শিরোনাম

যাত্রী নিয়ে পরিবহন চলাচলের নতুন নির্দেশনা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাস সংক্রমণ কমাতে গণপরিবহনে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচলের যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল ২৪ ঘণ্টা পার হতে না হতেই সিদ্ধান্ত বদল করা হয়েছে। আগামী শনিবার থেকে যত আসন তত যাত্রী নিয়ে পরিবহন চলাচলের নির্দেশনা দিয়েছে সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্যাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, বিআরটিএর চেয়ারম্যানের সঙ্গে আমাদের ফের আলোচনা হয়েছে। শনিবার থেকে গণপরিবহনের যত আসন তত যাত্রী নিয়ে চলাচলের বিষয়ে একমত হয়েছে বিআরটিএ। কারণ অর্ধেক যাত্রী নিয়ে পরিবহন চলাচল করলে যাত্রী ভোগান্তি বাড়বে।

খন্দকার এনায়েত উল্যাহ আরও বলেন, আমরা সব পরিবহন মালিকদের বিআরটিএর এই বার্তা পৌঁছে দিয়েছি। এক্ষেত্রে যারা সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মানবে না তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



কক্সবাজারে দলবেঁধে ‘ধর্ষণ’ : গ্রেপ্তার ৫

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৯৩২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কক্সবাজারে এক নারীকে দলবেঁধে ধর্ষণের মামলায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে কয়েকজন মামলার এজাহারনামীয় আসামি ও তাদের সহযোগী রয়েছেন।

কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের পুলিশ সুপার মো. জিল্লুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, তাদের আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। তবে ধর্ষণকাণ্ডের মূল হোতা আশিক এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে। এ বিষয়ে দুপুরে একটি সংবাদ সম্মেলন করবে কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশ। সেখানে তাদের বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

ওই নারী জানান, ঢাকার যাত্রাবাড়ী থেকে গত বুধবার সকালে স্বামী-সন্তানসহ কক্সবাজার বেড়াতে যান তিনি। ওঠেন শহরের হলিডে মোড়ের একটি হোটেলে।

সেখান থেকে বিকেলে যান সৈকতের লাবণী পয়েন্টে। সেখানে অপরিচিত এক যুবকের সঙ্গে তার স্বামীর ধাক্কা লাগলে কথা-কাটাকাটি হয়। এর জেরে সন্ধ্যার পর পর্যটন গলফ মাঠের সামনে থেকে তার ৮ মাসের সন্তান ও স্বামীকে সিএনজি অটোরিকশায় করে কয়েকজন তুলে নিয়ে যায়।

এ সময় আরেকটি অটোরিকশায় তাকে তুলে নেয় তিন যুবক। পর্যটন গলফ মাঠের পেছনে একটি ঝুপড়ি চায়ের দোকানের পেছনে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে তিনজন।

ধর্ষণ শেষে তাকে নেওয়া হয় জিয়া গেস্ট ইন নামে একটি হোটেলে। সেখানে ইয়াবা সেবনের পর আরেক দফা তাকে ধর্ষণ করে ওই তিন যুবক। ঘটনা কাউকে জানালে সন্তান ও স্বামীকে হত্যা করা হবে জানিয়ে রুম বাইরে থেকে বন্ধ করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে তারা।

ওই নারী আরও জানান, জিয়া গেস্ট ইনের তৃতীয় তলার জানালা দিয়ে এক যুবকের সহায়তায় কক্ষের দরজা খোলেন তিনি। তারপর ফোন দেন ৯৯৯-এ। পুলিশ তাকে থানায় সাধারণ ডায়েরি করার পরামর্শ দেয়।

হোটেলের ক্লোজড সার্কিট টেলিভিশন (সিসিটিভি) ক্যামেরার ফুটেজ দেখে এ ঘটনায় জড়িত দুজনকে আগেই শনাক্ত করার কথা জানায় র‍্যাব।

নিউজ ট্যাগ: কক্সবাজার

আরও খবর

এক জালে ৬ লাখ টাকার মাছ

সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২




‘স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে থাকা সব বয়সীরাই বুস্টার ডোজ পাবেন’

