Logo
শিরোনাম

কাপড় থেকে দাগ তোলার ৩ উপায়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পছন্দের পোশাকটিতে দাগ পড়ে গেলে মন খারাপ হওয়া খুবই স্বাভাবিক। কারণ বেশিরভাগ দাগই একবার বসে গেলে আর উঠতে চায় না। তাই বলে কাপড়টি বাতিল করে দেবেন? একদমই না। মাংসের ঝোল, কফি কিং বা চায়ের দাগ, চকোলেটের দাগ- যা-ই হোক না কেন তুলে ফেলার আছে সহজ কিছু উপায়। লন্ড্রিতে না গিয়ে বাড়িতেই তুলে ফেলতে পারবেন কাপড়ের নাছোড়বান্দা দাগ। তাই বেখেয়ালে কাপড়ে দাগ পড়লেও মন খারাপ করবেন না। বরং উপায় জেনে নিয়ে নিজেই পরিষ্কার করতে পারবেন। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কাপড়ে হঠাৎ দাগ পড়ে গেলে তা তোলার ৩টি উপায়-

ট্যালকম পাউডার ব্যবহার: পোশাকে তেল-ঝোলের দাগ পড়লে তা তোলার জন্য ব্যবহার করুন ট্যালকম পাউডার। যেখানে দাগ পড়েছে সেখানটাতে ট্যালকম পাউডার ভালো করে ছড়িয়ে দিন। এবার কাপড়ের সেই অংশের ঠিক নিচের দিকে একটি ব্লটিং পেপার রাখুন। আরও কিছুটা পাউডার নিন। এবার দাগের জায়গাটিতে ভালো করে ঘষে দিন। এতে দাগ অনেকটাই উঠে যাবে। এরপর কাপড়ে লেগে থাকা হলদে দাগ তোলার জন্য পানিতে ডিটারজেন্ট মিশিয়ে দাগের উপর মাখিয়ে দিন। এভাবে শুকাতে দিন। শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে কাপড়ের দাগ উঠে যাবে ।

ভিনেগার ও মুলতানি মাটি: কাপড়ের দাগ তোলার জন্য অন্যতম একটি উপায় হলো ভিনেগার ও মুলতানি মাটির ব্যবহার। এই দুই উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। এটি কাপড়ের যেকোনো দাগ তোলার জন্য দারুণ কার্যকরী। এবার মিশ্রণটি কাপড়ে যেখানে দাগ পড়েছে সেখানে লাগিয়ে নিন। এভাবে কিছুক্ষণ রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে ভেজা কাপড় দিয়ে ঘষে তুলে ফেলুন।

অ্যামোনিয়া সলিউশন: আপনার পোশাকে যদি চকোলেটের দাগ লেগে যায় তবে তার তোলার অন্যতম ভালো উপায় হলো অ্যামোনিয়া সলিউশন ব্যবহার। কাপড়ে চকোলেট লেগে গেলে প্রথমে ভালো করে শুকিয়ে যাওয়া চকোলেট ঝেড়ে ফেলুন। এর ৫ মিনিট পর অ্যামোনিয়া সলিউশন এক ফোঁটা এক ফোঁটা করে দাগের উপর ফেলুন। এরপর অন্য একটি কাপড় দিয়ে দাগের উপর ঘষুন। কিছুক্ষণ পর ভালো করে ধুয়ে নিন।

নিউজ ট্যাগ: লন্ড্রি

আরও খবর

আপনার আজকের দিন- ৩০ নভেম্বর, ২০২২

বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২

আজকের রাশিফল!

মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২




তমব্রু সীমান্তে সংঘর্ষে ডিজিএফআই কর্মকর্তা নিহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বান্দরবানের তুমব্রু সীমান্তে র‍্যাব ও ডিজিএফআইয়ের যৌথ অভিযানকালে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে সংঘর্ষে ডিজিএফআইয়ের (বিমানবাহিনীর কর্মকর্তা) একজন কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন র‍্যাবের একজন সদস্য।

সোমবার (১৪ নভেম্বর) দিনগত রাত ১টায় আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে এই তথ্য।

বিজ্ঞপ্তিতে আইএসপিআর জানায়, র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ও প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা মহাপরিদপ্তরের (ডিজিএফআই) মাদকবিরোধী যৌথ অভিযান পরিচালনাকালে সোমবার (১৪ নভেম্বর) মাদক চোরাচালানকারী সন্ত্রাসীদের সঙ্গে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বান্দরবান জেলার তুমব্রু সীমান্ত এলাকায় সংঘর্ষ হয়।

আইএসপিআর আরও জানায়, সংঘর্ষ চলাকালে মাদক চোরাচালানকারীদের গুলিতে দায়িত্বরত অবস্থায় ডিজিএফআইয়ের একজন কর্মকর্তা (বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর কর্মকর্তা) দেশের জন্য আত্মত্যাগ করে শহীদ হয়েছেন। এসময় আহত হন র‌্যাবের একজন সদস্য।


আরও খবর



ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৬৮

প্রকাশিত:বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ২৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইন্দোনেশিয়ায় জাভা দ্বীপে সোমবারের ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৬৮তে উঠেছে, তবে দেশটির জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলা এজেন্সি তাদের সবশেষ ঘোষণায় বলছে- এখনো আরো ১৫১ জন নিখোঁজ রয়েছে।

রিখটার স্কেলে ৫.৬ মাত্রার ভূমিকম্পটি জাভার পার্বত্য এলাকায় আঘাত হানে সোমবার। এর ফলে যে ভূমি ধস হয় তাতে কোথাও কোথাও পুরো গ্রাম মাটি চাপা পড়েছে।

কমপক্ষে ২২,০০০ বাড়ি ভূমিকম্পে ধ্বংস হয়েছে এবং ৫৮,০০০-এরও বেশি লোক বাড়িঘর হারিয়ে বিভিন্ন স্থানে আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে। উদ্ধারকারীরা ধংসস্তুপের ভেতর থেকে বেঁচে যাওয়া লোকজন খুঁজছেন।

জাতীয় অনুসন্ধান ও উদ্ধার এজেন্সি বলছে, নিহতদের অনেকেই শিশু- যারা দুপুর একটায় ভূমিকম্প আঘাত হানার সময় স্কুলে ছিল। আহত হয়েছে এক হাজারেরও বেশি লোক।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের একটি সক্রিয় ভূমিকম্পপ্রবণ এলাকার ওপর ইন্দোনেশিয়া দেশটি অবস্থিত- যাকে বলা হয় রিং অব ফায়ার। এ দেশটিতে আগেও বহুবার মারাত্মক কিছু ভূমিকম্প ও সুনামি হয়েছে। সবশেষ ২০১৮ সালে সুলাওয়েসি দ্বীপে একটি ভূমিকম্পে ২,০০০এরও বেশি লোক নিহত হয়।

সোমবারের ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল মাটির ৬ মাইল নিচে, এবং প্রথম দফার পর অনেকগুলো ছোট ছোট ভূকম্পন হয়- যাতে দুর্বল কাঠামোর ওপর তৈরি করা বাড়ি ঘরগুলো ভেঙে পড়ে আরো বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়। প্রেসিডেন্ট জোকো উইডোডো ভূমিকম্প উপদ্রুত একটি প্রত্যন্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

রিক্টার স্কেলে ৫.৬ মাত্রার এই ভূমিকম্পটির আঘাতের কেন্দ্র ছিল ইন্দোনেশিয়ার প্রধান দ্বীপ জাভায় পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর চিয়ানজুর।

চিয়ানজুর থেকে ১০০ কিমি দূরে রাজধানী জাকার্তায়ও প্রায় এক মিনিট ধরে বেশ জোরে ভূকম্পন অনুভূত হয়। সে সময় রাজধানীর উঁচু ভবনগুলো থেকে আতঙ্কে মানুষজন ছুটে বাইরে বেরিয়ে আসে। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত ভিডিওতে বিধ্বস্ত বহু বাড়িঘর এবং দোকানপাট দেখা গেছে। বিধ্বস্ত ভবনগুলোর মধ্যে একটি হাসপাতাল এবং একটি আবাসিক মাদ্রাসাও রয়েছে। ভূকম্পটি মূলত যে অঞ্চলে আঘাত করেছে সেগুলো বেশ ঘন জনবসতিপূর্ণ এলাকা ছিল।


