Logo
শিরোনাম

বিভিন্ন কুসংস্কারে কালো বিড়াল

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ | ৩৯৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অনেকেই কালো বিড়ালের রাস্তা পার হওয়াকে অশুভ মনে করে থাকেন। এ সংস্কার শুধু আমাদের দেশেই প্রচলিত নয়। পৃথিবীর বিভিন্ন সংস্কৃতিতেও তা বিদ্যমান।

জার্মানিতে রাস্তার ডান দিক থেকে বাঁ দিকে কালো বিড়ালের ছুটে যাওয়াকে অশুভ মনে করা হয়। কালো বিড়াল যদি বাম থেকে ডানে রাস্তা পার হয় তবে তা শুভ লক্ষণ বলে ধরা হয়।

পশ্চিম এবং দক্ষিণ ইউরোপের বিভিন্ন দেশেও এ জাতীয় বিশ্বাস প্রচলিত রয়েছে। ১৯ শতকের জলদস্যুরা বিশ্বাস করতো, কোনো মানুষের কাছ থেকে কালো বিড়াল দূরে পালালে তা দুর্ভাগ্য দূরীভূত হওয়ার লক্ষণ। জুয়াড়িরা জুয়া খেলতে যাওয়ার পথে কালো বিড়ালের দর্শনও অশুভ বলে মনে করেন।

সাধারণভাবে মনে করা হয়, কালো বিড়াল রাস্তা পার হলে ১০ পা পিছিয়ে গিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে তারপর আবার সামনে এগিয়ে যাওয়া ভালো।

জীববিজ্ঞানীদের একাংশ মনে করেন, এ সমস্ত বিশ্বাসের বৈজ্ঞানিক কোনো ভিত্তি নেই। কোনো কোনো প্রাণী আসন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগের আভাস পেয়ে থাকে। কিন্তু ব্যক্তি বিশেষের দুর্ভাগ্যের সঙ্গে বিড়াল বা অন্য প্রাণীর যোগ রয়েছে বলে বিশ্বাস করার কোনো যুক্তিসঙ্গত কারণ নেই।

নিউজ ট্যাগ: কালো বিড়াল

আরও খবর



রোহিঙ্গা গণহত্যা

আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের আপত্তি খারিজ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ জুলাই 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২ | ৫২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রোহিঙ্গা গণহত্যার মামলায় মিয়ানমারের আপত্তি খারিজ করে দিয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিজে)। দ্য ওয়াশিংটন পোস্টের প্রাতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এই রায়ের ফলে জাতিসংঘের আদালতে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা ও নির্যাতনের অভিযোগে গাম্বিয়ার দায়ের করা মামলার শুনানিতে আর কোনো বাধা থাকলো না।

২০১৭ সালে বাংলাদেশের সীমান্ত লাগোয়া রাখাইন রাজ্যে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দিয়ে, ধর্ষণ ও হত্যা করে জাতিগত নিধন অভিযান চালায় মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। সেসময় নির্যাতনের মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা। তারা এখনো তাদের জন্মভূমিতে ফিরতে পারেনি।

রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে ২০১৯ সালের নভেম্বরে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করে পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া। ওই বছরের ১০-১২ ডিসেম্বর এই মামলায় প্রথমবার প্রাথমিক শুনানি হয়। এতে গাম্বিয়ার পক্ষে নেতৃত্ব দেন দেশটির আইন ও বিচার মন্ত্রী আবুবকর তামবাদু। আর মিয়ানমারের পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি।

২০২০ সালে আইসিজেতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যার দলিল দাখিল করে গাম্বিয়া। সেখানে দেখানো হয়, মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী কীভাবে রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা চালিয়েছে।

রোহিঙ্গাদের গ্রামে গ্রামে নির্বিচারে গণহত্যার অভিযোগ এনে গাম্বিয়ার করা এ মামলাকে একপর্যায়ে চ্যালেঞ্জ জানায় মিয়ানমার সরকার। সু চি কারাবন্দি থাকায় এ বিষয়ে গত ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত শুনানিতে অংশ নেন মিয়ানমার জান্তার প্রতিনিধিরা।


