Logo
শিরোনাম

ব্যাক পেইন থেকে মুক্তির সঠিক উপায়

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ অক্টোবর ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
কমবেশি সবার ব্যাক পেইন অর্থাৎ কোমরের বা মাজার ব্যথা হতে পারে। বার্ধক্যের কারণে এই ব্যথা বাড়তে পারে। একটানা চেয়ারে বসে থাকলে বা দূরে কোথাও ঘুরতে গেলে, এটি হতে পারে

হঠাৎ ব্যাক পেইন হলে অনেকে মনে করেন কিডনির সমস্যা। দীর্ঘক্ষণ একভাবে বসে থাকার কারণে এই সমস্যা বেশি হয়ে থাকে। তবে এই সমস্যা দীর্ঘদিনের হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

কমবেশি সবার ব্যাক পেইন অর্থাৎ কোমরের বা মাজার ব্যথা হতে পারে। বার্ধক্যের কারণে এই ব্যথা বাড়তে পারে। একটানা চেয়ারে বসে থাকলে বা দূরে কোথাও ঘুরতে গেলে, এটি হতে পারে। শুধু ওষুধ খেলেই ব্যথা ভালো  হবে এমন নয়।

ব্যাক পেইন কেন হয়?

বিভিন্ন কারণেই ব্যাক পেইন হতে পারে। মূলত মেরুদণ্ড বা স্পাইন-সম্পর্কিত ব্যথাকেই আমরা ব্যাক পেইন বলে থাকি। স্নায়ু, পেশি, হারজোড় ইত্যাদি কারণেই ব্যাক পেইন দেখা যায়। মেরুদণ্ডের পেশি, স্নায়ু, হাড়ের জোড়া যদি সঠিক অবস্থানে সঠিক কাজ না করতে পারে, তাহলে ব্যথা সৃষ্টি হয়।

আসুন জেনে নিই ব্যাক পেইন দূর করতে কী করবেন-

১. ব্যাক পেইন হলে পিঠ সোজা হয়ে বাসার অভ্যাস করুন। পিঠ সোজা করে বসতে ও চলাফেরা করতে হবে।

২. দুই পায়ের নিচে বালিশ দিয়ে পা উঁচু রেখে ঘুমাতে হবে।

৩. চেয়ারে বসে দীর্ঘক্ষণ কাজ করার সময় বসবার জায়গাটা যেন উঁচু থাকে, সেদিকে লক্ষ্য রাখুন।

৪. ভারী পানির বালতি বা ব্যাগ বহন করলে ব্যাক পেইন হতে পারে। তাই ভারী কিছু বহন করা যাবে না।

৫. বাইসাইকেল ও মোটরসাইকেল চালানোর কারণে ব্যাক পেইন হতে পারে। এক্ষেত্রে বাইসাইকেল বা মোটর সাইকেল চালানো পরিহার করতে হবে।

৬. ব্যাক পেইন হলে বিশ্রাম নিতে হবে। ব্যাক পেইন ভালো হওয়ার ক্ষেত্রে বিশ্রামের বিকল্প নেই।

৭. কোমর ব্যথা হলে সেঁক ও বরফ দেয়া যেতে পারে। কখনও কখনও সেঁক দিলে অথবা বরফ দিলে উপকার পেতে পারেন।

৮. ব্যাক পেইন সারাতে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যায়াম করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনো ব্যথানাশক ওষুধ খাবেন না।

নিউজ ট্যাগ: ব্যাক পেইন

আরও খবর

আজকের ভালো মন্দ

বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১

বাটা মসলার স্বাদে চিংড়ির কোরমা

মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১




ভারতের সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতলেন মনোজ ও ধানুশ

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৪৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন দেশটির দুই জনপ্রিয় অভিনেতা মনোজ বাজপেয়ী ও ধানুশ। দিল্লির বিজ্ঞানভবনে সোমবার অনুষ্ঠিত হয় দেশটির ৬৭তম ন্যাশনাল ফিল্ম অ্যাওয়ার্ডস। অনুষ্ঠানে পুরস্কার তুলে দিয়েছেন ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডু।

৫১তম দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কারে পুরস্কৃত হন দক্ষিণী মেগাস্টার রজনীকান্ত। সেরা অভিনেতা হিসেবে পুরস্কার পান মনোজ বাজেপেয়ী, ধনুশ। সেরা অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় পুরস্কার পান কঙ্গনা রানাওয়াত।

