Logo
শিরোনাম

শার্শায় ইটভাটার জন্য কেটে নেওয়া হচ্ছে ফসলি জমির মাটি

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ জানুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৬৩জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শার্শা থেকে ইয়ানূর রহমান

শার্শায় কৃষকের ফসলি জমি থেকে মাটি কেটে নিচ্ছে ভূমিদস্যুরা। ফসলি জমির মাটি বিক্রি করে মাছের প্রকল্পের কথা বলে শত শত একর কৃষি জমি নষ্ট করছে প্রভাবশালীরা। শার্শা প্রশাসেনর নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করে অবাধে ফসলি জমির মাটি কাটার মহোৎসব চলছে। এতে জমি ফসল উৎপাদনের উপযোগিতা হারানোর পাশাপাশি নষ্ট হচ্ছে রাস্তাঘাটও। এ নিয়ে স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ থাকলেও জনপ্রতিনিধি ও প্রভাবশালীদের সংশ্লিষ্টতা থাকায় কেউ মুখ খুলছে না।

সরেজমিনে দেখা গেছে, শার্শা জুড়ে প্রায় প্রতিটা গ্রামের কৃষি জমি থেকে মাটি কাটা হচ্ছে। খননযন্ত্র দিয়ে কাটা মাটিগুলো শতাধিক ট্রাক্টর ও ট্রলি করে অন্যত্র নেওয়া হচ্ছে। প্রতি ট্রাক্টর ও ট্রলি ভর্তি মাটি কিনতে খরচ হয় ১ হাজার ৬০০ টাকা। সেখানে মাটি কেনাবেচার কারবার করছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও নেতারা।

শার্শার বিভন্ন এলাকায় এ মাটি কেনাবেচা হয়। মাটি কাটার স্থানে প্রশাসনের লোকজন উপস্থিত হওয়ার আগেই গাড়ি সরিয়ে নিতে নিজস্ব লোকজন দিয়ে পাহারা বসিয়েছেন তারা। প্রশাসনের নজর এড়াতে নিকটস্থ সড়কে গাড়ি চলাচল না করে দূরবর্তী এলাকা হয়ে মাটি গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। আর এ গুলো হচ্ছে অধিকাংশ রাতের আধারে।

স্থানীয়রা জানায়, মাটি খেকোরা ফসলি জমির ৩-৬ ফুট গর্ত করে মাটি কেটে নেন। এতে করে পাশ্ববর্তী জমিও ফসল উৎপাদনে উপযোগিতা হারিয়ে ফেলছে। যে জমি থেকে মাটি কাটা হয় সেটি থেকে ৫-৬ বছর ধরে ফসল উৎপাদন সম্ভব হচ্ছে না।

শার্শার সামটা গ্রামের আওয়ামীলীগ নেতা ইদ্রিস আলী জানান, দিনে মাটি বিক্রি হয় না। গভীর রাতে চুরি করে হাজার হাজার গাড়ি নিয়ে মাটি বিক্রি করা হয় ইটভাটায়। সন্ধ্যা নামলেই এ সব মরন যান গুলো হাইওয়ে সড়ক জুড়ে মাটি বহন করে প্রশাসেনর নাকের ডগায়।

এদিকে, শার্শার সরকার দলীয় নেতাকর্মীদের ছত্রছায়ায় ও হাইওয়ে পুলিশের সহযোগীতায় এক শ্রেণির দুর্বৃত্তরা অবৈধভাবে জোরপূর্বক ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রি করায় কৃষক, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও ভুক্তভোগীদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। মাটিদস্যুরা প্রভাবশালী হওয়ায় ভয়ে কেউ মুখ খোলার সাহস পাচ্ছেন না।

শার্শার বাগআঁচড়া ও সদর ইউনিয়নের ২টি সিন্ডিকেট ও এক সাবেক ছাত্রলীগ নেতা গত ২মাস ধরে ফসলি জমির মাটি ও বালি উত্তোলন করে ইটভাটায় বিক্রি করে আসছে। ইতোমধ্যে কয়েকটি পাকা পুল, কালভার্ট ও সড়ক ভেঙে গেছে।

নিজামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, কৃষি জমি থেকে মাটি কাটা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ হলেও একাধিক সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরে নিজামপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা থেকে ফসলি জমির মাটি কেটে বিভিন্ন ইটভাটায় বিক্রি করে আসছে। যার ফলে সড়ক ও কালভার্টগুলো ভেঙে গেছে। এর সাথে যে মাটি খেকোরা জড়িত আছে তারা জনপ্রতিধি তো দুরের কথা প্রশাসনকেও তোয়াক্কা করে না।

নাম না প্রকাশের সর্তে একজন জনপ্রতিধি বলেন, আমাদের কাছে অভিযোগ আছে প্রশাসনের কিছু অসাধু ব্যক্তি মাটি বহনকারী প্রতিটি ট্রাক্টর / ট্রলি থেকে মাসিক ১৫০০/২০০০ টাকা উৎকোচ নিয়ে থাকে। এমনকি কিছু সাংবাদিক নামধারী ব্যক্তিরাও মাসোহারা নিয়ে থাকে।

অভিযোগ রয়েছে, মাটি খেকোরা এক শ্রেণির সরকার দলীয় নেতাকর্মীকে ম্যানেজ করে দিনের আলোয় ও রাতের আধারে বড় বড় মেশিন দিয়ে ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রি করছে। নিরীহ কৃষকের ফসলি জমি থেকে না জানিয়ে বা জবরদখল করে মাটি কেটে নিচ্ছে। ভূমিদস্যুরা ফসলি জমির মাটি বিক্রি করে মাছের প্রকল্পের কথা বলে শত শত একর কৃষি জমি নষ্ট করছে।

কায়বা ইউপি চেয়ারম্যান হাসান ফিরোজ আহমেদ টিঙ্কু জানান, মাটি সিন্ডিকেটের সাথে তিনি জড়িত নন। দলীয় নেতা কর্মীরা জড়িত থাকায় তিনি বাধা দিয়ে বিরাগভাজন হতে চান না।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল জানান, স্থানীয় জনগণের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বেশ কয়েকবার অভিযান চালিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক জরিমানা করা হয়েছে। অভিযান অব্যাহত থাকবে। কোনো অবস্থায় ফসলি জমির মাটি বিক্রি করা যাবে না। যারা এ ধরনের কাজে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share

যশোরে করোনার টিকা পাবে ৯৬ হাজার মানুষ

মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারী ২০২১




নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব আলমগীর ওএসডি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৫৫জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সরকার বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব মো. আলমগীরকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে ন্যস্ত করা হয়েছে। অপরদিকে রাজশাহীর বর্তমান বিভাগীয় কমিশনার মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকারকে সচিব পদে পদোন্নতি দিয়ে নির্বাচন কমিশনের নতুন সচিব হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত অতিরিক্ত সচিব ড. মো. হুমায়ুন কবীরকে রাজশাহীর নতুন বিভাগীয় কমিশনার হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে সরকার।


মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ ও সিনিয়র সহকারী সচিব শেখ রাসেল হাসান স্বাক্ষরিত পৃথক তিনটি প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, জনস্বার্থে এসব আদেশ অবিলম্ব কার্যকর হবে।

জানা গেছে, নির্বাচন কমিশনের বর্তমান সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের ২ তারিখ অবসরে যাবেন। তার অবসরে যাওয়ার সুবিধার্থে মঙ্গলবার তাকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করে পৃথক আদেশ জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

Share

করোনা টিকা নিলেন শেখ রেহানা

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১




বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট শুরু আজ

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৪৯জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আজ বুধবার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে সফরকারীদের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। চট্টগ্রামে শুরু হতে যাওয়া এই ম্যাচটি করোনা মহামারির মধ্যে বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট। গত বছরের শুরুর দিকে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্ট ম্যাচে অংশ নেয় টাইগাররা।

চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ ম্যাচটি মাঠে গড়াবে সকালে সাড়ে ৯টায়। সরাসরি সম্প্রচার করবে বাংলাদেশ টেলিভিশন, টি স্পোর্টস ও নাগরিক টিভি।

