Logo
শিরোনাম

সারা দেশে নিয়োগ দেবে কাজী ফার্মস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ১০৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে কাজী ফার্মস গ্রুপ। প্রতিষ্ঠানটিতে  সিনিয়র অফিসার/এক্সিকিউটিভ পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

পদের নাম

সিনিয়র অফিসার/ এক্সিকিউটিভ (ফিশ ফিড সেলস অ্যান্ড টেকনিক্যাল সার্ভিসেস)।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা

স্বীকৃত যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফিশারিজ/ মেরিন বায়োলজি বিষয়ে বিএসসি অথবা এমএসসি পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীর দুই থেকে তিন বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। মাইক্রোসফট ওয়ার্ড, এক্সেল ও পাওয়ার পয়েন্টে কাজের দক্ষতা থাকতে হবে। চাপের মধ্যে কাজের মানসিকতা থাকতে হবে।

কর্মস্থল : সারা দেশ (প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত)

বেতন : আলোচনা সাপেক্ষে।

আবেদন প্রক্রিয়া : প্রার্থীরা বিডিজবস অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ তারিখ : ৮ এপ্রিল, ২০২১।

সূত্র : বিডিজবস

নিউজ ট্যাগ: কাজী ফার্মস

আরও খবর



নিউইয়র্ক থেকে সাড়ে ৩ ঘণ্টায় লন্ডন পাড়ি দেবে বুম সুপারসনিক

প্রকাশিত:শনিবার ০৫ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নিউইয়র্ক থেকে লন্ডন পাড়ি দিতে এখন বিমানে সময় লাগে সাড়ে ৬ ঘণ্টা। কিন্তু আমেরিকার বিমান সংস্থা ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স বুম সুপারসনিক নামে যে দ্রুত গতির বিমান আনছে তাতে সময় লাগবে মাত্র সাড়ে ৩ ঘণ্টা।!

বুম সুপারসনিক নামে একটি স্টার্টআপ সংস্থার কাছ থেকে ১৫টি সুপারসনিক বিমান কেনার হবে বলে জানিয়েছেন ওই সংস্থার সিইও স্কট কার্বি।  খবর রয়টার্সের।

ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, ২০২৫ সালে পরীক্ষামূলকভাবে এ বিমান চলাচল শুরুর পরিকল্পনা আছে। ২০২৯ সালে বাণিজ্যিকভাবে বুম সুপারসনিকের যাত্রা শুরু হতে পাড়ে।

ইউনাইটেড জানিয়েছে, ডেনভারের ওই স্টার্টআপ সংস্থার কাছ থেকে তাদের সুপারসনিক বিমান ওভারচার কেনার চুক্তি করেছেন তারা। চুক্তিতে আরও ৩৫টি সুপারসনিক বিমান কেনার কথাও উল্লেখ আছে।

গোটা পরিকল্পনাটি বাস্তবে পরিণত হলে বিমান পরিবহণ ব্যবস্থায় যুগান্তকারী পরিবর্তন ঘটতে পারে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

একটি সুপারসনিক বিমান শব্দের চেয়ে দ্বিগুণ গতিবেগে আকাশপথে পাড়ি দিতে পারে। বর্তমানে নিউইয়র্ক থেকে লন্ডনে সাড়ে ৬ ঘণ্টায় যাওয়া যায়। তবে বুমের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ৬৫ থেকে ৮৮টি আসনের একটি সুপারসনিক বিমান এ পথ পাড়ি দিতে তার অর্ধেক সময় নেবে।


আরও খবর



যেসব এলাকায় আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস

প্রকাশিত:শনিবার ২২ মে ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৩ জুন ২০২১ | ১২৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

তীব্র দাবদাহে পুড়ছে দেশ। গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে জনজীবন। বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপের প্রভাবে সপ্তাহজুড়ে নেই বৃষ্টির সুখবরও। বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড়ের যে আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল, তা আরও পরিণত হয়েছে। শনিবারের মধ্যে বঙ্গোপসাগরের আন্দামান দ্বীপপুঞ্জের কাছাকাছি এলাকায় একটি লঘুচাপের সৃষ্টি হতে পারে।  ২৫ মে রাত থেকে ২৬ মের মধ্যে উপকূলীয় এলাকায় আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস।

