শিরোনাম

টাকা ছিনিয়ে নিতে ঢাবি অধ্যাপক সাইদাকে হত্যা করে আনারুল

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গাজীপুরের কাশিমপুর এলাকা থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সাইদা খালেকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত ১১ জানুয়ারি থেকে নিখোঁজ ছিলেন তিনি।

এ ঘটনায় আনারুল ইসলাম (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছেন তিনি।

পুষ্টি ও খাদ্য বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সাইদার নির্মাণাধীন বাড়ির রাজমিস্ত্রির সহযোগী আনারুল। তার বাড়ি গাইবান্ধার সাদুল্লাহপুর উপজেলায়।

অধ্যাপক সাইদার ছেলে সাইদ ইফতেখার বিন জহির জানান, তার মা কাশিমপুরের পানিশাইল এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। সেখানে থেকে পাশেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক হাউজিং প্রকল্পে বাড়ির নির্মাণকাজ দেখাশোনা করতেন। বাড়ির কাজও প্রায় শেষের দিকে। সপ্তাহ খানেকের মধ্যে নতুন বাসায় ওঠার কথা ছিল।

তিনি বলেন, বুধবার (১২ জানুয়ারি) সন্ধ্যার আগেই মায়ের বাসার দরজা খোলা পাওয়া যায়। বাসায় না পেয়ে শিক্ষক হাউজিং প্রকল্পের ঠিকাদার আনোয়ার তাকে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে ওই রাতেই কাশিমপুর থানায় আমার বোন সাদিয়া আফরিন এ সংক্রান্তে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

সাইদ ইফতেখার বিন জহির বলেন, তার মা নতুন বাসার সীমানা প্রাচীর নির্মাণের জন্য একটি গাছ কেটেছিলেন। গাছটি সীমানা প্রাচীরের মধ্যে পড়ে যাওয়ায় এটা কাটতে হয়েছিল। আনারুল ইসলাম নামে এক শ্রমিক গাছটি কেটেছিলেন। তাকেই পুলিশ সন্দেহ করে প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) ভোরে গাইবান্ধা থেকে গ্রেফতার করে।

আনারুলের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে ভাড়া বাসার অনতি দূরের একটি ঝোপ থেকে অধ্যাপক সাইদার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। শ্বাসরোধে হত্যার পর ঘাতক তার সঙ্গে থাকা স্বর্ণালংকার, মোবাইল নিয়ে নেয়। এরপর চাবি নিয়ে বাসায় ঢুকে ল্যাপটপ, ট্যাব ও টাকা-পয়সা লুট করে।

কাশিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবে খোদা জানান, ২০১৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অবসর গ্রহণ করেন অধ্যাপক সাইদা। প্রায় ১১ মাস ধরে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের পানিশাইল এলাকার মোশারফ হোসেন মৃধার বাড়িতে ভাড়া বাসায় থাকতেন। ভাড়া বাসায় থেকে তিনি একই এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক আবাসন প্রকল্পে বাড়ি নির্মাণ করছিলেন। বুধবার রাত সোয়া ৯টায় তার ছেলে ও মেয়ে বাসায় এসে কোথাও খুঁজে পাননি তাকে। পরে সাদিয়া আফরিন কাশিমপুর থানায় জিডি করেন।

গাজীপুর মহানগর পুলিশের কাশিমপুর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) শেখ মিজানুর রহমান জানান, নির্মাণাধীন বাড়ির প্লটে গিয়ে অধ্যাপক সাইদার খোঁজ-খবর নেওয়া হয়। তদন্তের নানা তথ্যের ভিত্তিতে ওই প্লটে কর্মরত রাজমিস্ত্রির সহযোগী আনারুলকে গাইবান্ধার সাদুল্লাহপুর থেকে বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেফতার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে হত্যার কথা স্বীকার করে আনারুল। শুক্রবার তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে নির্মাণাধীন ওই বাড়ির অদূরে (আনুমানিক ২০০ গজ দূরে) একটি ঝোপের ভেতর থেকে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে জহির অজ্ঞাত কয়েকজনসহ আনারুলকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন।

