Logo
শিরোনাম

সুস্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ আত্মবিশ্বাস

প্রকাশিত:বুধবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১ | ৭১জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

স্পিরিচুয়ালিটি এন্ড মেডিসিন', যে কোর্সটিতে ছাত্রছাত্রীদের শেখানো হয়, রোগীদের সাথে তারা কীভাবে বিশ্বাস, নিরাময় ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কথা বলবে। 

আমেরিকার অর্ধেকেরও বেশি মেডিকেল স্কুলে এখন এ ধরনের কোর্স আছে। তিন দশক আগে যা ভাবাই যেত না। কেন? কারণ রোগীরা এখন নিজেদের সুস্থতা নিয়ে অনেকটাই মাথা ঘামাচ্ছেন।

নিউজউইকের এক জরিপে দেখা গেছে, ৭২ শতাংশ আমেরিকানই বলেছেন, এসব বিষয় নিয়ে ডাক্তারের সাথে কথা বলতে পছন্দ করেন তারা। ৮৪% আমেরিকানই মনে করেন, অসুস্থদের জন্যে প্রার্থনা করলে তার রোগমুক্তির সম্ভাবনা বাড়ে।

বিলিফনেট একটি জনপ্রিয় ধর্মীয় ওয়েবসাইট। এখানে যে ৩৫ হাজার প্রেয়ার সার্কেল আছে, তার তিন চতুর্থাংশই নিরাময় সংক্রান্ত। সদস্যরা তো বটেই, অপরিচিত যে কেউই এখানে লগ অন করে তার হিলিং বা দোয়ার জন্য অনুরোধ পাঠাতে পারে।

চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা এখন মনে করেন, একজন মানুষের সুস্থ থাকার জন্যে তার মনে বা আত্মায় কী ঘটে, তা তার দেহের কোষের স্তরে কী ঘটে তার চেয়ে কোনো অংশেই কম গুরুত্বপূর্ণ নয়।

আর এজন্যে গোটা মার্কিন মুলুক জুড়ে চলছে নানা উদ্যোগ। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথ ঘোষণা দিয়েছে আগামী কয়েক বছর ধরে তারা মোট সাড়ে তিন মিলিয়ন ডলার ব্যয় করবে মাইন্ড-বডি মেডিসিন গবেষণায়। আধ্যাত্মিকতা ও নিরাময় বিষয়ে রীতিমতো কনফারেন্সের আয়োজন করেছে হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুল যার উপজীব্য হলো ক্ষমার নিরাময় গুণ। এ বিষয়ে চিকিৎসাবিজ্ঞানীদের দৃষ্টিভঙ্গিতে গত কয়েক বছরের মধ্যে যে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটেছে, তারই ফসল হলো এসব, বলেন পেনসিলভানিয়া ইউনিভার্সিটির নিউরোলজিস্ট ড. এন্ড্রু নিউবার্গ, মস্তিষ্কের ওপর ধ্যান এবং প্রার্থনার ভূমিকা নিয়ে যিনি ব্যাপক গবেষণা করেছেন। 

প্রশ্ন হলো, এ প্রসঙ্গে বিজ্ঞান কী বলে? ডিউক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর মিশেল ক্রাকোফ ৭৫০ জন রোগীর কথা বলেন, যাদের এনজিওপ্লাস্টি করা হয়েছে সম্প্রতি। এ রোগীদের জন্যে প্রার্থনা করা হয়। যদিও এ রোগীদের সাথে কোনো পার্থক্য ডাক্তাররা পেলেন না প্রচলিত চিকিৎসা করানো দ্বিতীয় গ্রুপের সাথে বা তৃতীয় গ্রুপের সাথে সঙ্গীত, নিরাময়ের মনছবি বা স্পর্শ হিলিং করা হয়েছে যাদের। কিন্তু একটা মজার বিষয় হলো, যেসব রোগী মিউজিক থেরাপি এবং প্রার্থনা দুটোই পেয়েছেন, তারা অন্যদের তুলনায় মৃত্যুবরণের হার ৩০ ভাগ কম।

লিন্ডা এইচ পাওয়েল- শিকাগোর এই গবেষক এ সংক্রান্ত সব গবেষণাগুলোর একটা মেটা এনালিসিস করেন। অপ্রাসঙ্গিক বা দুর্বল গবেষণাগুলোকে তিনি খুব কঠোরভাবে বাদ দেন তার তালিকা থেকে। তবে তিনি একটি বিষয়ে খুব চমৎকৃত হন যে, যে মানুষগুলো নিয়মিত চার্চে যায়, অন্যদের তুলনায় তাদের দ্রুত মারা যাওয়ার হার ২৫% কম।

