Logo
শিরোনাম

সুগন্ধা ও বিষখালী নদীর পানি বিপৎসীমার ওপরে

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ১২৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঝালকাঠির সুগন্ধা ও বিষখালী নদীতে জোয়ারের পানি আবারও বেড়েছে। নদীর পানি বিপৎসীমার ৩৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এদিকে প্রবল বৃষ্টি ও অস্বাভাবিক জোয়ারের কারণে জেলার চার উপজেলার নিচু এলাকার অর্ধশত গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে ২০ হাজার মানুষ পানিবন্দি রয়েছে।

বসতঘর, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, রাস্তাঘাট, মাছের ঘের ও ফসলের ক্ষেতে পানি ঢুকে পড়ায় হাজার হাজার মানুষ চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। রাতে আতঙ্কের মধ্যে কাটাচ্ছেন নদীতীরের বাসিন্দারা। পানি উন্নয়ন বোর্ড ও নদীতীরের বাসিন্দারা জানান, দুই দিন ধরে মুষলধারে বৃষ্টি ও নদীতে জোয়ারের পানিতে ৫০টি গ্রাম তলিয়ে যায়। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় অনেক প্রতিষ্ঠানে ক্লাস সংক্ষিপ্ত করে শিক্ষার্থীদের ছুটি দিয়েছেন।

জোয়ারের পানিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে জেলার কাঁঠালিয়া উপজেলায়। এখানকার আউড়া আশ্রায়ণ প্রকল্পের ৪৪টি ঘরের ভেতর পানি ঢুকে পড়েছে। এছাড়াও উপজেলা পরিষদ ভবন, ইউএনওর অফিস ও বাসভবন তিন ফুট পানির নিচে তলিয়ে গেছে। এতে অফিসের স্বাভাবিক কার্যক্রম চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

অপরদিকে শৌলজালিয়া ইউনিয়নের কচুয়ার ডালির খালের বাঁধ ভেঙে ফসলের মাঠ, রাস্তা ও কয়েকটি গ্রাম পানিতে তলিয়ে গেছে। বিষখালী নদীর কাঁঠালিয়া অংশে বেড়িবাঁধ না থাকায় প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে এ সব অঞ্চল পানিতে তলিয়ে যায়। দীর্ঘ ৫০ বছরেও বেড়িবাঁধ নির্মিত না হওয়ায় কাঁঠালিয়া অংশে প্রায় ২৪ কিলোমিটার জায়গা অরক্ষিত রয়েছে।


আরও খবর



কাজল রেখা নিয়ে আত্মবিশ্বাসী মন্দিরা

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৪০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ছোটবেলা থেকেই নাচের প্রতি আলাদা আকর্ষণ ছিল মন্দিরা চক্রবর্তীর। ২০১২ সালে দেশের জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো চ্যানেল আইয়ের সেরা নাচিয়ের দ্বিতীয় রানারআপ খেতাব জয় করেন তিনি। এরপর থেকে নাচের অনুষ্ঠানের পাশাপাশি নাটকে নিয়মিত অভিনয় করছেন।

এরই মধ্যে গিয়াস উদ্দিন সেলিমের পরিচালনায় কাজল রেখা সিনেমায় নাম ভূমিকায় অভিনয় করে রুপালি জগতে পা রাখলেন মন্দিরা। সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওরে শটের মধ্য দিয়ে কাজল রেখায় তার শুটিংয়ের কাজ শেষ হলো বলে জানালেন তিনি। চলতি মাসেই এ সিনেমার বাকি কাজ শেষ হতে চলছে। সিনেমাটি নিয়ে মন্দিরা ভীষণ আশাবাদী হয়ে উঠছেন।