শেখ মিজানুর রহমান আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আনারুল জানিয়েছে, অধ্যাপক সাইদার হাতে থাকা টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে আনারুল। এ সময় তাকে বাধা দেওয়ায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে। ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ স্বজনদের কাছে ফেরত দেওয়া হয়েছে।

অধ্যাপক সাইদার মেয়ে সাদিয়া আফরিন বলেন, ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ নিয়ে ঢাকার দিকে যাচ্ছেন। বাদ এশা উত্তরার ১২ নম্বর সেক্টরের ১০ নম্বর রোডের বায়তুন নূর জামে মসজিদের সামনে জানাজার পর দাফন করা হবে।


আরও খবর



ওমিক্রনে যুক্তরাজ্যে ১২ জন মারা গেছেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ ডিসেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়ে যুক্তরাজ্যে ১২ জন মারা গেছেন। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আরও ১০৪ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) যুক্তরাজ্যের উপ-প্রধানমন্ত্রী ডমিনিক রাব দেশটির সংবাদমাধ্যম টাইমস রেডিওকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানিয়েছেন।

দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা বলেছেন, বর্তমানে ব্রিটেনে যে হারে ওমিক্রন সংক্রমণ বাড়ছে, তা অব্যাহত থাকলে সামনে বড় আকারের মানবিক বিপর্যয় দেখা দিতে পারে দেশটিতে।

তবে এমন সতর্কবার্তা দেয়া সত্ত্বেও আপাতত লকডাউনের কোনো পরিকল্পনা সরকারের নেই বলে জানিয়েছেন উপ-প্রধানমন্ত্রী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভাইরাসটি নতুন হওয়ায় এ বিষয়ে অনেক তথ্যই অজানা রয়ে গেছে। আমরা কিছুটা সময় নিচ্ছি এ সম্পর্কিত আরও বিস্তারিত তথ্য জানার জন্য। তার আগ পর্যন্ত আমরা আপাতত কোনো কঠোর বিধিনিষেধ প্রণয়ন করছি না।

গত ২৭ নভেম্বর যুক্তরাজ্যে প্রথম ওমিক্রন শনাক্ত হয়।এর আগে ২৪ নভেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম ওমিক্রন আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়।


আরও খবর

আবুধাবিতে ড্রোন হামলায় তিনজন নিহত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়া ঠেকাতে এখন ভাবা প্রয়োজন: ইসি মাহবুব

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ ডিসেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৭০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়া ঠেকাতে নির্বাচন প্রক্রিয়ার পরিবর্তন নিয়ে এখন ভাবা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) জ্যেষ্ঠ কমিশনার মাহবুব তালুকদার। মঙ্গলবার সকালে নগরীর সার্কিট হাউসে আয়োজিত চতুর্থ দফা ইউপি নির্বাচন নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ইসি মাহবুব বলেন, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার একটি সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে। গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র কাঠামোতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচনকে উৎসাহিত করা সম্ভব নয়, সমীচীনও নয়। আমাদেরকে নতুন করে চিন্তা করতে হবে, নির্বাচন পক্রিয়া পরিবর্তন করলে- এ অবস্থা থেকে আমরা উদ্ধার পেতে পারি কিনা। আগামীতে যারা নির্বাচন কমিশনে আসবেন তারা নিশ্চয়ই এ বিষয়গুলো ভেবে দেখবেন। 

দায়িত্ব পালনে বর্তমান নির্বাচন সফল কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে মাহবুব তালুকদার বলেন, এককভাবে আমার কোনো বক্তব্য রাখতে চাই না। এটি একেকজনের একেক রকম অনুভূতি। তবে যেহেতু আমরা চার সহকর্মী কাজ করেছি, এখানে কোনো ব্যক্তিগত অনুভূতিকে মূল্যায়ন করা উচিত নয়।