আসলে বেশিরভাগ ধর্মীয় চর্চাতেই রয়েছে ধ্যান, শিথিলায়ন, সুস্থ জীবনাচারের কথা যা আসলে সুস্বাস্থ্যের গুরুত্বপূর্ণ শর্তগুলোকেই নিশ্চিত করে।

Share

আরও খবর

দ্রুত ওজন কমায় টমেটো

বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১

রাশিফল: কেমন যাবে আপনার দিন

বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১




পঞ্চম ধাপে ২৯ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৩৭জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পঞ্চম ধাপে দেশের ২৯টি পৌরসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। আজ রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮ থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলবে। এরই মধ্যে কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে নির্বাচনী সরঞ্জাম।

এ ধাপে সব পৌরসভায় ইভিএমে ভোটগ্রহণ হবে। নির্বাচনী পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে মোতায়েন রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

যে ২৯ পৌরসভায় ভোট: পঞ্চম ধাপে ভোটগ্রহণ হবে চট্টগ্রামের মিরসরাই, বারইয়ারহাট ও রাঙ্গুনিয়া, লক্ষ্মীপুরের রায়পুর, চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল, হবিগঞ্জ সদর, জামালপুর সদর, মাদারগঞ্জ ও ইসলামপুর, রাজশাহীর দুর্গাপুর ও চারঘাট, বগুড়া সদর, মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর, কিশোরগঞ্জের ভৈরব, ভোলার সদর ও চরফ্যাশন, চাঁদপুরের শাহরাস্তি ও মতলব, যশোরের কেশবপুর, নীলফামারীর সৈয়দপুর, মাদারীপুর সদর ও শিবচর, রংপুরের হারাগাছ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ ও মহেশপুর, জয়পুরহাট সদর, ময়মনসিংহের নান্দাইল ও গাজীপুরের কালীগঞ্জ পৌরসভায়।

গতকাল শনিবার বিকালে নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের ইসি সচিব বলেন, যেখানেই কোনো ধরনের সমস্যা হচ্ছে, সেখানেই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। নির্বাচনে সহিংসতায় মারা যাওয়া, অবশ্যই দুঃখজনক। সচিব বলেন, আজ ২৯টি পৌরসভায় সাধারণ ও চারটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এসব নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার জন্য সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আমরা আশা করি একটা ফেয়ার, অংশগ্রহণমূলক এবং উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

নিউজ ট্যাগ: পৌরসভা নির্বাচন
Share

আরও খবর



ডিসি-এসপি-ওসির প্রত্যাহার চেয়ে কাদের মির্জার ডাকে হরতাল

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
অজ্ঞাতস্থান থেকে ফেসবুক লাইভে এসে তাঁকে গালিগালাজ করলে সবুজকে গ্রেপ্তারের দাবি জানান মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। এরপর পুলিশ ওই নেতাকে গ্রেপ্তার করে পরে আবার ছেড়ে দিলে আবদুল কাদের মির্জা

জেলা প্রশাসক (ডিসি), পুলিশ সুপার (এসপি), কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ও পরিদর্শককে (তদন্ত) প্রত্যাহারের দাবিতে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার আহ্বানে তাঁর সমর্থক দলীয় নেতাকর্মীরা হরতাল পালন করছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতভর কোম্পানীগঞ্জ থানা অবরোধ করে রাখার পর আজ বুধবার সকাল থেকে বিভিন্ন দাবিতে উপজেলার সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ মিছিল করে পৌর মেয়রের সমর্থকেরা সেখানে হরতাল পালন করছে।

ফেনী-কোম্পানীগঞ্জ সড়ক, কোম্পানীগঞ্জ-মাইজদী সড়ক, চাপরাশিরহাটসহ সব সড়কের ওপর গাছের গুড়ি, বাঁশ ও বাস আড়াআড়ি করে রেখে সব ধরনের যানচলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। হরতালের কারণে কোম্পানিগঞ্জ উপজেলা সদরের দোকানপাট সব বন্ধ আছে। বাইরে থেকে কোনো যানবাহন কোম্পানীগঞ্জে ঢুকতে পারছে না।

