Logo
শিরোনাম

ঘূর্ণিঝড়ে বিদ্যুৎহীন ৪৫ লাখের বেশি গ্রাহক

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে ভারি বর্ষণ ও ঝোড়ো বাতাসে উপকূল অঞ্চলের অধিকাংশ এলাকায় গাছের ডালপালা ভেঙে পড়েছে। এর ফলে এসব এলাকায় বিদ্যুৎ বিতরণকারী প্রতিষ্ঠান সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়ায় ৪৫ লাখ ২৫ হাজার গ্রাহক বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে। ঝড়ের ঝুঁকি ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কমাতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিতরণ কম্পানির সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

দক্ষিণাঞ্চলে বিদ্যুৎ বিতরণে দায়িত্বে আছে দুটি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (আরইবি) এবং পশ্চিমাঞ্চল বিদ্যুৎ বিতরণ কম্পানি (ওজোপাডিকো)।

আরইবির দায়িত্বরত এক কর্মকর্তা কালের কণ্ঠকে বলেন, আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত আমাদের ২৩টি সমিতির ৪৪ লাখ এক হাজার ৫০০ গ্রাহকের বিদ্যুৎ বন্ধ রাখা হয়েছে। উপকূলের বেশির ভাগ এলাকায় ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হচ্ছে। তাই ঝুঁকির মধ্যে থাকা এলাকাগুলোতে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ আছে।

পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (আরইবি) ভৌগোলিক এলাকা বাদে খুলনা, বরিশাল ও বৃহত্তর ফরিদপুর বিভাগের ২১টি জেলা ও ২০টি উপজেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ করে ওজোপাডিকো।

ওজোপাডিকোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. আজহারুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, আমাদের ঝুঁকিপূর্ণ পাঁচটি জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। এসব জেলায় প্রায় এক লাখ ২৫ হাজার গ্রাহক রয়েছে। তাদের সবার বিদ্যুৎ বন্ধ রাখা হয়েছে।

এদিকে ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং মোকাবেলায় বিদ্যুৎ বিতরণ এবং সঞ্চালন কম্পানিকে কন্ট্রোলরুম খোলার নির্দেশ দিয়ে অফিস আদেশ জারি করেছে বিদ্যুৎ বিভাগ। একই সঙ্গে অপর এক অফিস আদেশে সব বৈদ্যুতিক স্থাপনা সুরক্ষায় উদ্যোগ নেওয়ার অনুরোধ করা হয়েছে।

আজ সোমবার বিদ্যুৎ বিভাগের উপসচিব শাকিল আহমেদের সই করা এবং বিভাগের উপসচিব রেহানা আক্তারের সই করা পৃথক দুই আদেশে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং উপকূলীয় অঞ্চলের ১৩টি জেলায় মারাত্মকভাবে আঘাত হানবে। আর দুটি জেলায় হালকাভাবে আঘাত হানবে। ১৩টি জেলার মধ্যে সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী ও ফেনী। অর্থাৎ চট্টগ্রাম, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের বেশির ভাগ জায়গায় এটি আঘাত হানবে এবং চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের দ্বীপ অঞ্চলগুলোতেও, বিশেষ করে মহেশখালী, সন্দীপ এগুলো ঝুঁকিপূর্ণ আছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান।

ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং নিয়ে আজ সচিবালয়ে এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান। প্রতিমন্ত্রী বলেন, ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং সিভিয়ার সাইক্লোনে রূপান্তরিত হয়েছে। এটা মহাবিপৎসংকেত পর্যন্ত যেতে পারে।

ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ে ক্ষতি মোকাবেলায় সাত হাজার আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে। এতে ২৫ লাখ মানুষের আশ্রয়ণের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে সরকার।


আরও খবর



২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু নেই, আক্রান্ত ১৫ জন

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ১৯৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৫ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। আগের দিন ১ হাজার ৫২৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছিল ১০ জন। এদিন কোনো মৃত্যু নেই। সংক্রমণ বেড়েছে দশমিক ৩ শতাংশ। শনিবার শনাক্তের হার ছিল দশমিক ৬৫ শতাংশ। আজ বেড়ে হয়েছে দশমিক ৬৮ শতাংশ।

রোববার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এখন পর্যন্ত করোনায় মৃতের সংখ্যা ২৯ হাজার ৪৩৪ জন। মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৫ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৫১ লাখ ৬ হাজার ১৭৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় মোট শনাক্ত হয়েছে ২০ লাখ ৩৬ হাজার ৬৩৭ জন। এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৪৮ শতাংশ।

করোনা আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ৫৬ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ১৯ লাখ ৮৬ হাজার ৯৮৯ জন। সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৫১ শতাংশ। গতকালও সুস্থতার হার ছিল ৯৭ দশমিক ১০৭ শতাংশ।

এদিকে, রাজধানীসহ ঢাকা জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৪৩৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছে ১২ জন। শনাক্তের হার দশমিক ৮৩ শতাংশ। গতকাল শনাক্তের হার ছিল দশমিক ৪৫ শতাংশ।