ইসি মাহবুব আরও বলেন, এ নির্বাচন কমিশনের আয়ুষ্কাল আর মাত্র ৫৫ দিন। তার আগে আমাদের দায়িত্ব সুসম্পন্ন করতে চাই। বাংলায় প্রবাদ আছে, যার শেষ ভালো, তার সব ভালো। কাজেই এই শেষ ভালোটাকে আমরা সব ভালোর মধ্যে নিয়ে আসতে চাই।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন, আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান প্রমুখ।


আরও খবর



অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন হাইতির প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৪২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বন্দুকধারীদের হাত থেকে প্রাণে বাঁচলেন ক্যারিবীয় হাইতির প্রধানমন্ত্রী অ্যারিয়েল হেনরি। স্বাধীনতা দিবসের বর্ষপূর্তিকে সামনে রেখে গত শনিবার আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে অ্যারিয়েল হেনরিকে হত্যা চেষ্টা চালানো হয়। কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এমনটি বলা হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত শনিবার হাইতির উত্তরাঞ্চলীয় গোনাইভস শহরের একটি গির্জায় আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী অ্যারিয়েল হেনরি। সেখানেই তাঁকে হত্যার চেষ্টা চালায় বন্দুকধারীরা।

হাইতির প্রধানমন্ত্রীর ওপর বন্দুক হামলার একটি ভিডিও অনলাইনে প্রকাশ পেয়েছে। সেখানে তীব্র গোলাগুলির মধ্যে প্রধানমন্ত্রী অ্যারিয়েল হেনরি ও তাঁর সঙ্গীদের চিৎকার করতে করতে গাড়ির দিকে এগিয়ে যেতে দেখা যায়।

এর আগে গত জুলাই মাসে নিজের বাসভবনে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত হয়েছিলেন হাইতির তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জোভেনেল মোয়েস। ওই ঘটনার পর থেকেই দেশটির নিরাপত্তা পরিস্থিতির উল্লেখযোগ্য অবনতি হয়েছে।

হাইতির প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী অ্যারিয়েল হেনরিকে অস্ত্রধারী ডাকাত ও সন্ত্রাসীরা হত্যাচেষ্টা করেছে। সন্দেহভাজনদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, প্রধানমন্ত্রীকে হত্যাচেষ্টার সময় বন্দুকধারী ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে হওয়া বন্দুকযুদ্ধে একজন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন আরও দুজন।

হেনরি ক্ষমতায় আসার পর হাইতির গ্যাংদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এসব গ্যাংগুলো দেশটির গ্যাস সরবরাহে বাধা তৈরি ও অপহরণের সঙ্গে জড়িত।


আরও খবর

আবুধাবিতে ড্রোন হামলায় তিনজন নিহত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




প্রথমবার জাতিসংঘের নারী নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি হলেন রাবাব ফাতিমা

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা ২০২২ সালের জন্য সর্বসম্মতিক্রমে জাতিসংঘের নারী নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় মঙ্গলবার জাতিসংঘ সদর দপ্তরে সংস্থাটির ৫ সদস্য বিশিষ্ট ব্যুরোর এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত আর্জেন্টিনা, ইউক্রেন, আইসল্যান্ড এবং সিয়েরালিওনের স্থায়ী প্রতিনিধিগণ।

এই নির্বাচনের মাধ্যমে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো জাতিসংঘের নারী নির্বাহী বোর্ডের সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ করলো। নির্বাহী বোর্ড ইউএন উইমেনকে কৌশলগত দিক-নির্দেশনা প্রদান করে থাকে। জাতিসংঘের এই সংস্থাটি লিঙ্গসমতা ও নারীর ক্ষমতায়নের জন্য নিবেদিত। বোর্ডের সভাপতি হিসেবে বাংলাদেশ ইউএন উইমেনের কাজকে আরও বেগবান করতে অবদান রাখার সুযোগ পাবে।