আবহাওয়াবিদ মো. শাহিনুল ইসলাম বলেন, ২২ তারিখের কাছাকাছি সময় এটা সেটা লঘুচাপ হতে পারে। আর যদি লঘুচাপ হয়ে সেটা স্টেজ পরিবর্তন করে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেয়, তবে সেটা 'ইয়াস' নাম ধারণ করবে।

বাংলাদেশের খুলনা থেকে চট্টগ্রাম উপকূল বিস্তৃত হতে পারে ঘূর্ণিঝড় 'ইয়াস'। এদিকে এই পরিস্থিতির মধ্যেই দেশে বিভিন্ন অঞ্চলে মৃদু থেকে মাঝারি রকমের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর এক সতর্কবার্তায় জানিয়েছে, উত্তর আন্দামান সাগর ও তৎসংলগ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। এটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ২৬ মে নাগাদ উড়িশা-পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের খুলনা উপকূলে পৌঁছাতে পারে।

সাধারণত যে কোনো ঘূর্ণিঝড় প্রচুর বৃষ্টিপাত নিয়ে আসে। সেই হিসেবে ইয়াস আসায় তাপপ্রবাহ কিছুটা কমতে পারে। সাধারণত সমুদ্রের পানির তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস অতিক্রম করলে ঘূর্ণিঝড় তৈরি হতে পারে। সে কারণে বিদ্যমান তাপপ্রবাহের সঙ্গে লঘুচাপ-নিম্নচাপ এবং ঘূর্ণিঝড়ের সম্পর্ক আছে বলে জানান বিশেষজ্ঞরা।

পূর্বাভাস বলছে, শনিবার রাত থেকে রবিবার সকালের মধ্যেই বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের সৃষ্টি হতে পারে। ফলে দেশের খুলনা, বাগেরহাট এবং ভারতের উড়িশ্যা ও পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী এলাকায় ৪৫ থেকে ৬৫ কিলোমিটার গতিতে বয়ে যাবে ঝড়ো হাওয়া। ২৬ মে এটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়ে আঘাত হানতে পারে। ওমানের আবহাওয়াবিদরা এ ঘূর্ণিঝড়ের নাম দিয়েছেন ইয়াস।

বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর এক সতর্কবার্তায় জানিয়েছে, উত্তর আন্দামান সাগর ও তৎসংলগ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। এটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ২৬ মে নাগাদ উড়িশা-পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের খুলনা উপকূলে পৌঁছাতে পারে।

নিউজ ট্যাগ: ঘূর্ণিঝড় ইয়াস

আরও খবর



ফরাসি প্রেসিডেন্টকে থাপ্পড় মারার শাস্তি চার মাসের জেল!

প্রকাশিত:শুক্রবার ১১ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁকে থাপ্পড় মারা যুবককে চার মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন স্থানীয় একটি আদালত। অবশ্য বৃহস্পতিবার অভিযুক্ত ড্যামিয়েন ট্যারেলকে ১৮ মাসের দণ্ড দিয়েছিলেন আদালত, পরে ১৪ মাসের সাজা স্থগিত করা হয়। ফলে ফরাসি প্রেসিডেন্ট থাপ্পড় মারার সাজা হিসেবে মাত্র চার মাস কারাগারে থাকতে হবে সেই যুবককে।

গত মঙ্গলবার ফ্রান্সের দক্ষিণাঞ্চলীয় ড্রোম এলাকা পরিদর্শনে যান ম্যাক্রোঁ। এসময় তিনি স্থানীয় একদল বাসিন্দার সঙ্গে কুশল বিনিময় করতে ব্যারিকেডের কাছাকাছি যান। সেখানে উপস্থিত ট্যারেল আচমকা সজোরে থাপ্পড় বসিয়ে দেন ফরাসি প্রেসিডেন্টের গালে। সঙ্গে সঙ্গে ম্যাক্রোঁকে সরিয়ে নেয়া হয় এবং আটক করা হয় ওই যুবককে।

আদালতে ট্যারেলের বিরুদ্ধে জনগণের কর্তৃত্বের অধিকারী ব্যক্তির বিরুদ্ধে ইচ্ছাকৃত সহিংসতার অভিযোগ আনেন সরকারি প্রসিকিউটররা। তারা এ ঘটনাকে পুরোপুরি অগ্রহণযোগ্য বলে মন্তব্য করেছেন।