আরও খবর



রাশিয়াকে সন্ত্রাসী রাষ্ট্র ঘোষণা করতে ন্যাটো অ্যাসেম্বলির আহ্বান

প্রকাশিত:বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 | ৩৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাশিয়া এবং ইউক্রেনের মধ্যকার চলমান সংঘাতে ইউক্রেনকে আরো সামরিক সমর্থন দেয়ার জন্য দাবি জানিয়েছে ন্যাটোর পার্লামেন্টারি অ্যাসেম্বলি। এছাড়া, রাশিয়ার বিরুদ্ধে সেনা মোতায়নের ব্যাপারে যে সীমাবদ্ধতা রয়েছে তার অবসান ঘটানোরও দাবি জানিয়েছে অ্যাসেম্বলি। সোমবার এই ঘোষণা পাস হয়েছে তবে এটি সদস্য দেশগুলোর জন্য মানা বাধ্যতামূলক নয়।

ন্যাটোর আসেম্বলিতে পাস হওয়া ওই ঘোষণায় বলা হয়েছে, ইউরো-আটলান্টিক অঞ্চল কোন মতেই এখন আর বিশ্বের নিরাপদ অঞ্চল নয় এবং পরিস্থিতির দ্রুত অবনতি হচ্ছে। রাশিয়ার সামরিক অভিযানের কারণে পূর্ব ইউরোপে নিরাপত্তা পরিস্থিতি মারাত্মক অস্থিতিশীল হয়ে উঠেছে।

এই প্রস্তাবে ন্যাটো সদস্য দেশগুলোকে দফায় দফায় অনুরোধ জানানো হয়েছে যে, বর্তমান সরকারের অধীনে রাশিয়া একটি সন্ত্রাসী রাষ্ট্র এবং ইউক্রেনের জন্য সামরিক, গোয়েন্দা, অর্থনৈতিক, প্রশিক্ষণ এবং মানবিক সমর্থন জোরদার করা প্রয়োজন। ইউক্রেনের জন্য যতদিন প্রয়োজন ততদিন এই সমর্থন অব্যাহত রাখতে হবে বলেও ওই প্রস্তাবে উল্লেখ করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: রাশিয়া ন্যাটো

আরও খবর

‘নীতি পুলিশ’ বিলুপ্ত করলো ইরান

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




বন্ধ হয়ে যাচ্ছে থ্রি-জি সেবা

প্রকাশিত:রবিবার ০৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আগামী বছরের জানুয়ারি থেকে বাংলাদেশে তৃতীয় প্রজন্মের টেলিকম সেবা থ্রি-জি আর থাকছে না। শুধু টু-জি এবং ফোর-জি সেবা সচল থাকবে।

রোববার (৬ নভেম্বর) ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ বিষয়ে মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার আরটিভি নিউজকে বলেন, থ্রি-জি সেবার এখন আর কোনো প্রয়োজনীয়তা নাই। এটিকে ইতোমধ্যে ফোর-জি দিয়ে রিপ্লেস করা হয়েছে। তবে মিনিমাম নেটওয়ার্ক হিসেবে টু-জি সেবার দরকার রয়েছে। তাই আমাদের টু-জি এবং ফোর-জি সেবা থাকবে। থ্রি-জি সেট (মোবাইল ফোন বা ডিভাইস) আর আসবে না এবং তৈরিও হবে না।

এর ফলে যাদের ফোনে সর্বোচ্চ থ্রি-জি রয়েছে তারা শুধু টু-জি সেবা পাবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, একটি অপ্রচলিত প্রযুক্তি (থ্রি-জি) আমরা ব্যবহার করব কেন। বরং থ্রি-জির যেই সুযোগটা আছে, সেটা ফোর-জিতে ব্যবহৃত হবে।

এর আগে, ২০১৩ সালে দেশে থ্রি-জি সেবা চালু হয়। এর মাধ্যমে মোবাইল ফোনে টিভি দেখা এবং ভিডিও কলে কথা বলাসহ দ্রুত গতির ইন্টারনেট সেবা পেতে শুরু করেন গ্রাহকরা। পরবর্তীতে ২০১৮ সালে ফোর-জি এসে নেটওয়ার্ক ও মোবাইল ইন্টারনেটের ধারণাই পাল্টে দেয়। এখন ফোর-জির দাপটে বন্ধ হতে চলেছে থ্রি-জি সেবা। এদিকে বর্তমানে দেশে পরীক্ষামূলকভাবে ফাইভ-জি সেবা চলছে। দ্রুত এই সেবা সর্বোত্র পৌঁছে দেয়ার বিষয়ে কাজ করছে সরকার।

নিউজ ট্যাগ: থ্রি-জি সেবা

আরও খবর

হাইড্রোজেন দিয়ে উড়বে উড়োজাহাজ

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

পুরোনো টুইট আর্কাইভ করবেন যেভাবে

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




বাগেরহাট কারাগারে হাজতির মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাগেরহাট জেলা কারাগারে মো. সেলিম ফরাজী (৭০) নামে এক হাজতির মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টায় বাগেরহাট জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এর আগে কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করে কারাগার কর্তৃপক্ষ। মৃত সেলিম ফরাজী বাগেরহাট শহরের হরিনখানা এলাকার কাশেম ফরাজীর ছেলে।

