Logo
শিরোনাম

অ্যাকশনএইডে চাকরির সুযোগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে অ্যাকশনএইড বাংলাদেশ। সংস্থাটিতে টেকনিক্যাল অফিসার’ পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

পদের নাম

টেকনিক্যাল অফিসার।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা

স্বীকৃত যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে কৃষি অথবা এই জাতীয় যেকোনো বিষয়ে স্নাতক অথবা স্নাতকোত্তর পাস প্রাথীরা আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীর বাংলা ও ইংরেজিতে যোগাযোগ দক্ষতা থাকতে হবে। মাইক্রোসফট অফিসে অভিজ্ঞতা ও চাপের মধ্যে কাজের মানসিকতা থাকতে হবে।

কর্মস্থল

কক্সবাজার।

বেতন

আলোচনা সাপেক্ষে।

আবেদন প্রক্রিয়া

আগ্রহী প্রার্থীরা বিডিজবস অনলাইনে (https://jobs.actionaidbd.org/login) আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ তারিখ

২৫ জানুয়ারি, ২০২৩।

নিউজ ট্যাগ: চাকুরীর খবর

আরও খবর

নারায়ণগঞ্জে নিয়োগ দেবে এসিআই

মঙ্গলবার ১৭ জানুয়ারী ২০২৩




চার আসনের উপ-নির্বাচনে জাপার প্রার্থী ঘোষণা

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিএনপির এমপিদের পদত্যাগে জাতীয় সংসদে শূন্য হওয়া আসনগুলোর চারটির উপ-নির্বাচনে প্রার্থী ঘোষণা করেছে জাতীয় পার্টি (জাপা)।

মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর) জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী প্রার্থীদের নাম জানান।

তিনি বলেন, দলটির মনোনয়ন বোর্ড ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের জন্য হাফিজ উদ্দিন আহম্মেদকে, বগুড়া-৬ আসনে মো. নূরুল ইসলাম ওমরকে, বগুড়া- ৪ আসনে শাহীন মোস্তফা কামাল ও ব্রাক্ষণবাড়িয়া-২ আসনে মো. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়াকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছে।

এ আসনগুলোতে আগামী ১ ফেব্রুয়ারি উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

গত ১০ ডিসেম্বর রাজধানীতে ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশে বিএনপির সাত সংসদ সদস্য পদত্যাগের ঘোষণা দেন। পরে তারা জাতীয় সংসদে গিয়ে স্পিকারের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন। এর মধ্যে একটি সংরক্ষিত নারী আসন। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ছয়টি আসনে উপ-নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।


আরও খবর



পুলিশকে সতর্ক থাকতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অগ্নি-সন্ত্রাসের পুনরাবৃত্তির পাশাপাশি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি যাতে কেউ নস্যাৎ করতে না পারে সেজন্য পুলিশ কর্মকর্তাদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সতর্ক থাকুন যাতে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে কেউ বাধা দিতে না পারে, কেউ আবার অগ্নিসংযোগ-সন্ত্রাস করার সাহস না পায়, এবং কেউ আর যাতে  কখনো কারো জীবনের নিরাপত্তা বিঘ্নিত করতে না পারে।

প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে তাঁর কার্যালয়ে পুলিশ সপ্তাহ-২০২৩ উপলক্ষে বাংলাদেশ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উদ্দেশে এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বিএনপির আন্দোলন সংগ্রাম প্রসঙ্গে বলেন, হ্যাঁ আন্দোলন-সংগ্রাম করবে। ঠিক আছে জনগণকে নিয়ে করবে। সেক্ষেত্রে যদি কোন ধ্বংসাত্মক কার্জ করে তার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা সবাইকে নিতে হবে।