প্রেসিডেন্টকে থাপ্পড় মারার দায়ে অভিযুক্তের সর্বোচ্চ তিন বছরের কারাদণ্ড ও ৪৫ হাজার ইউরো জরিমানা হতে পারত। তবে সেই তুলনায় অনেকটাই লঘু দণ্ড পেয়েছেন ট্যারেল।

তিনি আদালতে জানিয়েছেন, ম্যাক্রোঁ ওই এলাকা পরিদর্শনে যাওয়ার কয়েকদিন আগেই তার দিকে ডিম অথবা ক্রিম ছুড়ে মারার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। তবে থাপ্পড় মারার বিষয়টি পূর্বপরিকল্পিত নয়।

বিএফএম টিভির সূত্রমতে, আদালতে ড্যামিয়েন ট্যারেল বলেছেন, আমি মনে করি, ম্যাক্রোঁ খুব স্পষ্টভাবে আমাদের দেশের পতনের প্রতিনিধিত্ব করেন।

অভিযুক্ত যুবক আরও বলেন, আমি যদি ম্যাক্রোঁকে সূর্যোদয়ের সময় দ্বন্দ্বযুদ্ধের জন্য চ্যালেঞ্জ করতাম, মনে হয় না তিনি রাজি হতেন।

এদিকে, থাপ্পড় খাওয়াকে বিচ্ছিন্ন ঘটনা হিসেবে উল্লেখ করেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ। গত বৃহস্পতিবার তিনি বিএমএফ টিভিকে বলেন, এটি বেকুব, হিংসাত্মক একটি কাজ

ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিষাক্ত পরিবেশের পরিণতি বলেও মন্তব্য করেছেন এ নেতা।


আরও খবর



ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে আইনিভাবে ধোঁয়াশা

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ মে ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ১৩৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন অনুষ্ঠান নিয়ে আইনিভাবে ধোঁয়াশায় রয়েছে খোদ নির্বাচন কমিশন (ইসি)। করোনা সংক্রমণের কারণে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত ৩৭১টি সহ নির্বাচন উপযোগী দেশের সব ইউপির ভোট কতদিন আটকে রাখা যাবে, আইনে তা স্পষ্ট নয়। সময় মতো ভোট না হলে বিদ্যমান পরিষদ সর্বোচ্চ ৯০ দিন কার্যক্রম পরিচালনা করবে বলে বিধান থাকলেও এর পরে কী হবে, আইনে তা খোলাসা করে বলা হয়নি। তবে সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, আইনের স্প্রিট হচ্ছে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন করা। ভোট না হলে আইনের লঙ্ঘন হবে না বলেও তারা মনে করেন। এক্ষেত্রে বিদ্যমান পরিষদকেই কার্যক্রম চালিয়ে নিতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় নির্দেশ দিতে পারবে।

অবশ্য আইনে বিষয়টির স্পষ্ট ব্যাখ্যা না থাকায় নির্বাচন কমিশন নতুন করে নির্বাচন অনুষ্ঠানের চিন্তাভাবনা করছে। ইউনিয়ন পরিষদসহ স্থগিত এবং নির্বাচন উপযোগী অন্যান্য নির্বাচনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আগামী ১৯ মে কমিশন সভা ডেকেছে।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, গত ১ এপ্রিল কমিশনের সভায় ১১ এপ্রিলের ইউপি ভোট অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পাশাপাশি স্থানীয় সরকার বিভাগকে চিঠি দিয়ে বিষয়টি জানিয়ে দেয়।  ইউনিয়ন পরিষদ আইন-২০০৯ এর ২৯(৩) অনুযায়ী, নির্বাচন করা সম্ভব হবে না বলে ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়। পাশাপাশি আইনের ২৯(৫) ধারা অনুযায়ী, পরিষদের কার্যক্রম পরিচালনা এবং প্রাসঙ্গিক অন্যান্য ব্যবস্থা গ্রহণের  বিষয়টিও  জানানো হয়।

