Logo
শিরোনাম

এক কেজি শশার দাম লাখ টাকা

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ১৫৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কখনও শুনেছেন শশার দাম লাখ টাকা? ভাবতেই পারেন বাজারে গেলে তো ৪০ কিংবা ৬০ টাকা কেজিতে শশা কিনতে পাওয়া যায়। কিংবা একটি শশার দাম নিদেনপক্ষে সাত টাকা। তা হলে এ কী ধরনের শশা, যার দাম লাখ টাকা!

না, বাজারে ঘুরে যে শশা দেখতে পান, এই আড়াই লাখি শশা কিন্তু সেই গোত্রের নয়। এর জন্ম মাচা বা জমিতে নয়, এই শশা জন্মায় সমুদ্রের নীচে। যা সি কিউকাম্বার নামে পরিচিত। সি কিউকাম্বারনামে পরিচিত হলেও এটা আদতে এক ধরনের সামুদ্রিক জীব।

ভারত এবং শ্রীলঙ্কার মাঝে মুন্নার খাঁড়িতে মূলত এই জীব পাওয়া যায়। আন্তর্জাতিক বাজারে এই সামুদ্রিক শশার বিপুল চাহিদা এবং দামও। মুন্নর খাঁড়ি থেকে এই সামুদ্রিক জীবের বিপুল চোরাচালান হয়।

কেন এত চাহিদা?

জানা গিয়েছে, যৌনবর্ধক ওষুধ, ক্যানসারের চিকিৎসা, তেল, ক্রিম এবং প্রসাধনী সামগ্রী বানাতে এই সামুদ্রিক জীবকে ব্যবহার করা হয়। ওষুধ ছাড়াও চিন-সহ দিক্ষণ-পূর্ব এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশে এই জীবের দামি রেসিপি তৈরি হয়।

সামুদ্রিক শশা একিনোডার্ম প্রজাতির জীব। আকার অনেকটা টিউবের মতো। এবং দেখতে অনেকটা শশার মতো। তাই এর নাম সি কিউকাম্বার দেওয়া হয়েছে। সমুদ্রের নীচে বালিতে লুকিয়ে থাকা ছোট ছোট জীব এর খাদ্য। এর গা নরম তুলতুলে। সমুদ্রের বাস্তুতন্ত্রের উপর এই জীবের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। এর বিষ্ঠায় যে নাইট্রোজেন, অ্যামোনিয়া এবং ক্যালসিয়াম রয়েছে তা প্রবাল প্রাচীরের জন্য খুবই উপযোগী।

এই জীবের চোরাচালানের জন্য বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে ক্রমেই। ৪১ বছরে এই সামুদ্রিক শশার দাম বহু গুণ বেড়ে গিয়েছে। ১৯৮০ সালে এই শশার দাম কেজি প্রতি পাঁচ হাজার টাকা ছিল। এখন যা বেড়ে হয়েছে ২১ হাজার। তবে এর মধ্যে কয়েকটি বিশেষ প্রজাতির শশা রয়েছে যার এক কেজির দাম আড়াই লক্ষের বেশি।

নিউজ ট্যাগ: সি কিউকাম্বার

আরও খবর

সিনেমা হল বন্ধ করে মাদ্রাসা চালু

মঙ্গলবার ১৯ এপ্রিল ২০২২




বরিশালে পুকুরে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৭৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বরিশালের মুলাদী উপজেলায় পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার দক্ষিণ চরডাকাতিয়া গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে মুলাদী থানার এসআই ইউসুফ আলী জানান।

নিহতরা হলো- চরডাকাতিয়া গ্রামের আব্দুল জব্বার খানের আড়াই বছরের মেয়ে সারিকা আক্তার ও সুমন খানের ছয় মাস বয়সী ছেলে আরিয়ান খান। তারা সম্পর্কে আপন চাচাতো ভাই-বোন।

নিহতদের পরিবারের বরাত দিয়ে এসআই  বলেন, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আরিয়ান ও সারিকা বাড়ির সামনের পুকুর পাড়ে খেলা করছিলো। কিছু সময় পর তারা নিখোঁজ হয়। স্বজনরা তাদের বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করেন।

দুপুর ২টার দিকে শিশুদের মরদেহ পুকুরের পানিতে ভেসে উঠে। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।