ম্যাচকে সামনে রেখে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক মঙ্গলবার বলেছেন, দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে টাইগাররাই ফেভারিট। তবে কিছু গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় দলে না থাকলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজ বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে সক্ষম।

টেস্ট সিরিজের আগে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ৩-০ ব্যবধানে জিতেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। টাইগারদের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি সফরকারীরা। ওয়ানডে সিরিজে ১০ জন নতুন ক্রিকেটারের অভিষেক হলেও টেস্টে তুলনামূলক অভিজ্ঞ দল নিয়েই মাঠে নামতে যাচ্ছে ক্যারিবিয়রা।

টাইগারদের হয়ে মুমিনুল চারটি টেস্ট ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন। যার মধ্যে মাত্র একটিতে জিতেছে বাংলাদেশ। পাকিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে সিরিজেও নেতৃত্ব দেন মুমিনুল হক। পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান এবং ভারতের বিপক্ষে তামিম ও সাকিব দলে ছিলেন না।

তবে এবার পূর্ণ শক্তির দল নিয়েই মাঠে নামছেন মুমিনুল হক। এ বিষয়ে তিনি বলেন, দলের অন্যদের সঙ্গে সাকিব ও তামিমের অন্তর্ভুক্তি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তাদের ফেভারিটই বানিয়েছে।

এই সিরিজে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য পয়েন্ট অর্জনের একটা বড় সুযোগ থাকছে বাংলাদেশের সামনে। এ নিয়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে তৃতীয়বারের মতো মাঠে নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ স্কোয়াড : মুমিনুল হক (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মাদ মিঠুন, লিটন দাস, ইয়াসীর আলী, সাইফ হাসান,  মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, সাদমান ইসলাম, নাঈম হাসান, তাসকিন আহমেদ, আবু জায়েদ, এবাদাত হোসেন ও হাসান মাহমুদ।

Share

বিসিবি আমাকে ছাড়লে আইপিএলে খেলব: মোস্তাফিজ

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১




সিরাজগঞ্জে বাস-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৫

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৫৪জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন বাসযাত্রী।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কে কামারখন্দের কোনাবাড়ি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসাদ্দেক হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিউজ ট্যাগ: সড়ক দুর্ঘটনা
Share

সিরাজগঞ্জে ট্রাকচাপায় দুই বৃদ্ধা নিহত

শুক্রবার ০৮ জানুয়ারী ২০২১




ওয়াসা থেকে পাওয়া পাম্প স্টেশনগুলো অচল : তাপস

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭৭জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঢাকা ওয়াসা থেকে পাওয়া পানির পাম্প স্টেশনগুলো অচল বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। আজ বুধবার সকালে নগরীর মান্ডা খালে চলমান বর্জ্য অপসারণ ও উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদেরকে মেয়র এ তথ্য জানান।

এ সময় ডিএসসিসি মেয়র বলেন, আমরা ওয়াসার কাছ থেকে যে পাম্প স্টেশনগুলো পেয়েছি সেই পাম্প স্টেশনগুলো অচল। এটা এখন আমাদের একটি বড় প্রতিকূলতা হয়ে দেখা দিয়েছে। আমরা এখনো এগুলো চালু করতে পারিনি। যদি আমরা পাম্প স্টেশনগুলো চালু করতে না পারি, তাহলে পানি নিষ্কাশন আমাদের জন্য দুরূহ অবস্থা হয়ে দাঁড়াবে। তবে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আশা করছি আগামী এপ্রিলের মধ্যে আমরা এগুলো চালু করতে পারব।

মেয়র আরো বলেন, আমরা জানুয়ারি মাসের প্রথম থেকে খাল দখলমুক্ত এবং বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম শুরু করেছি। যতই প্রভাবশালী হোক না কেন কেউ আমাদের এই কাজকে ব্যাহত করতে পারবে না। শ্যামপুর খাল ১০০ ফুট ছিল, তা দখল হয়ে খালের মাত্র ৮ ফুট জায়গা আমরা পেয়েছিলাম। সেটি আমরা দখলমুক্ত করেছি, আরও কাজ চলছে। একই রকম অবস্থা প্রায় সব খালেরই। সব খালেই আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। আজ আমরা মান্ডা খালে এসেছি, এখানেও দেখতে পাচ্ছি নতুন করে কিছু দখল হয়েছে। আমরা আজ থেকে এখানেও ব্যবস্থা নেব।