কারণ আজকে বাংলাদেশের যতটুকু উন্নতি আমরা করেছি সেটা কিন্তু এমনি এমনি আসেনি। এজন্য আমাদের শ্রম দিতে হয়েছে, কষ্ট করতে হয়েছে, পরিকল্পনা করতে হয়েছে। যার ফলে মাত্র ১৪ বছরে আমরা বাংলাদেশের বিরাট পরিবর্তন আনতে পেরেছি, বলেন তিনি।

তিনি পুলিশের দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে নানা রকম চ্যালেঞ্জ প্রসঙ্গে বলেন, আন্তর্জাতিক সমস্যার কারণে সৃষ্ট সমস্যা, প্রাকৃতিক দুর্যোগের সমস্যা, মানব সৃষ্ট দুর্যোগ- যেমন অগ্নি সন্ত্রাস বা নানা নৈরাজ্য যেখানে পুলিশ সদস্যদেরকে নির্দয়ভাবে মারা হয়েছে, আমরা দেখেছি। কাজেই ভবিষ্যতে যাতে আমাদের এই অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রা কেউ ব্যহত করতে না পারে। কেউ যেন আর ঐ অগ্নি সন্ত্রাস করার সাহস না পায়। মানুষের জীবনের শান্তি ও নিরাপত্তা যেন কেউ বিঘ্নিত করতে না পারে, সে ব্যাপারে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটা দেশের আইনশৃঙ্খলা হচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। সেই আইন শৃঙ্খলাকে সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখার দায়িত্ব পুলিশ বাহিনীকেই পালন করতে হবে। এ জন্য পুলিশ বাহিনীর প্রশিক্ষণ এবং সেক্টর ওয়াইজ বাহিনী করে সার্বিক সুযোগ-সুবিধা তাঁর সরকার বৃৃদ্ধি করে দিয়েছে কারণ একেবারে প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত পুলিশ বাহিনীকেই এই দায়িত্ব পালন করতে হয়। থানা, তদন্ত কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানো, যানবাহনের সংখ্যা বৃদ্ধি এমনকি যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নও তাঁর সরকার করে দিয়েছে।

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এবং জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান বক্তব্য রাখেন।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন পুলিশের আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন অতিরিক্ত আইজিপি কামরুল হাসান। কয়েকজন উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্মকর্তার কথাও শুনেছেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় বাংলাদেশ পুলিশের উপর একটি তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। 


আরও খবর



সিঙ্গাপুরের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে শ্লথগতি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

২০২২ সালে সিঙ্গাপুরের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ধীর হয়েছে। চলতি বছর দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি আরো ধীর হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছে কর্তৃপক্ষ। সিঙ্গাপুরের বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের (এমটিআই) প্রকাশিত প্রতিবেদন বলছে, ২০২২ সালে দেশটির অর্থনীতি বেড়েছে মাত্র ৩ দশমিক ৮ শতাংশ, যা ২০২১ সালের অর্জিত ৭ দশমিক ৬ শতাংশ অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির অর্ধেক। এছাড়া বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের গত নভেম্বরের প্রাক্কলন বলছে, ২০২৩ সালে দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি দশমিক ৫ থেকে ২ দশমিক ৫ শতাংশের মধ্যে থাকবে।

দেশটিতে তৃতীয় প্রান্তিকে ৪ দশমিক ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি থাকলেও চতুর্থ প্রান্তিকে প্রবৃদ্ধি হয়েছে মাত্র ২ দশমিক ২ শতাংশ। সূত্র বলছে, চতুর্থ প্রান্তিকে অর্থনীতি ধীর হওয়ার পেছনে উৎপাদন খাতের বার্ষিক ৩ শতাংশ সংকোচন অন্যতম দায়ী। দ্বিতীয় প্রান্তিকের তুলনায় তৃতীয় প্রান্তিকে ১ দশমিক ৪ শতাংশ বাড়লেও চতুর্থ প্রান্তিকে দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির চিত্র বিপরীত। এর কারণ হিসেবে এমটিআই জানিয়েছে ইলেকট্রনিকস, রাসায়নিক ও বায়োমেডিকেলের উৎপাদন কমেছে।