করোনার কারণে এক বছর পিছিয়ে যাওয়ার পর গত মার্চে ঘোষিত হয়েছিল বিজয়ীদের নাম।  ভোঁসলে ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেতা হিসেবে মনোজ বাজপেয়ী এবং তামিল ছবি অসুরণ- এ অভিনয়ের জন্য ধনুশ সেরা অভিনেতা হিসেবে এদিন পুরস্কার পান। মণিকর্ণিকা এবং পাঙ্গার জন্য সেরা অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় পুরস্কার পান কঙ্গনা।

এক ঝলকে দেখে নিন জাতীয় পুরস্কার প্রাপকদের তালিকা-

১. সেরা বাংলা ছবি- গুমনামী

২. সেরা হিন্দি ছবি ছিছোরে (সুশান্ত সিং রাজপুত অভিনীত শেষ ছবি)

৩. সেরা অভিনেতা- মনোজ বাজপেয়ী (ভোঁসলে ছবির জন্য-হিন্দি) ও ধানুশ (অসুরণ ছবির জন্য- তামিল)

৪. সেরা অভিনেত্রী- কঙ্গনা রানাওয়াত (মণিকর্ণিকা ও পাঙ্গা ছবির জন্য)

৫. সেরা সহ অভিনেতা- বিজয় সেতুপতি (সুপার ডিলাক্স- তামিল)

৬. সেরা সহ অভিনেত্রী- পল্লবী জোশি(দ্য তশখন্ত ফাইল- হিন্দি)

৭. সেরা সংগীত পরিচালনা- প্রবুদ্ধ বন্দ্যোপাধ্যায় (জ্যেষ্ঠপুত্র)

৮. সেরা পরিচালক- সঞ্জয় পুরাণ সিংহ চৌহান (বাহাত্তর হুরায়ে)

৯. পরিচালক হিসেবে সেরা ডেবিউ ছবি- হেলেন-র জন্য মাথুকুট্টি জেভিয়ার (মলয়লম)

১০. সেরা পরিচালনা- সুধাংশু সারিয়া (নক নক নক)

১১. সেরা মৌলিক চিত্রনাট্য- কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় (জ্যেষ্ঠপুত্র)

১২. কাহিনি অবলম্বনে রচিত সেরা চিত্রনাট্য- সৃজিত মুখোপাধ্যায় (গুমনামী)

১৩. সেরা শিশু শিল্পী- নাগা বিশাল (কেডি'র জন্য- তামিল)

১৪. সেরা প্রচারমূলক ছবি- বৌদ্ধায়ণ মুখোপাধ্যায় (দ্য শাওয়ার)

১৫. সেরা সংগীত পরিচালনা- বিশাখজ্যোতি (ক্রান্তি দর্শী গুরুজি- অ্যাহেড অফ টাইমস)

১৬. সেরা সিনেম্যাটোগ্রাফি- জাল্লিকাট্টু


আরও খবর

অবশেষে জামিন পেলেন শাহরুখপুত্র

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

আজ ফের হাইকোর্টে আরিয়ানের জামিন শুনানি

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




পূর্ব তেজতুরী বাজারের বাসায় বিস্ফোরণ, ২ জন দগ্ধ

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর পূর্ব তেজতুরী বাজারের একটি বাসায় বিস্ফোরণে ২ জন দগ্ধ হয়েছেন। শুক্রবার (১ অক্টোবর) রাতে তাদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। দগ্ধরা হলেন মো. জিতু (২৮) ও মো. ইয়াসিন (৩২)। ঘটনার পর ওই বাসায় পুলিশ ও বোম ডিসপোজাল ইউনিট চারদিক দিয়ে ঘিরে রেখেছে। তবে কি কারণে বিস্ফোরণ ঘটেছে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়ভাবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তেজগাঁওয়ে ২৭/১ পূর্ব তেজতুরী বাজার সংলগ্ন ৬ তলা ভবনের তৃতীয় তলায় বিকট শব্দে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। তিন তলার একটি রুমে দগ্ধ দুই শিক্ষার্থী মেস ভাড়া করে থাকতেন। বিস্ফোরণে তারা আহত হন।