উদ্বোধনী বক্তৃতায় রাষ্ট্রদূত ফাতিমা তাকে নির্বাচিত করার জন্য বোর্ড-সদস্যদের ধন্যবাদ জানান। সারা বিশ্বে, বিশেষ করে কোভিড-১৯ অতিমারির এই সময়ে নারী ও মেয়েরা যে সকল চ্যালেঞ্জের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে তা মোকাবিলায় ইউএন উইমেন এর বোর্ড সদস্যগণ বাংলাদেশের নেতৃত্বের প্রতি যে আস্থা রেখেছেন সে জন্যও তাদের ধন্যবাদ জানান বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি।

প্রদত্ত বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা বলেন, এক মুহূর্ত বিলম্ব করার মতো সময় আমাদের হাতে নেই। আমাদের অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে কোভিড এর পুনরুদ্ধারের পরিকল্পনায়ই লিঙ্গ-সমতা নিশ্চিত করা হয়েছে এবং সকল অংশীজন অর্থাৎ সরকার, বেসরকারি খাত ও এনজিওগুলো তা বাস্তবায়নে একসাথে কাজ করছে। এছাড়া ইউএন উইমেনকে আমাদের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান ও সম্পদ সরবরাহ করতে হবে যাতে প্রতিষ্ঠানটি চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার সকল প্রচেষ্টায় অগ্রভাগে থাকতে পারে।

রাষ্ট্রদূত ফাতিমা আশ্বস্ত করেন, নতুন নির্বাহী বোর্ড চ্যালেঞ্জিং এই সময়ে ইউএন উইমেন এর কাজকে আরও এগিয়ে নিতে কঠোর পরিশ্রম করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। লিঙ্গসমতা ও নারীর ক্ষমতায়নে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখা এবং নারী ও মেয়েদের জন্য নিবেদিত বিশ্বের শীর্ষ স্থানীয় ও চ্যাম্পিয়ন প্রতিষ্ঠান হিসেবে আবির্ভূত হওয়ার জন্য ইউএন উইমেনের প্রশংসা করেন এবং এর কাজের স্বীকৃতি প্রদান করেন বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি। তিনি বিশ্বব্যাপী কর্মরত ইউএন উইমেনের সকল কর্মীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান, যারা মহামারীরি এই চ্যালেঞ্জের মধ্যেও নিষ্ঠা, একাগ্রতা ও সাহসের সাথে তাদের উপর অর্পিত গুরুত্বপূর্ণ  দায়িত্ব পালন করে চলেছেন।

ইউএন উইমেন এর নির্বাহী পরিচালক রাষ্ট্রদূত সিমা বাহাউস নব-নির্বাচিত সভাপতিকে স্বাগত জানান। তিনি বলেন, ইউএন উইমেন নতুন সভাপতির অভিজ্ঞতা ও প্রজ্ঞা থেকে উপকৃত হওয়ার জন্য উন্মুখ হয়ে আছে। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা ব্যুরোর দিক নির্দেশনা প্রদানের মাধ্যমে ইউএন উইমেনের কাজে নেতৃত্ব প্রদান করবেন।

এর আগে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা ২০২০ সালে ইউনিসেফ নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি এবং ২০২১ সালে ইউএনডিপি, ইউএনএফপি ও এইউএনওপিএস এর এক্সিকিউটিভ বোর্ডের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।


আরও খবর



শরীয়তপুরে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শরীয়তপুর সদর উপজেলার কুড়াশী দীঘির পশ্চিম পাশের একটি আমগাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় অজ্ঞাত পরিচয় এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ শুক্রবার সকালে পালং মডেল থানা পুলিশ এ লাশ উদ্ধার করে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই যুবকের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। তার পরনে ছিল টি-শার্ট ও জিন্সের প্যান্ট। এ বিষয়ে পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আক্তার হোসেন বলেন, লাশটির ব্যাপারে তদন্ত চলছে। শিগগিরই এ বিষয়ে জানা যাবে।


আরও খবর