আরও খবর



আহলে হাদিসের প্রধান ঈদ জামাত ঢাবি খেলার মাঠে

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আহলে হাদিসের ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে। জামাতে ইমামতি করবেন বংশাল বড় জামে মসজিদের সম্মানিত খতিব শাইখ মুহাম্মাদ মোস্তফা সালাফি। এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বংশাল বড় জামে মসজিদের ব্যবস্থাপনা কমিটির পক্ষ থেকে ঈদ জামাত আয়োজনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ জমঈয়তে আহলে হাদিসের কেন্দ্রীয় কমিটির সেক্রেটারি জেনারেল শাইখ ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ খান মাদানী। তিনি বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দুই বছরের বিরতি দিয়ে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম বড় উৎসব ঈদুল ফিতরের জামাত আবারো ফিরছে ঈদগাহে। ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলার মসজিদ ও ঈদগাহ ময়দানে একই সময়ে এক বা একাধিক ঈদ জামাতের ব্যবস্থা থাকছে।

তবে বৈরি আবহাওয়া থাকলে বা অন্য কোনো অনিবার্য কারণে ঈদগাহে নামাজ আদায় সম্ভব না হলে ঈদের জামাত ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় মসজিদে একই সময়ে এক বা একাধিক ঈদ জামাতের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। প্রতি বছরের ন্যায় ঈদ জামাতে নারী মুসল্লিদের জন্য পৃথক নামাজের ব্যবস্থা রয়েছে বলে জানান আয়োজক কমিটি।

জমঈয়তে আহলে হাদীসের সভাপতি ড. আবদুল্লাহ ফারুক জানান, যথাযোগ্য মর্যাদা, ভাব-গাম্ভীর্য এবং উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আনন্দমুখর পরিবেশে চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২ বা ৩ মে সকাল সাড়ে ৭টায় মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।

নিউজ ট্যাগ: আহলে হাদিস

আরও খবর



আগের চেয়ে এবার দেশের রাস্তাঘাটের অবস্থা ভালো: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিগত যে কোনো সময়ের তুলনায় এবার দেশের সড়ক-মহাসড়ক অনেক ভালো বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনাল পরিদর্শন শেষে তিনি এক কথা জানান। এসময় তিনি ঈদে ঘরমুখো মানুষ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া না নিতে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতাদের প্রতি আহ্বান জানান।

এছাড়া পথে যাত্রীরা যাতে কোনো ধরনের ভোগান্তির শিকার না হন সেদিকে কঠোর নজর দিতে বিআরটিএ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি নির্দেশ দেন। এসময় মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ বিষয়ে প্রতিদিন খোঁজ নিচ্ছেন।

বিএনপি মহাসচিবের সরকার পতন আন্দোলনের ঘোষণা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দেখতে দেখতে ১৩ বছর কেটে গেলো, বিএনপির আন্দোলন হবে কোন বছর?


আরও খবর



পি কে হালদার ভারতে গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

হাজার কোটি টাকা পাচারকারী এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক কেলেঙ্কারির মূল হোতা প্রশান্ত কুমার হালদার (পি কে হালদার) ভারতে গ্রেপ্তার হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

শনিবার (১৪ মে) সকালের দিকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা।

এর আগে পি কে হালদার ও তার সহযোগী সুকুমার মৃধার বিপুল সম্পদের সন্ধান পাওয়া গেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায়।

শুক্রবার (১৩ মে) পশ্চিমবঙ্গের অন্তত ৯টি স্থানে একযোগে অভিযান চালিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।

জানা গেছে, বাংলাদেশ সরকারের কাছ থেকে সুনির্দিষ্ট তথ্য ও বার্তা পেয়েই তল্লাশিতে সক্রিয় হয়েছে ভারতীয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। বাংলাদেশ থেকে পলাতক প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পিকে হালদারের পাঠানো বেআইনি অর্থ সুকুমার মৃধা নামের এক ব্যক্তির মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন শহরে সম্পত্তি কিনতে ব্যয় করা হয়েছিল। মূলত পিকে হালদারের খবর জানতে গিয়েই এদিন অশোকনগরে সুকুমার নামের ওই মাছ ব্যবসায়ীর বিপুল সম্পত্তির হদিস পেয়েছে ইডি।

এদিকে, মাস খানেক আগে পিকে হালদারের অর্থপাচারের সহযোগিতার অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গর্ভনর এসকে সুর চৌধুরী ও সাবেক নির্বাহী পরিচালক শাহ আলমকে। আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অর্থ লুটপাটে এই দুজন পিকে হালদারকে সহযোগিতা করেছে বলে জবানবন্দি দিয়েছেন এক আসামি।

উল্লেখ্য, পিকে হালদারের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে এ পর্যন্ত ৩৪টি মামলা হয়েছে। তার সহযোগীসহ বিভিন্ন পর্যায়ের ১২ জনকে গ্রেপ্তারও করেছে দুদক। এদের মধ্যে ১০ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।