রাত সোয়া ১১টায় ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের ডিউটি অফিসার দেওয়ান আজাদ বলেন, বিস্ফোরণে ওই দুইজন আহত হয়। তবে কি কারণে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

এদিকে বিস্ফোরণের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে তেজগাঁও জোনের পুলিশসহ পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ট্রান্সক্রাইম ইউনিট, ডিবি পুলিশসহ বোম ডিসপোজাল ইউনিট গিয়ে আলামত সংগ্রহ করছে।

তেজগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অপূর্ব হাসান বলেন, একটি কক্ষে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে কি কারণে বা কিভাবে বিস্ফোরণ হয়েছে তা এখনই বলা যাচ্ছে না। তদন্তের পরই তা নিশ্চিত করে বলা যাবে।


আরও খবর

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৮৯

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




সাম্প্রদায়িক সহিংসতা: সারাদেশে ৭২ মামলা, গ্রেপ্তার ৪৫০

প্রকাশিত:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৬০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন অবমাননাকে কেন্দ্র করে দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘটা ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত ৭২টি মামলা করা হয়েছে। এসব মামলায় ৪৫০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ছাড়া, আরও মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে এবং দুষ্কৃতকারীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।

আজ বুধবার পুলিশ সদর দপ্তরের অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা এআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড পিআর) মোহাম্মদ শাহ জালাল স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ১৩ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৭টায় কুমিল্লার সদর থানাধীন নানুয়া দীঘির উত্তর পাড়ে দর্পণ সংঘের অস্থায়ী পূজামণ্ডপে মূর্তির পায়ের ওপর কে বা কারা পবিত্র কোরআন শরিফ রেখে চলে যায়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কতিপয় স্বার্থান্বেষী দুষ্কৃতকারী উসকানিমূলক ও বিকৃত প্রচারণা চালায় এবং পরবর্তীতে আরও উচ্ছৃঙ্খল দুষ্কৃতকারী সংঘবদ্ধ হয়ে মন্দিরের প্রতিমা ভাঙচুরের চেষ্টা ও পূজামণ্ডপে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ ছাড়া, দুষ্কৃতকারীরা শহরের কাপড়িয়া পট্টি কলোনির চানমনি পূজামণ্ডপ, শ্রী শ্রী রক্ষাকালী মন্দির, কালিতলাসহ আরও কয়েকটি পূজামণ্ডপে হামলা চালায় এবং প্রতিমায় অগ্নিসংযোগ করে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে যাতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না ঘটে সেজন্য সারাদেশে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ টহল জোরদার করা হয়েছে। এবং গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সর্বোচ্চ সতর্কতা এবং প্রচেষ্টা সত্ত্বেও দেশের বিভিন্ন স্থানে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ সদর দপ্তর জানিয়েছে, কুমিল্লার ঘটনার জের ধরে গত ১৩ অক্টোবর রাত সাড়ে ৮টায় চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পৌরসভার শ্রী ত্রিনয়নী সংঘ রাজা লক্ষ্মী নারায়ণ জিউর আখড়া, মোকিমাবাদ পূজামণ্ডপে ৫০০ থেকে ৬০০ দুষ্কৃতকারী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। পুলিশ তাদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করলে তারা পুলিশের ওপর হামলা করে এবং পাঁচ থেকে ছয়টি পূজামণ্ডপ ভাঙচুর করে। দুষ্কৃতকারীদের ইট-পাটকেলের আঘাতে ১৫ জন পুলিশ সদস্য মারাত্মক আহত হয়। জনগণের জানমাল রক্ষায় এবং আত্মরক্ষার্থে পুলিশ গুলিবর্ষণ করে। এ ঘটনায় পাঁচজন প্রাণ হারায়।