আরও খবর



ছাত্রলীগের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার, ইডেনে আনন্দ মিছিল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১০ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের খবরে ইডেন মহিলা কলেজে আনন্দ মিছিল করেছেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সদ্য পদ ফেরত পাওয়া সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা, সম্পাদক রাজিয়া সুলতানা ও তাদের অনুসারীরা। 

ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় গত ২৫ সেপ্টেম্বর কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। এর প্রায় দেড় মাস পর সেই স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হলো। 

বুধবার রাতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়।

ইডেন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ফেরদৌসী আশরাফ লুবনা সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ইডেন শাখা ছাত্রলীগের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের পরে নেতাকর্মীরা মিলে আমরা আনন্দ উচ্ছ্বাস করেছি। তবে, এটা কোনো ধরনের উত্তপ্ত পরিবেশ নয়। ক্যাম্পাসের অবস্থা স্বাভাবিক।


আরও খবর



জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগে জামায়াত আমির শফিকুরের ছেলে গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমির ডা. মো. শফিকুর রহমানের ছেলে রাফাত সাদিক সাইফুল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আজ বুধবার দুপুরে সিলেট থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপির) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) একটি টিম।

এ তথ্য নিশ্চিত করে সিটিটিসির একজন কর্মকর্তা আমাদের সময়কে বলেন, গ্রেপ্তার রাফাত সাদিক সাইফুল্লাহ নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সিলেট অঞ্চলের আঞ্চলিক সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।


আরও খবর



সরকারি টাকায় সব ধরনের বিদেশ ভ্রমণ বন্ধ ঘোষণা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১০ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সরকারি টাকায় সব ধরনের বিদেশ ভ্রমণ বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। সেই সঙ্গে সরকারের পরিচালন ও উন্নয়ন বাজেটের আওতায় সরকারি কর্মকর্তাদেরও সব ধরনের বিদেশ ভ্রমণ বন্ধ করা হয়েছে। আজ বুধবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত আদেশে জারি করা হয়েছে।

সরকারের এ সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করে আদেশে বলা হয়, বর্তমান বৈশ্বিক অর্থনৈতিক অবস্থার প্রেক্ষাপটে সরকারের পরিচালন ও উন্নয়ন বাজেটের আওতায় মন্ত্রণালয়, বিভাগ, অন্যান্য প্রতিষ্ঠান এবং সরকারের আওতাধীন অধিদপ্তর, পরিদপ্তর, দপ্তর, স্বায়ত্তশাসিত, আধা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা, পাবলিক সেক্টর করপোরেশন এবং রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানিগুলোর সব পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সব ধরনের বিদেশ ভ্রমণ পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

এ ছাড়া স্বায়ত্তশাসিত, আধা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন করপোরেশন এবং রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানিগুলোর নিজস্ব অর্থায়নেও সব প্রকার বিদেশ ভ্রমণ বন্ধ থাকবে।

অবশ্য উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে কিছুটা ছাড় দেওয়া হয়েছে আদেশে। এ বিষয়ে বলা হয়েছে, বিদেশি সরকার, প্রতিষ্ঠান, উন্নয়ন সহযোগী বা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থায়নে দেওয়া বৃত্তি বা ফেলোশিপের আওতায় স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি কোর্সে পড়াশোনার জন্য অনুমোদন নিয়ে বিদেশ যাওয়া যাবে।

এ ছাড়া বিদেশি সরকার, প্রতিষ্ঠান, উন্নয়ন সহযোগীর আমন্ত্রণে ও সম্পূর্ণ অর্থায়নে আয়োজিত বিশেষায়িত বা পেশাগত প্রশিক্ষণ ও সেমিনারে অংশগ্রহণের জন্য বিদেশে যাওয়া যাবে।

এর আগেও গত এপ্রিল-মে মাসে দেশে ডলারসংকট দেখা দিলে মে মাসে সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ সীমিত করার বিষয়ে একাধিক আদেশ জারি করেছিল সরকার।


আরও খবর