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বয়স বিবেচনায় না নিয়ে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে আছেন এমন সবাইকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশীদ আলম।

সোমবার (৩ জানুয়ারি) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরে হেলথ রিপোর্টার্স ফোরামের সদস্যদের সঙ্গে আলোচনায় তিনি এ কথা জানান।

খুরশীদ আলম বলেন, মৃত্যু ঝুঁকিতে আছেন, শারীরিকভাবে অসুস্থ—এমন ব্যক্তিদের করোনাভাইরাসের টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়ার চিন্তা করা হচ্ছে। স্বাস্থ্যগত ঝুঁকিতে থাকাদের ক্ষেত্রে বয়স কোনও বাধা হবে না।’

এ বি এম খুরশীদ আলম বলেন, করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মৃত্যুঝুঁকি বেশি, তাদের বুস্টার ডোজ নেওয়া উচিত। এ ক্ষেত্রে টিকা কার্ড নিয়ে টিকা কেন্দ্রে যেতে হবে। তাকে বলতে হবে যে, তার শারীরিক অসুস্থতা রয়েছে। একটা লোকের ক্যানসার আছে, কিন্তু বয়স ৪০। সে বাদ যাবে কেন? আমরা তাকে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করবো।’

অধিদফতরের মহাপরিচালক বলেন, টিকার জন্য নিবন্ধন করার সময় সব তথ্য নেওয়া হয়েছে। এটা দেখেই নিশ্চিত হওয়া যাবে তার কো মরবিডিটি আছে কিনা। আর কেউ যদি নিবন্ধনের সময় তথ্য না দিয়ে থাকে, তাহলে সে দেখাবে যে সে ক্যানসারে আক্রান্ত।’

তিনি বলেন, অনেক ধরনের কো মরবিডিটি আছে। যেমন: ক্যানসারে আক্রান্ত, অ্যান্টিক্যানসার ড্রাগ খেয়েছে, রেডিয়েশন পেয়েছে, কেমোথেরাপি পেয়েছে, ইমিউন দুর্বল—এ ধরনের মানুষের আমরা প্রাধান্য দিতে চাচ্ছি।’

ডা. এ বি এম খুরশীদ আলম বলেন,  এসএমএস ছাড়াও ষাট বছরের কম বয়সী কো মরবিড রোগীরা আগের কেন্দ্রে টিকা নিতে পারবেন, সে ক্ষেত্রে তাদের রোগের প্রয়োজনীয় তথ্য প্রমাণ থাকতে হবে।’

দেশে গত ২৮ ডিসেম্বর বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু হয়েছে। বর্তমানে ৬০ বছরের বেশি বয়সী এবং করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় সম্মুখ সারির ব্যক্তিরা বুস্টার ডোজ পাচ্ছেন। বুস্টার ডোজ পাওয়ার জন্য করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ছয় মাস পার হতে হবে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের হিসাবে, গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে টিকাদান কার্যক্রম শুরুর পর থেকে গতকাল রবিবার পর্যন্ত ৭ কোটি ৪৪ লাখ ৮৩ হাজারের বেশি মানুষ টিকা পেয়েছেন। দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ৫ কোটি ২৮ লাখ ৪৩ হাজারের বেশি মানুষ।

গত মাসের শেষ সপ্তাহে চালু হওয়ার পর এ পর্যন্ত বুস্টার ডোজ নিয়েছেন ১ লাখ ১৪ হাজার ৭৪০ জন।


আরও খবর

দেশে মোট ৫৫ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




করোনায় আরও ১ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ৯৮ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ১৪৬ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৯১ হাজার ৯৩ জনে।

শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৭০ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ৫০ হাজার ৫৩৪ জন। সারাদেশে সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৫২টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২০ হাজার ৮৯০টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২০ হাজার ২০৪টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১ কোটি ১৬ লাখ ৩০ হাজার ৫৪০টি।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ৫ দশমিক ৬৭ শতাংশ, যা গত বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) ছিল ৪ দশমিক ৮৬ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৫৪ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত একজন নারী সদস্য। মৃত একজনের বয়স ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে এবং তিনি ময়মনসিংহ বিভাগের। মৃত একজন সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৮২ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন ৮৪ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন ৩ লাখ ৮৯ হাজার ৭৬৬ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন ৩ লাখ ৫৬ হাজার ৪৩ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৩৩ হাজার ৭২৩ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে।


