রাশিয়ায় বিড়াল বসছে উপমন্ত্রীর পদে!

প্রকাশিত:শনিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২০ |
হালনাগাদ:শুক্রবার ১৫ জানুয়ারী ২০২১ |
৫৭জন দেখেছেন


নিউজ পোস্ট ডেস্ক

বিড়াল উপমন্ত্রীর পদ পেয়েছে-এমন কথা কেউ কি কখনো শুনেছেন? সম্প্রতি এমন ঘটনাই ঘটেছে রাশিয়ায়। বর্জ্য প্ল্যান্ট থেকে উদ্ধার হওয়া একটি বিড়ালকে দেওয়া হয়েছে সম্মানজনক উপমন্ত্রীর মর্যাদা। শুধু তাই নয়, সরকারি ভবনে বরাদ্দকৃত চেয়ারে আরাম আয়েশে সময় কাটছে তার। আছে বিলাসিতার সব আয়োজন।

দ্য মস্কো টাইমস, হিন্দুস্তান টাইমসসহ একাধিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, মস্কোর দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহর উলিয়ানোভস্কের বর্জ্য প্ল্যান্ট থেকে বিড়ালটি উদ্ধার করে সেখানকারই এক কর্মী। যার সিসিটিভি ফুটেজ প্রচারিত হয় টেলিভিশনে। ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও। উদ্ধারকারী মিখাইল টুকাশ অবশ্য তখনো জানতেন না, তিনি নিজেও সরকারের তরফ থেকে পুরস্কৃত হতে যাচ্ছেন এ ঘটনায়।

মিখাইল টুকাস বলেন, আমাদের প্রতিটি ব্যাগ পরীক্ষার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। হঠাৎই পেয়ে গেলাম প্লাস্টিক ব্যাগে মোড়া বিড়ালটি। এর আগেও কচ্ছপসহ বিভিন্ন পোষা প্রাণি পেয়েছি আবর্জনার ভেতর। আসলে এমন নির্মমতা কখনই গ্রহণযোগ্য নয়। ওদেরও বেঁচে থাকার অধিকার আছে।

উদ্ধারের পরপরই সাদাকালো বিড়ালটির দায়িত্ব নেয় স্থানীয় পরিবেশ মন্ত্রণালয়। দেওয়া হয় সম্মানসূচক উপমন্ত্রী টাইটেল। আবাসনের পাশাপাশি, নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা আর অন্যান্য সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থাও করা হয়।

উলিয়ানোভস্কের পরিবেশ মন্ত্রী গুলনারা রাখমাতুলিনা বলেন, আমরা তাকে মন্ত্রণালয়ে নিয়ে গেছি। আলাদা ঘরের ব্যবস্থা করেছি। তাকে সম্মানজনক পদ দেওয়াটা এক ধরনের প্রতীকী পদক্ষেপ। পোষা প্রাণি পালকদের কাছে অনুরোধ, ঘরে রাখতে না পারলে, ভালো আশ্রয়ে পাঠানোর ব্যবস্থাটুকু অন্তত করুন।

মজার বিষয় হলো, উপমন্ত্রী বিড়ালের নামকরণের জন্য মন্ত্রণালয় জাতীয় প্রতিযোগিতারও আয়োজন করেছে বলে একাধিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।