আরও খবর



সততার সাথে দায়িত্ব পালনে বিচারকদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ আগস্ট 2০২2 | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশের জনগণ যাতে দ্রুত ন্যায়বিচার পায় সেই ব্যাপারে বিচারকদের আরও সততা, নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের (বিজেএসসি) চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশের  প্রধান  বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল তার কাছে বার্ষিক প্রতিবেদন-২০২১ জমা দেয়ার সময় এ আহ্বান জানান। এসময় রাষ্ট্রপতি  বিচারকদের  পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে তথ্য প্রযুক্তিসহ বিভিন্ন বিষয়ে সময়োপযোগী প্রশিক্ষণের উপরও গুরুত্বারোপ করেন। রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বৈঠকে প্রতিনিধি দল কমিশনের সার্বিক কার্যক্রমের পাশাপাশি দাখিলকৃত প্রতিবেদনের সারমর্ম রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করেন।

প্রতিনিধিদলের অন্য সদস্যরা হলেন-বিচারপতি মোঃ নজরুল ইসলাম তালুকদার, অ্যাটর্নি জেনারেল আবু মোহাম্মদ আমিন উদ্দিন, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মোঃ গোলাম সারওয়ার  এবং জেলা ও দায়রা জজ এএইচএম হাবিবুর রহমান ভূঁইয়া। জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশন একটি সরকারি কমিশন যা বাংলাদেশে বিচারক নিয়োগ ও পরীক্ষার জন্য দায়িত্ব পালন করে থাকে।

এই কমিশন বেশিরভাগই সুষ্ঠু নিয়োগ বজায় রাখার জন্য পরিচিত এবং এর মাধ্যমে বাংলাদেশের বিচার বিভাগে সবচেয়ে মেধাবী শিক্ষার্থীরা নিয়োগ পাচ্ছে। এর অধীনে নিয়োাগপ্রাপ্ত বিচারকরা বাংলাদেশের ন্যায়বিচার প্রদান ব্যবস্থায় একটি যুগোপযোগী  ভূমিকা পালন করে থাকেন। রাষ্ট্রপতি হামিদ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং কমিশনের কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনায় প্রয়োজনীয় সহায়তা দেয়ারও আশ্বাস দেন।

 এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এসএম সালাহ উদ্দিন ইসলাম, প্রেস সচিব মোঃ জয়নাল আবেদীন  এবং সচিব (সংযুক্ত)  মোঃ ওয়াহিদুল ইসলাম খান।


আরও খবর



ট্রাম্পের বাড়িতে এফবিআই’র হানা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বাড়িতে আকস্মিক অভিযান চালিয়েছে মার্কিন কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (এফবিআই)। গত সোমবার (৭ আগস্ট) ফ্লোরিডায় তার বিলাসবহুল মার-এ-লাগো রিসোর্টে এই অভিযান চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন এ রিপাবলিকান নেতা। যুক্তরাষ্ট্রে সাবেক কোনো প্রেসিডেন্টের বাড়িতে এভাবে এফবিআই হানা দেওয়ার ঘটনা অভূতপূর্ব বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

খবরে বলা হয়েছে, এফবিআইয়ের এই অভিযানের সঙ্গে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সরকারি গোপন নথি সরানোর অভিযোগে মার্কিন বিচার বিভাগের তদন্তের যোগসূত্র থাকতে পারে। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে বর্তমানে যেসব তদন্ত চলছে, তার মধ্যে এটি অন্যতম।

ট্রাম্পের অভিযোগ, বিপুল সংখ্যক এফবিআই এজেন্ট তার বাড়িতে অভিযান চালাতে গিয়েছিলেন। এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি মার্কিন বিচার বিভাগ। মুখ খোলেনি এফবিআইয়ের ওয়াশিংটনের সদর দপ্তর বা মিয়ামির ফিল্ড অফিসও।