সিঙ্গাপুরভিত্তিক ওভারসিজ চাইনিজ ব্যাংকিং করপোরেশন (ওসিবিসি) ব্যাংকের প্রধান অর্থনীতিবিদ সেলেনা লিং বলেন, উৎপাদন খাতের সংকোচন ২০২০ সালের চতুর্থ প্রান্তিকের পর প্রথম ছিল। বৈশ্বিক মন্দায় উদ্বেগ বাড়ছে এবং সে সঙ্গে ইলেকট্রনিকস পণ্যের চাহিদাও কমছে। বিশেষ করে সেমিকন্ডাক্টর উৎপাদনে এর প্রভাব পড়েছে।

এমটিআই জানিয়েছে, অক্টোবর-ডিসেম্বরে দেশটির নির্মাণ খাত এক বছর আগের তুলনায় ১০ দশমিক ৪ শতাংশ বেড়েছে। এ হার তৃতীয় প্রান্তিকের প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৮ শতাংশের চেয়ে বেশি। সরকারি ও বেসরকারি উভয় ক্ষেত্রেই নির্মাণ খাতের উৎপাদনে পুনরুদ্ধার অব্যাহত রয়েছে। দেশটিতে চতুর্থ প্রান্তিকে পরিষেবা খাতের মধ্যে পাইকারি ও খুচরা বাণিজ্য, পরিবহন ও সঞ্চয় খাত সামগ্রিকভাবে ২ দশমিক ৩ শতাংশ বেড়েছে। এ হার তৃতীয় প্রান্তিকের প্রবৃদ্ধি ৫ দশমিক ৭ শতাংশের তুলনায় ধীর। তবে চতুর্থ প্রান্তিকে বাসস্থান, খাদ্য, রিয়েল এস্টেট, প্রশাসন ও সহায়তা পরিষেবা খাতগুলো সম্মিলিতভাবে ৮ দশমিক ২ শতাংশ বেড়েছে। যেখানে তৃতীয় প্রান্তিকে খাতগুলো ৯ দশমিক ৩ শতাংশ বেড়েছিল। ২০২১ সাল থেকে সিঙ্গাপুরের সামগ্রিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি শ্লথ হয়েছে। তবে ২০২২ সালে ৩ দশমিক ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি এমটিআইয়ের প্রত্যাশিত ৩ দশমিক ৫ শতাংশ প্রাক্কলনের চেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে। পরিষেবা খাত এক্ষেত্রে বড় অবদান রেখেছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, চতুর্থ প্রান্তিক ও ২০২২ সালের সামগ্রিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি পরিসংখ্যান আগামী ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত হবে।

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ২০২২ সালের অক্টোবরে প্রকাশিত প্রাক্কলনে বলা হয়, বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ২০২১ সালের ৬ শতাংশের পর ২০২২ সালে ৩ দশমিক ২ শতাংশে নেমেছে। ২০২৩ সালে তা ২ দশমিক ৭ শতাংশে নেমে আসতে পারে। সংস্থাটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা সতর্ক করেছেন, ২০২২ সালের তুলনায় ২০২৩ সালের বিশ্ব অর্থনীতি অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং হবে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক বার্কলেস ব্যাংকের সিঙ্গাপুর ইউনিটের জ্যেষ্ঠ অর্থনীতিবিদ ব্রায়ান ট্যান বলেন, উৎপাদন ও বাণিজ্য কার্যক্রমের মন্দা চলতি বছরেও অব্যাহত থাকতে পারে। তবে আন্তর্জাতিক ভ্রমণ ও পর্যটন খাতের পুনরুদ্ধার সিঙ্গাপুরের পরিষেবা খাতকে প্রসারিত করবে।