এ নিয়ে মন্দিরা চক্রবর্তী তার অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, সিনেমাটিতে অভিনয় শুরু করার পর আমি জানতে পেরেছি, কাজল রেখা চরিত্রে অভিনয়ের জন্য অনেক তুখোড় অভিনেত্রীর কথাও ভাবনায় ছিল শ্রদ্ধেয় সেলিম ভাইয়ের। কিন্তু শেষতক আমাকেই নেয়া হলো। তার মনে হয়েছে, চরিত্রটির রূপায়ণ আমাকে দিয়ে সম্ভব। আমার কাছে এখনো স্বপ্নের মতো মনে হয়। কারণ এমন ভালো একটি সিনেমায় কাজ করব ভাবনায়ও ছিল না। আমি বাস্তব জীবনে যেমন চুপচাপ শান্ত প্রকৃতির, কাজল রেখা চরিত্রটিও ঠিক তেমনি। এটা সত্যি, শুরুতে নার্ভাস ছিলাম। কিন্তু রিহার্সেল করতে গিয়ে পরবর্তী সময়ে ভয়টা কমে যায়। আমার অল্প সময়ের ক্যারিয়ারে অভিনয়ে নিজেকে যতটা আত্মস্থ করেছি, তার পুরোটা দিয়েই অভিনয় করেছি। আমার শতভাগ বিশ্বাস, কাজল রেখা দর্শকের ভালো লাগবে। এখন সেই মাহেন্দ্রক্ষণের জন্য অপেক্ষা। জানি না আসলে এ অপেক্ষা কবে শেষ হবে। দর্শক থেকে শুরু করে প্রত্যেকের কাছ থেকে সাড়া পাওয়ার প্রতীক্ষায় আমি। আমার পুরো পরিবার ভীষণ অপেক্ষায় সিনেমাটির জন্য। সবকিছু ঠিকঠাক শেষ হোক, সামনে আসুক কাজল রেখা।

মৈমনসিংহ গীতিকার কাজল রেখা অবলম্বনে খ্যাতিমান পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিম নির্মাণ করছেন সিনেমা। কাজল রেখা সিনেমাটি ২০১৯-২০ অর্থবছরে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত। এটি মূলত একটি রূপকথার গল্প, যেটি ৪০০ বছর আগের কাহিনী। এর আগে কাজল রেখা নিয়ে বলতে গিয়ে গুণী পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিম বলেন, নেত্রকোনার দুর্গাপুরে যেখানে সিনেমাটির শুটিং করা হচ্ছে, সেটা গারো ও হাজংদের অঞ্চল। ৭০-৮০ জন গারো ও হাজং মিলে কাজল রেখার সেট তৈরির কাজ করেছি। এটা আসলে মহাযজ্ঞ। কাজল রেখা আমার করা এ-যাবৎ কালের সবচেয়ে বড় প্রজেক্ট। এর সেটে আমরা ওই সময়ের ঘটনা তুলে ধরেছি। আমরা যে রকম ঘরবাড়িতে থাকতাম সেটাই দেখিয়েছি। ইংরেজ, মোগল ও তুর্কিরা না এলে আমরা যেভাবে আমাদের আর্কিটেকচার ডেভেলপ করতাম, সেটা মাথায় রেখেই সেট তৈরি করেছি। ৪০০ বছর আগের গল্প নিয়ে কাজল রেখা নির্মাণ করা হচ্ছে। এটা আমার স্বপ্নের প্রজেক্ট। প্রায় এক যুগ আগে থেকে আমি কাজল রেখা নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করতে চেয়েছি। এখন সিনেমাটির শুটিং চলছে, এটা আমার কাছে স্বপ্নের মতো।

কাজল রেখার প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করবেন শরিফুল রাজ ও নবাগত চিত্রনায়িকা মন্দিরা চক্রবর্তী। বিভিন্ন চরিত্রে রয়েছেন রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা, ইরেশ যাকের, আজাদ আবুল কালাম, খায়রুল বাশার, সাদিয়া আয়মানসহ অনেকে। এ সিনেমায় কংকন দাসী চরিত্রে অভিনয় করছেন মিথিলা আর সুচ কুমার চরিত্রে শরীফুল রাজ। গত এপ্রিলে শুরু হয়েছিল কাজল রেখার শুটিং। পরিচালনার পাশাপাশি এ সিনেমার চিত্রনাট্য ও সংলাপ বিন্যাস করেছেন গিয়াস উদ্দিন সেলিম।


