Logo
শিরোনাম

সম্মাননা পেলেন রাজশাহীর ১২ নারী বীর মুক্তিযোদ্ধা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ১০৮জন দেখেছেন

Image

রাজশাহী প্রতিনিধি:

মহান মুক্তিযুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য রাজশাহীর ১২ নারী বীর মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের সম্মাননা প্রদান করা হয়। রাজশাহী জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল তাদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রাণালয়ের উদ্যোগে এ দিন দেশের ৬৫৪ জন নারী বীর মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মাননা জানানো হয়েছে। কেন্দ্রীয়ভাবে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এর মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়। একই সময়ে দেশের সব জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মনোনীত নারীদের এই সম্মাননা দেওয়া হয়।

রাজশাহীর সম্মাননা পাওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধা নারীরা হলেন, সাবেক প্রতিমন্ত্রী জিনাতুন নেসা তালুকদার, পুঠিয়ার বাঁশবাড়ী গ্রামের ফিরোজা বিবি, পুঠিয়ার নওপাড়া এলকার আঙ্গুরা বেগম, বাগমারার গোয়ালাকান্দি এলাকার শামসুন নাহার, বাঘার চকছাতারী এলাকার শাহীদা বেগম শাহানা, নগরীর সাগরপাড়ার লায়লা পারবীন বানু, নগরীর লক্ষ্মীপুরের আলেয়া শরীফ, মহিষবাথান এলাকার কাজী মিসবাহুন নাহার, নগরীর কুমারপাড়া এলাকার সান্তনা ঘোষ, উপশহরের নাজবুন নেছা, ঘোড়ামারার বুলবুল রাণী ঘোষ এবং সাবিত্রী বিশ্বাস।

সম্মাননা পেয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহিদা বেগম শাহানা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের অবদান রাখার জন্য কখনো সম্মাননা পাব ভাবিনি। মুক্তিযুদ্ধের সময় অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। তারপরেই এই স্বাধীন দেশ পেয়েছি। তিনি আরও বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় আমি রাজশাহী লেডি হেলথ ইনস্টিটউটে পড়তাম। হঠাৎ চারিদিকে যুদ্ধ শুরু হল। এরপর হোস্টেল থেকে আমি গ্রামের বাড়ি ঈশ্বরদীতে যাই। সেখানকার অবস্থাও খারাপ হতে থাকে। এরপর আমার পরিবারের সাথে মালদা চলে যাই। সেখানেই দেখতে পাই মাইকিং করা হচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা ও শরণার্থীদের সাহায্য করার জন্য। এরপরে বহরামপুরে ক্যাম্পে যোগ দেই। তারপর থেকেই শুরু হয় আহত মুক্তিযোদ্ধা ও শরণার্থীদের সাহযোগিতা করা। ৯ মাস কষ্টের পর অবশেষে এই স্বাধীন দেশ পাই।

ঢাকার আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে নারীদের অনেক অবদান আছে। সেগুলো অস্বীকার করা উপায় নেই। অনেক মা বোন তাদের জীবন উৎসর্গ করেছেন। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পরে মুক্তিযোদ্ধা ভয়ে বলতে পারতো না তারা মুক্তিযোদ্ধা। আমাদের প্রধানমন্ত্রী সেই স্বীকৃতি দিয়েছেন। প্রতিটি মুক্তিযোদ্ধারা এখন বাড়ি পাবেন। ৭ দিনের মধ্যে জেলা উপজেলা পর্যায়ে এই নিদের্শনা চলে যাবে। এর সাথে মুক্তিযোদ্ধারা আজীবন বিনা খরচে চিকিৎসা করতে পারবেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা। রাজশাহী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের রাজশাহী শাখার উপ-পরিচালক শবনম শিরিন, প্রোগ্রাম অফিসার রাশেদা পারভীন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান, জাতীয় মহিলা সংস্থার রাজশাহী শাখার চেয়ারম্যান মর্জিনা পারভীন প্রমুখ।


আরও খবর



সাগর-রুনি হত্যা : ৮৮ বার পেছাল তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৯৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ফের পিছিয়ে আগামী ৭ জুন ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) র‍্যাব প্রতিবেদন দাখিল না করায় নতুন এ দিন ধার্য করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী। এ নিয়ে ৮৮ বার প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ পেছানো হলো।

শেরেবাংলা নগর থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা পুলিশের উপপরিদর্শক জালাল উদ্দিন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ।