জানা গেছে, ইসির চিঠি পাওয়ার পর স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে আইনের ২৯(৫) ধারার বিধান অনুযায়ী, বিদ্যমান ইউনিয়ন পরিষদকে কার্যক্রম চালিয়ে যেতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আইনের এ ধারায় বলা হয়েছে, দৈব-দুর্বিপাকজনিত বা অন্যবিধ কোনও কারণে নির্ধারিত ৫ (পাঁচ) বছর মেয়াদের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব না হলে, সরকার লিখিত আদেশ দিয়ে, নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত কিংবা অনধিক ৯০  দিন পর্যন্ত, যা আগে ঘটবে, সংশ্লিষ্ট পরিষদকে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ক্ষমতা প্রদান করতে পারবে। সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, মেয়াদ শেষে বিদ্যমান পরিষদগুলোর সর্বোচ্চ ৯০ দিন দায়িত্ব পালনের সুযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনের সাবেক অতিরিক্ত সচিব মোখলেসুর রহমান বলেন, এখানে যেহেতু অনধিক ৯০ দিনের কথা বলা আছে, এর অর্থ ৯০ দিনের বেশি যাওয়ার সুযোগ নেই। আর এই সময়ের মধ্যে নির্বাচন না-হলে তার বিধান কী হবে, তার জন্য ব্যাখ্যা প্রয়োজন। তবে বিষয়টি যেহেতু স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের, তারাই সিদ্ধান্ত নেবে।

নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহম্মেদ বলেন, নির্বাচন পরিচালনার জন্য মেয়াদ শেষে সর্বোচ্চ ৯০ দিন পরিষদ পরিচালনার কথা রয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদে যেহেতু প্রশাসক নিয়োগের বিধান নেই, ফলে বিদ্যমান পরিষদই এই সময়টা পরিচালনা করবে। কিন্তু পরবর্তীতে ভোট বা পরিষদ পরিচালনার বিষয়ে কী হবে, তা স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় বলতে পারবে।

তিনি বলেন, আইনের স্পিরিট হচ্ছে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভোট করতে হবে। অবশ্য নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভোট না হলে আইনের ব্যত্যয় হবে না বলে মনে হয়।

তিনি জানান, অন্যান্য  পরিষদের ক্ষেত্রে প্রথম বৈঠকের তারিখ ধরে ৫ বছরের মেয়াদ পূর্ববর্তী ৯০ দিন বা ১৮০ দিনের মধ্যে ভোট করার কথা, কিন্তু ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠানের দিন থেকে ৫ বছর পূর্তির পূর্ববর্তী ১৮০ দিনের মধ্যে ভোট করতে হবে। এই হিসাবে ইতোমধ্যে বেশিরভাগ ইউনিয়ন পরিষদের ভোটের নির্ধারিত সময় পার হয়ে গেছে বলে তিনি জানান।

এই কর্মকর্তা বলেন, আইনে যেহেতু কোনও বিধান নেই, ফলে বর্তমান পরিষদই এটা চালিয়ে নিয়ে যাবে। কারণ, পরিষদ তো বিলুপ্ত করা যাবে না।

যথা সময়ে নির্বাচন না হলেও ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে আইনগতভাবে কোনও সমস্যা হবে না বলে মনে করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (ইউনিয়ন পরিষদ শাখা) মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী। তিনি বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের ভোট না হলেও আইনি কোনও জটিলতা হবে না। ভোট করা সম্ভব না হলে কী হবে, তার সমাধান ইউনিয়ন পরিষদ আইনেই উল্লেখ হয়েছে।

তিনি আইনের ১০১ নম্বর ধারাটির ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন, নির্বাচন বা অন্য কোনও ইস্যুতে সমস্যা হলে আমরা আদেশ জারি করে তার সমাধান করতে পারবো। এক্ষেত্রে বিদ্যমান পরিষদগুলোই তাদের দায়িত্ব পালন অব্যাহত রাখবে বলেও তিনি জানান।

 


আরও খবর

সরকারি শূন্যপদ ৩ লাখ ৮০ হাজার

মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১




তথ্যে নতুন সচিব, খাজা মুক্তিযুদ্ধে, তপন গেলেন বাণিজ্যে

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৪ জুন ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পদোন্নতি ও বদলির মাধ্যমে তিন মন্ত্রণালয়ের সচিব রদবদল করে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের বর্তমান সচিব খাজা মিয়াকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে বদলি করা হয়েছে।

রবিবার পৃথক প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

পৃথক প্রজ্ঞাপনে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন যৌথ মূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমূহের পরিদপ্তরের নিবন্ধক (অতিরিক্ত সচিব) মো. মকবুল হোসেনকে পদোন্নতি দিয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব করা হয়েছে। আর মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে বদলি করা হয়েছে।


আরও খবর

সরকারি শূন্যপদ ৩ লাখ ৮০ হাজার

মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১