সকাল থেকে চলা কর্মসূচির কারণে যান চলাচলের প্রতিবন্ধকতা ঘটায় রাস্তায় মানুষকে বিপাকে পড়তে দেখা গেছে। অনেককে পরিবার-পরিজন নিয়ে পায়ে হেঁটে গন্তব্যে পৌঁছাতে দেখা যায়। এদিকে, হত্যা করা হতে পারেএমন আশঙ্কা করে গতকাল মঙ্গলবার কোম্পানীগঞ্জ থানায় নিজে বাদী হয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোটভাই আবদুল কাদের মির্জা।

আজকেও গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে মেয়র অভিযোগ করে বলেন, তাঁকে, তাঁর পরিবারের সদস্য ও সমর্থকদের হত্যা করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এজন্য ৫০ কোটি টাকার ফান্ডও করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। এসবের সঙ্গে প্রতিপক্ষের নেতাকর্মীরা জড়িত। কর্মসূচি চলাকালে তিনি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, চরকাঁকড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা ফখরুল ইসলাম সবুজ, রাহাত, রবিউল প্রমুখের গ্রেপ্তারের দাবির পাশাপাশি নোয়াখালীর অপরাজনীতি বন্ধের দাবিও জানান।

সূত্র জানায়, অজ্ঞাতস্থান থেকে ফেসবুক লাইভে এসে তাঁকে গালিগালাজ করলে সবুজকে গ্রেপ্তারের দাবি জানান মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। এরপর পুলিশ ওই নেতাকে গ্রেপ্তার করে পরে আবার ছেড়ে দিলে আবদুল কাদের মির্জা ক্ষুব্ধ হয়ে থানার সামনে গতকাল থেকে অবরোধ শুরু করেন।

আজ সকালে আবদুল কাদের মির্জা বলেন, দাবি না মানা পর্যন্ত এ আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। তিনি আরও বলেন, জনস্বার্থে এই হরতাল। কাল সকাল পর্যন্ত এক্সিট দিলাম চলি যাক। ডিসি সাব, এসপি সব চলি গেলে, অপরাজনীতি বন্ধ হলে, আমার ওপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করা হলে- আমি কালকে থেকে হরতাল করুম না। আর যদি দাবি না মানে... আমার সব দাবি মানতে হবে।

আবদুল কাদের মির্জা আরো বলেন, আমি এখন অবস্থান নিব আমার পৌরসভাতে, আমি বাড়িতে যামু না। দাবি না মানা পর্যন্ত কর্মসূচি লাগাতার... এরপর আরো কঠিন হরতালসহ লাগাতার কর্মসূচি দিমু।

Share

আরও খবর



নিয়োগ দেবে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে সিপাহী পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। মহিলা ও পুরুষ   প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। অনলাইনের মাধ্যমে সহজেই আবেদন করা যাবে।

পদের নাম: সিপাহী।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা: এইচএসসি অথবা সমমান পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। এসএসসি বা সমমান পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ এবং এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ২.৫০ পেতে হবে।

শারীরিক যোগ্যতা: পুরুষ প্রার্থীদের উচ্চতা ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি, ওজন ৪৯.৮৯ কেজি বা ১১০ পাউন্ড, বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ৩২ ইঞ্চি থেকে এবং স্ফীত অবস্থায় ৩৪ ইঞ্চি হতে হবে। মহিলা প্রার্থীদের উচ্চতা ৫ ফুট ২ ইঞ্চি, ওজন ৪৭.১৭৩ কেজি বা ১০৪ পাউন্ড, বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ২৮ ইঞ্চি এবং স্ফীত অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি হতে হবে।

উপজাতীয় প্রার্থীদের শারীরিক যোগ্যতা : উপজাতীয় পুরুষ প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি, ওজন ৪৭.১৭৩ কেজি বা ১০৪ পাউন্ড, বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি এবং স্ফীত অবস্থায় ৩২ ইঞ্চি থাকতে হবে। উপজাতীয় মহিলা প্রার্থীদের উচ্চতা ৫ ফুট, ওজন ৪৩.৫৪৪ কেজি বা ৯৬ পাউন্ড হতে হবে।

বয়স ও অন্যান্য: ২২ আগস্ট, ২০২১ তারিখে প্রার্থীদের বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ২৩ বছরের মধ্যে। দৃষ্টিশক্তি ৬/৬ থাকতে হবে। প্রার্থীকে অবশ্যই অবিবাহিত হতে হবে।

বেতন: জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ অনুযায়ী ৯০০০-২১৮০০/-টাকা