আরও খবর

দেশে মোট ৫৫ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালু রাখতে চাই: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, সরকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করতে চায় না। সেই কারণে টিকাদান কার্যক্রমের ওপর বেশি জোর দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। তবে এর আওতায় প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের আনা সম্ভব হচ্ছে না।

শনিবার (৮ জানুয়ারি) রাজধানীর একটি কলেজের রজতজয়ন্তী উৎসবের অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে গত দেড় বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে হয়েছে। নতুন করে আর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করতে চায় না সরকার। এ কারণে শিক্ষার্থীদের টিকা কার্যক্রমের ওপর বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, ১২ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনা সম্ভব হলেও প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের এর আওতায় আনা সম্ভব হচ্ছে না বলে তাদের নিয়ে বেশি উদ্বেগ রয়েছে। নতুন করে করোনা সংক্রমণ বেড়ে গেলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে শিক্ষা ব্যবস্থা। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আবারও বন্ধ করে দিলে কতদিনে আবার সচল করা সম্ভব হবে তা অনিশ্চিত। সেই কারণে আমরা চাই, টিকার আওতায় শিক্ষার্থীদেরকে এনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠদান চালিয়ে যেতে।

তিনি বলেন, নতুন কারিকুলাম হবে দক্ষতা নির্ভর। শুধু পরীক্ষা ও সনদ নির্ভর শিক্ষা নয়, শিক্ষা হতে হবে দক্ষতা নির্ভর। যা শিখছি তা যেন আমরা প্রয়োগ করতে পারি। শিখলাম, পরীক্ষা দিলাম, ভুলে গেলাম এতে কোনো লাভ নেই। আমাদের সমস্যা সমাধান করতে শিখতে হবে, তার সঙ্গে সততা, মানবিকতা ও দেশপ্রেম থাকতে হবে। না হলে অর্জিত শিক্ষার কোনো মূল্য থাকবে না।

নিউজ ট্যাগ: ডা. দীপু মনি

আরও খবর

ফের অবরুদ্ধ শাবি ভিসি !

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




খালেদা জিয়াই দেশের প্রথম নারী মুক্তিযোদ্ধা : মির্জা ফখরুল

প্রকাশিত:সোমবার ২০ ডিসেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৭৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

খালেদা জিয়াকে প্রথম নারী মুক্তিযোদ্ধা দাবি করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, খালেদা জিয়াই হলেন দেশের প্রথম নারী মুক্তিযোদ্ধা। তাকে বেআইনিভাবে আটকে রেখে সরকার স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিতে পরিণত হয়েছে।

আজ সোমবার রাজধানীর গুলিস্তানের মহানগর নাট্যমঞ্চে বিজয় দিবসের এক আলোচনা সভায় তিনি এই দাবি করেন। ফখরুল বলেন, বিজয় দিবস উদযাপন না করে ৫০ বছর পর পরাজয়ের গ্লানি বহন করতে হচ্ছে। বর্তমান অবৈধ সরকার বাকস্বাধীনতা, কথা বলা ও লেখার অধিকার কেড়ে নিয়েছে। জনগণের ভোটাধিকার নেই, গণতন্ত্র বিতাড়িত।

তিনি আরও বলেন, বিজয় দিবসের র‍্যালির মতো ভবিষ্যতে নেতাকর্মী ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে থাকলে এই সরকার গদি ছেড়ে পালাতে বাধ্য হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধ্বংস করে বাকশাল প্রতিষ্ঠা করছে সরকার।

বিএনপির এই মহাসচিব বলেন, আমরা রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করেছিলাম। জান-প্রাণ দিয়েছিলাম একটি নিরাপদ রাষ্ট্র পাবো বলে। কিন্তু এই সরকার বাকশালী রাষ্ট্র কায়েমের লক্ষ্যে জনগণকে জিম্মি করে ক্ষমতার বসে আছে।

নিউজ ট্যাগ: মির্জা ফখরুল

আরও খবর