নিউজ ট্যাগ: সিঙ্গাপুর

আরও খবর



শ্রীমঙ্গলে তাপমাত্রা নামল ৫ ডিগ্রিতে

প্রকাশিত:শুক্রবার ২০ জানুয়ারী ২০23 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে মৌসুমে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ওই এলাকায় কনকনে ঠাণ্ডা অনুভূত হচ্ছে। মৃদু শৈত্যপ্রবাহের সঙ্গে কুয়াশা যোগ হওয়ায় এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) সকালে চলতি মৌসুমে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি রেকর্ড করা হয়েছে। শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া অফিস সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরেই কুয়াশায় ঢেকে আছে চায়ের রাজধানী শ্রীমঙ্গল। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সূর্যের তাপ কিছুটা বাড়ে। তবে বিকেল থেকে আবার ঠাণ্ডা জেঁকে বসে। সন্ধ্যা এবং রাতে সেই ঠাণ্ডা তীব্রতা ছড়ায়।

জেলায় কনকনে ঠাণ্ডায় স্বাভাবিক জীবনযাত্রা বিপর্যস্ত। বৈরি আবহাওয়ায় সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন খেটে-খাওয়া মানুষ। শীতের তীব্রতায় জবুথবু জনজীবন।


আরও খবর

কড়াইয়ের গরম তেলে পড়ে শিশুর মৃত্যু

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩




সবজি, চাল ও মুরগির দাম বেড়েছে

প্রকাশিত:শুক্রবার ২০ জানুয়ারী ২০23 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশজুড়ে কুয়াশা ও তীব্র শীতের কারণে ব্যহত হচ্ছে বাজারে সবজির সরবরাহ, ফলে কিছুটা বেশি দামেই বিক্রি হচ্ছে শীতের সবজি। তবে শীতের তীব্রতা কেটে গেলে দামও কিছুটা কমে আসবে বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা। এ ছাড়া চাল ও মুরগির দামও বৃদ্ধি পেয়েছে। শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) রাজধানীর বিভিন্ন কাঁচাবাজার ঘুরে এসব তথ্য জানা গেছে।

দেখা গেছে, আকারভেদে প্রতি পিস বাঁধাকপি ও ফুলকপির দাম পড়ছে ৪০ টাকা। ৫০ টাকা কেজি দরে শিম এবং ৪০ থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে শসা বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া টমেটো বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে।

পটল ৬০ টাকা ও পেঁপে ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া প্রতি কেজি গাজর, ধুন্দল ও চিচিঙ্গা ৪৫ থেকে ৫০ টাকা এবং মিষ্টি কুমড়া বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকায়। প্রতি কেজি বেগুন ৪০ থেকে ৫০ টাকা এবং করলা ৬০ থেকে ৭৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি পিস চাল লাউ আকারভেদে ৩০ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি হালি লেবু ১৫ থেকে ২০ টাকা এবং আলু ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি কাঁচামরিচ ৬০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৩৫ থেকে ৪০ টাকা এবং রসুন ও আদা ১৫০ থেকে ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি আটা ৬০ টাকা এবং ময়দা ৬৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া বাজারে প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১৮০ থেকে ১৯০ টাকা এবং লবণের কেজি ৩৮-৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি ডজন ব্রয়লার মুরগির ডিম বিক্রি হচ্ছে ১২৫ থেকে ১৩০ টাকা। প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি ১৫৫ থেকে ১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া বাজারে ৭০০ টাকা কেজি গরুর মাংস এবং ৯৫০ থেকে ১০০০ টাকা কেজি দরে খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে।

সপ্তাহ ব্যবধানে সরু চালের দাম কেজিতে ২ থেকে ৩ টাকা বেড়েছে। মিনিকেট চাল ৬৮ থেকে ৭৫ টাকা এবং নাজিরশাইল ৭৫ থেকে ৮৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

নিউজ ট্যাগ: শীতের সবজি

আরও খবর

শুক্রবার রাজধানীর যেসব মার্কেট বন্ধ

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

রাজধানীতে ছাদ থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