ধারণা করা হচ্ছে, ট্রাম্প ক্ষমতা ছাড়ার সময় হোয়াইট হাউজ থেকে কয়েকটি বাক্সে করে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সরকারি কাগজপত্র ফ্লোরিডায় নিয়ে গিয়েছিলেন, এমন অভিযোগের তদন্ত করতেই তার বাড়িতে গিয়েছিলেন এফবিআই এজেন্টরা। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক দুই তদন্ত কর্মকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে ওই অভিযোগ তোলা হয়েছিল।

এক বিবৃতিতে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, রিসোর্টটি বর্তমানে অবরুদ্ধ। সেখানে অভিযান চালানো এবং দখল করে রাখা হয়েছে। তবে কেন অভিযান চালানো হয়েছে তা জানাননি তিনি।

ট্রাম্প বলেন, প্রাসঙ্গিক সরকারি সংস্থাগুলোর সঙ্গে কাজ করা ও সহযোগিতা করার পরেও আমার বাড়িতে এই অঘোষিত অভিযানের দরকার ছিল না। এমনকি তারা আমার লকারও ভেঙেছে।

সিএনএন জানিয়েছে, ট্রাম্পের বাড়িতে ঢোকার জন্য এফবিআইয়ের কাছে সার্চ ওয়ারেন্ট ছিল। তবে ঘটনার সময় সেখানে ছিলেন না সাবেক প্রেসিডেন্ট।

নিউজ ট্যাগ: ডোনাল্ড ট্রাম্প

আরও খবর



জিম্বাবুয়ের কাছে প্রথমবার সিরিজ হারল বাংলাদেশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ আগস্ট 2০২2 | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জিম্বাবুয়ের কাছে প্রথমবার টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারের তিক্ত স্বাদ পেল বাংলাদেশ। এই সিরিজের আগে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে খেলে ৬টি সিরিজ। যেখানে তিনটি সিরিজ জিতে বাংলাদেশ আর তিনটি সিরিজ হয় ড্র।

হারারেতে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ১৭ রানে হারের পর দ্বিতীয় ম্যাচে ৭ উইকেটের জয় পায় বাংলাদেশ। সিরিজ সমতায় আনার পর শেষ ম্যাচে জিম্বাবুয়ের কাছে টাইগাররা হারল ১০ রানে।

ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই সাজঘরে ফেরেন লিটন দাস। দলীয় ১৩ রানের মাথায় ১৩ (৬) রান করা লিটন দাস কট এন্ড বোল্ড হন ভিক্টোর নায়ুচির বলে।

দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে দ্রুততম সেঞ্চুরিয়ান পারভেজ হোসেন ইমন তার অভিষেক ম্যাচে ২ রানের বেশি করতে পারেননি। আনামুল হক বিজয় বরাবরের মতো ব্যর্থ। ১৪ রান করে মাধভেরের বলে হন বোল্ড।

নাজমুল হোসেন শান্তকে ১৬ রানে ফেরান সিন উইলিয়ামস। বিশ্রামে থাকা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে হুট করে দলে ঢাকা হয় অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহানের চোটের কারণে। বাজে ফর্মের কারণে নেতৃত্ব হারানো মাহমুদউল্লাহ নিজেকে প্রমাণের বড় সুযোগ পেলেও ২৭ বলে ২৭ রান করে ফেরেন সাজঘরে। দলের সবচেয়ে সিনিয়র ক্রিকেটার হয়েও দলের বিপদে ব্যর্থ হন হাল ধরতে।

শেষ দিকে শেখ মেহেদীর ২২ (১৭), আফিফ হোসেনের অপরাজিত ৩৯ (২৭) রান ছাড়া বাকিরা ব্যর্থ ব্যাট হাতে।