এসময় ৪৫ দিনে প্রায় এক লাখ মেট্রিক টন বর্জ্য-মাটি খাল থেকে অপসারণ করা হয়েছে উল্লেখ করে শেখ তাপস বলেন, আগামী মার্চের মাঝামাঝি গিয়ে আমাদের কাজের কৌশল এবং পরিকল্পনা কিছুটা ঢেলে সাজাব। সে সঙ্গে এপ্রিলের শেষ পর্যন্ত আমাদের কার্যক্রম প্রসারিত করব। যদিও এই কার্যক্রম অত্যন্ত দুরূহ কাজ তবুও আমাদের চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। এই গতিতে যদি আমাদের কাজ চলমান রাখতে পারি তাহলে ইনশাআল্লাহ্‌ জলাবদ্ধতা অনেকাংশেই নিরসন হবে এবং ঢাকাবাসীকে জলবদ্ধতা থেকে মুক্তির সুফল কিছুটা হলেও দিতে পারব।

এর আগে তিনি বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম সংলগ্ন আউটার স্টেডিয়ামে 'আন্তঃওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতা - ২০২১' এর প্রথম ক্রিকেট ম্যাচ অবলোকন করেন মেয়র। পরে তিনি নগরীর ৬২ নম্বর ওয়ার্ডের কাজলার পাড় খাল পরিদর্শন করেন। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর মো. বদরুল আমিন, সচিব আকরামুজ্জামান, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আরিফুল হক, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী কাজী মো. বোরহান উদ্দিন, মো. খায়রুল বাকেরসহ কর্পোরেশনের  ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং স্থানীয় কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Share

করোনা টিকা নিলেন শেখ রেহানা

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১




পরিবর্তনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো সবার আগে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৪৫জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকারের প্রতিটি পদক্ষেপ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের জন্য। একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, খাদ্যের সঙ্গে পুষ্টি ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করছে তাঁর সরকার। গণভবন থেকে জাতীয় নিরাপদ খাদ্য দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের প্রতিটি পদক্ষেপই হচ্ছে বাংলাদেশের একেবারে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করা। এবং সে পরিবর্তনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো সবার আগে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

এর পাশাপাশি পুষ্টির নিশ্চয়তা বিধান করার প্রয়োজনীতার কথাও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, খাদ্যের সঙ্গে সঙ্গে পুষ্টির নিশ্চয়তাও একান্তভাবে প্রয়োজন।

আর, শুধু পুষ্টি নিরাপত্তাই নয়, এর সঙ্গে আমাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টিও জড়িত। কাজেই সেদিকে লক্ষ্য রেখেই পরিকল্পিতভাবে আমরা কাজ করে যাচ্ছি, যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী সকলকে নিজের খাদ্য নিজে উৎপাদনের তাগিদ দিয়ে বলেন, একটু জমিও যদি থাকে, তাতে নিজের ঘরের জন্য যা প্রয়োজনীয় সেটা চাষ করুন। তাহলে খাদ্য ঘাটতি কমবে। সকলের চেষ্টায় খাদ্যের উৎপাদন আরও বাড়াতে হবে।

সুষম খাবারের বিষয়ে নজর দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, এখন মানুষের সামর্থ্য বেড়েছে। মানুষ এখন ভাতের পাশাপাশি কিছু আমিষও কেনে। এজন্য সুষম খাবারের দিকে নজর দিতে হবে। এর জন্য প্রচার বাড়াতে হবে। জনগণকে জানাতে হবে যে শিশুরা কী খাবে, বৃদ্ধরা কী খাবে আর একজন গর্ভধারিণী মা কখন কী খাবে।

Share

করোনা টিকা নিলেন শেখ রেহানা

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১