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহী প্রার্থীদের মোবাইলে এসএমএসের (sms) মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

আবেদনের সময়সীমা: এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন প্রক্রিয়া ও ফি প্রদান শুরু হয়েছে ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০ টায় এবং শেষ হবে ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১২টায়।

নিউজ ট্যাগ: জনবল নিয়োগ
Share

আরও খবর



মাগুরায় হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন: বাদীর ওপর হামলা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৬০জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
মহম্মদপুর উপজেলার খালিয়া গ্রামে অর্থ লেনদেনের জের ধরে ২০০৫ সালে রাজু নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করে আসামিরা

মাগুরার চাঞ্চল্যকর রাজু হত্যা মামলায় তিন আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ রায় দিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ফারজানা ইয়াসমিন। এদিকে আজ মঙ্গলবার এ রায় ঘোষণার পর বাদীর ওপর আসামিপক্ষের পরিবারের লোকজন হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন আলতাফ হোসেন, ইদ্রিস আলী ও কাসেম মিয়া।

মামলার এজাহারে জানা যায়, মহম্মদপুর উপজেলার খালিয়া গ্রামে অর্থ লেনদেনের জের ধরে ২০০৫ সালে রাজু নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করে আসামিরা।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (এপিপি) মশিয়ার রহমান জানান, তিনজনের যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণার পর বিচারক এজলাস থেকে নেমে যান। এর পরই আসামিপক্ষের লোকজন বাদীর ওপর হামলা করে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এ মামলায় দুই আসামি হাজির থাকলেও ইদ্রিস আলী মোল্ল্যা নামের একজন পলাতক রয়েছেন।

মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জয়নাল আবেদীন জানান, আদালতে বাদীর ওপর হামলার সংবাদ পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে যায়। আদালত চত্বর থেকে বাদীকে পুলিশভ্যানে তাঁর গ্রামের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: মাগুরা
Share

আরও খবর

মাগুরায় মাথা জোড়া লাগা যমজ শিশুর জন্ম

মঙ্গলবার ০৫ জানুয়ারী ২০২১




এমপি পাপুলের রায়ের কপি পেলো বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৫৯জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
মানব ও অর্থ পাচারের অভিযোগে গত বছর ৬ জুন লক্ষ্মীপুর -২ আসনের স্বতন্ত্র এমপি শহীদ ইসলাম পাপুলকে গ্রেপ্তার করে কুয়েতের পুলিশ। তিনি তারপর থেকেই সে দেশের কারাগারে আটক ছিলেন

মানব ও অর্থ পাচারের দায়ে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের স্বতন্ত্র এমপি শহীদ ইসলাম পাপুলের সাজার রায়ের কপি হাতে পেয়েছে বাংলাদেশ। আজ শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর পূর্বাচল ক্লাবে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, কুয়েত সরকার থেকে আমরা পাপুলের রায়ের কপি পেয়েছি। এটা ৬১ পৃষ্ঠার রায়। এই রায়ের কপি আমরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদকে দিয়েছি। পাপুলের বিরুদ্ধে এখন কি ব্যবস্থা নেওয়া হবে, সেটা পার্লামেন্টই ঠিক করবে।

গত ২৮ জানুয়ারি কুয়েতের ফৌজদারি আদালত লক্ষ্মীপুর-২ আসনের এমপি শহীদ ইসলাম পাপুলকে ৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়। একইসঙ্গে তাকে ১৯ লাখ কুয়েতি রিয়াল (৫৩ কোটি ১৯ লাখ ৬২ হাজার টাকা) জরিমানা করা হয়। কুয়েতের ফৌজদারি আদালতের বিচারক আবদুল্লাহ আল ওথমান পাপুলের সঙ্গে সেদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাবেক কর্মকর্তা মাজেন আল জারাহকেও চার বছরের কারাদণ্ড ও ১৯ লাখ কুয়েতি রিয়াল জরিমানা করেন।

মানব ও অর্থ পাচারের অভিযোগে গত বছর ৬ জুন লক্ষ্মীপুর -২ আসনের স্বতন্ত্র এমপি শহীদ ইসলাম পাপুলকে গ্রেপ্তার করে কুয়েতের পুলিশ। তিনি তারপর থেকেই সে দেশের কারাগারে আটক ছিলেন। ৬ মাস বিচার প্রক্রিয়া শেষে তাকে ওই সাজা দেওয়া হয়।

Share

আরও খবর