জিম্বাবুয়ের হয়ে ৩ উইকেট নেন ভিক্টোর নায়ুচি। ২ উইকেট নেন ব্র্যাড ইভান্স ও ১টি উইকেট নেন ওয়েসলে মাধভেরে, সিন উইলিয়ামস এবং লুক জঙ্গওয়ে।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে কুড়ি ওভারে ৮ উইকেটে ১৫৬ রান তোলে জিম্বাবুয়ে। প্রথম ছয় ব্যাটার বড় ইনিংস খেলতে পারেননি নাসুম আহমেদ, শেখ মেহেদীদের তোপে।

নাসুম তার প্রথম ওভারের প্রথম বলেই ফেরান ওপেনার রেগিস চাকাভাকে। ষষ্ঠ ওভারের দ্বিতীয় বলে ওয়েসলে মাধভেরেকে ৫ রানে বোল্ড করে ফেরান শেখ মেহেদী। পরের বলেই শূন্য রানে ফেরান সিকান্দার রাজাকে।

ছয় ব্যাটারের দ্রুত বিদায়ে জিম্বাবুয়ের রান যখন একশর নিচে আটকে যাচ্ছিল তখন ১৫তম ওভারে পাঁচটি ছক্কা আর এক চারে ৩৪ রান তুলেন রায়ান বার্ল। যা এক ওভারে সর্বোচ্চ রান তোলার তালিকায় তৃতীয়। বার্লের আগে রয়েছেন কেবল ভারতের যুবরাজ সিং ও কাইরন পোলার্ড। দুজনেই ওভারে ৬টি করে ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন।

রেকর্ড করা বার্লকে ৫৪ (২৮) রানে ফেরান হাসান মাহমুদ। শেষ দিকে লুক জঙ্গওয়ে করেন ৩৫ (২০) রান। তাকেও ফেরান হাসান। বাংলাদেশের পক্ষে ২টি করে উইকেট নেন শেখ মেহেদী ও হাসান মাহমুদ। ১টি করে উইকেট নেন মোস্তাফিজুর রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, নাসুম আহমেদ ও মাহমুদউল্লাহ।


আরও খবর



সোমবার কোথায় কখন লোডশেডিং

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নিয়ম অনুযায়ী, সোমবার (২৫ জুলাই) ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ডিপিডিসি) লোডশেডিং শুরু করবে সকাল ১০টায়। চলবে রাত ১০টা পর্যন্ত। একই সময় ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেডও (ডেসকো) লোডশেডিং শুরু করবে।

জ্বালানি সাশ্রয়ে উচ্চ ব্যয়ের ডিজেলচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ রাখার সরকারি সিদ্ধান্তের পর সরবরাহ সংকটে দেশজুড়ে প্রতিদিন সূচি ধরে এক ঘণ্টা করে মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) থেকে লোডশেডিং শুরু হয়।

এর আগে ১৮ জুলাই লোডশেডিংয়ের সিদ্ধান্ত সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিদ্যুৎ ও জ্বালানিবিষয়ক সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদবিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী ওই সভা শেষে জানান, খরচ কমাতে বিদ্যুৎ উৎপাদন কমানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ সিদ্ধান্ত সাময়িক। বিশ্ব পরিস্থিতির উত্তরণ হলে আগের অবস্থানে ফিরে আসা হবে।

সোমবার রাজধানীর কোন এলাকায় লোডশেডিং হবে, এর সূচি দিয়েছে ডেসকো ও ডিপিডিসি। চলুন দেখে নেয়া যাক।

নিচের লিংকগুলোতে ডিপিডিসি, ডেসকো, ওজোপাডিকো, নেসকো ও আরইবির সোমবারের লোডশেডিংয়ের এলাকাভিত্তিক তালিকা রয়েছে।

https://www.desco.org.bd/bangla/loadshed_b.php

https://dpdc.gov.bd/site/page/73eb4722-b49c-4a44-bd6e-923c06c4a169

http://www.wzpdcl.org.bd/

https://nesco.portal.gov.bd/site/page/13ccd456-1e1d-4b24-828d-5811a856f107

http://reb.portal.gov.bd/site/page/c65ac273-d051-416f-9a93-5cd300079047


আরও খবর