচালনায় জাহানারা’। প্রতিটি সিনেমা নিয়েই আশাবাদী সজল।

এ সম্পর্কে সজল বলেন, সত্যি বলতে, এখানে যেসব সিনেমার কথা উল্লেখ করা হয়েছে, তাতে নির্দিষ্ট একটি সিনেমার একটি চরিত্রের কথা বলা কঠিন। কারণ একেকটি চরিত্র একেকরকম। কোনো সিনেমায় আমি ২৫ বছরের যুবক, কোনো সিনেমায় আমি চল্লিশোর্ধ্ব একজন নেতিবাচক চরিত্রের মানুষ, আবার কোনো সিনেমায় আমি উদ্ভাবক, জ্বীন’ তো জিন-ভূতের গল্প নিয়ে সিনেমা। তাই প্রতিটি সিনেমাই দর্শকের কাছে গ্রহণযোগ্যতা পাবে বলে আমার বিশ্বাস। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সিনেমার গল্প বলার ধরন বদলে গেছে। আমাদের সিনেমা এখন অনেক উন্নত, আরও আধুনিক হয়েছে। তাই প্রত্যাশা বেড়েছে আমার অভিনীত প্রতিটি সিনেমা নিয়ে।’

নিউজ ট্যাগ: সজল সুবর্ণভূমি

আরও খবর



রাশিয়া বাণিজ্যকে অস্ত্র হিসেবে বিবেচনা করে: জেলেনস্কি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাশিয়া যে কোনো বাণিজ্যকে অস্ত্র হিসেবে বিবেচনা করে বলে অভিযোগ করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। গত রাতে দেওয়া একটি ভিডিও বার্তায় তিনি এ কথা জানান। খবর বিবিসির। 

জেলেনস্কির অভিযোগ, রাশিয়া ইউরোপকে ব্ল্যাকমেল করার জন্য জ্বালানিকে ব্যবহার করছে। তিনি বলেন, বুধবার পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়ায় রাশিয়ার গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত দেখিয়েছে যে, ইউরোপে কেউই রাশিয়ার সঙ্গে স্বাভাবিক কোনো অর্থনৈতিক সহযোগিতা বজায় রাখার আশা করতে পারে না

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেন, শুধু গ্যাস নয়, রাশিয়া যে কোনো বাণিজ্যকে অস্ত্র হিসেবে বিবেচনা করে। দেশটি বাণিজ্যকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহারের জন্য সুযোগের অপেক্ষায় থাকে।

জেলেনস্কি বলেন, রাশিয়া ঐক্যবদ্ধ ইউরোপকে লক্ষ্যবস্তু হিসেবে দেখে এবং যত তাড়াতাড়ি এ মহাদেশের সবাই এ বিষয়ে একমত হবেন যেবাণিজ্যের ক্ষেত্রে রাশিয়ার ওপর নির্ভর করা যায় না তত তাড়াতাড়ি সেখানে স্থিতিশীলতা আসবে।

এদিকে ইউক্রেনের পণ্যের ওপর থেকে শুল্ক ও কোটা প্রত্যাহার করায় স্বাগত জানান জেলেনস্কি। তিনি বলেন, রাশিয়া আন্তর্জাতিক বাজারে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়বিশেষ করে খাদ্যের বাজারে।

ইউক্রেনের রপ্তানি বাজারকে স্থিতিশীল করতে সাহায্য করবে এবং সংকটের সময়ে অর্থনীতিকে সহায়তা করবে, যোগ করেন তিনি। ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরু করে রাশিয়া। এর পর থেকে দেশটিতে রুশ সেনারা ব্যাপক হামলা চালাচ্ছে। এখন মস্কো লড়ছে ইউক্রেনের দক্ষিণ ও পূর্বাঞ্চলকে মুক্ত করার জন্য। যুদ্ধ শুরুর দুই মাস পেরিয়ে গেলেও পশ্চিমাদের সহায়তায় নিজেদের রক্ষায় কিয়েভ প্রতিরোধ অব্যাহত রাখতে সক্ষম হয়েছে।


আরও খবর