আরও খবর

দুরন্তপনার ৫ বছর

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




বাড়ছে যমুনা নদীর পানি, ভাঙন অব্যাহত

প্রকাশিত:সোমবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৫২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সিরাজগঞ্জে যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি আজও অব্যাহত রয়েছে। পানি বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে নদী ভাঙনের তীব্রতা বেড়েছে। সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকালে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড সিরাজগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি ৫ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকালে সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষাবাঁধ পয়েন্টে বিপৎসীমার ৪৫ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় নদীতীরবর্তী নিম্নাঞ্চল ও চরাঞ্চলে বিরাজ করছে বন্যা আতঙ্ক। এ সকল এলাকার বিস্তীর্ণ কৃষি জমিতে রোপণ করা আমন ধানের চারা, বিভিন্ন শাক সবজি ও উঠতি ফসল নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছে কৃষক।

এদিকে পানি বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে জেলার শাহজাদপুর উপজেলার জালালপুরে তীব্র হচ্ছে নদীভাঙন। প্রতিদিনই যমুনার গর্ভে বিলীন হচ্ছে বসতভিটা ও ফসলি জমি। ভাঙন নিয়ন্ত্রণে জরুরি কাজ শুরু না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করছেন ভাঙনকবলিতরা।

এ বিষয়ে নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম জানান, পানি বাড়ায় নদীভাঙন শুরু হয়েছে। ভাঙন রোধে জরুরি জিও ব্যাগ ডাম্পিং করার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।


আরও খবর



সাড়ে ৩ কোটি টাকার স্বর্ণ মিললো শাহজালালের ডাস্টবিনে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ডাস্টবিন থেকে ৩০টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করেছে কাস্টমস কর্মকর্তারা। যার বাজার মূল্য প্রায় ৩ কোটি ৫০ লাখ টাকা। বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) সকালে বিমানবন্দরের ১২ নম্বর বে এলাকা থেকে সোনার বারগুলো উদ্ধার করা হয়। তবে বারগুলোর বাহকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা কাস্টমস হাউজের প্রিভেন্টিভ টিমের কর্মকর্তা নাফিস আমিন রিজভি জানান, ডাস্টবিনে একটি স্কচটেপ মোড়ানো দণ্ড পাওয়া যায়। পরে কাস্টমস সেই দণ্ড আকারের বস্তু খুলে ৩০টি সোনার বার উদ্ধার করে। এগুলোর আনুমানিক ওজন ৩ কেজি ৪৮০ গ্রাম, যার বাজার মূল্য প্রায় ৩ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

তিনি আরও জানান, উদ্ধার করা এসব সোনার বারের বিষয়ে ফৌজদারি মামলাসহ কাস্টম আইনে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।


আরও খবর

জেনে নিন রাজধানীতে কখন কোথায় লোডশেডিং

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




একদিনে আরও ৪৪০ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৩৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে আরও ৪৪০ জন নতুন রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। রবিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোলরুম থেকে পাঠানো ডেঙ্গু বিষয়ক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে আরও ৪৪০ জন নতুন রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকায় ৩০৯ জন ও ঢাকার বাইরে ১৩১ জন।

বর্তমানে সারা দেশে ১ হাজার ৬৫০ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ১ হাজার ২৯৬ জন ও ঢাকার বাইরে ৩৫৪ জন।

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১৩ হাজার ৮৮০ জন। এর মধ্যে ঢাকায় ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১০ হাজার ৭৪৩ জন ও ঢাকার বাইরে ৩ হাজার ১৩৭ জন। একই সময় সারা দেশে ছাড়প্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা ১২ হাজার ১৮০ জন। এর মধ্যে ঢাকায় ছাড়প্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা ৯ হাজার ৪২৪ জন ও ঢাকার বাইরে ২ হাজার ৭৫৬ জন।

নিউজ ট্যাগ: ডেঙ্গুরোগী

আরও খবর

করোনায় একজনের মৃত্যু, কমেছে শনাক্ত

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




মধ্যরাতে কুবি ছাত্রলীগের দফায় দফায় সংঘর্ষ, আহত ১০

প্রকাশিত:শনিবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পূর্বের ঘটনার জেরে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) দুই হলের ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে আহত হয়েছে ১০ জন।

শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বার) জুমার নামাজের পর সিনিয়র-জুনিয়র সম্পর্ক নিয়ে কাজী নজরুল ইসলাম হল ও বঙ্গবন্ধু হলের নেতা-কর্মীরা বাগবিতণ্ডা থেকে হাতাহাতিতে জড়ায়। বিষয়টি হলের সিনিয়র নেতারা সমাধান করে দিলেও রেশ থেকে যায় দুই হলের নেতা-কর্মীদের মনে।

পরে রাত সাড়ে ১১টায় নজরুল হলের কয়েকজন বঙ্গবন্ধু হলের সামনে খাবার খেতে গেলে আবার হাতাহাতি শুরু হয় তাদের মধ্যে এবং দুই হলের সহস্রাধিক নেতা-কর্মীরা লাঠি, স্ট্যাম্প, রডসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র হাতে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে এক পক্ষ অন্যপক্ষকে লক্ষ্য করে ইট ছুটতে থাকে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু হলের নেতা-কর্মীরা নজরুল হলের নেতা-কর্মীদের ধাওয়া করলে তারা নিজ হলে ঢুকে যায়। বঙ্গবন্ধু হলের নেতা-কর্মীরা হল লক্ষ্য করে ইট ছুড়ে। ইটের আঘাতে উভয় হলের পাঁচজন শিক্ষার্থীর মাথা ফেটে গুরুতর আহত হয় এবং কয়েকজনের শরীরে বিভিন্ন অংশে জখম হয়।

সংঘর্ষে আহতরা হলেন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ১২ ব্যাচের ইকবাল (আইন) ১৫ ব্যাচের অনুপ (নৃবিজ্ঞান) ১৪ ব্যাচের সোহাগ (রসায়ন) ও রাকিব (আইন) কাজী নজরুল ইসলাম হলের ১৩ ব্যাচের সাকিব হাসান দীপ (মার্কেটিং)। টানা আধা ঘণ্টা সংঘর্ষ চলার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির হস্তক্ষেপে সংঘর্ষ থেমে যায় এবং উভয় হলের নেতা-কর্মীরা নিজ নিজ হলে ফিরে যান।

সংঘর্ষের বিষয়ে কাজী নজরুল ইসলাম হলের ছাত্রলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) নাজমুল হাসান পলাশ বলেন, বঙ্গবন্ধুর হলের তিন-চারশ পোলাপাইন আমাদের হলে এসে হামলা চালায়। আমি হলের সবাইকে ভিতরে রাখার চেষ্টা করেছি। ওরা যেভাবে হামলা চালিয়েছে কয়েকজন মার্ডার হতে পারতো। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

সংঘর্ষের বিষয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম মাজেদ বলেন,  এসময় কারা কি করছে আমি দেখছি। আমি সবাইকে নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেছি। এখন হলের শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ হলে অবস্থান করছে। যে ঘটনা ঘটেছে সে ঘটনা যাতে পরবর্তীতে আর না ঘটে এ জন্য আমার সভাপতির সঙ্গে বসতে হবে এবং সবাইকে নিয়ে সমাধান করতে হবে।

সংঘর্ষ থামানোর বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট মোকাদ্দেস-উল-ইসলাম বলেন, সংঘর্ষের কথা শুনে আমি হলে আসি। এরপর প্রক্টোরিয়াল টিমকে সঙ্গে নিয়ে শিক্ষার্থীদের হলে নিয়ে এসে হলের ফটক বন্ধ করে দেই। এখন শিক্ষার্থীরা হলে অবস্থান করছে। তবে আমার শিক্ষার্থীদের যারা মারধর করেছে তাদের বিচার চাই।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে সিদ্ধান্তের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) কাজী ওমর সিদ্দিকী বলেন, শিক্ষার্থীদের হাতাহাতির ঘটনা শুনে আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এখন শিক্ষার্থীরা তাদের নিজ নিজ অবস্থানে রয়েছে। আমরা প্রক্টরিয়াল বডি বসে এটা সমাধান করব।


আরও খবর