কুমিল্লার ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় গত ১৪ অক্টোবর বেলা ১১টা ২০ মিনিটে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নের সর্বজনীন শ্রী শ্রী দুর্গা পূজা মন্দিরের কাছে ৮০০ থেকে এক হাজার উচ্ছৃঙ্খল লোক জড়ো হয়ে উসকানিমূলক স্লোগান দিতে থাকে। একপর্যায়ে তারা অসংখ্য ইট, লাঠিসোঁটা নিয়ে মন্দিরের সামনে দায়িত্বরত ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ ও বিজিবির টহল দলের ওপর হামলা চালায়, মন্দিরের মূর্তি ভাঙচুর করে এবং মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনায় একজন প্রাণ হারায় এবং পরবর্তীতে পুকুর থেকে আরেকজনের লাশ উদ্ধার করা হয় বলেও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ১৭ অক্টোবর রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার বড় করিমপুর মাঝিপাড়া গ্রামের পরিতোষ (১৯) তার ফেসবুক আইডিতে পবিত্র কাবা শরিফের অবমাননাকর ছবি আপলোড করে। পরবর্তীতে তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। এরপর রাত প্রায় ৮টার সময় এলাকার কতিপয় দুষ্কৃতকারী ওই গ্রামের একটি মন্দিরসহ ১৮টি পরিবারের ঘরবাড়ি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়।

এ ছাড়া, কক্সবাজারের পেকুয়া ও চকরিয়া উপজেলা, সিলেটের জকিগঞ্জ, মৌলভীবাজারের কুলাউড়া ও কমলগঞ্জ, হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ এবং গাজীপুর মহানগরের কাশিমপুরসহ দেশের আরও কয়েকটি স্থানে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ সব ঘটনায় সারাদেশে সাতজন প্রাণ হারায়। তার মধ্যে দুজন হিন্দু সম্প্রদায়ের এবং পাঁচজন মুসলিম সম্প্রদায়ের। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দায়িত্ব পালনকালে ৫০ জন পুলিশ সদস্য আহত হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ সদর দপ্তর।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, সংঘটিত এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সারাদেশে গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত ৭২টি মামলা করা হয়েছে এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িত ৪৫০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ছাড়া, আরও মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন রয়েছে এবং দুষ্কৃতকারীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে। ঘটনা/অপরাধের রহস্য উদঘাটনের জন্য থানা পুলিশের পাশাপাশি পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিটগুলোকে সম্পৃক্ত করা হয়েছে। দ্রুততার সঙ্গে ঘটনা/অপরাধের রহস্য উদঘাটনে প্রযুক্তি নির্ভর তদন্ত কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব ও উসকানি রোধকল্পে সাইবার মনিটরিং জোরদার করা হয়েছে। পরিস্থিতির অবনতি রোধকল্পে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি এবং অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী এবং সরকারের সব গোয়েন্দা সংস্থা সার্বক্ষণিকভাবে কড়া নজরদারি অব্যাহত রেখেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, যেকোনো বিভ্রান্তিকর তথ্য অথবা গুজব কিংবা উসকানিতে বিভ্রান্ত বা উত্তেজিত না হয়ে তাৎক্ষণিকভাবে নিকটস্থ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করা এবং পরিস্থিতির উন্নয়নে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সহায়তা করার জন্য দেশের সব সম্মানিত নাগরিকদের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ।


আরও খবর

বেগমগঞ্জে আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




আজ থেকে বিজয়ীর নাম ঘোষণা শুরু

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৯৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
ড্যান স্মিথ বলেন, ‘শান্তিতে নোবেল দেওয়ার ক্ষেত্রে শান্তি স্থাপনকারী ও মধ্যস্থতাকারীদের প্রাধান্য দেওয়া হয়

প্রতিবছরের অক্টোবরের প্রথম সোমবার নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণা শুরু হয়। সেই হিসাবে আজ সোমবার শুরু হচ্ছে এবারের নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণার পালা। প্রথম দিন ঘোষণা করা হবে চিকিৎসাশাস্ত্রে নোবেল বিজয়ীর নাম।

পরের সোমবার অর্থনীতিতে নোবেল বিজয়ীর নাম ঘোষণার মধ্য দিয়ে শেষ হবে চলতি বছরের মোট ছয়টি শাখায় নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণা। এবার শান্তিতে সম্ভাব্য নোবেল বিজয়ী হিসেবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) নাম জোরেশোরে শোনা যাচ্ছে।

এবারের নোবেল আয়োজন নিয়ে শনিবার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন। এতে বলা হয়েছে, করোনা মহামারির লাগাম টানতে সম্মুখসারির বৈশ্বিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় ডব্লিউএইচও এবার শান্তিতে নোবেল পেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিশেষত করোনা নিয়ন্ত্রণে বিশ্বজুড়ে পরিচালিত টিকাদান প্রকল্প কোভ্যাক্স সফলভাবে পরিচালনা করায় সংস্থাটির নোবেল জয়ের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। জাতিসংঘের এ সংস্থা ১৯৪৮ সালে যাত্রা করলেও এখনো নোবেল পুরস্কার জেতেনি।