আরও খবর



সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আর নেই

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৮৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাবেক অর্থমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আবুল মাল আবদুল মুহিত মারা গেছেন। শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) দিনগত রাত ১২টা ৫৬ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। বর্ষীয়ান এ রাজনীতিকের বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর।

মুহিতের দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা বাচ্চু মিয়া বলেন, স্যার আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন। সকালে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। শ্বাসকষ্ট ও সুগার ফল্ট করে তার। সকাল ৭টায় নিজের হাতে আমি স্যারকে খাইয়েছি। সারাদিন অসুস্থ ছিলেন। স্যার রাত সাড়ে ১২টা থেকে ১টার মধ্যে মারা গেছেন।

এদিকে খ্যাতনামা এ রাজনীতিক ও অর্থনীতিবিদের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে মরহুমের আত্মার শান্তি কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়াও সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী, আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা শোক জানিয়েছেন।

পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, শনিবার (৩০ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টায় গুলশান আজাদ মসজিদে মুহিতের প্রথম নামাজে জানাজা হবে। এরপর সকাল সাড়ে ১১টায় জাতীয় সংসদ প্লাজায় দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। দুপুর ২টায় তার মরদেহ সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য শহীদ মিনারে নেওয়া হবে। এরপর দাফনের জন্য মরদেহ নেওয়া হবে জন্মস্থান সিলেটে।

সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত গত বছর করোনায় আক্রান্ত হলে ওই বছরের ২৯ জুলাই তাকে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। পরে তিনি করোনামুক্ত হয়ে বাসায় ফেরেন। এরপর থেকেই তিনি শারীরিকভাবে ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে পড়েন। বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ মুহিত ছিলেন একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। তিনি একাধারে লেখক, কূটনীতিক ও গবেষক হিসেবেও পরিচিত ছিলেন। ১৯৩৪ সালে সিলেটের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন মুহিত। তৎকালীন সিলেট জেলা মুসলিম লীগের নেতা আবু আহমদ আবদুল হাফিজের দ্বিতীয় ছেলে মুহিত। তার মা সৈয়দ শাহার বানু চৌধুরীও রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন।

১৯৫৫ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে মাস্টার্স করার পর অক্সফোর্ড ও হার্ভার্ডে উচ্চশিক্ষা নেন মুহিত। ১৯৫৬ সালে পাকিস্তান সিভিল সার্ভিসে যোগ দেওয়ার পর তখনকার পাকিস্তান এবং পরে স্বাধীন বাংলাদেশে সরকারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে তিনি দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭১ সালে যখন মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলো, মুহিত তখন ওয়াশিংটন দূতাবাসে কূটনৈতিক দায়িত্বে ছিলেন। জুন মাসে পাকিস্তানের পক্ষ ত্যাগ করে বাংলাদেশের প্রতি আনুগত্য প্রদর্শন করেন তিনি। ১৯৭২ সালে পরিকল্পনা সচিবের দায়িত্ব পালনের পর ১৯৭৭ সালে অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বহিঃসম্পদ বিভাগের সচিব হন মুহিত। ১৯৮১ সালে চাকরি থেকে স্বেচ্ছায় অবসরে গিয়ে অর্থনীতি ও উন্নয়ন বিশেষজ্ঞ হিসেবে’ কাজ শুরু করেন ফোর্ড ফাউন্ডেশন ও আইএফএডি-তে।

১৯৮২-৮৩ সালে তখনকার এইচ এম এরশাদ সরকারের সময়ে প্রথমবারের মতো অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রীর দায়িত্বে আসেন মুহিত। দীর্ঘদিন বিশ্বব্যাংক ও জাতিসংঘের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে পরামর্শক হিসেবে কাজ করার পর দেশে ফিরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় হন তিনি। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে তিনি পান অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব। ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ টানা দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় এলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব তার কাঁধেই রাখেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মোট ১২ বার ও টানা ১০ বার বাংলাদেশের বাজেট ঘোষণা করার রেকর্ড গড়েন মুহিত।

মুক্তিযুদ্ধ, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, ইতিহাস, জনপ্রশাসন এবং রাজনীতি নিয়ে ৩০টির অধিক বই লিখেছেন মুহিত। জাতীয় পর্যায়ে গৌরবোজ্জ্বল ও কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ মুহিতকে ২০১৬ সালের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মাননা স্বাধীনতা পুরস্কারে’ ভূষিত করে সরকার।


আরও খবর