আদালতের নথি বলছে, এ নিয়ে মামলাটির তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য আদালত ৮৮ বার সময় বাড়িয়ে দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি রাতে ঢাকার পশ্চিম রাজাবাজারে সাংবাদিক দম্পতি মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক সাগর সরওয়ার এবং এটিএন বাংলার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক মেহেরুন রুনি তাদের ভাড়া বাসায় নির্মমভাবে খুন হন। পরদিন ভোরে তাদের ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ওই বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি রুনির ভাই নওশের আলী রোমান বাদী হয়ে শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা করেন। প্রথমে মামলাটির তদন্ত করেন শেরেবাংলা নগর থানার একজন কর্মকর্তা। পরে তদন্তভার পড়ে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওপর। দুই মাস পর হাইকোর্টের আদেশে মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় র‌্যাবকে। সেই মোতাবেক মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব এখনও র‌্যাবের কাছে ন্যাস্ত রয়েছে।


আরও খবর



জঘন্য যুদ্ধাপরাধের জন্য দায়ী পুতিন : ট্রুডো

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৪৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইউক্রেনে রাশিয়ার চলমান সামরিক অভিযানে হওয়া জঘন্য যুদ্ধপরাধের জন্য রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন কানাডর প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। রবিবার (৮ মে) এক অঘোষিত সফরে ইউক্রেনে গিয়ে এই মন্তব্য করেন তিনি। এদিকে ইউক্রেন সফরের সময় দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে বৈঠকও করেছেন কানাডীয় প্রধানমন্ত্রী। সোমবার (৯ মে) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্টের সঙ্গে এক সংবাদ সম্মেলনে কানাডর প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, জঘন্য যুদ্ধাপরাধের জন্য যে ভ্লাদিমির পুতিন দায়ী, এটি স্পষ্ট। এখানে অবশ্যই জবাবদিহিতা থাকতে হবে।

এর আগে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের পার্শ্ববর্তী ইরপিনে সফর করেন ট্রুডো। সেখানকার মেয়র জানান, গত মার্চ মাসে রুশ সামরিক বাহিনী ইরপিন দখল করার আগে ইউক্রেনীয় ও রুশ বাহিনীর মধ্যে ভয়াবহ লড়াইয়ে এটি বিধ্বস্ত শহরে পরিণত হয়।

এ নিয়ে জেলেনস্কির সঙ্গে ওই সংবাদ সম্মেলনে ট্রুডো বলেন, আমি নিজের চোখে রাশিয়ার অবৈধ এই যুদ্ধের বর্বরতা প্রত্যক্ষ করেছি। এসময় রাজধানী কিয়েভে কানাডার দূতাবাসের কার্যক্রম ফের চালুর ঘোষণা দেন তিনি।

পৃথক এক প্রতিবেদনে বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, রাজধানী কিয়েভে ওই সংবাদ সম্মেলনে ইউক্রেনকে আরও অস্ত্র ও সামরিক সহায়তার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। সেখানে তিনি বলেন, আজ আমি ইউক্রেনের জন্য আরও সামরিক সহায়তার ঘোষণা দিচ্ছি। এর মধ্যে ড্রোন ক্যামেরা, স্যাটেলাইট ইমেজ, ছোট অস্ত্র, গোলাবারুদ এবং ডিমাইনিং অপারেশনের জন্য অর্থসহ অন্যান্য সহায়তা রয়েছে।

এদিকে ইরপিনের মেয়র ওলেক্সান্ডার মার্কুশিন একটি অফিশিয়াল সোশ্যাল মিডিয়া চ্যানেলে প্রধানমন্ত্রী ট্রুডোর ছবিসহ বেশ কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, আমাদের শহরে রুশ দখলদাররা যে ভয়াবহতা দেখিয়েছে তা নিজের চোখে দেখতে ইরপিনে এসেছিলেন তিনি (ট্রুডো)

এছাড়া যুদ্ধবিধ্বস্ত ইরপিন সফর করায় জাস্টিন ট্রুডোকে ধন্যবাদও জানান মেয়র ওলেক্সান্ডার মার্কুশিন। তিনি বলেন, ইউক্রেনের প্রতি কানাডা আজ যে সমর্থন দেখিয়েছে তার জন্য কানাডীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ।

তিনি আরও বলেন, (রাশিয়ার বিরুদ্ধে) আমাদের বিজয়ের পর ইউক্রেনীয় শহরগুলোর পুনর্গঠনের জন্য উভয় দেশের মধ্যে অব্যাহত সহযোগিতায় বিশ্বাস করি আমরা।