তবে ডব্লিউএইচওর নোবেল জয়ের সম্ভাবনা নিয়ে সমালোচনা রয়েছে। স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউটের পরিচালক ড্যান স্মিথ সিএনএনকে বলেন, ডব্লিউএইচওর ভূমিকা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সংস্থাটিকে চীনঘেঁষা মন্তব্য করে এতে অর্থ জোগান দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলেন। তাই ডব্লিউএইচও শান্তিতে নোবেল পেলে অনেকেই অবাক হবেন।’

এদিকে চলতি বছর শান্তিতে নোবেল বিজয়ী হিসেবে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্নের নাম জোরেশোরে শোনা যাচ্ছে। জোরালো গুঞ্জন রয়েছে রাশিয়ার বিরোধী নেতা অ্যালেক্সি নাভালনি ও সুইডেনের তরুণ জলবায়ুকর্মী গ্রেটা থুনবার্গকে নিয়েও। এবার শান্তিতে নোবেল জয়ের জন্য ৩২৯টি মনোনয়ন দিয়েছে নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি। এর মধ্যে ২৩৪ ব্যক্তি ও ৯৫ প্রতিষ্ঠানের নাম রয়েছে। তবে কমিটির নিয়ম মেনে এসব নাম গোপন রাখা হয়েছে। বিজয়ীর নাম ঘোষণার অন্তত ৫০ বছরের মধ্যে মনোনয়ন পাওয়া ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নাম জানার সুযোগ নেই।

ড্যান স্মিথ বলেন, শান্তিতে নোবেল দেওয়ার ক্ষেত্রে শান্তি স্থাপনকারী ও মধ্যস্থতাকারীদের প্রাধান্য দেওয়া হয়। তবে করোনার কারণে এবার শান্তি স্থাপনের বদলে মানবাধিকার, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও জলবায়ু সুরক্ষায় ভূমিকা রাখা ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান গুরুত্ব পেতে পারে।’

আগামী শুক্রবার চলতি বছরের শান্তিতে নোবেল বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে। ডিসেম্বরে বিজয়ীর হাতে তুলে দেওয়া হবে পুরস্কারের পদক, সনদ ও অর্থ। তবে করোনা মহামারির কারণে এবার বিজয়ীরা নিজ নিজ দেশে বসেই পুরস্কার গ্রহণ করবেন। গত বছর শান্তিতে নোবেল জিতেছিল জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (ডব্লিউএফপি)। ২০১৯ সালে বিশ্বের ৮৮টি দেশের প্রায় ১০০ মিলিয়ন মানুষের মুখে খাবার জোগানোয় নোবেল পুরস্কার পায় সংস্থাটি।

সুইডেনের ব্যবসায়ী আলফ্রেড নোবেলের নামে ও তাঁর রেখে যাওয়া অর্থে ১৯০১ সাল থেকে নোবেল পুরস্কার দেওয়া শুরু হয়। প্রতিবছর চিকিৎসা, পদার্থ, রসায়ন, সাহিত্য, শান্তি ও অর্থনীতি—এ ছয় শাখায় নোবেল দেওয়া হয়।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি, কলেজছাত্র গ্রেফতার

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ | ১১০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নাটোরের বড়াইগ্রামে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগে সজল আহমেদ (১৯) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার সকালে বনপাড়া বাজার থেকে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাকে আটক করে।

গ্রেফতার সজল জেলার লালপুর উপজেলার চষুডাঙ্গা গ্রামের মাসুদ প্রামাণিকের ছেলে। সে বনপাড়া সেন্ট যোসেফ স্কুল অ্যান্ড কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের ছাত্র এবং বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের সদস্য।

বনপাড়া পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান পিয়াস জানান, সজল তার ফেসবুক আইডিতে রেকর্ড মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কেনার সুযোগ দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তিমূলক ধন্যবাদ জানায়। বিষয়টি নজরে এলে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ রাশেদুল ইসলাম জানান, তার নামে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা দিয়ে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

 


আরও খবর