বাগেরহাট জেলা হাসপাতালে তত্ত্বাবধায়ক ডা. অসীম কুমার সমাদ্দার জানান, ঠান্ড ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় গুরুতর অসুস্থ্য হাজতি সেলিম ফরাজীকে শুক্রবার রাত ১২টার কিছু আগে কারাগার থেকে জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসে কারা কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালে আনার কিছুক্ষণ পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

বাগেরহাট জেলা পুলিশের মিডিয়া সেলের প্রধান পুলিশ পরিদর্শক এস এম আশরাফুল আলম জানান, গত ২১ নভেম্বর বাগেরহাট জেলা হাসপাতালে চুরির অভিযোগে সেলিম ফরাজীসহ দুইজন জনতার হাতে আটক করে পুলিশে দেয়। এরপর থেকে আদালতের নির্দেশে সেলিম ফরাজী বাগেরহাট করাগারে আটক ছিলেন।

বাগেরহাট জেলা কারাগারের জেল সুপার এ এস এম কামরুল হুদা জানান, একটি চুরি মামলায় আটক হয়ে আসামি সেলিম ফরাজী গত ২১ নভেম্বর থেকে বাগেরহাট জেলা কারাগারে ছিলেন। শুক্রবার রাতে হঠাৎ তার শ্বাসকষ্টসহ অসুস্থতা দেখা দিলে চিকিৎসার জন্য তাকে বাগেরহাট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির কিছুক্ষণ পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। আইনি প্রক্রিয়া শেষে শনিবার বিকেলে তার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তন্তর করা হয়েছে।


আরও খবর



খোলামেলা পোশাকে বিপাকে বিশ্বকাপের ‘আবেদনময়ী’ মডেল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কাতার বিশ্বকাপে এবার এমন অনেক কিছুই দেখছেন ভ্রমণকারীরা, যা আগের কোনো বিশ্বকাপে দেখা যায়নি। মুসলিম দেশ হওয়ায় স্টেডিয়ামে নিষিদ্ধ করা হয়েছে বিয়ার পান। ভ্রমণকারী নারী-পুরুষের জন্যও আছে পোশাক পরিধানে কড়াকড়ি।

আইনের কড়াকড়িকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বেশ খোলামেলা পোশাকে ফটোশুট করেছেন ক্রোয়েশিয়ার সাবেক বিশ্বসুন্দরী ও ইনস্টাগ্রাম মডেল ইভানা নোল। তাঁকে বলা হচ্ছে কাতার বিশ্বকাপের সবচেয়ে আবেদনময়ী নারী। একটু বেশিই আবেদনময়ী হতে গিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কটূক্তির শিকার হয়েছেন ক্রোয়েট সুন্দরী।

বিশ্বকাপের আগেই কাতারের ধর্মীয় রীতিনীতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার জন্য দর্শক ও ভ্রমণকারীদের আহ্বান জানিয়েছিল ফিফা। অনুরোধ ছিল পোশাকের প্রতি সতর্ক থাকার। আরব দেশের নারীদের প্রতি নির্দেশ ছিল সব সময়ই যেন মাথা ঢাকা থাকে স্কার্ফে এবং কোনোভাবেই যেন বক্ষ বিভাজনী দেখা না যায়। অন্য দেশের নারীদের পোশাকের ব্যাপারে এতটা কড়াকড়ি না থাকলেও অন্তত কাঁধ থেকে নাভি পর্যন্ত যেন ঢাকা থাকে এমন পোশাক পরার অনুরোধ জানিয়েছিল ফিফা।

কাতার বিশ্বকাপে নিজ দেশ ক্রোয়েশিয়ার খেলা দেখতে গিয়ে একাধিক ছবি পোস্ট করেছেন নোল। মরক্কোর বিপক্ষে ম্যাচে কাতারের নিয়ম মেনে মাথা ঢাকলেও যথেষ্ট আঁটসাঁট পোশাক পরেছিলেন সাবেক মিস ক্রোয়েশিয়া। ক্রোয়েশিয়ার পতাকার নকশায় ঢাকা পোশাকে দেখিয়েছেন নিজের দেশপ্রেম।

কিন্তু ম্যাচের পরে কাতারের আইনকে পাত্তাই দেননি নোল। স্বদেশের পতাকার নকশা করা খোলামেলা সুইমস্যুট পরে ইনস্টাগ্রামে ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেছেন তিনি। সেই ভিডিও পোস্ট হওয়ামাত্রই কাতার পুলিশকে ট্যাগ করেছেন এক অনুসারী। আরেক অনুসারী লিখেছেন, কাতারের ধর্ম আর সংস্কৃতির প্রতি তোমার কোনো শ্রদ্ধাই নেই, জাহান্নামে যাও।

কাতারের আইন অনুযায়ী পোশাক নিয়ে বিতর্ক বা আইন অমান্য করা হলে গুনতে হবে বড় জরিমানা। হতে পারে জেলও। নোলের ক্ষেত্রে কী সিদ্ধান্ত নেয় কাতার পুলিশ, সেটাই এখন দেখার!


আরও খবর