নিউজ ট্যাগ: জাস্টিন ট্রুডো

আরও খবর



ঢাকায় ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঢাকায় পৌঁছেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর। বৃহস্পতিবার (২৮এপ্রিল) দুপুর ২টা ১৫মিনিটে রাজধানীর কুর্মিটোলায় বিমান বাহিনী ঘাঁটি বঙ্গবন্ধুতে তাঁকে স্বাগত জানান বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ঢাকা সফরকালে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। এ ছাড়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে অংশ নেবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরের জন্য নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণপত্র নিয়ে ঢাকায় এসেছেন তিনি। চলতি বছরের জুনের মাঝামাঝি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত যাবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গত বছর ২৬ মার্চ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ঢাকায় আসেন। সে সময় তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানান।


আরও খবর



প্রাথমিক শিক্ষক পদে নিয়োগ পেতে কোন লেনদেন না করার আহবান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ পেতে প্রতারক চক্রের প্রলোভনে প্রলুব্ধ হয়ে কোন প্রকার অর্থ লেনদেন না করতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। আজ মন্ত্রণালয়ের এক সতর্কিকরণ বিজ্ঞপ্তিতে এই আহ্বান জানানো হয়।

এতে বলা হয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে কোন ধরণের অবৈধ হস্তক্ষেপের সুযোগ নেই। এমতাবস্থায় দালাল বা প্রতারক চক্রের প্রলোভনে প্রলুব্ধ হয়ে কোন প্রকার অর্থ লেনদেন না করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ করা হল। অর্থ লেনদেন বা অন্য কোন অনৈতিক উপায়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ পাওয়ার কোন সুযোগ নেই।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতেই চাকুরি হবে। কেউ অর্থের বিনিময়ে চাকুরি দেয়ার প্রলোভন দেখালে তাকে নিকটস্থ থানায় সোপর্দ করা অথবা থানা বা গোয়েন্দা সংস্থাকে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ২০২০-এর দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপের লিখিত পরীক্ষা আগামী ২০ মে এবং ৩ জুন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন জেলায় অনুষ্ঠিত হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম নিয়োগ বিধি অনুসরণ করে সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা ও নিরপেক্ষতার সাথে সম্পন্ন করা হয়। প্রার্থীদের রোল নম্বর, আসন বিন্যাস, প্রশ্নপত্র প্রেরণ ও মুদ্রণ, উত্তরপত্র মূল্যায়ন, ফলাফল প্রস্তুতসহ যাবতীয় কাজ সফটওয়ারের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে করা হয়। এছাড়া জেলা প্রসাশন ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় পরীক্ষা কেন্দ্রের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে এবং গোয়েন্দা তৎপরতা জোরদার করা হয়েছে বলে এতে উল্লেখ করা হয়।


আরও খবর



লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন অভিনেত্রী পল্লবী দে

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন আমি সিরাজের বেগম ধারাবাহিকের অভিনেত্রী পল্লবী দে? পুলিশ সূত্রে অন্তত তেমনই খবর। রবিবার তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের পর থেকেই বিষয়টি নিয়ে জোর চর্চাও শুরু হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, গত দেড় মাস ধরে এক সঙ্গীর সঙ্গে গড়ফা এলাকায় থাকতেন পল্লবী। আগে থাকতেন হাওড়ায়। রবিবার সকালে সিগারেট খেতে এসে বাইরে গিয়েছিলেন পল্লবীর সঙ্গী। তার পর ফিরে দেখেন দরজা ভিতর থেকে বন্ধ। দরজা ভেঙে ভিতরে ঢুকতেই তিনি পল্লবীর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান। এর পরই পুলিশে খবর দেন তিনি।

সূত্রের খবর, শনিবার এবং রবিবার দুজনের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়েছিল। তবে কী নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তবে এখনও পর্যন্ত ঘরের ভিতর থেকে কোনও সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়নি বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

পল্লবীর ফেসবুক প্রোফাইল বলছে, ২০২১-এর ১৯ জুলাই তাঁর সম্পর্কের স্টেটাস ছিল ইন আ-রিলেশনশিপ। সেই স্টেটাসে অনেকে অভিনন্দনও জানিয়েছিলেন।

আমি সিরাজের বেগম ধারাবাহিকে লুৎফা-র চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন পল্লবী। তার আগে রেশম ঝাঁপি ধারাবাহিকেও গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। বর্তমানে মন মানে না নামে আর একটি ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছিলেন। রবিবার সকালে সিলিং ফ্যান থেকে অভিনেত্রীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে। বিছানার চাদর দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।


আরও খবর